Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মধুপুর সরকারী কলেজে এইচ.এসসি পরিক্ষার্থীদের জন্য দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২৯৮জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা (বিশেষ প্রতিনিধি) মধুপুর টাঙ্গাইলঃ-

মধুপুর সরকারি কলেজে এইচ.এসসি পরিক্ষার্থীদের জন্য দোয়া অনুষ্ঠিত।বুধবার (২৬জুন) সকাল ১০টায় দোয়া অনুষ্ঠানটি মধুপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ জাহাঙ্গীর কবির এর সভাপতিত্বে কলেজ হল রুমে অনুষ্ঠিত হয়।উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মধুপুর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট ইয়াকুব আলী।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন,পৌর মেয়র আলহাজ্ব সিদ্দিক হোসেন খান, সাবেক অধ্যক্ষ মোঃ মন্তাজ আলী সহ অত্র কলেজের শিক্ষক ও অভিভাবকগন উপস্থিত ছিলেন।


প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীদের মাঝে নিজ উদ্যোগে কলম বিতরণ করেন, মধুপুর শহর ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ আকন্দ।কলম বিতরণ শেষে তিনি বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি জামাত জোট সরকার, শিক্ষার্থীদের হাতে অস্ত্র তুলে দিয়েছিল, আর আমি ছাত্রলীগের সামান্য একজন কর্মী হয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে কলম তুলে দিলাম, একদিন এই শিক্ষার্থীরাই কলমের লেখনীর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সপ্নের সোনার বাংলা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে অগ্রনী ভূমিকা রাখবে।অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন, অত্র কলেজের শিক্ষক মোঃ সানোয়ার হোসেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



ফকিরহাটে কুখ্যাত সন্ত্রাসী ইমরান বিপুল পরিমানে আগ্নেয়াস্ত্র সহ আটক

প্রকাশিত:বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৭জন দেখেছেন

Image

ফটিক ব্যানার্জী,ফকিরহাট(বাগেরহাট)সংবাদদাতা:বাগেরহাটের ফকিরহাটে কুখ্যাত সন্ত্রাসী ইমরানকে পিস্তল গুলি ও বিপুল পরিমানে দেশিয় অস্ত্র সহ আটক করেছে ফকিরহাট মডেল থানা পুলিশ। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রাসেলুর রহমান মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় প্রেস ব্রিফিংয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, সোমবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফকিরহাটের লখপুর ইউনিয়নের ছোট খাজুরা এলাকার গ্রামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৩০টি মামলার পলাতক আসামী মৃত হযরত আলীর পুত্র মোঃ ইমরান শেখ(৩৫) কে বিপুল পরিমানে অস্ত্রসহ আটক করা হয়। এসময় তার কাছে ও ঘরের বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশী চলিয়ে ১টি পিস্তল, ৫ রাউন্ড বন্দুকের গুলি, ১টি চায়না রাইফেলের গুলি, ১টি বার্মিজ চাকু, ১টি কাঠের বাটের চাকু, ১টি তালা কাটার, ২টি কাটিং প্লাস, ১টি পাইপ রেঞ্জ ও ২টি দা উদ্ধার করা হয়। 

ফকিরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আশরাফুল আলম বলেন, ইমরান শেখের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। এছাড়াও তার নামে ফকিরহাট সহ বিভিন্ন থানায় ৪টি ডাকাতি, ৬টি দস্যুতা, ৩টি চুরি, ৩টি বিস্ফোরক আইনে মামলা, ১টি চাঁদাবাজি, ৭টি মাদক, ১টি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলা সহ মোট ৩০টি মামলা আছে।


আরও খবর



ট্রেনে কাটা পড়ে নরসিংদীতে নিহত ৫

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১০৭জন দেখেছেন

Image

নরসিংদী প্রতিনিধি:ট্রেনে কাটা পড়ে নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নাম-পরিচায় জানা যায়নি।

সোমবার (৮ জুলাই) সকালে উপজেলার কমলপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।


বিস্তারিত আসছে...


-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



সেনাপ্রধানের দায়িত্ব নিলেন জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১১৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান সেনাবাহিনীর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন । তিনি জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হলেন।

রবিবার (২৩ জুন) এ তথ্য জানায় আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)। আগামী তিন বছরের জন্য সেনাপ্রধানের দায়িত্বে থাকবেন তিনি।

গত ১১ জুন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামানকে ২৩ জুন থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে জেনারেল পদে পদোন্নতি দিয়ে তিন বছরের জন্য সেনাবাহিনী প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে এক বিজ্ঞপ্তিতে আইএসপিআর জানায়, ওয়াকার-উজ-জামান ১৯৮৫ সালের ২০ ডিসেম্বর ১৩তম দীর্ঘমেয়াদি কোর্সের সঙ্গে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কমিশন লাভ করেন। তিনি ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড অ্যান্ড স্টাফ কলেজ, মিরপুর এবং যুক্তরাজ্যের জয়েন্ট সার্ভিসেস কমান্ড অ্যান্ড স্টাফ কলেজ থেকে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করেন। এ ছাড়া তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘মাস্টার্স অব ডিফেন্স স্টাডিজ’ এবং যুক্তরাজ্যের কিংস কলেজ, ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন থেকে ‘মাস্টার্স অব আর্টস ইন ডিফেন্স স্টাডিজ’ ডিগ্রি অর্জন করেন।

