Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

মেসি আরও একটি বিশ্বকাপ খেলবেন!

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৫০৪জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক; ৩৬ বছরের আক্ষেপের অবসান ঘটিয়েছে লিওনেল মেসির দল। কাতার বিশ্বকাপ জয় করে দেশে ফিরেছে আর্জেন্টিনা দল। যিনি এই ট্রফি জিতিয়েছেন, সেই মহানায়ক মেসি হাতে ধরা ছিল স্বপ্নের সোনালি ট্রফি।

ট্রফিসহ বিশ্বজয় করা মহাতারকাকে দেখে জয়ধ্বনি দিয়ে ওঠে রাস্তার পাশে দাঁড়ানো লাখো জনতা। ভামোস আর্জেন্টিনা- এই ধ্বনিতে যেন প্রকম্পিত হয় পুরো বুয়েন্স আয়ার্স। এর পর ছাদখোলা বাসের যাত্রা শুরু। ধীরে ধীরে বাস এগিয়ে চলে। রাস্তার দুই পাশে মানুষ আনন্দ-চিৎকার করতে থাকে। ছাদখোলা বাসে মেসি আর তার সতীর্থরা কখনো ট্রফি উঁচিয়ে ধরছেন, কখনো উড়ন্ত চুমো দিচ্ছেন আর্জেন্টিনার ফুটবল-পাগল মানুষের দিকে।

এদিকে আর্জেন্টিনা ফাইনালে ওঠার পর মেসি ঘোষণা দিয়েছিলেন এটাই তার শেষ বিশ্বকাপ। কিন্তু বিশ্বকাপ জয়ের পর মেসি জানান, তিন তারকা খচিত চ্যাম্পিয়নের জার্সিতে আরও বেশ কিছুদিন খেলে যাবেন তিনি। তবে এখন গুঞ্জন উঠেছে তার আরও একটি বিশ্বকাপে খেলা নিয়ে।

মেরাডোনার সতীর্থ হিসেবে বিশ্বকাপ জেতা জর্জ ভালদানো দাবি করেছেন, মেসি পরের বিশ্বকাপও খেলবেন। আর সেটা নাকি তাকে মেসি নিজেই বলেছেন।

স্পেনের একটি রেডিওতে সাক্ষাৎকারে ভালদানো বলেছেন, ‘বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে আমি মেসির সাক্ষাৎকার নিয়েছিলাম। সেই সময় ক্যামেরার পিছনে মেসি আমাকে বলেছিল, এবার ও পঞ্চম বারের জন্য বিশ্বকাপ খেলছে। এখন পর্যন্ত কোনো ফুটবলার ছয় বার বিশ্বকাপ খেলেনি। যদি এবার আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জেতে তা হলে পরের বারও মেসি খেলবে।’

পরের বিশ্বকাপের সময় মেসির বয়স হবে ৩৯। সেই বয়সে বিশ্ব ফুটবলের মঞ্চে লড়াই করা কঠিন। তবে মেসি বলেই ভরসা রয়েছে ভালদানোর। তিনি বলেছেন, ‘মেসি পারবে কি না আমরা জানি না। তবে মেসি বলেই ভরসা রয়েছে। ফুটবলের ইতিহাসে ছয়টা বিশ্বকাপ কেউ খেলতে পারেনি।’

কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে গেল রবিববার ফাইনালে ফ্রান্সকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়েছিল আর্জেন্টিনা। নির্ধারিত সময়ে ২-২ গোলে সমতা থাকার পর খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ের ৩০ মিনিটে। সেখানেও ১-১ গোলের সমতা তৈরি হওয়ায় পরবর্তীতে খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানে জিতে ৩৬ বছরের আক্ষেপ ঘোচান মেসি-মার্টিনেজরা।


আরও খবর



রাণীশংকৈলে কন্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৩ দিনব্যাপী কৃষি মেলার উদ্বোধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৫৩জন দেখেছেন

Image
মাহাবুব আলম,রাণীশংকৈল(ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃকন্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে উপজেলায় ৩ দিনব্যাপী কৃষি মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার(৩ জুন) কৃষি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর পরিষদ চত্বরে র‌্যালি ও আলোচনা 
সভা আয়োজনে করা হয়।

