Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

মধুপুরে অবৈধ জর্দ্দা ফ্যাক্টরীর সন্ধান লক্ষাধিক টাকার মালামাল দংশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৩৭০জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ-

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার আলোকদিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম রানিয়াদ এলাকায় সোনালী জর্দ্দা ফ্যাক্টরীর মালিককে দুই হাজার টাকা জরিমানা সহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার জর্দ্দা তৈরির মালামাল দংশ করেন ভ্রাম্যমান আদালত।


সোমবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেলে এই অভিযান পরিচালনা করেন মধুপুর উপজেলা কমিশনার(ভুমি)ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো.জাকির হোসেন। 


সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উক্ত এলাকার নাজমুল হক দীর্ঘদিন যাবত একটি অবৈধ জর্দ্দার ফ্যাক্টরী পরিচালনা করে আসছেন যার কোন বৈধ কাগজপত্র নেই। 


জর্দ্দা তৈরির কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে বিষাক্ত রঙ এবং বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল মিশিয়ে তৈরি করা হচ্ছে নকল পান পরাগ সহ মিষ্টি পানের যাবতীয় জর্দ্দা যা মানব দেহের জন্য অত্যান্ত ক্ষতিকর।


বিষাক্ত রঙ ও ক্ষতিকারক কেমিক্যাল মিশিয়ে জর্দ্দা তৈরি এবং বাজারজাত করার কারনে জর্দ্দা তৈরির সকল উপকরণ এলাকাবাসির উপস্থিতিতে দংশ করা সহ দুই হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন ভ্রাম্যমান আদালত। 


এই অভিযান পরিচালনার সময় আরও উপস্থিত ছিলেন লাউফুলা ফাড়ির এস আই আজহার আলী সহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যগন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




বঙ্গবন্ধু কাপ ২০২৪ আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্ট শুরু হচ্ছে ২৬ মে

প্রকাশিত:সোমবার ২০ মে ২০24 | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ২১৫জন দেখেছেন

Image

আজাদ হোসেনঃ

 আগামী ২৬ মে থেকে ’স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর নামকরণে বঙ্গবন্ধু কাপ ২০২৪ আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্টের চতুর্থ আসর মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে। এ টুর্নামেন্টে এবার ইউরোপ, আফ্রিকা ও এশিয়া এই তিন মহাদেশের মোট ১২টি দল অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে। বিদেশী দলগুলো ২৩ মে থেকে ঢাকায় আসতে শুরু করবে।

এরপর ২৫ মে ম্যানেজার্স মিটিংয়ে গ্রুপিং ও ফিকশ্চার চূড়ান্ত করা হবে। ফলে ২৬ মে থেকে কোর্টে খেলা গড়াবে। এরপর ফাইনাল খেলার মধ্য দিয়ে ৩ জুন টুর্নামেন্ট শেষ হবে। ইউরোপ মহাদেশ থেকে পোল্যান্ড, আফ্রিকা মহাদেশ থেকে কেনিয়া ও উগান্ডা এবং এশিয়া মহাদেশ থেকে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, মধ্যপ্রাচ্যের ইরাক, অ্যাসোসিয়েশনের ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড এবং দক্ষিণ এশিয়ার নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও স্বাগতিক বাংলাদেশ অংশগ্রহণ করবে। এর মধ্যে সর্বশেষ দুই বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলেছে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও থাইল্যান্ড। তবে প্রথমবারের মতো এ টুর্নামেন্টে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও উগান্ডা অংশগ্রহণ করছে।


সোমবার (২০ মে) দুপুরে বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন (বিওএ) ভবনের ডাচ-বাংলা অডিটোরিয়ামে এ টুর্নামেন্ট উপলক্ষে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সভাপতি ও ইন্সপেক্টর জেনারেল অব বাংলাদেশ পুলিশ চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা, কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান, কাবাডি ফেডারেশনের যুগ্মসম্পাদক-২ এসএম নেওয়াজ সোহাগ এবং কাবাডি ফেডারেশনের সহ সভাপতি হাফিজুর রহমান খান।


জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলনে এক প্রশ্নে বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সভাপতি ও ইন্সপেক্টর জেনারেল অব বাংলাদেশ পুলিশ চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, নানারকম কর্মসূচির মাধ্যমে  কাবাডি উন্নয়নে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সেই সঙ্গে আমাদের জাতীয় খেলা কাবাডিকে বিশ্বপরিসরে মেলে ধরছি। অপর এক প্রশ্নে বলেন ঢাকাতে আলাদা একটা কাবাডি কমপ্লেক্স করার চেষ্টা চলছে। ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে আমরা প্রস্তাব দিয়েছি।


এদিকে কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান জানান গত এশিয়ান গেমসে আমরা কাঙ্ক্ষিত ফল পাইনি। কোচ অসুস্থ হয়ে পড়ায়, ঠিকমত দিকনির্দেশনা দিতে পারেননি। মূলত কোচ ছাড়া, পরামর্শ ছাড়া আমাদের দল খেলেছে। ফলে আমরা এমন সব দলের কাছে হেরেছি যা ছিল অকল্পনীয়। তিনি জানান, খেলাটা আরও ছড়িয়ে দেবার আমরা চেষ্টা করছি। আমাদের এখানে ভারতের মতো সেই বড় মানের বিনিয়োগ নেই। সেখানে সকল বড় তারকার নিজস্ব কাবাডি দল রয়েছে। অন্যদিক আমাদের এখানে তেমন নেই। সেজন্য এখানে প্রো-কাবাডির আয়োজন করাটা কঠিন।


অপরদিকে জাতীয় সংসদের হুইপ ও বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, ব্র্যান্ড ভ্যালু বাড়ানো একদিনের কাজ না। সহজও না। আগেও একবার সঙ্গে ছিলাম। এবারও চেষ্টা করবো। আপাতত নতুন কোনো আইডিয়া নেই। সুযোগ পেলে অবশ্যই চেষ্টা করব। সুযোগ এলে অবশ্যই ঢাকার ভেতরে কঠিন হলেও বাইরে বা আশেপাশে একটা কমপ্লেক্সের ব্যাপারে কিছু একটা করার চেষ্টা করবো।


উল্লেখ্য ২০২১ সালে বৈশ্বিক মহামারী করোনার দুঃসময়ে সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরের কঠোর নির্দেশনা মেনে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী মুজিববর্ষ উপলক্ষে ২০২১ সালে বঙ্গবন্ধু কাপ আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্টের যাত্রা শুরু হয়। এ টুর্নামেন্ট যখন মাঠে গড়িয়েছিল তখন করোনাভাইরাসে বিশ্বক্রীড়াঙ্গন স্তব্ধ ছিল। বিশ্বজুড়ে কঠোর লকডাউন চলছিল। এমন কি বিশ্বজুড়ে সবধরনের ফ্লাইটও প্রায় বন্ধ ছিল। ঠিক সেসময় কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে নেপাল, শ্রীলঙ্কা, কেনিয়া, পোল্যান্ড ও স্বাগতিক বাংলাদেশসহ পাঁচ দেশের অংশগ্রহণে প্রথম আসর অনুষ্ঠিত হয়।


এরপর ২০২২ সালে দ্বিতীয় আসরে নেপাল, শ্রীলঙ্কা, কেনিয়া, ইংল্যান্ড, ইরাক, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও স্বাগতিক বাংলাদেশসহ আটটি দেশ অংশগ্রহণ করে। ২০২৩ সালে তৃতীয় আসরে রেকর্ড ১২টি দেশ অংশগ্রহণ করেছিল। এশিয়া, ইউরোপ ও আফ্রিকা মহাদেশের গণ্ডি পেরিয়ে টুর্নামেন্টের ব্যাপ্তি ছড়িয়ে ছিল দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশেও। টুর্নামেন্টের মূল আকর্ষণ ছিল ফুটবলের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মেসির দেশ আর্জেন্টিনার কাবাডি দল। তৃতীয় আসরে অংশ নেওয়া দেশগুলো ছিল লাতিন আমেরিকার আর্জেন্টিনা, ইউরোপের ইংল্যান্ড, পোল্যান্ড, আফ্রিকার কেনিয়া, এশিয়ার ইরাক, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, চাইনিজ তাইপে, নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও স্বাগতিক বাংলাদেশ।


