Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মাত্র ৬ মাসেই খসরু চৌধুরী এমপির বাজিমাত, এ বছরের মধ্যই শেষ হবে শতাধিক রাস্তার সংস্কার কাজ

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০২৪ সালের ৭ জানুয়ারি। সেই হিসাবে ৭ জুলাই ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য হিসাবে মো. খসরু চৌধুরীর ৬ মাস পূর্ণ হবে। এলাকার উন্নয়নে এই ৬ মাসে ব্যাপক কর্ম তৎপরতা চালিয়েছেন তিনি। ভাঙাচোরা রাস্তার সংস্কারে পর্যাপ্ত বরাদ্দ চেয়ে ও ঢাকা-১৮ আসনের হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফের দাবিতে সংসদে একাধিকবার বক্তব্য দিয়েছেন। দ্রুত রাস্তা মেরামতে বরাদ্দ পাস করাতে দৌড়-ঝাঁপ করেছেন সচিবালয় ও নগর ভবনে। তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর শুরু করেছেন শতাধিক রাস্তার কাজ। যা শেষ হবে ২০২৪ সালের মধ্যে।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে খসরু চৌধুরী ঘোষণা দিয়েছিলেন, তিনি নির্বাচিত হলে তার প্রথম কাজ হবে সর্বাধিক অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে সমন্বয়-পূর্বক স্বল্পতম সময়ের মধ্যে টেকসই পরিবর্তন নিশ্চিত করা। এ কাজে তিনি সফল হয়েছেন। এমপি নির্বাচিত হয়েই খসরু চৌধুরী ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলরদের সঙ্গে সমন্বয় করে উন্নয়ন কাজ শুরু করেছেন। বর্তমান ঢাকা-১৮ আসনে ১০০টিরও অধিক রাস্তার কাজ চলমান রয়েছে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রীসহ বিভিন্ন দপ্তরে কথা বলে নতুন নতুন আরও কিছু উন্নয়নমূলক কাজ শুরু করার চেষ্টা করছেন।

উত্তরখান ও দক্ষিণখান এলাকায় গ্যাস সংকট চরমে। খসরু চৌধুরী এমপি নির্বাচিত হওয়ার পরে গ্যাস পাইপ লাইন সংস্কারের মাধ্যমে গ্যাস সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করেছেন। ঢাকা-১৮ আসনকে সন্ত্রাস, মাদক ও চাঁদাবাজ-মুক্ত করতে কাজ করছেন তিনি। তিনি প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে একাধিকবার বৈঠক করেছেন। ঢাকা-১৮ আসনের বিভিন্ন-স্পটকে চাঁদা-মুক্ত করেছেন। অটো-লেগুনার চাঁদা বন্ধ করেছেন। যানবাহন থেকে সব ধরনের চাঁদাবাজি বন্ধ করা হয়েছে। যারা এসব অবৈধ কাজে জড়িত ছিলো, দল-মত-নির্বিশেষে তাদের সকলের বিরুদ্ধেই জিরো টলারেন্স দেখিয়ে আইনগত কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন।

জাতীয় সংসদে দেওয়া প্রতিটি বক্তব্যে খসরু চৌধুরী অবহেলিত ঢাকা-১৮ আসনের উন্নয়নে পর্যাপ্ত বরাদ্দ চেয়েছেন। মাদক, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ-মুক্ত ঢাকা-১৮ আসন গড়ার প্রত্যয় ব্যখ্ত করেছেন। ২০১৮ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ঢাকা-১৮ আসনের নাগরিকদের কর ও হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফ করার বিষয়ে একাধিকবার মাননীয় স্পিকার, অর্থমন্ত্রী ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