এ উপলক্ষে এদিন দুপুর কৃষি অফিস চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের করে শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ করে অতিথিরা মেলায় স্থাপিত স্টলগুলো ঘুরে দেখেন। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রকিবুল হাসানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আহাম্মদ হোসেন বিপ্লব। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা ও শারমিন আক্তার, উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলম, যুগ্ম আহবায়ক আবু তাহের, পৌর আ'লী সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা হবিবুর রহমান। 

এছাড়াও অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবুল হামিদ, প্রেসক্লাব সভাপতি মোবারক আলী, প্রেসক্লাব পুরাতনের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদসহ, বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা, কৃষি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ,কৃষাণ কৃষাণীরা ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন । অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার সহীদুল ইসলাম।অনুষ্ঠিত মেলায় কন্দাল জাতীয় নমুনা সংগ্রহ করে বিভিন্ন ধরনের কৃষি পণ্য একাধিক স্টলে প্রদর্শন করা হয়েছে। আগামী বুধবার (১২ জুন)৩ দিনব্যাপী এ মেলার সমাপনী অনুষ্ঠিত হবে।

আরও খবর



র‍্যাবের নতুন ডিজি হারুন অর রশিদ

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১৫৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:অতিরিক্ত আইজিপি ব্যারিস্টার মো. হারুন অর রশিদ র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) নতুন মহাপরিচালক (ডিজি) হয়েছেন। ৫ জুন দায়িত্ব বুঝে নেবেন। বর্তমান মহাপরিচালক এম খুরশীদ হোসেনের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি।

বুধবার (২৯ মে) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক ব্যারিস্টার মো. হারুন অর রশিদকে র‍্যাবের মহাপরিচালক হিসেবে পদায়ন করা হলো। জনস্বার্থে জারিকৃত এ আদেশ আগামী ৫ জুন থেকে কার্যকর হবে। তিনি বর্তমান মহাপরিচালক এম খুরশীদ হোসেনের স্থলাভিষিক্ত হবেন। পৃথক আরেক আদেশে খুরশীদ হোসেনকে অবসর দেওয়া হয়েছে।

হারুন অর রশিদের বাড়ি মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বালুচর ইউনিয়নের মোল্লাকান্দি গ্রামে। বর্তমানে তিনি ঢাকায় পুলিশ অধিদপ্তরে অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক পদে কর্মরত। এর আগে তিনি পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি ছিলেন।


আরও খবর



বাংলাদেশ জাতিসংঘের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার: জাতিসংঘ মহাসচিব

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | ১৩৫জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বর্ণনা করেছেন বাংলাদেশকে জাতিসংঘের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার বলে।

নিউইয়র্কে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৩০ মে) বিকেলে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে সরকারি দায়িত্বে যুক্তরাষ্ট্র সফররত পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে বৈঠকে তিনি একথা বলেন।

আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, ‘বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তা, টেকসই উন্নয়ন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলাসহ জাতিসংঘের অনেক কর্মযজ্ঞে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে চলেছে এবং সেই কারণেই আমরা বাংলাদেশকে জাতিসংঘের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হিসাবে বিবেচনা করি।

জাতিসংঘ মহাসচিব রোহিঙ্গাদের প্রতি বাংলাদেশের উদারতার জন্য গভীর কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি, বিশেষ করে সে দেশের সেনাবাহিনী তরুণ রোহিঙ্গাদের জোরপূর্বক নিয়োগ করার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

দ্বিপাক্ষিক এ বৈঠকে মহাসচিব জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে বাংলাদেশের অভিযোজন ও প্রতিকূলতা মোকাবিলার সক্ষমতার প্রশংসা করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান নিম্ন আয়ের দেশের কাতার থেকে বাংলাদেশের উত্তরণের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় জাতিসংঘের সহযোগিতা কামনা করলে গুতেরেস এ বিষয়ে বিশ্বসংস্থার পূর্ণ সমর্থন ব্যক্ত করে বলেন, ‘এ জন্য বাংলাদেশকে পুরস্কৃত করা উচিত, শাস্তিদান নয়‘।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান ফিলিস্তিনের গাজায় সংঘাতসহ চলমান বিশ্বের কঠিন চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবিলায় মহাসচিবকে তার নেতৃত্বের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, রাফায় সংঘাত এড়াতে সেখানে জাতিসংঘ মহাসচিব যেভাবে নিজে উপস্থিত হয়েছিলেন, শান্তিপ্রিয় বিশ্ববাসী তার প্রশংসা করেছে।