আন্তর্জাতিক আঙিনায় সারা জাগানিয়া এ টুর্নামেন্ট এখন আন্তর্জাতিক কাবাডি ফেডারেশনের বর্ষপঞ্জিতে বিশেষ গুরুত্ব বহন করছে। বাংলাদেশের এ আসরটি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব হিসেবেও বিবেচিত হচ্ছে। গত তিনটি আসর শহীদ নূর হোসেন ভলিবল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হলেও এবার নতুন ভেন্যু হিসেবে মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। এ টুর্নামেন্ট সামনে রেখে কাবাডি ফেডারেশন ইতোমধ্যে সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। গেল তিনটি আসরের হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন স্বাগতিক বাংলাদেশ এবারও শিরোপায় চোখ রেখে ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রস্তুতি অব্যাহত রেখেছে।



প্রথম আসরে কেনিয়াকে হারিয়ে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব দেখায়। এরপর ২০২২ সালেও সেই কেনিয়াকে ফাইনালে পরাজিত করে স্বাগতিকরা চ্যাম্পিয়ন হয়। তারপর ২০২৩ সালে অবশ্য চাইনিজ তাইপেকে হারিয়ে হ্যাটট্রিক শিরোপা ঘরে তোলে বাংলাদেশ।


বঙ্গবন্ধু কাপ আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্টকে মহাদেশীয় পর্যায়ে সম্প্রসারণ করতে এবারও এশিয়ার বাইরে ইউরোপ ও আফ্রিকা মহাদেশের একাধিক দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এবারও ১২টি দল অংশ নিতে যাচ্ছে। শুরুতে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে। এরপর দুই গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দল সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে। জয়ী দুই দল খেলবে ফাইনাল। টুর্নামেন্টের সব কয়টি ম্যাচ সরাসরি সম্প্রচার করবে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল টি স্পোর্টস।


আরও খবর



ছাতক উপ‌জেলা নিবাচন: আওলাদ আলী রেজার পালে হাওয়া, কির‌নের বাজার গরম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১২৭জন দেখেছেন

Image

র‌নি,ছাতক সুনামগঞ্জ প্রতিনি‌ধি:তৃতীয় ধাপে ২৯ মে  উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন এক‌টি পৌর সভায় নি‌য়ে ছাতক উপ‌জেলা প‌রিষদ গ‌ঠিত হ‌য়। এ উপজেলার পুরুষ ১লাখ ৯৭ হাজার,৯শত ৫২ এবং মহিলাএক লাখ ৯৯ হাজার ৬শত ৯০জন প্রায় ৩লাখ ,৯৭ হাজার ৬শত ৪২ জন জনসংখ্যা।গ্রামের সংখ্যা: ৫৪৭টি গ্রাম। ভোটার সংখ‌্যা পুরুষ এক লাখ ৬০হাজার ৪৪জন,এবং ম‌হিলা একলাখ ৫১হাজার ৯শত ৩জন মোট ভোটার সংখ‌্যা ৩ লাখ ১১হাজার ৯শত৫৭ জন।

উপ‌জেলা নিবাচন অ‌ফিস সুত্রে জানায়,কেন্দ্র সংখ‌্যা ১শত ৩টি, বুথ সংখ‌্যা ৬শত ৭১। উপ‌জেলা পরিষদের নিবাচন ২৯ মে অনু‌ষ্টিত হ‌বে।এর মধ্যে ছাত‌কে উপ‌জেলা নিবাচন জমে উঠেছে চাচা-ভাতিজার ভোটের লড়াই। ছাত‌কে উপজেলা পরিষদের উপজেলার-নির্বাচনকে সামনে রেখে নিবাচনী হাওয়া লেগেছে প্রবাসী আওয়ামীলীগ নেতা আওলাদ আলী রেজার আনারস প্রতী‌কে পালে, অন্যদিকে হাট বাজার গরম করে রেখেছে র‌ফিকুল ইসলাম কি‌রনের কাপ-পিরিচ। যতই দিন যাচ্ছে ধীরে ধীরে ঘনিয়ে আসছে সুনামগঞ্জের ছাত‌কে উপজেলা পরিষদের নির্বাচন।

আর মাত্র ৬ দিন বাকী, এরই মাঝে আওয়ামীলী‌গের মধ্যে ৪ গ্রুপিংয়ের দ্বিধাদ্বন্দ্ব প্রবাসাী আওয়ামীলীগ নেতা আওলাদ আলী রেজার আনার‌স প্রতী‌কের প‌ক্ষে পালে হাওয়া লেগেছে । আওলাদ আলী রেজা আনারস প্রতীক এবার বেশ শক্ত হাতেই ধরেছেন , বেশী জনসাধার‌নের  নিশানা ঠিক রেখে সঠিক পথেই এগুচ্ছে রেজা। অন্যদিকে হাট-বাজারের রেষ্টুরেন্ট ও চায়ের দোকানে আলোচনার ঝড় তুলেছে র‌ফিকুল ইসলাম কিরনের কাপ-পিরিচ মার্কা নি‌য়ে।

গত নির্বাচনে এম‌পির কথায় বতমান চেয়ারম‌্যান ফজলুর রহমান‌কে ছাড় দি‌য়ে‌ছি‌লেন রেজা। কিন্তু এবার আর কাউকে ছাড় দিতে রাজি নন তি‌নি।অন্যদিকে উপজেলার ১৩‌টি ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও জনপ্রতি‌নি‌ধিরা জানান,আনারসের ফলন গাউ গ্রা‌মে পাড়া মহল্লায় ব্যাপক বাম্পার ফলন হয়েছে। তা দেখেই ফলনের হাসি। আওলাদ আলী রেজা ও তার সমর্থকদের মুখে হা‌সি।আগামী ২৯ মে নিবাচন অনুষ্ঠিত হবে ছাতক উপজেলা পরিষদের নির্বাচন। কিন্তু এখা‌নে জমে উঠে‌ছে নির্বাচনী আমেজ। সরেজমিন ছাতক উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে গত নির্বাচনে যে রকম নির্বাচনী আমেজ ছিলো এবার ব্যাতিক্রম।

রেজার প‌ক্ষে কাজ কর‌ছেন পৌর মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী,সা‌বেক উপ‌জেলা চেয়ারম‌্যান  অ‌লিউর রহমান চৌধুরী বকুল,সা‌বেক জেলা প‌রিষদ সদস‌্য আব্দুস শহীদ মু‌হিত,সা‌বেক চেয়ারম‌্যান আলহাজ্ব নিজাম উদ্দিন,আখলাকুর রহমানসহ প্রমুখ নেতাকমীরা।

৯ জন ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনই আমেজে জ‌মে‌ছে। ৯ জ‌নের ম‌ধ্যে আফজাল হো‌সেন,র‌নি ও

চশমা প্রতীক প্রার্থী কাজী মাওলানা আব্দুস সামাদ এর ম‌ধ্যে তৃমুখী লড়াই সম্ভাবনা র‌য়ে‌ছে।

বাংলা‌দেশ আনজুমা‌নে আল ইসলার জেলার নেতাকে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে আলোচনা, পথসভা ও ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ব্যাস্ত সময় পার করছেন। চশমা প্রতীক নিয়ে বেশ চমক সৃষ্টি করেছিলেন। দুই বারের উপ‌জেলা ভাইন্স‌ চেয়ারম‌্যান আবু সাদাত লা‌হিনের উপ‌জেলা চেয়ারম‌্যান এবার তার অবস্থান বেশ শক্তপোক্ত।যেদিকেই তাকাবেন কির‌ন ও রেজা‌কে নি‌য়ে আলোচনার চা‌য়ের টেবিলে সাধারন ভোটার স‌মা‌লোচনার বইছে। এমনকি বিএন‌পির, জামায়াত ও জাপার তলে তলে আনারস প্রতী‌কের প‌ক্ষে রাজনৈতিক দলের মৌন সমর্থনও আদায় করার খবর পাওয়া গেছে। আওয়ামীলী‌গের সম‌র্থিত প্রাথী মাহমুদ আলী ও আমজদ আলী নির্বাচনী মাঠে নতুন আগমন করায় নির্বাচনী হাবভাব এখনো বুঝে উঠতে পারছেন না। 

দলে কোন্দল থাকায় বেকায়দায় পড়তে পারেন আওয়ামীলী‌গের এম‌পির সম‌থিত তিনজন প্রাথীরা। আওয়ামীলী‌গের এম‌পি সম‌থিত ইউপির চেয়ারম‌্যান গয়াছ আহমদ,ওদুদ আলম,সা‌বেক চেয়ারসম‌্যান জয়নাল আবেদীন আবুল, কাপ পি‌রি‌স প‌ক্ষে জন্য ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট চাইতে দেখে বিজয়ের স্বপ্নে বিভোর কিরনের ।

নির্বাচনকে সামনে রেখে ছাতক উপজেলাবাসী ও সচেতন মহলের একটাই প্রত্যাশা সৎ, যোগ্য ও কর্মট প্রার্থী নির্বাচিত হলে উন্নয়নের বাধভাঙ্গা জোয়ারে ভাসবে দেশ, সমৃদ্ধ হবে উপজেলা।


আরও খবর



সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশি নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৬৬জন দেখেছেন

Image
নিহত সবুজ চৌকিদার, মো. সাব্বির ও মো. রিফাত

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক :সৌদি আরবে বাংলাদেশি তিন যুবক কাজে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৩) দুপুরে আল আলিফ শহরে স্থানীয় সময় সকাল ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলার ২নং আলগী দূর্গাপুর উত্তর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের কমলাপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন এর ছেলে মোহাম্মদ মোস্তফা গাজী রিফাত। সাড়ে চার বছর প্রবাসে। কিছুদিন পূর্বে একমাত্র বোনের বিয়ে হয়েছে। তাকে দেখতে ঈদের পর বাড়িতে আসার কথা। কিন্তু ঈদের পর রিফাত আসলেও জীবিত নয় আসবে তার মরদেহ এতে শোকে কাতর বাবা। সড়ক দুর্ঘটনা প্রাণ কেড়ে নিয়েছে তার আদরের সন্তানের।

একই উপজেলার ৩নং দক্ষিণ আলগী ইউনিয়নের চরভাঙ্গা গ্রামের ইসমাইল ছৈয়ালের ছোট ছেলে সাব্বির। দুই ভাই এক বোনের মধ্যে মেজ ছেলে সে। তিন বছর প্রবাসী হলেও অধিকাংশ সময় ছিল না কাজ। তাই আয় রোজগার ছিল না তেমন। তবুও মাকে ফোন করে বলেছিল ঈদ উদযাপনের প্রস্তুতি নিতে। টাকা পাঠাবে সে । তবে ঈদে কোরবানির টাকা না আসলেও এসেছে ছেলের মৃত্যুর সংবাদ। এমন সংবাদে আহাজারি করছে নিহতের গর্ভধারানী মা ও আত্মীয় স্বজনরা।

ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১২নং চরদুখিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম বিষকাটালী এলাকার জামাল চৌকিদার এর ছেলে সবুজ চৌকিদার। ১৮ বছর প্রবাসে। ১০-১২ দিন পূর্বে স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে গেছেন সৌদি আরব। সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন তিনিও। তার এমন মৃত্যুতে পাগলের মত আহাজারী করছেন তার বাবা-মাও। তিন প্রবাসীর মৃত্যুর সংবাদে এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া।

সাব্বির আর রিফাতকে সৌদিতে কাজের জন্য নিয়েছেন সবুজ চৌকিদার। তিনি তাদের নিয়ে আপিপ শহর ও আশপাশের এলাকায় ভবন নির্মাণের কাজ করতেন। নিজেদের গাড়িতে তারা কাজে আসা-যাওয়া করতেন। গাড়ির চালক ছিলেন সবুজ। দুর্ঘটনার সময়ও গাড়ির চালাচ্ছিলেন সবুজ। এসব তথ্য জানালেন সবুজের বাবা জামাল চৌকিদার।

তিনি আরও বলেন, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশি সময় ৪টায় সবুজসহ ৩ জনের দুর্ঘটনার খবর পান। রাত ১০টায় সেখানে অবস্থানরত স্বজনদের মাধ্যমে জানতে পারেন দুর্ঘটনার পর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে নিহত তিন যুবকের মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে সরকারের সর্বোচ্চ আন্তরিকতা আশা করছেন নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী।


আরও খবর



সায়েদাবাদ জনপথে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে ট্রাফিক পুলিশের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ও র‍্যালী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ১০৭জন দেখেছেন

Image

সোহরাওয়ার্দীঃসায়েদাবাদ জনপথ এলাকায় বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে ট্রাফিক পুলিশের উদ্যেগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী-২০২৪ পালন করা হয়।

“করব ভূমি পুনরুদ্ধার, রুখবো মরুময়তা, অর্জন করতে হবে মোদের খরা সহনশীলতা”-এ স্লোগানকে সামনে রেখে এই কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

