Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার বর ও কনের বাড়ীতে শোকের মাতম রাশিয়ায় বন্দুকধারীদের ভয়াবহ হামলায় ১৫ পুলিশ সদস্য নিহত

মালবাহী ট্রাক দোকানে ঢুকে পড়ায় প্রাণ গেল দু’জনের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১০৩জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোরের মণিরামপুরে মালবাহী ট্রাকের চাপায় দু’জন নিহত হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় ট্রাক চালক আহত হয়েছে। সোমবার (১০ জুন) সকালে মণিরামপুর বাধাঘাট এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।নিহতরা হল, মণিরামপুুরের বিজয়রামপুর গ্রামের মৃত আনার আলীর ছেলে আব্দুর রহমান (৮৫) ও টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর উপজেলার দেওভাটা গ্রামের ঝন্টু মিয়া (৪৮)। আহত ট্রাক চালকের নাম নুরুল ইসলাম। তিনি গাজীপুর থানার উত্তর দাড়িয়াপুর গ্রামের মৃত হোসেন আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার রাতে একটি মালবাহী ট্রাক গাজীপুর থেকে শ্যামনগরের উদ্দ্যেশে রওনা হয়। সকালে ট্রাকটি মণিরামপুর বাধাঘাট এলাকায় পৌছালে চলন্ত অবস্থায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি দোকানের ভেতরে ঢুকে পড়ে।এসময় দোকানের সামনে বসে থাকা আব্দুর রহমান ট্রাকে চাপা পড়ে মারা যান। আর গাড়িতে থাকা ট্রাক মালিক ঝান্টু মিয়াও ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় ট্রাক চালক নুরুল ইসলাম গুরুত্বর আহত হন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে হতাহতদের উদ্ধার করে।প্রত্যক্ষদর্শী রফিকুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ব্যাপারী অটো রাইস মিলের সামনে দোকানে বসে থাকা আব্দুর রহমানকে চাপা দিয়ে ট্রাকটি দোকানে ঢুকে পড়ে। এসময় ঘটনাস্থলে তিনি মারা যায়। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে ট্রাকের মধ্যে থেকে অপর একজনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে।

চালক নুরুল ইসলাম বলেন, গাজীপুর থেকে শ্যামনগরের যাওয়ার পথে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ঝন্টু মিয়া ওই ট্রাকের মালিক।মণিরামপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার সাফায়াত হোসেন বলেন, ট্রাক দুর্ঘটনায় তিন জন হতাহত হয়েছে। এদের মধ্যে ট্রাক চালক নুরুল ইসলামকে উদ্ধার করে মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মণিরামপুুর থানার এসআই লিটন বিশ্বাস বলেন, চালকের ঘুম ভাব থাকার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর



সড়কে চাপ আছে, কিন্তু রাস্তার কোনো যানজট নেই: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৮৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিকর হয়েছে , সড়কে চাপ আছে কিন্তু রাস্তার কোনো যানজট হচ্ছে না। শুক্রবার (১৪ জুন) ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদযাত্রা স্বস্তিকর হয়েছে। গত কয়েকবছর ধরেই মানুষ স্বস্তি পাচ্ছে। এবার আমরা আরও মনোযোগী হচ্ছি দুর্ঘটনা কমাতে। সড়কে চাপ আছে, কিন্তু যানজট নেই। সড়কে চাপ থাকবেই। রাস্তার জন্য কোনো যানজট হচ্ছে না। সর্বকালের সবচেয়ে ভালো সড়ক এখন। পশুর হাট, গাড়ি রাস্তায় চাপ সৃষ্টি করে।

কোরবানি ঈদের সময় পশুর হাট চাপ সৃষ্টি করে । পশুবাহী গাড়ি, যত্রতত্র পশুর হাট যেন রাস্তায় দূর্ভোগ সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন ওয়ায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বৃষ্টি হলে দুর্ভোগ এড়ানো কঠিন।

বাজেট বাস্তবতা ভারসাম্যমূলক বাজেট উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, আজকে আমাদের দেশে বাজেট সেশন চলছে। এই বাজেট নিয়ে আলোচনা আছে, সমালোচনা আছে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও বাজেট আছে। এই বছর ৬৪ দেশে নির্বাচন হওয়ার কথা। আমাদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতেও নির্বাচন শেষ হয়েছে।

