Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

মানিকগঞ্জে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা।

প্রকাশিত:Tuesday ২৫ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ২৭৬জন দেখেছেন
Image

প্রধান শিক্ষক আব্দুল রহিম

বজলুর রহমান

করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। কিন্তু সরকারি নির্দেশ অমান্য করে এবং সাস্থ ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস নিচ্ছেন মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর থানার মানিক নগর বাজারের পদ্মা আইডিয়াল কিন্ডার গার্ডেনের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম। তিনি প্রতিষ্ঠান খোলা রেখে নিয়মিত ক্লাস পরিচালনা করে আসছেন। মঙ্গলবার সকালে এই দৃশ্য এলাকার অভিভাবকদের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।


পরে সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে দ্রুত শিক্ষার্থীদের ছুটি দিয়ে দেন প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জানায় জোর করে তাদের ক্লাসে আসতে বাধ্য করছেন প্রধান শিক্ষক। তারা আরো জানায় স্কুলে অনুপস্থিত থাকলে তাদের স্কুল থেকে বের করে দেওয়া হবে। এই হুমকির মুখে তারা স্কুলে আসতে বাধ্য হচ্ছে।


স্কুলে গিয়ে দেখা যায় সকল শিক্ষক উপস্থিত। প্রধান শিক্ষক কাজে ব্যস্ত। প্রতিষ্ঠানের সামনে জাতীয় পতাকা উড়ছে। কয়েকজন শিক্ষক জানায় তারা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন কিন্তু প্রধান শিক্ষক কিছুতেই মানেন না সরকারি নির্দেশনা। প্রধান শিক্ষক বলেন সরকারি নিয়ম মানলে প্রতিষ্ঠান চালানো যাবেনা।


কয়েকজন সাংবাদিক প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিমকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি জানান আপনারা এত খারাপ কেন। আমার প্রতিষ্ঠান খোলা রাখি আর বন্ধ রাখি সেটা আমার ব্যাপার। সরকারের সব সিদ্ধান্ত মেনে আমার প্রতিষ্ঠান চালাতে পারবো না।


এই বিষয়ে মানিকগঞ্জ হরিরামপুর সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মাহফুজা আক্তার বলেন বিষয়টি আমি শিক্ষা অফিসার কে জানাচ্ছি এবং বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নিতে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে।


আরও খবর



ঢাকা জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক জাহানারা বেগম ওমরাহ পালনের উদ্দেশ্যে মক্কা নগরীতে অবস্থান করছেন

ঢাকা জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক জাহানারা বেগম ওমরাহ পালনে পবিত্র মক্কা নগরীতে অবস্থান করছেন

প্রকাশিত:Sunday ১৫ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১১৩জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ

ঢাকা জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক জাহানারা বেগম ওমরাহ পালনের উদ্দেশ্যে গত ১৩ মে সৌদি আরবের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেন।


শুক্রবার ১৩ মে রাতে কাতার এয়ারলাইন্সের বিমানে তিনি সৌদি আরবের জেদ্দা বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান।


এ সময় তার সফর সঙ্গী হিসেবে জাহানারা বেগমের মা আনোয়ারা বেগম এবং মামী জোহরা খাতুন সঙ্গে ছিলেন।


আজ তারা সকলে সাফা মারওয়া সাতবার প্রদক্ষিন শেষে ওমরা হজের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছেন।

বর্তমানে তারা সকলে মক্কার একটি তিন তারকা হোটেলে অবস্থান করছেন।


২০ মে সকালে তারা মদিনা শরীফের উদ্দেশ্যে মক্কা নগরী ত্যাগ করবেন।


যথারীতি ওমরা হজের সকল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হলে ২৮ মে বিকেলের ফ্লাইটে তারা ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দিবেন।


জাহানারা বেগম জানান এ সময় তিনি দেশবাসী সহ কেরানীগঞ্জের সকল  আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীর জন্য বিশেষভাবে দোয়া করবেন।


আরও খবর



কুমিল্লায় মানবজমিন পত্রিকার প্রতিনিধিসহ সারাদেশের সাংবাদিকদের ওপর হামলা-মামলা ও নির্যাতনের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৭৫জন দেখেছেন
Image

বজলুর রহমানঃ

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) রাজধানীর যাত্রাবাড়ী সাংবাদিক ক্লাবের আয়োজনে মানববন্ধন ও সভা অনুষ্ঠিত হয়। এনটিভির সিনিয়র নিউজ রুম এডিটর ও যাত্রাবাড়ী সাংবাদিক ক্লাব এর সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম শাকিলের সঞ্চালনায় দৈনিক দিন প্রতিদিনের সম্পাদক ও যাত্রাবাড়ী সাংবাদিক ক্লাব এর সভাপতি মো: শফিকুল ইসলাম সাদ্দামের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) এর প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আহমেদ আবু জাফর।


