Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মধুপুরের বহুল আলোচিত অটোচালক হত্যার ৫ আসামি গ্রেফতার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২৮৭জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা বিশেষ প্রতিনিধি মধুপুর টাঙ্গাইল:টাঙ্গাইলের মধুপুরে গোলাবাড়ি ব্রিজের পাশে রাস্তার নিচে চাঞ্চল্যকর ক্লুলেস অটোচালককে খুন করে অটোরিকশা ছিনতাই এর ঘটনার রহস্য উন্মোচনসহ অটোরিকশা উদ্ধার পূর্বক ০৫ জন আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪, ময়মনসিংহ।

গত (২২ এপ্রিল)২০২৩ ঈদের পরের দিন সকালে টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর পৌরসভার কাইতকাই এলাকার টাঙ্গাইল-জামালপুর মহাসড়কের গোলাবাড়ি ব্রীজের পাশে বেগুন ক্ষেতে জনৈক কিশোরের মৃত দেহ পরে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়।  পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভিকটিমের বড় ভাই রবিন ভিকটিমের ছবি দেখে মধুপুর থানায় গিয়ে মরদেহ সনাক্ত করে।

পরবর্তীতে, ভিকটিমের পিতা মোঃ রফিকুল ইসলাম (৪১), সাং- রুদ্র বয়রা , পোঃ পোগলদিয়া, থানাঃ সরিষাবাড়ী, জেলা- জামালপুর বাদী হয়ে মধুপুর থানার মামলা নং-২৪, তারিখঃ  ২৩/০৪/২০২৩ ইং, ধারা- ৩০২/৩৯৪/২০১/৩৪ পেনাল কোড ১৮৬০ দায়ের করেন।

উক্ত ঘটনার সংবাদ প্রাপ্তির পর থেকে র‌্যাব-১৪, ময়মনসিংহ উক্ত ঘটনাটির ছায়া তদন্ত শুরু করে  হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত আসামীদের সনাক্ত করতে সক্ষম হয়। বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও বিশ্লেষণের মাধ্যমে অধিনায়ক মহোদয়ের নির্দেশক্রমে সিনিয়র সহকারী পরিচালক মোঃ আনোয়ার হোসেন এর উপস্থিতিতে র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল ১৬/০৫/২০২৩ ইং তারিখ ভোর অনুমান পনে ৬টার দিকে জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী থানাধীন বয়রা এলাকা থেকে উক্ত মামলার  আসামী ১। মোঃ রকিবুল ইসলাম (১৯), ২। মোঃ আঃ রহিম (২২), ৩। মোঃ ফারুক হোসেন (৩৭), ৪। শফিকুল ইসলাম (৩২), ৫। ফরমান আলী (৪০)’দেরকে গ্রেফতার করে।

 গ্রেফতারকৃত আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, ঘটনার দিন গত ২২ এপ্রিল ২০২৩ খ্রি. তারিখ ঈদের দিন বিকাল ৩ টার দিকে আসামী মোঃ রকিবুল ইসলাম সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিয়া থেকে ভিকটিম মনি‘কে জামালপুর সদর উপজেলার দিকপাইত এলাকায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে ভাড়া করে। পথিমধ্যে, আসামী রকিবুল শফিকুল‘কে অটেরিক্সায় উঠায় এবং তারা দুইজন ঘোরাঘুরির জন্য টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীর দিকে রওনা করে। পথিমধ্যে চা পান করার বাহানায় উক্ত আসামীদ্বয় আসামী রহিম ও ফারুকের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে। ইতোমধ্যে উক্ত আসামী রকিবুল ও শফিকুল সময় ক্ষেপন করার জন্য ভিকটিমকে মধুপুরের উদ্দেশ্য যেতে বলে। ইতোমধ্যে আসামী রহিম ও ফারুক মোটরসাইকেল যোগে অটেরিক্সার কাছাকাছি চলে আসে।