"সম্প্রতি জাতীয় সংসদে মোঃ খসরু চৌধুরী (১৯১ ঢাকা-১৮): স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (স্থানীয় সরকার বিভাগ) মন্ত্রীর কাছে ঢাকা-১৮ আসনের রাস্তাগুলোর কাজ কবে নাগাদ শেষ হবে সেটি জানতে চেয়েছিলেন। উত্তরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম জানিয়েছেন,  ঢাকা-১৮ আসনের ইউনিয়ন হতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে সংযুক্ত ওয়ার্ডসমূহের (ওয়ার্ড নং-৪৪, ৪৫, ৪৬, ৫১, ৫২, ৫৩ ও ৫৪) “নতুনভাবে অন্তর্ভুক্ত ১৮ (আঠারো)টি ওয়ার্ড উন্নয়ন” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২৪ ইসিবি কর্তৃক রাস্তা উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে। উক্ত কাজগুলো আগামী নভেম্বর ২০২৪ এর মধ্যে সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়াও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের অঞ্চল-৭ এ সংযুক্ত ওয়ার্ডসমূহ (ওয়ার্ড নং- ৪৭, ৪৮, ৪৯ ও ৫০) এর ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাসমূহ উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ওয়ার্ডগুলোর উন্নয়ন কাজ ৩১ ডিসেম্বর, ২০২৪ তারিখের মধ্যে সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে।"

মো. খসরু চৌধুরী এমপির ছয় মাসের কার্যক্রম মূল্যায়ন করতে গিয়ে বৃহত্তর উত্তরা থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও উত্তরখান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মিলন বলেন, বিগত বছর গুলোতে ঢাকা-১৮ আসন ছিলো উন্নয়ন বঞ্চিত। তবে খসরু চৌধুরী ঢাকা-১৮ আসনের মানুষের দুঃখ-দুর্দশা দূর করতে নিরলস-ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আশাকরি তিনি সফল হবেন।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য কাজী সালাউদ্দিন পিন্টু বলেন, এমপি নির্বাচিত হওয়ার আগে খসরু চৌধুরী যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তিনি তা বাস্তবায়ন করতে কাজ করছেন। তিনি ৫ বছর তথা ৬০ মাসের জন্য এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। মাত্র ৬ মাস অতিবাহিত হয়েছে সামনে রয়েছে ৫৪ মাস। তিনি আগে এমপি না হয়েও মানুষের জন্য কাজ করেছেন। এখন এমপি হয়ে দিনের পুরোটা সময়ই মানুষের জন্য কাজ করছেন। তিনি যে ইশতেহার দিয়েছেন তা শতভাগ বাস্তবায়ন হবে ইনশাআল্লাহ।


আরও খবর



ব্রাজিলকে আটকে দিলো কোস্টারিকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৮৬জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:ব্রাজিলের জন্য কোপা আমেরিকায় নিজেদের প্রথম ম্যাচটা সুখকর হলো না। মঙ্গলবার (২৫ জুন) যুক্তরাষ্ট্রের সোফাই স্টেডিয়ামে কোস্টারিকার বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করেছে সেলেসাওরা। পুরো ম্যাচে ৭৩ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রাখলেও মাত্র মাত্র তিনটি শট অন-টার্গেটে রাখতে পেরেছে দরিভাল জুনিয়রের দল।

একের পর এক গোল মিসে হতাশ করেছেন ব্রাজিলের তারকায় ঠাসা দলটি। এক গোল বাতিলের পর দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক মিস করে কেবল হতাশাই বাড়িয়েছেন দোরিভাল জুনিয়র শিষ্যরা। লুকাস পাকেতা, রদ্রিগো, ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, রাফিনহাদের নিয়ে আক্রমণভাগ সাজিয়েছিলেন কোচ দোরিভাল জুনিয়র। বদলি হিসেবে নেমেছিলেন এন্ড্রিক ফিলিপে। শেষ দিকে গোলের আশায় গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেল্লিকেও নামানো হয়েছিল। কিন্তু হতাশাটাই শেষ পর্যন্ত সঙ্গী হয়েছে তাদের।

ম্যাচের শুরু থেকে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরে ব্রাজিলিয়ানরা। তবে ভাঙা যায়নি কোস্টারিকার রক্ষণ। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে অবশ্য গোল পেয়েছিল সেলেসাওরা। রাফিনিয়ার ফ্রি কিক থেকে রদ্রিগোর কাছ থেকে বল পেয়ে গোল করেন মার্কুইনহোস। তবে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারিতে (ভিএআর) বাতিল হয় গোলটি। কারণ রাফিনিয়া যখন ফ্রি কিক নিচ্ছিলেন, তখন অফসাইডে ছিলেন রদ্রিগো।