ওয়াকার-উজ-জামান সুদীর্ঘ ৩৯ বছরের বর্ণাঢ্য সামরিক জীবনে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদের পাশাপাশি নবম পদাতিক ডিভিশনের জেনারেল অফিসার কমান্ডিং এবং সাভার এরিয়ার এরিয়া কমান্ডার, সেনা সদরে সামরিক সচিব এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়া তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আর্মড ফোর্সেস ডিভিশনে প্রধানমন্ত্রীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এরিয়া কমান্ডার সাভার এরিয়া ও জেনারেল অফিসার কমান্ডিং (জিওসি) নবম পদাতিক ডিভিশন হিসেবে ওয়াকার-উজ-জামান টানা তিন বছর অত্যন্ত সফলভাবে বিজয় দিবস প্যারেড ২০১৪, ২০১৫ ও ২০১৬-এর প্যারেড কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেন। বিরল এই কৃতিত্বের স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি ‘সেনাগৌরব পদক’ (এসজিপি) পান।

ওয়াকার-উজ-জামান স্টাফ হিসেবে পার্বত্য চট্টগ্রামে নিয়োজিত একটি ব্রিগেড, স্কুল অব ইনফ্যান্ট্রি অ্যান্ড ট্যাকটিকস (এসআইএন্ডটি) এবং সেনা সদরে বিভিন্ন পদবি ও নিয়োগে দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়া তিনি প্রতিক্ষণ হিসেবে জেসিও এনসিও একাডেমি (জেএনএ), স্কুল অব ইনফ্যান্ট্রি অ্যান্ড ট্যাকটিকস ও বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অ্যান্ড ট্রেনিংয়ে (বিপসট) অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে সব পদবির দেশি-বিদেশি সেনাসদস্যদের প্রশিক্ষণ দেন।

জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান জাতিসংঘের ব্যানারে মিলিটারি অবজারভার হিসেবে অ্যাঙ্গোলা এবং সিনিয়র অপারেশন অফিসার হিসেবে লাইবেরিয়াতে দায়িত্ব পালন করেন। সেনাবাহিনীতে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য তিনি ‘অসামান্য সেবা পদকে’ (ওএসপি) ভূষিত হন। তার স্ত্রীর নাম সারাহনাজ কমলিকা জামান। এ দম্পতির সামিহা রাইসা জামান ও শাইরা ইবনাত জামান নামে দুই কন্যাসন্তান রয়েছে।


আরও খবর



রূপগঞ্জে বিআরটিসি পরিবহন যেন ঘাড়ের উপর বিষফোঁড়া

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৯০জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে বিআরটিসি বাসের চালক হেলপার সহ লিজ পার্টি জিল্লুর রহমানের ম্যানেজার মাসুদ কাউন্টার ম্যান ও লাঠিয়াল বাহিনীর হাত থেকে স্বস্তি চায় সাধারণ যাত্রীরা। 

সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রূপগঞ্জের একমাত্র গণপরিবহন বিআরটিসি। ভুলতা থেকে কুড়িল পর্যন্ত নিয়মিত যাত্রীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে এই গণপরিবহনটি বিভিন্ন অভিযোগ মাথায় নিয়ে ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে যাত্রা শুরু করে। এতে সাধারণ যাত্রীদের চলাচলের সুবিধা হবে এবং অল্প টাকায় সকলে ঢাকা সহ আশেপাশের এলাকায় যাতায়াত করতে পারবে।  কিন্তু সে আসার গুড়ে বালি। যেখানে কুড়িল থেকে গাউছিয়া বাস ভাড়া হওয়ার কথা ৩০ থেকে ৪০ টাকা সেখানে বিআরটিসি বাসের ভাড়া গুনতে হয় ৬০ টাকা করে।

অথচ এই একই ভাড়ায় সিএনজিতে চলতে পারে সাধারণ যাত্রীরা। কিন্তু এখানেও বাধা দেয় বিআরটিসির লাঠিয়াল গুন্ডাবাহিনী।  কুড়িল থেকে কোন সিএনজি ড্রাইভার যদি যাত্রী উঠানামা করে তাহলে তাদের ধরে সেখানে বেধড়ক মারধর করার ঘটনা ঘটে প্রায়ই। ইদানিং আর লাঠিয়াল গুন্ডা নয়, জিল্লুর রহমান খোদ পুলিশ পাহারা রেখেছে বিআরটিসি কুড়িল কাউন্টারে। গত চার মেয়ে শনিবার কুড়িল রাস্তা অবরোধ করে আন্দোলন করে সিএনজি চালক ও যাত্রীরা তাদের অভিযোগ কুড়িল গেলেই বিআরটিসি লাঠিয়াল গুন্ডাবাহিনী তাদেরকে লাঠি দিয়ে তাদের গাড়ির গ্লাস ভেঙ্গে দেয় এবং সুযোগ পেলে তাদের মেরে রক্তাক্ত করে দেয় এজন্য তারা কাঞ্চন-কুড়িল ৩০০ ফিট রোড অবরোধ করে ৪ ঘন্টা বন্ধ করে রাখে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন ও রুপগঞ্জ থানার ওসি দীপকচন্দ্র সাহার অনুরোধে তারা রাস্তা থেকে সরে যায়।  রূপগঞ্জ থানার ওসিম দীপক চন্দ্র সাহা আশ্বস্ত করেন যে এরপর কারো গায়ে একটি আঘাত আসলে তাদের বিরুদ্ধে আইননব ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

