সর্বশেষ

আজঃ বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১

মাতুয়ইলে হাসান বাহিনী শীর্ষ রাজনৈতিক নেতা আর পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তাদের নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজি করেন

স্টাফ রিপোর্টারঃ

রাজধানীর ডেমরা এলাকার মাতুয়াইল মেডিক্যাল রোড ও মুসলিম নগরে চাঁদাবাজি,মাদক সন্ত্রাসের রামরাজত্ব কায়েম করেছে হাসিবুল হাসান ওরফে হাসান নামক এক ব্যাক্তি।কুখ্যাত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী,চাঁদাবাজ হাসানের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে  মাতুয়াইল মেডিক্যাল রোড ও মুসলিম নগর এলাকার ব্যাবসায়ীরা।তিনি কখনো শীর্ষ রাজনৈতিক নেতার ভাই,পিএস অথবা নিকটাত্মীয় বলে সবাইকে বলে বেড়ায় কখনো পুলিশের ডিসি,এসি অথবা ওসির কাছের লোক বলে পরিচয় দেন।এভাবে সে ঐ এলাকার মানুষদের জিম্মি করে তার অপরাধের রামরাজত্ব কায়েম করেছে।মাতুয়াইলের মেডিক্যাল রোডসংলগ্ন সামাজিক পরিবেশ ও মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা নামে লীজকৃত জায়গাতে গড়ে ওঠা বিভিন্ন দোকান থেকে সে গত ৫ মাস যাবত ব্যাসায়ীদের শীর্ষ রাজনৈতিক নেতার ভাই,পিএস অথবা নিকটাত্মীয় পরিচয় দিয়ে এবং ডিসি ওয়ারীর নাম ভাঙ্গিয়ে সাবেক এসি রাকিবুল ইসলামের নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদা তুলে আসছিলেন।

জানাগেছে হাসানের গ্রামের বাড়ি ফরিদপুর জেলার নগরকান্দা উপজেলার বিলগোবিন্দপুর গ্রামে।ঐ গ্রামের বাসিন্দা মৃত মাঈনউদ্দিনের দ্বীতিয় সংসারের বড় সন্তান হাসান।ঢাকায় নির্দিষ্ট কোন ঠিকানা নেই,ভাসমান অপরাধীর জীবন বেছে নিয়েছে হাসান নামক এই যুবক।তিনি কখনো শীর্ষ রাজনৈতিক নেতার ভাই,পিএস অথবা নিকটাত্মীয়, কখনো পুলিশের ডিসি,এসি অথবা ওসির কাছের লোক বলে পরিচয় দিয়ে জায়গাজমির দখল,জমির দালালী,বিচারশালিসের নামে প্রহসন,চাকুরীর তদবীর সহ নানা ধরনের প্রতারনা করে বেড়ান।সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্টানে চাকুরী দেয়ার নামে সে বহু লোকের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।তার বিরুদ্ধে মুসলিম নগর এলাকায় মাদক বিক্রির অভিযোগ করেছেন অনেকে।বিভিন্ন নির্মানাধীন বিল্ডিং মালিকের কাছ থেকে নানা ভয়ভীতি প্রদর্শন করে চাঁদা দাবীর অভিযোগ রয়েছে অনেক।তথ্যসূত্রঃদৈনিক সকালের সময়



এই বিভাগের আরও খবর