জাতিসংঘ মহাসচিব গত দশকে বাংলাদেশের অসামান্য অগ্রগতির প্রশংসা করলে ড. হাছান মহাসচিব গুতেরেসকে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি ও দক্ষ নেতৃত্বের কারণেই বাংলাদেশ অনেক আগেই সামাজিক, অর্থনৈতিক, মানবিক সূচকসহ সকল সূচকে পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে এবং গত কয়েক বছরে অনেক সূচকে ভারতকেও ছাড়িয়ে গেছে। আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিলের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০২১ সালে মাথাপিছু আয়েও ভারতকে ছাড়িয়ে গেছে, উল্লেখ করেন তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান গত ৫০ বছর ধরে বাংলাদেশ ও জাতিসংঘের দৃঢ় অংশীদারিত্ব এবং উন্নয়নে সহায়তার জন্য জাতিসংঘ মহাসচিবকে ধন্যবাদ জানান এবং বাংলাদেশের জাতিসংঘে যোগদানের অর্ধশত বছরপূর্তিতে গুতেরেসকে বাংলাদেশ সফরের সাদর আমন্ত্রণ জানান।

নিউইয়র্কে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবদুল মুহিত, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরসঙ্গীরা ও মিশনের কর্মকর্তাবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী দিবস উদযাপন উপলক্ষে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে বাংলাদেশ ও অস্ট্রিয়ার যৌথ অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার বক্তৃতায় জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে অন্যতম সর্বোচ্চ অবদান রাখা বাংলাদেশের অব্যাহত সমর্থন ও সহযোগিতার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বৈদেশিক নীতি অনুযায়ী বাংলাদেশ সবসময় শান্তির প্রচেষ্টায় জাতিসংঘের অগ্রভাগে রয়েছে।

বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীরা জাতিসংঘ শান্তিরক্ষায় অত্যন্ত আন্তরিকতা, পেশাদারিত্ব এবং নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন, উল্লেখ করেন মন্ত্রী হাছান।

শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে এ যাবৎ নিহত সকলের পরিবার ও স্বজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিশ্বময় সংঘাত ও সহিংসতার ক্রমাগত বৃদ্ধি শান্তির জন্য ক্রমবর্ধমান হুমকি এবং এ কারণে শান্তিরক্ষা কার্যক্রম জোরদার করার বিকল্প নেই।

এ দিন বিকেলে জাতিসংঘ সদর দফতরের ওআইসি সম্মেলন কক্ষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ নিউইয়র্কে ওআইসিভুক্ত দেশগুলোর রাষ্ট্রদূতদেরকে মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করেন।

রোহিঙ্গাদের দুর্দশা নিরসনে আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার অগ্রভাগে থাকার জন্য তিনি অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশনের প্রশংসা করেন।

এ সময় রোহিঙ্গা সংকটের ওপর বিশ্বের আলোকপাত বজায় রাখা, মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে বাংলাদেশে আশ্রিত প্রায় ১৩ লাখ রোহিঙ্গার মর্যাদার সঙ্গে নিরাপদ ও টেকসই প্রত্যাবাসন এবং মিয়ানমারের রাখাইনে সংঘাতময় পরিস্থিতির উন্নতিকল্পে জাতিসংঘের জোরদার ভূমিকা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।


আরও খবর



ভুরুঙ্গামারীতে পানিতে ডুবে ২ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৭০জন দেখেছেন

Image
বাবুল, কুড়িগ্রাম ব্যুরো:কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে শিশুসহ ও এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে l সোমবার দুপুর বেলা পরিবারের সবার অজান্তেই ফারিয়া নামের দেড় বছরের এক শিশুর মাছ চাষের জমিতে পড়ে মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটে lফারিয়ার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আজ দুপুরে ফারিয়ার মা রান্নার কাজে ব্যস্ত ছিল l দেড় বছরের ফারিয়া তখন বাড়ির উঠোনে খেলা করছিল l ওই সময়ে মায়ের অজান্তেই ফারিয়া বাড়ির বাইরে গিয়ে বাড়ি সংলগ্ন মাছ চাষের জমিতে পরে ডুবে যায় l সেখানেই তার মৃত্যু ঘটে lপরক্ষনেই তার মা খোঁজাখুঁজি করে ওই মাছ চাষের জমি থেকে ফারিয়াকে তুলে নিয়ে ভুরুঙ্গামারী উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত: ঘোষণা করে l মৃত: ফারিয়া উপজেলার তিলাই ইউনিয়নের দক্ষিণ গোপালপুর গ্রামের ফরিদুল ইসলাম এর কন্যা lঅপর ঘটনাটি ঘটে, সকাল বেলা দুধ কুমোর নদীতে l  