গতকাল বুধবার (৫ জুন) দুপুরে ওয়ারী ট্রাফিক বিভাগের আয়োজনে সায়েদাবাদ এলাকায় ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মোহাম্মদ আশরাফ ইমামের নেতৃত্বে ও ট্রাফিক ডেমরা জোনের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) জিয়া উদ্দিন এর সঞ্চালনায় এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সুলতানা ইশরাত জাহান, ট্রাফিক ডেমরা জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মুস্তাইন বিল্লাহ ফেরদৌস,ট্রাফিক যাত্রাবাড়ী বিভাগের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার তানজিল আহমেদ,ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সহকারি পুলিশ কমিশনার কপিল দেব গাইনসহ ডেমরা, যাত্রাবাড়ী ও ওয়ারী বিভাগের ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা।

এদিকে বুধবার বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে র‍্যালী কর্মসূচীও পালন করে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ। র‍্যালীটি সায়েদাবাদ জনপথ ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে থেকে শুরু হয়ে এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

ডিসি মোহাম্মদ আশরাফ ইমাম বলেন, পৃথিবীতে আবহাওয়া ক্রমেই উত্তপ্ত হচ্ছে। বৃদ্ধি পাচ্ছে খরতা ও মরুময়তা। তাই এই প্রচন্ড খরা মরুময়তা নিয়ন্ত্রণ করতে বৃক্ষরোপনের বিকল্প নেই। এ লক্ষ্যে সকলের মাঝে সচেতনতা ফিরিয়ে আনতে ও সবুজ পৃথিবী গড়তে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের এই আয়োজন। যা অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




চাঁদপুরে পৃথক ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৭২জন দেখেছেন

Image

ইয়াসিন ইকরাম, চাঁদপুর থেকে:চাঁদপুর শহরের ব্যাংক কলোনী এলাকায় চিরকুট লিখে মো. সালাউদ্দিন মিয়া (৪৫) নামে এক ব্যক্তি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা এবং মতলব উত্তরে শাহাদাত হোসেন প্রধান (২৭) নামে যুবক ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চার্জ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে।

মঙ্গলবার (৪ জুন) রাতে শহরের ব্যাংককলোনী আনোয়ার হোসেন জেটের বাড়ীতে সালাউদ্দিন আত্মহত্যা করে এবং সন্ধ্যায় মতলব উত্তর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের পশ্চিম নাউরী গ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবক শাহাহাতের মৃত্যু ঘটে।

সালাউদ্দিন সদর উপজেলার বিষ্ণপুর ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামের মৃত গিয়াস উদ্দিন মিয়ার ছেলে। তিনি স্ত্রী ও কন্যা সন্তানকে নিয়ে আনোয়ার হোসেন জেটের বাড়ীতে ভাড়া থাকতেন। পেশায় ছিলেন একটি বেসরকারি কোম্পানীর বিক্রয় কর্মী।

সালাউদ্দিন আত্মহত্যার পূর্বে চিরকুটে কাউকে দায়ী না করে তার আত্মহত্যার কারণ লিখেছেন। তার ক্ষোভ ছিল অর্থ ও ভালোবাসার অভাব।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আকরাম বলেন, সংবাদ পেয়ে রাত ৯টায় ঘটনাস্থল থেকে সালাউদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। মরদেহ ময়না তদন্ত এবং আইনী প্রক্রিয়া শেষে স্বজনদের নিকট হস্তান্ত করা হবে।

সালাউদ্দিনের এই মৃত্যু নিয়ে স্বজন ও এলাকাবাসীর মাঝে গুনঞ্জন উঠেছে।পোস্টমর্টেম রির্পোটে স্পষ্ট হবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা।

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত শাহাদাত মতলব উত্তর উপজেলার নাউরী গ্রামের প্রধান বাড়ীর জালাল প্রধানের ছেলে। তিনি ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তার দুটি সন্তান রয়েছে। 

শাহাদাতের ছোট বোন সুমাইয়া জানান, ভাই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলে আমি দেখে চিৎকার দেই। লোকজন এসে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ভাইকে মৃত ঘোষণা করেন।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন রনি বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শাহাদাত প্রধানের মৃত্যু হয়। থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। পরিবারের সদস্যদের কোনো অভিযোগ না থাকায় নিহত পরিবারের আবেদনের পরিপেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়া মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়।


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