বক্তব্য রাখেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন ডিইউজের দপ্তর সম্পদক আমিরুল ইসলাম ওমর, খোরশেদ আলম সিকদার (যুগান্তর) যাত্রাবাড়ী সাংবাদিক ক্লাব এর সাংগঠনিক সম্পাদক আলাউদ্দিন আজাদ (ভোরের সময়), দপ্তর সম্পাদক মুন্সী আল ইমরান (চ্যানেল23), প্রচার সম্পাদক অমর মজুমদার (আলোকিত সকাল), সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো.শরীফুল হক (তথ্যবাণী), মহিলা সম্পাদিকা আফিফা নওশীন, বজলুর রহমান (দৈনিক আমাদের কণ্ঠ) মোগল সম্রাট, এম জে কিবরিয়া (দিন প্রতিদিন), শ্যামপুর থানা প্রেসক্লাবের সভাপতি মো: জনি, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মনির হোসেন, মশিউর রহমান সুজন, সাইফুল ইসলাম পারভেজ প্রমূখ।


এসময় সাংবাদিক নেতারা বলেন সারাদেশে সাংবাদিকদের ওপর যে বর্বরোচিত হামলার ঘটনা ঘটছে এর কোন প্রতিকার নেই। এধরনের ন্যক্কারজনক ঘটনা থেকে সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধের বিকল্প নেই। এবং সাংবাদিকদের নির্যাতনের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে রাষ্ট্রের কাছে যুগোপযোগী আইন প্রণয়নের দাবি জানান।


আরও খবর



ফেরিতে জুয়ার আসর বসানোর দায়ে চার জুয়ারী আটক

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৮৬জন দেখেছেন
Image

এ আর হনিফঃ

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া নৌপথে চলাচলরত ফেরিগুলোতে জুয়ারীদের উপদ্রব বেড়েছে।



 এসব জুয়াড়িরা ফেরিতে জুয়া খেলার আয়োজন করে নিঃস্ব করছে যাত্রী ও চালকদের। 


শুক্রবার (২০ মে) দিবাগত রাতে দৌলতদিয়ার ৫নং ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া রো রো ফেরি কেরামত আলী মাঝ নদীতে পৌঁছালে যাত্রী বেশে থাকা নৌ-পুলিশ চার জুয়াড়িকে গ্রেফতার করে।


তারা হলেন- গোয়ালন্দ উপজেলার উত্তর দৌলতদিয়া সিদ্দিক কাজীপাড়া এলাকার মৃত মোবারক মোল্লার ছেলে বরকত মোল্লা (৪২), উত্তর দৌলতদিয়া ঢল্লাপাড়া এলাকার মৃত নবু খাঁর ছেলে নুরু খাঁ (৫৩), বাহিরচর দৌলতদিয়া শাহাদৎ মেম্বারপাড়া এলাকার অকেল মোল্লার ছেলে উসমান মোল্লা (৫৪) ও একই গ্রামের মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে সাগর হোসেন (৩৭)।


গ্রেফতার জুয়াড়িদের দেওয়া ভাষ্যমতে একই গ্রামের মৃত মোহন সিকদারের ছেলে রেজাউল সিকদারও (৩০) ফেরিটিতে ছিলেন। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আগেই পালিয়ে যান।


 এ সময় পুলিশ তাদের কাছ থেকে তাস, কুপি বাতি, জুয়া খেলার একটি বোর্ড ও নগদ টাকা জব্দ করে। তাদেরকে আজ দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজিজুল হক খান।


পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তারা দীর্ঘদিন ধরে নেশা ও জুয়ার সঙ্গে জড়িত। এর মধ্যে উসমান মোল্লা ফেরিতে জুয়া খেলার সময় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছিলেন। কারাগার থেকে গত বৃহস্পতিবার বের হয়ে আবার ফেরিতে জুয়া খেলা শুরু করেন।


ঘাট সংশ্লিষ্টরা জানান, প্রায় রাতে ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া ফেরি মাঝ নদীতে পৌঁছলে ইঞ্জিন চালিত নৌকা থেকে তারা ফেরিতে উঠে পড়ে। 


ফেরির এক কোনায় কুপি বাতি জ্বালিয়ে প্রথমে নিজেরা ৪-৫ জন বসে তাস নিয়ে খেলা শুরু করে। এ সময় যাত্রী বা গাড়ি চালক খেলায় আগ্রহ দেখালে সংঘবদ্ধ সদস্যরা টাকা পয়সা, মূল্যবান জিনিসপত্র কেড়ে নেয়। কেউ এগিয়ে গেলে ধারালো ছুরি বা চাকু দিয়ে আঘাত করে দ্রুত নৌকা নিয়ে সটকে পড়ে।


দৌলতদিয়া নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক সৈয়দ জাকির হোসেন বলেন, ‘শুক্রবার রাত পৌনে ১২টার দিকে দৌলতদিয়ার ৫নং ঘাট থেকে ছাড়া কেরামত আলী রো রো ফেরিতে জুয়াড়ি চক্রের সদস্যরা উঠছে সংবাদ পেয়ে যাত্রী বেশে কয়েকজন পুলিশ আগে থেকে অবস্থান নেয়। ফেরিটি কিছু দূর যেতেই কুপি বাতি জালিয়ে জুয়া খেলা শুরু করলে হাতেনাতে চার জনকে আটক করি।’


তিনি আরও বলেন, ‘এরা নেশার সঙ্গে জড়িত থাকায় টাকা জোগাড় করতে এ ধরনের কাজে জড়িয়ে পড়ে। এ ক্ষেত্রে প্রতিটি ফেরিতে পুলিশ দেওয়া সম্ভব হয় না। যে ফেরিতে পুলিশ থাকে না নিশ্চিত হওয়ার পর ওই ফেরিতেই জুয়ার আসর বসায়। এ ছাড়া যে ফেরিতে তারা জুয়ার আসর বসায়, সেই ফেরিতে থাকা ডিম বিক্রেতা, ঝাল মুড়ি বিক্রেতাসহ বিভিন্ন হকাররা জুয়াড়িদের গোপনে খবর আদান প্রদান করে। বিনিময়ে জুয়াড়িরা হকারদের কিছু টাকা দেয়।’



আরও খবর



নৌকায় করে মালেয়শিয়া যাওয়ার পথে দুর্ঘটনা

সমুদ্র সৈকত থেকে ১২জন রোহিঙ্গা নারী ও শিশুর লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

মিয়ানমারের সমুদ্রের একটি সৈকতে ১৪ জন রোহিঙ্গার মৃতদেহ পাওয়া গেছে। 


স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে সোমবার (২৩ মে) এমনটি জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।


 

 স্থানীয় একজন রোহিঙ্গা অ্যাক্টিভিস্ট জানান, পশ্চিম মিয়ানমার থেকে নৌকায় করে মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন রোহিঙ্গারা।


মিয়ানমারের রাজধানী ইয়াঙ্গুন থেকে ২০০ কিলোমিটার পশ্চিমে অবস্থিত প্যাথেইন জেলার পুলিশের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল তুন শোয়ে বলেন, চৌদ্দটি মৃতদেহ পাওয়া গেছে।


  নৌকার মালিকসহ ৩৫জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মিয়ানমার রেসকিউ অর্গানাইজেশন প্যাথেইনের সদস্য বলেন, রোববার (২২ মে) আটজন রোহিঙ্গার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।


 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একজন রোহিঙ্গা অ্যাক্টিভিস্ট জানান, নিহতদের মধ্যে ১২ জন নারী ও দুই শিশু রয়েছে। নৌকাটি মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের বুথিডাং, মংডু এবং সিত্তওয়ে শহর থেকে লোকদের নিয়ে যাচ্ছিল।


 

২০১৭ সালে সেনা অভিযানের জেরে মিয়ানমার থেকে লাখ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে যায়। এদের মধ্যে বেশিরভাগই বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয়। প্রতি বছর শত শত রোহিঙ্গা সমুদ্রপথে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার অন্যান্য দেশে যাওয়ার চেষ্টা চালায়।


আরও খবর



বঙ্গোপসাগরে জাহাজ ডুবি

বঙ্গোপসাগরে গম বোঝাই জাহাজ ডুবি

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১১৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

বঙ্গোপসাগরে প্রায় ৬ কোটি ৬৪ লাখ টাকার গমসহ  ডুবে গেছে লাইটার জাহাজ ‘এমভি তামিম’।  


বুধবার (১৮ মে) বিকেল ৩টার দিকে জাহাজটি রামগতি পাইলট বিচের নিচে তিল্লার চর এলাকায় ডুবে যায়।


আগের দিন মঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে অবস্থানরত বড় জাহাজ ‘এমভি প্রোফেল গ্রেস’ থেকে প্রায় ১ হাজার ৬০০ টন গম বোঝাই করে ঢাকার নাবিল অটো ফ্লাওয়ার মিলের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছিল জাহাজটি। 


দুর্ঘটনার পর জাহাজটির ১২ জন নাবিককে অপর একটি জাহাজ এসে উদ্ধার করেছে।


এমভি তামিম জাহাজটি ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট সেলের (ডব্লিউটিসি) সিরিয়ালে পরিচালনা করছিল সমতা শিপিং অ্যান্ড লজিস্টিকস। সমতার কর্মকর্তা জামাল হোসেন  জানান, চলার পথে পানির নিচে অদৃশ্য বস্তুর সঙ্গে লেগে জাহাজের সামনের হেজ ফেটে যায়।


এ সময় হেজে পানি ঢুকে যায়। পরে মাঝের ও সামনের হেজেও পানি ঢুকে জাহাজটি ডুবে যায়।


শুধু জাহাজের ব্রিজ দেখা যাচ্ছে। নাবিকদের নিরাপদে উদ্ধার করা হয়েছে।  




আরও খবর