উপজেলার পাইকের ছড়া  ইউনিয়নের শিলবাড়ি গ্রামের শামসুল হকের পুত্র যুবক ঝন্টু মিয়া ভোরবেলাতেই দুধকুমার নদীর সোনাহাট ব্রিজের উত্তর দিকে মাছ ধরতে যায় l নদীতে মাছ ধরার একপর্যায়ে কোন এক সময় তার পানিতে ডুবেই মৃত্যু ঘটে l সকাল আটটার দিকে আব্দুল মান্নান নামের এক ব্যক্তি ওই স্থানেই জাল ফেলে পানিতে নামতেই ঝন্টুর ডুবন্ত লাশ তার পায়ে স্পর্শ হয় l এ সময় আব্দুল মান্নান বিষয়টি এলাকাবাসীকে জানালে এলাকার লোকজন ভুরুঙ্গামারী থানা পুলিশে খবর দেয় l পুলিশ এসে ঝন্টুর লাশ উদ্ধার করে l 

ভুরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রুহুল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন l
তিনি জানান, কোন প্রকার অভিযোগ না থাকায় ঝন্টুর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে l

আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




তদন্ত শেষ হলে সে অনুযায়ী বেনজীরের বিচার হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ১২৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:যদি কেউ অন্যায় করে তাহলে তার শাস্তি বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী হবে,সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের দুর্নীতি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন। তার বিষয়ে তদন্ত চলছে। তিনি অন্যায় করেছেন না কি নির্দোষ, তিনি কি কর ফাঁকি দিয়েছেন না কি অন্যভাবে অর্থ সম্পদ গড়েছেন, সেটা তদন্ত শেষ হলে সে অনুযায়ী তার বিচার করা হবে।

শনিবার (১ জুন) দুপুর দেড়টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক মিলনায়তনে (টিএসসি) এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

তদন্ত চলমান অবস্থায় একজন আইজিপি বিদেশ চলে যেতে পারেন কি না জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, সে এখনো দেশে আছে নাকি বিদেশ চলে গেছে এটা আমি জানি না।

আইজিপির এমন কর্মকাণ্ডে পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, না, এটা ব্যক্তিগত বিষয়। আমাদের পুলিশ বাহিনী অনেক কষ্ট করে। জঙ্গি-সন্ত্রাস দমন, কোভিডসহ যেকোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় তারা জীবন বাজি রেখে কাজ করেছে। কোনো ব্যক্তি অপরাধ করলে তার দায় প্রতিষ্ঠান নেয় না।

এমপি আনার হত্যার মূল মামলা ভারতে হয়েছে এবং মূল তদন্তও ভারতে হবে। তবে তদন্তে বাংলাদেশ সরকার সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এসময় মন্ত্রী বলেন, মূল হত্যাকাণ্ড যেহেতু ভারতে হয়েছে সেহেতু মূল মামলাও ভারতে হয়েছে৷ ভারতের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বন্দী বিনিময় চুক্তি আছে। তাই ভারতই এ হত্যাকাণ্ডের মূল তদন্ত করবে। আমাদের দেশে এই হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হলে আমাদের পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করতো। তারা যদি আমাদের সম্পৃক্ত করে তাহলে আমরা তাদের সহযোগিতা করবো।

হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত একজন নেপালে পালিয়ে গেছেন এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, একজন সংসদ সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে আর আমরা বসে থাকবো এমন হতে পারে না। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত এবং সহযোগিতাকারী সবাইকে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসা হবে। নেপালে একজন পালিয়ে গেছে। তবে সে কোথায় আছে সেটা সুনির্দিষ্টভাবে বলা যাচ্ছে না। তদন্ত হচ্ছে, তাকে ফিরিয়ে আনতে সব ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


আরও খবর