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, বাজেট নিয়ে আলোচনা, সমালোচনা আছে, মূল্যস্ফীতি নিয়ে সরকারে উদ্বেগ আছে। কিন্তু সরকার কোন কিছুই গোপন করছে না। মূল্যস্ফীতি নিয়ে ইউরোপও ভুগছে। তাদের মূল্যস্ফীতি ১০ শতাংশ। আশপাশের দেশগুলোতেও মূল্যস্ফীতি অনেক বেশি। দ্রব্যমূল্য নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন হই কিন্তু অন্যদেশের গুলোও দেখা দরকার।

কাদের বলেন, আমাদের ভোটার টার্নআউট নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোটার টার্নআউট অনেক কম। বিরোধী দলের ভোট বর্জনের পরও বাংলাদেশে ভোটার উপস্থিতি ৪২ শতাংশ হয়েছে। এটা কম নয়।

কাদের বলেন, আওয়ামী লীগে ভুল ত্রুটি আছে। কিন্তু ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ। দূর্নীতিবাজ কারো বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সাহস দেখায়নি বিএনপি। আওয়ামী লীগের সময় ঝিনাদহের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমের হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককেও রিম্যান্ডে আনা হয়েছে। অভিযুক্ত হলে ছাড় দেওয়া হবে না। কারণ, দুদক, বিচার বিভাগ স্বাধীন।

এসময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, আফজাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।


আরও খবর



অভিনেত্রী সীমানা মারা গেছেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

বিনোদন ডেস্ক:অভিনেত্রী রিশতা লাবনী সীমানা আর নেই। মঙ্গলবার (৪ জুন) সকাল ৬টায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

গণমাধ্যমকে তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন সীমানার ছোট ভাই এজাজ বিন আলী। মৃত্যুকালে সীমানা স্বামী, দুই ছেলে রেখে গেছেন।

জানা গেছে, গত মে মাসে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হলে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস হাসপাতালে ৮ দিন চিকিৎসাধীন ছিলেন সীমানা। অবস্থার অবনতি হলে ২৯ মে এই অভিনেত্রীকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে এই অভিনেত্রীকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ভেন্টিলেশনে শেষ চেষ্টা হিসেবে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। কিন্তু আর ফেরা হলো না সীমানার।

উল্লেখ্য, ২০০৬ সালে লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতার মাধ্যমে শোবিজে পা রাখেন সীমানা। এরপর থেকে তিনি নাটক, বিজ্ঞাপনে নিয়মিত কাজ করেন। তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘দারুচিনি দ্বীপ’ তার প্রথম সিনেমা। ২০১৯ সালে দ্বিতীয় বিয়ের পর আবারও কাজে ফেরেন এই অভিনেত্রী। গত বছর ‘রোশনী’ নামের একটি সিনেমাতে অভিনয় করেছেন।


আরও খবর



খ্রিষ্টধর্মের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৭জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে বাংলাদেশ সারিধরম গাঁওতা এর উদ্যোগে সাঁওতালসহ সকল জনগোষ্ঠীর ধর্ম ও জাতিগত বৈচিত্র্যতা এবং দেশের অখ-তা রক্ষা করতে খ্রিষ্টধর্মের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। 

শুক্রবার সকাল ১০ টায় ফুলবাড়ী প্রেসক্লাব কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক নরেশ হেমব্রম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সারিধরম গাঁওতা এর সভাপতি চুন্নু টুডু, সাংগঠনিক সম্পাদক সুবাস মুর্মু, কোষাধ্যক্ষ সুনিল হাঁসদা, সদস্য নির্মল মার্ডী, রবিন মুর্মু, মনিরাজ হেমব্রম, রাজেন মার্ডী প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে নরেশ হেমব্রম বলেন, ২০১৯ সালে প্রকাশিত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির গেজেটে সাঁওতালসহ ৫০টি জাতিসক্তজ্ঞ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। গেজেটে অন্তর্ভুক্ত প্রত্যেকটি জাতিসত্তা নিজস্ব ভাষা, ধর্ম ও সংস্কৃতি তথ্য জাতিগত বৈচিত্র্যতা বিদ্যমান। আমরা সাঁওতাল। আমাদের ধর্মের নাম সারিধরম। আমাদের সরলতাকে পুঁজি করে খ্রিস্টধর্ম ব্যবসায়ী প্রতারক, ভ-ু, ধর্ম প্রচারক, মানবসেবা, উন্নয়ন, কর্মসংস্থান, ভাল চাকরি, বিদেশে ভ্রমণ, নগদ অর্থ, বাড়ী-ঘর পাঁকা করাসহ বিভিন্ন প্রলোভন দিয়ে আমাদের সাথে সু-সম্পক তৈরি করে। পরে আমাদের জমিতে কৌশলে বিভিন্ন খ্রিষ্টধর্মের উপসানালয় তথ্য গীর্জাঘর বানায় এবং সেখানে খ্রিষ্টধর্ম পালনে বাধ্য করে। তারা আমাদেরকে জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ঘটানোর প্রলোভন দেখায়। এভাবে অনেককে নিজেদের ফাঁদে ফেলেন তারা। আমাদের নিকট তারা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হলেও আজো আমরা কিছু পাইনি। আমরা ৫৪ বছরে যা হারালাম তা আর কি ফিরে পাব? নিজের কাছে নিজের অনেক প্রশ্ন। আমরা জাতিগতভাবে পিছিয়ে, রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত, সাঁওতাল পরিচয় থেকে বঞ্চিত। আমাদের জমি-জমা, ঘর-বাড়ী, চাকরি, ব্যবসা, বাণিজ্য সবকিছু থেকে অবহেলিত ও বঞ্চিত। আমরা আজ আহ্বান জানাই দেশের সকল সাঁওতাল যারা প্রলোভনে খ্রিষ্টধর্ম গ্রহণ করেছিলেন, তারা নিজ সারিধরমে ফিরে আসতে। মহান ৭১’র স্বাধীনতা যুদ্ধ থেকে শুরু করে সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে আমরা সক্রিয় ভূমিকা রেখেছি। ইতোপূর্বে ধর্মব্যবসায়ী প্রতারকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি সরকারকে জানানো হলেও আজো কোনোপ্রকার ব্যবস্থাগ্রহণ করা হয়নি। 

 তিনি বলেন, গত ২৪ মে পত্রপত্রিকায় লক্ষ্য করা যায় যে, ১৪ দলের বৈঠকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজ মুখে বলেছেন, ‘বাংলাদেশের অংশ নিয়ে খ্রিষ্টান দেশ করার চক্রান্ত চলছে। কিছু সাদা চামড়ার মানুষ আমাদের দেশকে খ্রিষ্টান দেশ বানাতে চায়।’ তারা কৌশলে বাংলাদেশের একটি অংশকে নিয়ন্ত্রণ করে দেশকে খন্ডিত করতে চায়। আমরা সাঁওতাল সমাজ খ্রিস্টধর্মের এ হীন কূটকৌশলের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। খ্রিস্টান ধর্মব্যবসায়ীদের কারণে সাঁওতাল সমাজের বিশৃংখলার সৃষ্টি হয়েছে। তাদের কারণে আমাদের নিজস্ব বর্ণমালায় প্রাথমিক শিক্ষা স্থগিত রয়েছে। সাঁওতালদের নিজ বর্ণমালা থাকার সত্ত্বেও খ্রিস্টান ধর্ম ব্যবসায়ীরা আমাদের উপরে রোমান বর্ণমালা চাপিয়ে দিতে চায়। এভাবে আমাদের দেশের প্রান্তিক জনগোষ্টিকে লক্ষ্য করে তারা দেশের মোট জনসংখ্যার একটি অংশকে খ্রিষ্টান ধর্মের অনুসারি করেছে। এখন তারা আমাদের দেশকে খ্রিষ্টান রাষ্ট্র বানাতে চায় যা- মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজ মুখে বললেন। কাজেই খ্রিস্টধর্ম প্রচারকদের আর সুযোগ দেওয়ার সময় নেই। আমাদের নিজ ধর্ম, বর্ণ, ভাষা ও সংস্কৃতিকে রক্ষা করার জন্য তাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তোলা হবে। 

তিনি আরো বলেন, আমাদের সমাজে যারা খ্রীষ্টধর্ম বিশ্বাস করে গ্রহণ করেছে, তারা জাতিতে খ্রিস্টান, তারা পুনরায় সাঁওতাল হিসাবে দাবি করলে, তা জাতির সঙ্গে বেইমানি ও অন্যায় হবে এবং এরা সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টি করে সমাজের শান্তি, শৃঙ্খলা ভঙ্গ করার কৌশল খোঁজে। এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা না নিলে ভবিষ্যতে তারা জাতির সঙ্গে বড় রকম ষড়যন্ত্র করবে। খ্রিষ্টানরা জাতিগত কারণেই সাঁওতালদের সংস্কৃতি (বাহা, সহরায় ইত্যাদি) উৎসব এবং ধর্মীয় রীতিনীতি পালন করে না বরং সাঁওতালদের সংস্কৃতি ধ্বংস করার প্রচেষ্টা সর্বদা চালিয়ে যাচ্ছে। এমনকি তারা সাঁওতালদের ধর্ম ও দেব-দেবীকে অবমাননা করে। সাঁওতালদের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান মাঞ্জহিথানে ক্রুশবিদ্ধ করে অবমাননা করেছে। সাওঁতাল জনগোষ্ঠিকে পিছিয়ে রেখে টেকসই উন্নয়ন কতটুকু সম্ভব? আমরাও এ দেশের নাগরিক, আমরা মনে প্রাণে চাই বাংলাদেশ একটি উন্নত দেশ হবে এবং পৃথিবীর মানচিত্রে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে। সেদিন যেন সকলের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন ঘটে, নাগরিক হিসাবে আমাদের এটুকু দাবি।


আরও খবর



মধুপুরে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের দায়ে সুপারভাইজারকে জরিমানা

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৪৬জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ- টাঙ্গাইলের মধুপুরে যাত্রীদের কাছ থেকে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করায় ঢাকাগামী বিনিময় পরিবহন এবং বিপুল পরিবহনকে  ৪০০০ টাকা  জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার দুপুরে মধুপুর পৌর শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ জরিমানা করা হয়।  


ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন মধুপুর  উপজেলা নির্বাহী অফিসার  (ইউএনও) মো.জুবায়ের হোসেন।


তিনি জানান, মধুপুর পৌরসভাধীন বাসস্ট্যান্ডে ঈদুল আযহা পরবর্তী অতিরিক্ত গাড়ীর ভাড়া আদায় করা হচ্ছে এমন তথ্যের অভিযোগের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে জরিমানা করা হয়েছে।


ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, ঈদুল আজহার ছুটি শেষে কর্মস্থলগামী যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছিল বিভিন্ন যাত্রীবাহী পরিবহন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এমন অভিযোগ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) জুবায়ের হোসেন ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) রিফাত আনজুম পিয়া মধুপুর বাসস্ট্যান্ডে  ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।  উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন  বলেন, অভিযানের সময় ঢাকাগামী বিনিময় পরিবহন এবং বিপুল পরিবহনের  লোকজন অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেছে বলে প্রমাণিত হওয়ায় দুই পরিবহনের সুপারভাইজারকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এর পাশাপাশি বাসের সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করা হয়েছে। জনস্বার্থে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন।



আরও খবর



জয়পুরহাটে পুকুরের পানিতে ডুবে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১১৭জন দেখেছেন

Image
এস এম শফিকুল  ইসলাম,জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃজয়পুরহাটে পুকুরের পানিতে ডুবে তৌফিকুর রহমান  তৌফিক(২১) নামে এক কলেজ শিক্ষার্থীর  মৃত্যু হয়েছে।সোমবার (২৭ মে) দুপুরে জয়পুরহাট পৌর শহরের পাঁচুরচক  এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  হুমায়ুন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত তৌফিকুর রহমান  তৌফিক পৌর শহরের চিত্রা পাড়া মহল্লার সাবেক ষ্টেশন মাষ্টার  নিজাম উদ্দিনে ছেলে। সে এবারের এইচএসসি পাশ করেছেন।জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  হুমায়ুন কবির জানান, তৌফিকসহ তার কয়েকজন  বন্ধু দুপুরে  বৃষ্টির মধ্যে  পুকুরে পানিতে গোসল করতে  যায় । বন্ধুরা পুকুরের পানিতে গোসল করতে নামলেও তৌফিক পুকুরের পাড়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এমনসময় অসাবধানতাবশত পা পিছলে  পুকুরের পানিতে পড়ে যায় তৌফিক ।সাঁতার না জানার কারণে পানিতে তলিয়ে যায়। পরে পুকুর থেকে উদ্ধার করে তাকে জয়পুরহাট জেনারেল হাসপাতালে  নিয়ে যান  স্থানীয় লোকজন। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক  তৌফিককে  মৃত ঘোষণা করেন।

আরও খবর