Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা
রাস্তা পারাপারের সময় পিকআপের চাপায় পথচারীর মৃত্যু

মাদারীপুরে লিচু বোঝাই পিকাপের চাপায় পথচারীর মৃত্যু

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১২৩জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

মাদারীপুর জেলা শহরের ইটের পুল এলাকায় পিকআপ ভ্যানচাপায় সুলতান (৩৫) নামে এক পথচারীর মৃত্যু হয়েছে।  


সোমবার (২৩ মে) সকালে শহরের ইটেরপুল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।


নিহত সুলতান জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার বাসিন্দা।


মাদারীপুর সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এ এইচ এম সালাউদ্দিন জানান, সকালে ইটেরপুল এলাকায় রাস্তা পার হচ্ছিলেন সুলতান।


এসময় রাজশাহী থেকে শরিয়তপুরগামী লিচুবোঝাই একটি পিকআপ ভ্যান সুলতানকে চাপা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। এ অবস্থায় সুলতানকে জেলা সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।




আরও খবর



পাইপলাইনে স্পিনার আছে, সময় দিতে হবে

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

একটা সময় এই স্পিনের ওপর ভর করেই ম্যাচ জিততো বাংলাদেশ। এখন পেস আক্রমণ বেশ শক্তিশালী হয়েছে টাইগারদের। সেই তুলনায় কি স্পিনটাই দুর্বল হয়ে গেলো?

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের আগে এমন প্রশ্ন উঠে জোরেসোরেই। মেহেদি হাসান মিরাজের পর নাঈম হাসানও চোটে পড়লে ভালোমানের অফস্পিনার পাওয়া যায়নি।

ফলে বাধ্য হয়ে ব্যাটিং অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে স্পেশালিস্ট অফস্পিনার ধরে দল সাজায় টাইগাররা। মোসাদ্দেক অভাব পূরণ করতে পারেননি। ঢাকা টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাকে মাত্র ১২ ওভার বল করানোর সাহস করেন অধিনায়ক।

তবে কি পাইপলাইনে পর্যাপ্ত স্পিনার নেই? স্পিন আক্রমণ সাজানোর মতো যথেষ্ট বিকল্প তৈরি হচ্ছে না? মিরাজ, নাঈম, তাইজুলদের গড়ে তোলা স্থানীয় স্পিন কোচ সোহেল ইসলাম এমনটা মানতে নারাজ। তার মতে, পাইপলাইনে স্পিনার ঠিকই আছে, তাদের সময় দিতে হবে।

মঙ্গলবার মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে সোহেল বলেন, ‘একদিনেই মিরাজ, তাইজুল কিংবা নাঈম হাসান তৈরি হয়নি। যারা উঠে আসবে তাদেরও সময় দিতে হবে। আমি বলব না অফস্পিনার নেই। আমাদের আছে, এদের নার্সিং করতে হবে। তাদের আন্তর্জাতিক মানের কিছু ম্যাচ খেলাতে হবে ব্যাকআপে এবং অনুশীলনটা ওখানে লাগবে। আমি যদি ওরকম পরিবেশ তৈরি করতে না পারি বা ভালো ম্যাচ না দিতে পারি, তাহলে রেডি হওয়া আসলেই কঠিন।’

সোহেল যোগ করেন, ‘পাইপলাইন তৈরি হতেও সময় লাগে। আমরা সবাই জানি আসলে আমাদের যে ঘরোয়া ক্রিকেট হয়, ওটার সাথে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মধ্যে একটা মানের পার্থক্য আছে। একটা ছেলেকে আমি পাইপলাইন থেকে যদি তুলে নিয়ে যাই, সে খুব ট্যালেন্টেড এবং ভালো, কিন্তু তারও আন্তর্জাতিক খেলার জন্য সময় দিতে হবে। আমরা হঠাৎ করে নিয়ে আসব এবং দুটো ম্যাচ দেখে তাকে বিচার করে ফেলব এটা তারও (ক্ষতির কারণ হবে)।’


আরও খবর



পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকায় আসতে পারছেন না সাতক্ষীরার বেশিরভাগ যাত্রী

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

রুট পারমিট না পাওয়ায় সাতক্ষীরা থেকে বেশিরভাগ যাত্রীবাহী বাস পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকায় যেতে পারছে না। রোববার (২৬ জুন) পদ্মা সেতু সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হলেও সাতক্ষীরা থেকে ঢাকাগামী বেশিরভাগ বাস চলাচল করছে আগের রুট হয়ে।