পরবর্তীতে, আসামী রকিবুল ভিকটিম ও আসামী শফিকুলকে নামিয়ে দিয়ে অন্য একজন লোককে ওঠানোর জন্য অটোরিক্সা নিয়ে একাই চলে যায়। রকিবুল আসতে দেরি হলে ভিকটিম মনি আসামী শফিকুলকে চাপ দিতে থাকে। ইতোমধ্যে আসামী রহিম ও ফারুক বাইক নিয়ে চলে আসে এবং ভিকটিম মনি আসামী রহিমকে চিনতে পারে এবং ভয় পেয়ে আসামী শফিকুল, রহিম ও ফারুক প্রথমে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে এবং মুখে আঘাত করে টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর পৌরসভার কাইতকাই এলাকার টাঙ্গাইল-জামালপুর মহাসড়কের গোলাবাড়ি ব্রীজের পাশে বেগুন ক্ষেতে ফেলে রেখে যায়। পরবর্তীতে, আসামী রকিবুল ভিকটিমের অটোরিক্সাটি নিয়ে ফরমান সর্দারের নিকট ৪৫,০০০/- হাজার টাকায় বিক্রি করে নিজে ১৮,০০০/- হাজার টাকা রেখে বাকি তিন আসামীকে জনপ্রতি ৭০০০/- টাকা করে দেয় এবং বাকি টাকা আনুষাঙ্গিক খরচ দেখায়।উপরোক্ত ঘটনার মতো যাতে আর কোন ঘটনার না ঘটে সে প্রেক্ষিতে র‌্যাবের টহল তৎপরতা ও গোয়েন্দা নজরদারী অব্যাহত থাকবে। 

গ্রেফতারকৃত আসামীকে টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীণ রয়েছে বলে জানা যায়।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



তানোরে রোপা আমন ধান রোপনে ব্যস্ত

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:চলতি মাসের শুরুর দিকে বৃষ্টির পানি পেয়ে হেরো ট্যাক্টর দিয়ে জমি চাষ শুরু করেন কৃষি ভ্যান্ডার হিসেবে খ্যাত রাজশাহীর তানোর উপজেলার কৃষকরা। দিনরাত সমান তালে চলে জমি চাষের কাজ। মাঝে কয়েকদিন পানি না পেয়ে চাষকৃত জমি শুকিয়ে যায়। মহা চিন্তায় পড়েন কৃষকরা। কিন্তু গত বৃহস্পতিবার শেষ বিকেল থেকে পরদিন শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত  পর্যন্ত ভারী মাঝারি বৃষ্টি হয়। যদিও শুক্রবার  দুপুরের পরে রোদ দেখা যায়।তানোর পৌর সদর এলাকার কৃষক মনিরুজ্জামান জানান, প্রায় সপ্তাহ আগে বৃষ্টির পানি পেয়ে জমি চাষ করেছিলাম। কিন্তু মাঝে কয়েক দিন প্রচন্ড খরতাপে চাষকৃত জমি শুকিয়ে যায়। গভীর নলকূপ থেকে সেচ পানি নিয়ে রোপন করারও উপায় নাই। আবার চারার বয়স হয়ে যাচ্ছিল, মহা চিন্তায় ছিলাম। অবশেষে গত বৃহস্পতিবার শেষ বিকেল থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত  পানি পেয়ে  জমি রোপন করেছি।  তিন বিঘা জমি রোপন করেছি। উপজেলা জুড়েই চলছে জমি রোপন। এজন্য শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে, বেড়েছে কদর। তিন বিঘা জমি রোপন করতে প্রায় ১৫ হাজার টাকা খরচ হয়েছে।কামারগাঁ ইউপির কৃষক আব্দুল জানান, জমি চাষ করে রেখেছিলাম। শুক্রবারে রোপন করা হত। কিন্তু  গত বৃহস্পতিবার শেষ বিকেল থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত  বৃষ্টির পানিতে জমি পুকুরে রুপ নিয়েছে। কোনভাবেই রোপন করা যাবেনা। শুধু আমার না এরকম অনেকের জমিতে প্রচুর পরিমানে পানি রয়েছে। 

সরেজমিনে দেখা যায়,  উপজেলার নিচুঁ এলাকা বলতে তানোর পৌরসভার কালিগঞ্জ, হাবিবনগর, কাশেম বাজার, বুরুজ, জিওল, আমশো, চাপড়া, গোকুল ও তালন্দ নিচ পাড়া। কামারগাঁ ইউপির কামারগাঁ, শ্রীখন্ডা, দমদমা, বাতাস পুর, পরিশো দূর্গাপুর, মাদারিপুর, জমসেদ পুর, ধানোরা, ছাঐড়।কলমা ইউপির চন্দনকোঠা, কুজি শহর সহ নিচুঁ এলাকার জমিগুলোতে থৈথৈ করছে পানি।
অবশ্য মুন্ডুমালা  পৌরসভা, পাঁচন্দর  তালন্দ, বাধাইড়, কলমা, সরনজাইসহ উচুঁ এলাকার জমিগুলোতে পানি ছিল না। গত বৃহস্পতিবার শেষ বিকেল থেকে রাতভর বৃষ্টির পানিতে জমি রোপন শুরু হয়েছে। দিন রাত সমানতালে চলছে জমি চাষ ও রোপনের কাজ। একসঙ্গে জমি রোপনের কারনে শ্রমিক সংকট ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। বিঘায় প্রকার ভেদে ১৬০০ থেকে ২০০০ টাকা পর্যন্ত রোপনের খরচ।শ্রমিক মোস্তফা জানান, আমরা এক সাথে ৮/১০ জন শ্রমিক জমি রোপন করছি। এক বিঘা জমি রোপনের জন্য ১৬০০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। ভোর থেকে বিকেল পর্যন্ত ৪/৫ বিঘা জমি রোপন করা হচ্ছে। আবার কোন দিন ৬ বিঘাও রোপন করা যায়। সে আরো জানায়, চাপড়া, আড়াদিঘি মাঠে গত বৃহস্পতিবার আগে গভীর নলকূপ থেকে সেচ পানি নিয়ে রোপন করেছে। বৃহস্পতিবারে বৃষ্টি না হলে জমি রোপন করা যেত না।কৃষকরা জানান, সময়মত বৃষ্টির পানি না পেলে জমি রোপন করা যেত না। কারন সেচ পানিতে রোপা আমন ধান রোপন করা অসম্ভব। আবার গভীর নলকূপ অপারেটরদের রয়েছে দৌরাত্ম্য। রহমতের বৃষ্টির পানিতে জমি চাষ করা গেলেও ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটের কারনে অতিরিক্ত দামে কিনতে হয়েছে সার কীটনাশক। এক বিঘা জমি রোপন করতেই নিম্নে ৫ হাজার টাকা থেকে ঊর্ধ্বে ৬ হাজার টাকা খরচ হচ্ছে। শ্রমিক সংকট ব্যাপক। রোপ আমন ধান রোপনে কৃষকদের মাঝে প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। কারন ধান কাটা মাড়ায়ের পর আলু রোপন হবে। এজন্য কে কার আগে রোপন করতে পারে। আগে রোপন করতে পারলে আগে কাটা পড়বে। আর হয়তো ১০/১২ দিনের মধ্যে জমি রোপন শেষের দিকে চলে আসবে। 
 
উপজেলা কৃষি অফিসার সাইফুল্লাহ আহম্মেদ জানান, সময়মতই বৃষ্টির পানি হয়েছে। যার কারনে কৃষকরা কোমর বেধে জমি রোপন শুরু করেছেন। এবারে রোপা আমনের লক্ষমাত্রা  ২২ হাজার ৫০০ হেক্টর ধরা হয়েছে। এপর্যন্ত প্রায় ৮ হাজার হেক্টর জমি রোপন হয়েছে। কৃষিতে আধুনিকতার ছোয়া লেগেছে বলেই অল্প সময়ের মধ্যে জমি চাষ ও রোপন শেষ করতে পারছেন কৃষকেরা। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



কোটা আন্দোলনকারীদের ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম মামলা তুলে নিতে

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৭৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:‘মিথ্যা’ মামলা কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের নামে দেওয়ার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন। আন্দোলনকারীরা মামলা তুলে নেওয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসনকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে।

শনিবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ আল্টিমেটাম দেন বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম।

তিনি বলেন, এ পর্যন্ত চলমান আন্দোলনে শিক্ষার্থীরা কোথাও হামলা ও ভাঙচুর করেনি। গত ১১ জুলাই শাহবাগে পুলিশের সাঁজোয়া যানে কোনো হামলা হয়নি বলে রমনা থানার পুলিশ কর্মকর্তা সেটা নিশ্চিত করেছিলেন। কিন্তু সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজকে অজ্ঞাতনামা হিসেবে কেন আমাদের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হলো? মামলা যদি দিতেই হয় তাহলে আমাদের নাম উল্লেখ করেই দেওয়া হোক। কারণ, এখানে স্পষ্ট যে কারা এই আন্দোলনের নেতৃত্ব দিচ্ছে। আমরা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই মিথ্যা মামলা তুলে নেওয়ার আল্টিমেটাম দিচ্ছি। এছাড়া যারা সেদিন শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করেছে তাদের আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শনাক্ত করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানাচ্ছি। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আমাদের দাবি যদি না মানা হয়, আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হব।

নাহিদ ইসলাম আরও বলেন, শিক্ষকদের আন্দোলন শেষ হয়ে তারা ক্লাসে ফিরলেও আমাদের ছাত্র ধর্মঘট চলমান থাকবে। আমরা কোনো ক্লাস-পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করব না। আমরা চাই শিক্ষকরা আমাদের চলমান যৌক্তিক কোটা সংস্কার আন্দোলনে আমাদের সহযোগিতা করুক।

এর আগে, ৭ জুলাই ঘোষিত শিক্ষার্থীদের বর্তমান এক দফা দাবি হলো- সকল গ্রেডে সব ধরনের অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করে সংবিধানে উল্লিখিত অনগ্রসর গোষ্ঠীর জন্য কোটাকে ন্যূনতম পর্যায়ে এনে সংসদে আইন পাস করে কোটা পদ্ধতিকে সংশোধন করতে হবে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল পেরু

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৬৪জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:দক্ষিণ আমেরিকার দেশ পেরু রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ২ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে কাঁপে উঠল। শুক্রবার (২৮ জুন) দেশটির মধ্যাঞ্চলীয় উপকূলীয় এলাকায় এই ভূমিকম্পন অনুভূত হয়। ভূমিকম্পের জেরে পেরুতে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) বলেছে, দেশটির আটিকুইপা জেলা থেকে ৮.৮ কিলোমিটার (৫.৫ মাইল) দূরে ভূমিকম্পটি আঘাত হেনে। ভূমিকম্পের শক্তিশালী কম্পন কেন্দ্রস্থলের কাছাকাছি এলাকায়ও অনুভূত হয়েছে।

আতিকুইপার কিছু বাসিন্দা সোশ্যাল মিডিয়ায় বলেছেন যে, তারা খুব শক্তিশালী এবং দীর্ঘ ভূমিকম্প অনুভব করেছে যার ফলে তাদের বিছানা কাঁপছে।

নিকটবর্তী শহর কারাভেলির সিসিটিভি ফুটেজে একটি আবাসিক রাস্তা দেখা যাচ্ছে যখন কম্পন প্রবলভাবে কাঁপছে এবং লোকেরা তাদের ঘর থেকে বেরিয়ে আসছে।

রাজধানী পর্যন্ত ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে লিমায় ঘরের ভেতরে হারিকেন দুলছে।

দক্ষিণ আমেরিকার ৩ কোটি ৩০ লাখ মানুষের এ দেশটিতে প্রায়ই ভূমিকম্প হয়ে থাকে। এছাড়া দেশটি ভূতাত্ত্বিকভাবে ভূমিকম্প সক্রিয় অঞ্চল ‘প্যাসিফিক রিং অব ফায়ারে’ অবস্থিত। যা আমেরিকার পশ্চিম উপকূল বরাবর তীব্র ভূমিকম্পপ্রবণ এলাকা হিসেবে পরিচিত।


আরও খবর



নন্দীগ্রামে সড়ক দূর্ঘটনায় ৮ ঘন্টার ব্যবধানে ভাই-বোনের মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image