আরও খবর



বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন জানিয়েছেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠানসমূহ চালু করার পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে বলে।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সংসদে টেবিলে উপস্থাপিত সরকারি দলের সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৩৯৭টি। বন্ধ থাকা শিল্প প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বিসিকের নিয়ন্ত্রণাধীন রুগ্ণ/বন্ধ শিল্প ৩৮২টি, বিসিআইসির নিয়ন্ত্রণাধীন বন্ধ ৫টি, বিএসএফআইসির নিয়ন্ত্রণাধীন স্থগিত চিনিকল ৬টি, বিএসইসির ৪টিসহ মোট ৩৯৭টি। সরকারের গৃহীত পদক্ষেপে চলতি অর্থবছরে ১২৩টি বন্ধ/রুগ্ণ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালু হয়েছে।

স্বতন্ত্র সদস্য আব্দুল কাদের আজাদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে শিল্পমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার আন্তর্জাতিক ও বহুজাতিক কোম্পানিকে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আকৃষ্ট করাসহ বিনিয়োগ সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষে ২০০৯ থেকে ২০২৩ সময়কাল পর্যন্ত সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এবং সাফল্যও এসেছে।

নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেন, বিসিকের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় ২০২৩-২৪ অর্থবছরে ৫টি শিল্পনগরী, ৩টি শিল্পপার্ক ও ২টি অন্যান্যসহ মোট ১০টি প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়িত হলে ৩ হাজার ৮১১টি শিল্প প্লটে সম্ভাব্য ৩ হাজার ৫৬৫টি শিল্প ইউনিট স্থাপিত হবে। ২০২৩-২০২৪ অর্থবছরে আরএডিপিতে সবুজপাতাভুক্ত ১১টি প্রকল্প রয়েছে।

তিনি বলেন, বিনিয়োগে উৎসাহিতকরণের লক্ষে বিসিক কর্তৃক ১২২টি শিল্প প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে ১৬৭টি শিল্প পল্ট বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। বিসিক উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগে উৎসাহিত করার লক্ষে হোসিয়ারি শিল্পনগরী, পঞ্চবটি, নারায়ণগঞ্জ, জামদানি শিল্পনগরী, তারাবো, নারায়ণগঞ্জ, চামড়া শিল্পনগরী, সাভার, ঢাকা; এপিআই শিল্পপার্ক, গজারিয়া, মুন্সিগঞ্জ এবং বিসিক বৈদ্যুতিক পণ্য উৎপাদন ও হালকা প্রকৌশল শিল্পনগরী, মুন্সিগঞ্জ শীর্ষক বিশেষায়িত শিল্পনগরী/শিল্পপার্ক বাস্তবায়িত হয়েছে।


আরও খবর



কোরবানির বর্জ্য ঢাকার ২ সিটির শতভাগ অপসারণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৮১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:কোরবানির বর্জ্য ঢাকার দুই সিটির শতভাগ অপসরণ করা হয়েছে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম এবং দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবু নাছের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ডিএনসিসির মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, সবার সহযোগিতায় পূর্ব ঘোষিত ছয় ঘণ্টায় ঢাকা উত্তর সিটির কোরবানির বর্জ্য শতভাগ অপসারণ করা সম্ভব হয়েছে। সচেতন নাগরিকদের আন্তরিক সহযোগিতায় এটি করতে পেরেছি। আমি নগরবাসীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। আগামী দিনেও ঢাকা শহরকে পরিচ্ছন্ন রাখতে জনগণ ও সিটি করপোরেশনকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) ৭৫টি ওয়ার্ডের সব ওয়ার্ড হতে কোরবানির পশুর শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে। সোমবার রাত সোয়া ১২টায় ৬২ নম্বর ওয়ার্ডের বর্জ্য অপসারণের মধ্য দিয়ে কোরবানি দেওয়া সব পশুর শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করা হলো।

দক্ষিণ সিটির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবু নাছের জানান, আজ (সোমবার) রাত ১২টা পর্যন্ত হালনাগাদ তথ্যানুযায়ী ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১১টি স্থায়ী-অস্থায়ী কোরবানির পশুর হাটে মধ্যে ৬টি হাট হতে শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে।


আরও খবর



স্বেচ্ছাশ্রমে ৫০০ শত ফুট লম্বা সাঁকো

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ জুলাই 2০২4 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৬১জন দেখেছেন