এখনো আরিচা-দৌলতদিয়া ফেরিঘাট হয়েই এসব বাস চলাচল করছে। তবে সোহাগ পরিবহন, টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেস ও ইমাদ পরিবহন বর্তমানে পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকায় যাচ্ছে। গ্রিন লাইন পরিবহন এই রুটে নতুন করে যাত্রীসেবা শুরু করেছে। এছাড়া বিআরটিসিও সরাসরি সাতক্ষীরার সুন্দরবন সংলগ্ন মুন্সিগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড থেকে সরাসরি ঢাকা রুটে বাস চালু করবে বলে জানা গেছে।

jagonews24

পরিবহন মালিক সমিতির নেতারা বলছেন, নতুন রুটের বিষয়ে আন্তঃজেলা বাস মালিক সমিতির নেতাদের সঙ্গে আলোচনা চলছে। ১ জুলাই থেকে জেলার বেশিরভাগ বাস পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকায় যাবে বলে আশা করছেন তারা।

সাতক্ষীরা একে ট্রাভেলস পরিবহনের ম্যানেজার কাজল হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমাদের সব বাস এখনো দৌলতদিয়া-আরিচা ফেরিঘাট হয়ে ঢাকা যাচ্ছে। মালিক সমিতির নেতাদের মধ্যে আলোচনা চলছে। আশা করছি, আগামী ১ জুলাই থেকে একে ট্রাভেলসসহ জেলার অন্য পরিবহনের বাসগুলো পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকায় চলাচল করবে।’

jagonews24

সাতক্ষীরা লাইনস পরিবহনের ম্যানেজার মো. ইলিয়াস জাগো নিউজকে বলেন, ‘মালিক-মহাজনরা আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিলে আমাদের বাস চালাতে কোনো সমস্যা নেই। আশা করছি ১ জুলাই থেকে বাস পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকায় চলাচল শুরু করবে। তবে যেসব যাত্রী গাবতলী, কল্যাণপুর, শ্যামলী, সাইনবোর্ডসহ তার আশপাশে যাবেন তাদের জন্য আরিচা-দৌলতদিয়া রুটে অমাদের যাত্রীসেবা চালু থাকবে।’

এরই মধ্যে নতুন রুটে কয়েকটি কোম্পানির বাস চলাচল শুরু হয়েছে বলে জানান সাতক্ষীরা দূরপাল্লার যাত্রীবাহী পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি তাহমিদ হোসেন চয়ন।

jagonews24

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘সাতক্ষীরার পরিবহন মালিকদের গাড়িগুলো এখনো নতুন রুটে চালু হয়নি। বিষয়টি নিয়ে আমরা খুলনা, বাগেরহাট, গোপালগঞ্জ ও মাদারীপুরের বাস মালিক সমিতির নেতাদের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করছি দ্রুত এ সমস্যার সমাধান হবে।

এদিকে, সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরের পণ্যবাহী ট্রাকগুলো পদ্মা সেতু হয়ে যাতায়াত শুরু করেছে। সকাল থেকে বেশিরভাগ পণ্যবাহী ট্রাক এই রুটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে।

ট্রাকচালক কবির হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ‘আজ প্রথম ভোমরা থেকে ফল নিয়ে পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকায় যাবো। আশা করছি পাঁচ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকায় পৌঁছে যাবো।’

jagonews24

আরেক ট্রাকচালক শরিফ হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমাদের দীর্ঘদিনের ভোগান্তি লাঘব হবে। এখন থেকে ভোমরা বন্দর থেকে পণ্য নিয়ে চার-পাঁচ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকায় যেতে পারবো।’

ভোমরা বন্দর ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী সমিতির নেতা কাজী আকতার হোসেন জাগো নিউজকে জানান, সকাল থেকে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর থেকে পণ্যবাহী বেশিরভাগ ট্রাক এখন পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা যাচ্ছে। এছাড়া আরিচা-দৌলতদিয়া রুটে ফেরিতে যানবাহনের চাপ কম থাকায় এই রুটেও ট্রাক চলাচল অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।


আরও খবর



‘অপরাজিত’র বিরুদ্ধে প্লট ছিনতাইয়ের অভিযোগ, ক্ষতিপূরণ চেয়ে নোটিশ

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
Image

প্লট ছিনতাইয়ের অভিযোগে এরই মধ্যেই কাঠগড়ায় অনীক দত্তর ‘অপরাজিত’। এবার শুরু আইনি যুদ্ধ। ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে পরিচালক অনীক দত্ত ও তার প্রযোজকদের আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে প্রযোজনা সংস্থা ‘সাধু ব্রাদার্স এন্টারটেনমেন্ট প্রোডাকশন হাউস’।

প্রযোজনা সংস্থাটির দাবি, সত্যজিৎ রায় ও তার ‘পথের পাঁচালী’ বানানোর জার্নি নিয়ে ২০১২ সাল থেকেই ছবি বানাতে শুরু করেছিলেন তারা। টাকার অভাবে ছবিটি শেষ করে উঠতে পারেননি। কিন্তু ওই ভাবনা ছিনতাই করে ‘অপরাজিত’ ছবিটি বানিয়ে ফেলেছেন অনীক দত্ত। যা এরই মধ্যে মুক্তিও পেয়েছে। ফলে সবদিক থেকেই বিপুল ক্ষতির মুখে ‘সাধু ব্রাদার্স এন্টারটেনমেন্ট প্রোডাকশন হাউস’।

প্রযোজনা সংস্থার পক্ষের আইনজীবী অয়ন চক্রবর্তী বলেন, শনিবার সন্ধ্যায় অনীক দত্ত ও তার প্রযোজনা সংস্থাকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এতে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের দাবিও করা হয়েছে। উত্তরের জন্য সাতদিন অপেক্ষা করা হবে। তারপর ঠিক করা হবে পরবর্তী পদক্ষেপ।

এদিকে, রোববার রাতে প্লট ছিনতাইয়ের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে অনীক দত্ত বলেন, আগে তাদের থেকে অভিযোগের প্রমাণ চান। আমি যদি অভিযোগ করি গতকাল আপনি কোনো দোকান থেকে চুরি করেছেন, তা হলে আপনি কী বক্তব‌্য রাখবেন? সেটাই আমার বক্তব‌্য। এই মূর্খতায় আমি অংশগ্রহণ করবো না।

২০১২ সালে মেকিং অব পথের পাঁচালী নিয়ে ‘বিষয় পথের পাঁচালি’ নামে একটি ছবি ইম্পাতে নথিভুক্ত করেছিল আরও একটি গ্রুপ। যাদের প্রায় সবাই রাজ্যের সংস্কৃতিমনস্ক পুলিশকর্মী। ইম্পার নথিতে সিরিয়াল নম্বর ৯০৩৭, তারিখ ১৯.১২.২০১২। লেখক প্রসেনজিৎ ঘোষ।

এই পুলিশকর্মীদেরই প্রশ্ন, ২০১২ সালে যে বিষয়টি সিনেমা বানানোর জন্য নথিভুক্ত করা হয়েছে, সেটা কী করে আরেকজন ব্যবহার করতে পারেন? নিরপেক্ষ তদন্তের দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন তারা। তাদের দাবি যে বায়বীয় নয়, তা আইনি নোটিশ পাঠানোর পদক্ষেপেই স্পষ্ট। নোটিশ পাঠানো হয়েছে দুই প্রযোজক ফিরদৌসল হাসান, প্রবাল হালদার ও পরিচালক অনীক দত্তকে। যেখানে স্পষ্ট বলা হয়েছে, ‘অপরাজিত’ নির্মাণে কপিরাইট আইন লঙ্ঘন হয়েছে। চুরি করা হয়েছে চিত্রনাট্যের একাংশ। যা আদতে প্রসেনজিৎ ঘোষের লেখা।

নোটিশে আরও বলা হয়েছে, অনীক দত্ত বা ‘অপরাজিত’র প্রযোজনা সংস্থার তরফে কোথাও ‘সাধু ব্রাদার্স এন্টারটেনমেন্ট প্রোডাকশন হাউস’ এর কাছে কৃতজ্ঞতা বা ঋণ স্বীকার করা হয়নি। অথচ এই বিষয় ভাবনাকে ঘিরে প্রথম সিনেমা তৈরির পরিকল্পনা তাদেরই, অনীক দত্তর নয়।


আরও খবর



সিরাজগঞ্জে নদীগর্ভে মসজিদসহ ৩৫ বসতভিটা

প্রকাশিত:Monday ১৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

সিরাজগঞ্জে যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদী-তীরবর্তী এলাকা ভাঙতে শুরু করেছে। গত এক সপ্তাহে নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে ঐতিহ্যবাহী তারকা মসজিদের অর্ধেকসহ অন্তত ৩৫টি বসতভিটা।

সোমবার (১৩) সকালে সিরাজগঞ্জের নদীবিধৌত চৌহালী উপজেলার এনায়েতপুর ব্রাহ্মণগ্রামে গিয়ে দেখা যায়, নান্দনিক তারকা মসজিদটির প্রায় অর্ধেকাংশ নদীগর্ভে চলে গেছে।

তাদের অভিযোগ, ভাঙনরোধে সংশ্লিষ্টরা সঠিক সময় যথাযথ পদক্ষেপ নিলে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হতো না। তবে পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে, ভাঙন ঠেকাতে বালুভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, ভোর থেকে হঠাৎ করে যমুনা নদীতে স্রোত ও ঘূর্ণাবর্তের সৃষ্টি হয়। দেখতে দেখতে নদীপাড়ের শুরু হয় ভাঙন। দুপুরের দিকে বিলীন হয়ে যায় তারকা জামে মসজিদের পূর্বাংশের প্রধান ফটক, বারান্দাসহ অর্ধেকের বেশি।

প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মসজিদের পাশে প্রায় ৪৫ মিটার এলাকায় ভাঙন চলছিল।

river1

মসজিদের ইমাম হাফেজ জহুরুল ইসলাম বলেন, ‘ভোরে ফজরের নামাজ পড়েছি। হঠাৎ করে ভোরবেলা থেকে ভাঙন শুরু হয়। দুপুরের দিকে অর্ধেকের বেশি বিলীন হয়ে যায় এলাকার ঐতিহ্যবাহী তারকা জামে মসজিদটি। দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে পুরো মসজিদটি নদীগর্ভে চলে যাবে।’

খুকনী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুল্লুক চাঁদ মিয়া বলেন, ব্রাহ্মণগ্রাম থেকে পাচিল পর্যন্ত নদীর তীর সংরক্ষণে ৬৫০ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে। কাজও শুরু হয়েছে। তারপরও ভাঙন দেখা দিয়েছে। কাজের অগ্রগতি ও সঠিক তদারকির অভাবেই বারবার নদীপাড় ভাঙছে।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, আমরা ভাঙনকবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছি। ভাঙন রোধে বিভিন্ন স্থানে আমাদের কাজ চলছে। পাশাপাশি যেসব জায়গায় জিও ব্যাগ ডাম্পিং করা হয়েছিল কিন্তু ধসে গেছে, সেসব জায়গা মেরামতে কাজ চলছে।


আরও খবর



তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ১৫ বছর পর ৩ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ২৫জন দেখেছেন
Image

রংপুরে এক তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেইসঙ্গে তাদের এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন বিচারক।

রোববার (২৬ জুন) দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত-১-এর বিচারক মো. মোস্তফা কামাল এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন রংপুর নগরীর এরশাদ নগর এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে আসাদুল ইসলাম, আউয়াল মিয়ার ছেলে রঞ্জু মিয়া ও কেডিসি রোড এলাকার আব্দুস ছাত্তারের ছেলে বাবু মিয়া।

রায় ঘোষণার সময় দুই আসামি আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত থাকলেও মামলার মূল আসামি বাবু মিয়া পলাতক ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০০৭ সালের ২৬ মে নগরীর তাজহাট টিবি হাসপাতাল সংলগ্ন বস্তি থেকে রিকশাযোগে মডার্ন মোড়ে যাচ্ছিলেন ওই তরুণী (তৎকালীন বয়স ২৪)। পথে বাবু মিয়া ও তার সহযোগীরা রিকশার গতিরোধ করেন। পরে তাকে কৃষি খামারবাড়ি সংলগ্ন একটি জঙ্গলে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই নারী নিজেই বাদী হয়ে বাবু মিয়াকে প্রধান আসামি করে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলার তৎকালীন তদন্ত কর্মকর্তা আজিজুল ইসলাম তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে রোববার দুপুরে আদালতের বিচারক তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) খন্দকার রফিক হাসনাইন রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


আরও খবর