সিএনজি চালকদের এখন লাঠিয়াল দিয়ে নয় খোদ পুলিশ দিয়ে শুরু হয়েছে হয়রানী।  কাউন্টারের আশেপাশে সিএনজি দাড়ালেই পুলিশ দিয়ে গাড়ি আটকে হয়রানীর  অভিযোগ উঠেছে। এজন্য বিআরটিসি বাসের প্রতি যাত্রীদে অনিহা ও দিন দিন যাত্রী সংকট তৈরীসহ বিভিন্নভাবে সমস্যা তৈরি হচ্ছে। 

সম্প্রতি বিআরটিসি লিজ পার্টি জিল্লুর সন্ত্রাসী বাহিনী ও কর্মচারী কর্তৃক গ্রীন ইউনিভার্সিটির ছাত্ররা লাঞ্চিত হয়,  ঘটনার সূত্র ধরে গাউছিয়া-কুড়িল হাইওয়ে ব্যস্ততম রাস্থা অবরোধ করে ছাত্ররা। এ দিন ভুলতা- গাউছিয়া থেকে ঢাকা শহর পর্যন্ত যানজটের শিকার হয় সাধারণ যাত্রীরা।  ছাত্রদের অভিযোগ তাদের হাফ ভাড়া ও সাধারণ যাত্রীসহ ছাত্র হয়রানি বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত তারা আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়।  অবশেষে স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় বিআরটিসি চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করে তা সমাধান করা হয়।  

অভিযোগ আছে, ভুলতা গাউছিয়া এবং কুড়িল বিশ্বরোডের দুটি কাউন্টার থেকে সিট ভর্তি যাত্রী নেয় এবং পুরা গাড়ি যাত্রী দাঁড়িয়ে থাকে তারপর গাড়ি ছাড়ে,  টিকিট কাউন্টারে মাইক দিয়ে বলা হয় যে পরবর্তী বাস আসতে ১ ঘন্টা বা তারও বেশি দেরী হবে। 

অভিযোগের ব্যাপারে মুঠোফোনে কথা হয় বিআরটিসির প্রধান কার্যালয়ের ডিজিএম অপারেশন শুকদেব ঢালীর সাথে, তিনি বিআরটিসির পিআরওর নাম্বার দিয়ে বলেন,  আমরা বিষয়টি আমলে নিচ্ছি এবং এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেব। 

এ ব্যাপারে লিজ পার্টি জিল্লুর রহমানের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করে নাই। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



সুন্দরগঞ্জে সেবাপ্রাপ্তি নিশ্চিতকরণে স্থানীয় জনগোষ্ঠীর সঙ্গে সমন্বয় সভা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৬৪জন দেখেছেন

Image
সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে স্থানীয় জনগোষ্ঠীর সেবাপ্রাপ্তি নিশ্চিতকরণে সংশ্লিষ্ট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১০ জুলাই) বিকেলে উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসকেএস ফাউন্ডেশনের প্রদৃপ্ত প্রকল্প এ সভার আয়োজন করেন।

MACP-এর অর্থায়নে ও কেয়ার বাংলাদেশের কারিগরী সহযোগিতায় সমন্বয় সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. জাফর আহমেদ লস্কর।

প্রদৃপ্ত প্রকল্পের প্রজেক্ট ম্যানেজার ফারুক হোসাইনের সঞ্চালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন প্রদৃপ্ত প্রকল্পের সিনিয়র অফিসার শারমিন বেগম, ফিল্ড ফ্যাসিলিটেটর মোছা. মুন্নী বেগম, রেখা রানী সরকার, গণমাধ্যমকর্মী সুদীপ্ত শামীম, বেলকা ইউনিয়নের অংশগ্রহণকারী নজরুল ইসলাম প্রমূখ।

সমন্বয় জানানো হয়, যুবগোষ্ঠীকে চিহ্নিতকরে যুবদের জীবন দক্ষতা এবং যুব উদ্যোক্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণের মাধ্যমে যুব ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করা, যুবদের প্রশিক্ষণ প্রদান এবং কর্মসংস্থান তৈরি করতে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর কাজ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে৷

সমন্বয় সভায় প্রকল্পভূক্ত বেলকা ও কঞ্চিবাড়ি ইউনিয়নের ১৮ জন যুব-কৃষক অংশগ্রহণ করেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর