Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

মানবতাবিরোধী অপরাধ: হবিগঞ্জের শফিউদ্দিনসহ ৫ জনের রায় ৩০ জুন

প্রকাশিত:Tuesday ২৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৮৩জন দেখেছেন
Image

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় সংঘটিত হত্যা, গণহত্যা ও ধর্ষণসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে করা মামলায় হবিগঞ্জের লাখাইয়ের মো. শফি উদ্দিনসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণার জন্য আগামী ৩০ জুন দিন ঠিক করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যাল।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- মো. তাজুল ইসলাম, মো. জাহেদ মিয়া, ছালেক মিয়া ও সাব্বির আহমেদ।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যদের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ দিন নির্ধারণ করেন।

এর আগে গত ১৭ মে প্রসিকিউশন ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক শুনানির পর এর ট্রাইব্যুনাল রায়ের জন্য অপেক্ষায় রেখেছিলেন।

ওইদিন আদালত রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন প্রসিকিউটর সুলতান মাহমুদ সিমন। আসামিপক্ষে শুনানি করেন আব্দুস সাত্তার পালোয়ান, গাজী তামিম।

প্রসিকিউটর সিমন সেদিন বলেন, আসামিদের বিরুদ্ধে দুটি অভিযোগে প্রসিকিউশন যথাযথভাবে সাক্ষ্য-প্রমাণ তুলে ধরেছে। অভিযোগ দুটি প্রমাণ করতে পেরেছি বলে মনে করি। আশা করছি আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।

তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী গাজী তামিমের দাবি, অভিযোগ প্রমাণ করতে প্রসিকিউশন ব্যর্থ হয়েছে। আসামিরা খালাস পাবেন।

২০১৮ সালের ২১ মার্চ এ মামলায় পাঁচজনের বিরুদ্ধে তদন্ত শেষ করে প্রসিকিউশনে প্রতিবেদন দাখিল করে তদন্ত সংস্থা। যাচাই-বাছাই শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে দুটি অভিযোগ আনতে ট্রাইব্যুনালে আনুষ্ঠানিক অভিযোগপত্র দাখিল করে প্রসিকিউশন।

এরপর পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, অপহরণ, আটক, নির্যাতন ও হত্যার মতো বিভিন্ন মানবতাবিরোধী অপরাধের দুটি অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু করেন ট্রাইব্যুনাল।


আরও খবর



আজকের জোকস: জন্মের ১০ বছর পর যা হয়

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

জন্মের ১০ বছর পর যা হয়

শিক্ষক: বল তো ১৮০৯ সালে কে জন্মেছিল?
ছাত্র: আব্রাহাম লিংকন।
শিক্ষক: ১৮১৯ সালে কী ঘটেছিল?
ছাত্র: তার ১০ বছর বয়স হয়েছিল স্যার।

****

চিড়িয়াখানায় বাঘ দেখতে বাবা-ছেলে
চিড়িয়াখানায় বাঘের খাঁচার সামনে দাঁড়িয়ে বাবা ছেলেকে বলছিলেন, বাঘ কত ভয়ংকর প্রাণি, কী ভীষণ হিংস্র সে!
ছেলে: (কাঁদো কাঁদো হয়ে) বাবা, এই বাঘ যদি তোমাকে খেয়ে ফেলে...!
বাবা: (আদুরে স্বরে) কী হবে তাহলে?
ছেলে: আমি বাসায় যাব কীভাবে!

****

নেতার ঘরে আগুন
এক নেতা গ্রেফতার হওয়ার পর তার কর্মীরা মিছিল করছে—
কর্মী: নেতা ভাইয়ের কিছু হলে, জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে।
নেতা: দেখিস, দেখিস, আমার ঘরে আবার আগুন দিস না। 


আরও খবর



চারঘাটে বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:Thursday ২১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

রাজশাহীর চারঘাটে মানসুর রহমান (৭০) নামে এক বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যার দায়ে প্রধান আসামি রোমান হোসেন সেতুকে (২৩) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল আদালত। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অপর আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার এ রায় ঘোষণা করেন। এসময় প্রধান আসামি রোমান হোসেন সেতু আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন।

রায় ঘোষণার পর তাকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়ে দেয় কোর্ট পুলিশ। তিনি রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার শলুয়া ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের মোফাজ্জেল হোসেন মোফার ছেলে। আর বেকসুর খালাসপ্রাপ্ত আসামি ইবনে আকাওয়াদ শাওন (৩০) একই গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে।

রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু জানান, ২০২০ সালরে ১৩ ডিসেম্বর গভীর রাতে রাজশাহীর চারঘাট থানার শলুয়া ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের ৭০ বছরের বৃদ্ধ মানসুর রহমানকে নিজ বাড়িতে গলা কেটে হত্যা করা হয়। ওই রাতে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। পরে দ্রুতই চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করে রাজশাহী জেলা পুলিশ।

মানসুর রহমানকে খুনের ঘটনার পরপরই সন্দেহভাজন এ দুজনকে গ্রেফতার করে চারঘাট থানা পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গ্রেফতার এ দুজন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে তারা জানান, মূলত অর্থের লোভেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। তারা জানতেন যে, বৃদ্ধ মানসুর রহমান তার নিজ বাড়িতে একাই থাকেন। সেতু ও শাওন এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে তার বাড়িতে চুরির পরিকল্পনা করেন। তবে পরিকল্পনার অংশ হিসেবে চুরি করতে গেলে টের পেয়ে যান মানসুর রহমান। এসময় অ্যান্টি কার্টার দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয় বৃদ্ধ মানসুর রহমানকে। এরপর তার রক্তাক্ত মরদেহ ফেলে পালিয়ে যান দুজন।

অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু বলেন, স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ার পর তাদের অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে চারঘাট থানা পুলিশ। এরপর আদালতে বিচার কাজ শুরু হয়। পরে এ মামলায় মোট ২৭ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য নেওয়া হয়। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে উভয়পক্ষের আইনজীবীর যুক্তিতর্ক সম্পন্ন হয়। এরপর বৃহস্পতিবার আদালত রায় ঘোষণা করেন।


আরও খবর



ইমরান খানের বাড়ি ঘিরে পুলিশি পাহারা

প্রকাশিত:Wednesday ১০ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | জন দেখেছেন
Image

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খানের অন্যতম সহযোগী শাহবাজ গিল গ্রেফতার হওয়ার পর তার বাড়ি ঘিরে পুলিশি পাহারা জোরদার করা হয়েছে। রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে জনসাধারণকে উসকানি দেওয়ার অভিযোগে মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) শাহবাজ গিলকে গ্রেফতার করে ইসলামাবাদ পুলিশ।

ইমরান খানের বাসভবন বানিগালার দিকে আন্দোলনের খবর পাওয়ার পর পিটিআই প্রধানের সুরক্ষার জন্য পাঞ্জাবের পুলিশকে পাঠানোর কথা জানিয়েছেন পাকিস্তান মুসলিম লীগ কায়েদ (পিএমএল-কিউ) নেতা মুনিস এলাহি। এক টুইটার বার্তায় এলাহি লেখেন, বানিগালার দিকে আন্দোলনের খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হচ্ছে।

পাকিস্তানের এক সংবাদিকও টুইটারে নিশ্চিত করেন যে মুনিস এলাহি বানিগালার দিকে পুলিশ পাঠিয়েছেন। এর আগে ইমরান খানের বাড়িতে অভিযানের গুজব ছড়িয়ে পড়ে। পরে তার সুরক্ষায় দেওয়ার জন্য এ ব্যবস্থা নেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

Imran-khan-body

এর আগে, ইসলামাবাদ পুলিশের একজন মুখপাত্র জানান, পিটিআই নেতা শাহবাজ গিলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বানিগালা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ও তাদের প্রধানদের বিরুদ্ধে জনগণকে উসকানি দেওয়ার অভিযোগও আনা হয়েছে শাহবাজ গিলের বিরুদ্ধে।

ইমরান খান শাহবাজ গিলকে গ্রেফতারের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। এটি গ্রেফতার নয়, তুলে নেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। রাজনৈতিক নেতাদের শত্রু বলে বিবেচনা করা হচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। তিনি শাহবাজ শরিফের সরকারকে আবারও বিদেশি মদদপুষ্ট বলে উল্লেখ করেন টুইটারে।

সূত্র: এএনআই, এনডিটিভি


আরও খবর



গ্যাস সংকটে ৩৬ দিন বন্ধ যমুনা সার কারখানা, ইউরিয়া সংকটের আশঙ্কা

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

প্রয়োজনীয় গ্যাস সরবরাহের অভাবে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে অবস্থিত দেশের বৃহত্তম ইউরিয়া উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান যমুনা সার কারখানা। এতে উত্তরবঙ্গের ১৬ জেলাসহ দেশের অন্তত ২০ জেলায় সার সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে আসন্ন বোরো মৌসুমে তীব্র সার সংকটের আশঙ্কা করা হচ্ছে। কবে নাগাদ কারখানা চালু হবে তাও বলতে পারছে না কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় ও কারখানা সূত্র জানায়, গত বছরের শেষদিকে টানা দুমাস কারখানার উৎপাদন বন্ধ করে ওভারহোলিং (মেরামত) করা হয়। এর পেছনে ব্যয় হয় ২০০ কোটি টাকা। তারপর উৎপাদনে যেতে না যেতেই যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেওয়ায় গত ২৭ মার্চ সকালে সার উৎপাদন বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। এর কিছুদিন পর ৭ মে কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

jagonews24

অগ্নিকাণ্ডের পরপরই কারখানার উৎপাদন আবার বন্ধ করে দেওয়া হয়। সবশেষ প্রয়োজনীয় গ্যাস সরবরাহের কারণে ২১ জুন বন্ধ হয়ে যায় কারখানার উৎপাদন। তারপর থেকে টানা এক মাসেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে কারখানা।

যমুনা সার কারখানা থেকে সার নেন জামালপুর, শেরপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, রাজবাড়ীসহ উত্তরবঙ্গের ১৬ জেলার আড়াই হাজার ডিলার। তারা বলছেন, সামনে বোরো মৌসুম। এ মৌসুমে সার উৎপাদন না হলে সারের কৃত্রিম সংকট তৈরিসহ ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়বেন কৃষকরা।

এদিকে কারখানা ঘিরে এর আশপাশে গড়ে উঠেছে ছোট ছোট দোকানপাট, হোটেল-মোটেল, রেস্তোরাঁ। গত এক মাস ধরে কারখানাটি বন্ধ থাকায় তাদের ব্যবসাতেও পড়েছে ভাটা।

কথা হয় স্থানীয় নাদিয়া হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্টের মালিক ফারুক হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘যখন কারখানা চালু ছিল তখন আমাদের হোটেলের ব্যবসাও বেশ জমজমাট ছিল। এখন কারখানা বন্ধ থাকায় মানুষের পকেটে টাকা নেই। তাই আমাদের ব্যবসাও মন্দা যাচ্ছে।’

jagonews24

তারকান্দি ট্রাক ও ট্যাংক লরি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম মানিক জাগো নিউজকে বলেন, খুব দ্রুত কারখানাটি চালু করা না গেলে স্থানীয় কৃষকসহ দেশের বৃহত্তম এ প্রতিষ্ঠানটি ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হবে ।

কারখানার মহাব্যবস্থাপক আব্দুল হাকিম (অপারেশন) জাগো নিউজকে বলেন, ‘প্রাকৃতিক গ্যাসের খুবই সংকট। ফলে আমদানিনির্ভর ছিল এ কারখানার উৎপাদন। কিন্তু সেটাও এখন করা যাচ্ছে না। তাই কতদিন কারখানা বন্ধ থাকবে তা সরকারই ভালো বলতে পারবে।’


আরও খবর



দেশে ফিরবেন গোতাবায়া রাজাপাকসে

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরবেন। দেশটির বর্তমান মন্ত্রিসভার মুখপাত্র বান্দুলা গুনেওয়ারদেনা মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বলে লঙ্কান গণমাধ্যম ডেইলি মিররের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

গত ১৪ জুলাই সিঙ্গাপুরে প্রবেশ করেন গোতাবায়া রাজাপাকসে। এর আগে দেশ থেকে পালিয়ে তিনি মালদ্বীপে আশ্রয় নেন। সেখান থেকে পরে সিঙ্গাপুরে যান। দেশটিতে তাকে স্বল্প মেয়াদে ১৪ দিন অবস্থানের অনুমতি দেওয়া হয়।

সম্প্রতি গোতাবায়া রাজাপাকসের নামে সিঙ্গাপুরে মামলা করেছে একটি আন্তর্জাতিক অধিকার সংগঠন। শ্রীলঙ্কায় কয়েক দশকের গৃহযুদ্ধে ‘বিতর্কিত’ ভূমিকার জন্য তাকে গ্রেফতারের আর্জি জানিয়েছে বাদী পক্ষ।

শনিবার (২৩ জুলাই) সিঙ্গাপুরের অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে ৬৩ পৃষ্ঠার অভিযোগে ইন্টারন্যাশনাল ট্রুথ অ্যান্ড জাস্টিস প্রজেক্ট (আইটিজেপি) বলেছে, শ্রীলঙ্কার ২৫ বছরব্যাপী গৃহযুদ্ধে জেনেভা কনভেনশনের শর্তগুলো লঙ্ঘন করেছেন রাজাপাকসে। ওই সময় তিনি দ্বীপরাষ্ট্রটির শীর্ষ প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা ছিলেন।

এদিকে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের ভবন থেকে মালপত্র চুরির অভিযোগে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আটক তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা গোল্ড-প্লেটের সকেটসহ বেশ কিছু জিনিস চুরি করেন। এরপর সেগুলো বিক্রি করতে গেলে পুলিশের সন্দেহ হয় এবং তাদের আটক করা হয়।

দেশটিতে অর্থনৈতিক সংকটের জেরে গত ৯ জুলাই হাজার হাজার বিক্ষোভকারী প্রেসিডেন্টের প্রাসাদে প্রবেশ করেন। বিক্ষোভকারীরা টানা কয়েকদিন ধরে সেখানেই অবস্থান করেন। এরই মধ্যে চুরির ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আটক তিনজনের বয়স ২৮, ৩৪ ও ৩৭ বছর। তারা মাদকাসক্ত বলে ধারণা করছে পুলিশ। তাদের কলম্বো (উত্তর) অপরাধ তদন্ত বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানা গেছে।


আরও খবর