মনিরুজ্জামান মনির,নন্দীগ্রাম (বগুড়া) সংবাদদাতা:বগুড়ার নন্দীগ্রামে দুই অটোরিকশার মধ্যে সংঘর্ষে জুথী খাতুন নামের এক প্রসুতির মৃত্যুর ৮ ঘন্টা পর মারা গেল দুর্ঘটনায় আহত ছোট ভাই জিহাদ হোসেন (১৭)। শনিবার রাত ১ টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত জুথী খাতুন ও জিহাদ হোসেন উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভাগ শিমলা গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে-মেয়ে। কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ভাই বোনের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নিহত জুথী খাতুন ও জিহাদ হোসেনের চাচা বেলাল উদ্দিন জানান, ৪ দিন আগে ভাতিজি জুথী খাতুন নন্দীগ্রামের হেলথ কেয়ার ক্লিনিকে কন্যা সন্তান প্রসব করে। শনিবার বিকেলে ক্লিনিক থেকে জুথী খাতুন সন্তানসহ তার মা জেসমিন (৪৫) ও ছোট ভাই জিহাদকে (১৭) নিয়ে  সিএনজি চালিত অটোরিকশা নিয়ে নন্দীগ্রাম থেকে গ্রামের বাড়ি ফিরছিল। পথিমধ্যে দলগাছা এলাকায় পৌছিলে বিপরীত দিক থেকে একটি ব্যাটারি চালিত অটোরিকশার সাথে সিএনজি চালিত অটোরিকশার সংঘর্ষ হয়। এতে দুইটি অটোরিকশাই উল্টে যায়। এতে আমার ভাবি, ভাতিজি ও ভাতিজা গুরুত্বর আহত হয়। আর ভাতিজির তিন দিনের মেয়ে অক্ষত ছিলো।

তিনি আরো জানান ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদেরকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক জুথী খাতুনকে মৃত ঘোষনা করেন। এবং ভাতিজা জিহাদ হোসেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১ টার দিকে মারা যায়। আমার ভাবি ও নাতনী ভালো আছে। আমার ভাতিজি জুথী খাতুনের বেশকিছু দিন আগে শেরপুর উপজেলার বংশার গ্রামে বিয়ে হয়েছিল। বাচ্চা প্রসবের জন্য এখানে আনা হয়েছিল।

এবষিয়ে নন্দীগ্রাম সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল করিম কামাল বলেন, চার দিনের সন্তান রেখে সড়ক দুর্ঘটনায় কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ভাই বোনের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।


আরও খবর



সিদ্ধিরগঞ্জে ব্যবসায়ীর লক্ষাধিক টাকা ও মটোর বাইক ছিনতাই

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১০০জন দেখেছেন

Image
ইউসুফ আলী প্রধান, নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতাঃদেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ব্যবসায়ীর লক্ষাধিক টাকা সহ মটোর বাইক ও মোবাইল ফোন ছিনতাই করার ঘটনা ঘটেছে।নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মনোয়ারা জুট মিল সংলগ্ন এলাকায় ২ জুলাই রাত আনুমানিক ৯ টা ৩০ মিনিটে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী আকবর হোসাইন নারায়ণগঞ্জের চিটাগাং রোড থেকে সিদ্ধিরগঞ্জ বাজারে তার এক আত্মীয়ের বাসায় যাওয়ার পথে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তিনি। ব্যবসায়ী জানান তার তিন লাখ ৫০ হাজার টাকা মূল্যের সুজুকি ইন্ট্রুডার মটোর বাইক নিয়ে ঘটনাস্থল অতিক্রম করার সময় অজ্ঞাত কিছু যুবক এসে তাকে ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে দুটি হেলমেট সহ মটোর বাইক ও মোবাইল ফোন রেখে দেয়। একই সাথে ১৪ হাজার টাকা মূল্যের হাত ঘড়ি, ব্যাংকের কার্ড, বাইকের কাগজ পত্রসহ ব্যবসার কাজে সঙ্গে থাকা নগদ ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা নিয়ে যায় । বিষয়টি সম্পর্কে তিনি ৩ জুলাই বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। থানা সূত্রে জানা যায়, ঘটনার পর ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী তাৎক্ষণিক থানায় উপস্থিত হলে থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে তাৎক্ষণিক অভিযুক্তদের পাওয়া যায় নাই। বিষয়টি সম্পর্কে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, অভিযোগ পর্যালোচনা করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও খবর