Image

র‌নি ছাতক সুনামগঞ্জ প্রতি‌নি‌ধি:সুনামগঞ্জের ছাতকে গোবিন্দগঞ্জ-বিনন্দপুর সড়কের বটেরখাল নদীর তীরবর্তী কাঁচারবাড়ি নামক স্থানে পৃথক দুটি ভাঙন দেখা দেয় ২০২২ সালের ভয়াবহ বন্যায়।

এলাকাবাসীর কাছে বাঁশর পুল’ নামে পরিচিত। ওই এলাকায় ভাঙনে শুধু রাস্তা নয়, ২৫-৩০টি বাড়িঘরও নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। রাস্তা ভেঙে নদীগর্ভে। স্থানীয় লোকজন স্বেচ্ছাশ্রমে ভাঙনকবলিত স্থানে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করেছেন। গত মঙ্গলবার সুনামগঞ্জের ছাতকে গোবিন্দগঞ্জ-বিনন্দপুর সড়কের বটেরখাল

নদীর তীরবর্তী কাঁচারবাড়ি এলাকায়। নদীর পাড় ছিল চলাচলের রাস্তা। কয়েক বছর আগে ভাঙনে ওই রাস্তা নদীগর্ভে চলে যায়। এতে দুর্ভোগে পড়েন লক্ষা‌ধিক লোকজন। এ পরিস্থিতিতে তাঁরা চলাচলের জন্য স্বেচ্ছাশ্রমে প্রতিবছর ভাঙন কবলিত স্থানে বাঁশ দিয়ে প্রায় ৫০০ শত ফুট লম্বা সাঁকো নির্মাণ করেন।

এ ভাঙনের কারণে চরম দূর্ভোগে পড়েন এলাকার ২৫-৩০টি গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ। বিশেষ করে স্কুল কলেজ, মাদরাসার শিক্ষার্থীসহ মুমুর্ষ রোগিদের যাতায়াতে ভূগান্তির যেন শেষ নেই। মানুষের এ দীর্ঘ ভূগান্তির লাঘবে কোন জনপ্রতিনিরা এগিয়ে না আসায় যাতায়াতে দু'টি ভাঙনে বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করে প্রসংসায় ভাসছেন কয়েকজন উদ্যোক্তা।

সরেজমিন মঙ্গলবার নির্মানাধিন বাঁশের সেতু দু'টি দেখতে গিয়ে দেখা হয় মূল উদ্যোক্তা, স্থানীয় গোবিন্দনগর কোনাপাড়া গ্রামের মৃত নুর গণির ছেলে, গোবিন্দগঞ্জ বাজারের ডেকোরেটার্স ব্যবসায়ী আলী হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, কাঁচারবাড়ি নামক স্থানে দু'টি ভাঙনের ফলে এলাকার মানুষ চরম দূর্ভোগে পড়েছেন। ওয়ার্ড মেম্বার ও চেয়ারম‌্যান থেকে শুরু করে স্থানীয় সংসদ সদস্য পর্যন্ত কোন জন প্রতিনিধিরা এগিয়ে আসেননি। অবশেষে তারা এলাকার সাবেক মেম্বার শামছুল ইসলাম, তরুন ব্যবসায়ী আবদুল মুহিত শাকিল ও মকবুল হোসেনের সা‌বিক সহযোগিতা নিয়ে এ ভাঙনে বাঁশের সাঁকো নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।

৮জন শ্রমিক নিয়ে এলাকার বিভিন্ন গ্রাম থেকে সাড়ে ৩শ' থেকে ৪শ' বাঁশ সংগ্রহ করেন। বাজার থেকে বাঁশের সাঁকো নির্মাণের সামগ্রী ক্রয় করে শুরু করেন নির্মাণ কাজ। মঙ্গলবার সেতুর কাজ প্রায় ৯০ ভাগ শেষ হলে এলাকার মানুষ বাঁশের সাঁকো দিয়ে চলাচল করছেন।

বাঁশের সাঁকো দিয়ে চলাচলকারীরা হ‌চ্ছেন , দশঘর, গোবিন্দনগর, ভটেরগাঁও, হরিনগর, হাওলী, শ্যামনগর, কৃঞ্চনগর, মালিকান্দি, বিশ্বম্ভরপুর, লক্ষীপুর, বিনন্দপুর, একানিধা সিংগুয়া, বিলপারসহ বিভিন্ন গ্রামের প্রায় লাখো মানুষ এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করে। তারা গুরুত্বপূর্ন এ রাস্তার ভাঙন দু'টি মেরামতে জনপ্রতিনিধিদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।

গোবিন্দগঞ্জের ব্যবসায়ী, সাঁকো তৈরির অন্যতম উদ্যোক্তা আবদুল আবদুল মুহিত শাকিল জানান,বলেন, বাঁশের সাঁকোটি প্রায় ৫শ' ফুট দৈর্ঘ্য। দেখতে সাঁকোটি সেতুর মতো। স্বেচ্ছাশ্রমে সাঁকোটি তৈরি করা হয়েছে। একই বক্তব্য দেন উদ্যোক্তা সাবেক মেম্বার শামছুল ইসলাম।

দশঘর গ্রামের বাসিন্দা, নোয়াপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রেজ্জাদ আহমেদ বলেন, ২০২২ সালের ভয়াবহ বন্যায় কাঁচারবাড়ি নামক এ স্থানে পৃথক দু'টি ভাঙনের সৃষ্টি হয়। এর পর থেকে মেরামতের কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি। মানুষ চলাচলের জন্য  যারা বাঁশ দিয়ে সাঁকো তৈরি করে দিয়েছেন তিনি তাদের ধন্যবাদ জানান।


আরও খবর



ইরানের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মাসুদ পেজেশকিয়ান

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১০৮জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:মাসুদ পেজেশকিয়ান ইরানের নবম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। ইরানের সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও প্রবীণ এই সংসদ সদস্য শুক্রবার (৫ জুলাই) অনুষ্ঠিত ১৪তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্বের ভোটাভুটিতে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে বিজয়ী হন।

নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট পেজেশকিয়ান পেয়েছেন এক কোটি ৬৩ লাখ ৮৪ হাজার ৪০৩ ভোট। অন্যদিকে সাবেক প্রধান পরমাণু আলোচক সাঈদ জালিলির প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা এক কোটি ৩৫ লাখ ৩৮ হাজার ১৭৯।

দেশটির নির্বাচন কমিশনের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে ইরানের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যম। এই জয়ের মধ্যে দিয়ে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পূর্বসূরী প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন পেজেশকিয়ান।

১৯৫৪ সালে জন্মগ্রহণকারী নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট পেজেশকিয়ান হার্ট সার্জারিতে বিশেষজ্ঞ ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ২০০১ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত ইরানের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ইরানের উত্তরাঞ্চলীয় তাবরিজ অঞ্চল থেকে ৫ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া, তার ঝুলিতে রয়েছে ইরানের দশম জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকারের দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতা।

শুক্রবার দ্বিতীয় রাউন্ডের নির্বাচনের ভোট গ্রহণের সময়সীমা সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত থাকলেও তা কয়েক দফায় বাড়িয়ে রাত ১২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে।

নির্বাচনে লড়াই হয়েছে মূলত সাঈদ জালিলি ও মাসুদ পেজেশকিয়ানের মধ্যে। ইরানের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে জালিলি কট্টরপন্থি এবং মাসুদ সংস্কারপন্থি রাজনীতিক হিসেবে পরিচিত। তবে উভয়েই দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির ঘনিষ্ঠ।

এবারের নির্বাচনে মোট প্রার্থী ছিলেন ৬ জন। এরা হলেন মোস্তফা পুরমোহাম্মাদী, সাঈদ জালিলি, মোহাম্মদ বাকের কলিবফ, আলী রেজা যাকানি, সাইয়্যেদ আমির হোসেন কাজীজাদেহ হাশেমি ও মাসুদ পেজেশকিয়ান।

নিজ মেয়াদের আড়াই বছরের মাথায় গত ২০মে ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত হন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি। তার মৃত্যুর পর পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করে দেশটিতে ক্ষমতাসীন কট্টর ইসলামপন্থি সরকার। সেই তারিখ ছিল ২৮ জুন।

সূত্র: আলজাজিরা।


আরও খবর