Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

লুট হওয়া ডাচ-বাংলা ব্যাংকের টাকার বেশিরভাগই উদ্ধার: ডিবি

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৯৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর উত্তরা থেকে লুট হওয়া ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের সোয়া ১১ কোটি টাকার বেশিরভাগই উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। উদ্ধার হওয়া টাকার পরিমাণ ৯ কোটি হতে পারে বলে ধারণা করছে তারা।

ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদ বলেন, ‘রাজধানীর খিলক্ষেত এলাকার লা মেরিডিয়ান হোটেলের আশপাশের এলাকা থেকে আমরা লুট হওয়া বেশিরভাগ টাকা উদ্ধার করেছি। এখনো অভিযান চলছে।

কত টাকা উদ্ধার হয়েছে, এমন প্রশ্নের জবাবে হারুন অর রশীদ বলেন, ‘মোট ৪ ট্রাঙ্ক টাকা লুট হয়েছিল। এর মধ্যে ৩ ট্রাঙ্ক উদ্ধার হয়েছে। এখনো গোনা হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, ৯ কোটি টাকার মতো উদ্ধার হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজধানীর উত্তরা ১৬ নম্বর সেক্টরের ১১ নম্বর ব্রিজসংলগ্ন এলাকায় ডাচ-বাংলা ব্যাংকের টাকার গাড়িতে ছিনতাই হয়। সশস্ত্র একটি চক্র গাড়িটি ঘিরে টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

গাড়িটি বুথে টাকা ঢোকাতে রাজধানী থেকে সাভারের ঢাকা ইপিজেডে যাচ্ছিল। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই গাড়িতে সোয়া ১১ কোটি টাকা ছিল।


আরও খবর



দেশজুড়ে এনার্জিপ্যাকের জ্যাক সার্ভিস ক্যাম্পেইন চালু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ১০৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আজ (২৮ মে) থেকে দেশজুড়ে মাসব্যাপী জ্যাক সার্ভিস ক্যাম্পেইন চালু করলো এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন পিএলসি (ইপিজিপিএলসি)। ঢাকার মিরপুরে জ্যাক সার্ভিস সেন্টারে প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ক্যাম্পেইনটি চালু করা হয়।

জ্যাক সার্ভিস ক্যাম্পেইনে গ্রাহকরা পুরো গাড়ি ফ্রি চেকআপ করানোর সুযোগ পাবেন। একইসাথে, খুচরা যন্ত্রাংশে ও স্পেয়ার পার্টসে বিশেষ ছাড় উপভোগ করতে পারবেন। পাশাপাশি, ক্যাম্পেইন চলাকালে আগামী ৩০ দিনের জন্য সার্ভিস বুকিং কুপন পাওয়া যাবে, যেখানে থাকছে স্পেয়ার পার্টস ও সার্ভিস চার্জের ক্ষেত্রে বিশেষ ছাড় পাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ। এছাড়া, ক্যাম্পেইন থেকে যেকোনো সেবা নেয়া গ্রাহকের জন্য থাকছে বিশেষ পুরস্কার ও অন্যান্য আকর্ষণীয় অফার।

আকর্ষণীয় এই ক্যাম্পেইনটির উন্মোচন করেন এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন পিএলসি’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। উন্মোচন অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথিদের পাশাপাশি, এনার্জিপ্যাকের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন মোটর ভেহিকেল ডিভিশন এর চিফ বিজনেস অফিসার এস এম জসীম উদ্দিন।

এ বিষয়ে এস এম জসীম উদ্দিন বলেন, “গ্রাহকদের জন্য সর্বোচ্চ সহযোগিতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে দেশব্যাপী জ্যাক সার্ভিস ক্যাম্পেইন নিয়ে আসতে পেরে এনার্জিপ্যাক অত্যন্ত উচ্ছ্বসিত। জ্যাক মোটরস এর সাথে আমাদের অংশীদারিত্ব এবং বিশ্বমানের পণ্য ও সেবা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে আমাদের ধারাবাহিক প্রচেষ্টা দেশের পরিবহণ খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।

আগামীতেও এ ধরনের ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে গ্রাহকদের অভিজ্ঞতা আরও উন্নত করার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।”


আরও খবর



‘পাপের ফল ভোগ করছেন ড. ইউনূস ’

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৫১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:গ্রামীণ ব্যাংকের ১ কোটি ৫ লাখ সদস্যের সঙ্গে প্রতারণার অভিশাপ ভোগ করছেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস,বলেছেন গ্রামীণ ব্যাংকের প্রধান আইন উপদেষ্টা মাসুদ আখতার । গ্রামীণ ব্যাংকের গ্রাহকদের সঙ্গে তিনি প্রতারণা করেছেন। সেই পাপের ফলাফল তিনি ভোগ করছেন।

সোমবার (৩ জুন) সুপ্রিম কোর্টের এনেক্স ভবনের সামনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

মাসুদ আখতার বলেন, কোনো দেব-দেবীর অভিশাপ নয়, বরং গ্রামীণ ব্যাংকের ১ কোটি ৫ লাখ সদস্যের সঙ্গে প্রতারণার অভিশাপ ভোগ করছেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস। উনি নিজের ও পারিবারিক কোনো সুবিধা নেননি। কিন্তু, উনি প্রিন্টিং প্রেসের জন্য ওনার প্রতিষ্ঠানকে শতকোটি টাকার ওয়ার্ক অর্ডার দিয়েছেন এবং তা ৩০ থেকে ৪০ শতাংশের বেশি দরে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ওনার এক জিএম এসবের প্রতিবাদ করেছেন, তাকে উনি নির্যাতন করেছেন। গৃহবন্দি করেছেন। ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ৯৭ সাল থেকে। ড. মুহাম্মদ ইউনূস ১১ সালে ব্যাংক ছাড়লেও, পরবর্তীতে তিনি তার দুর্নীতি ফাঁস করতে দেননি। কারণ এরপর তার লোকজনই গ্রামীণ ব্যাংক চালিয়েছেন। তবে, ২০২০ সালে এক অডিটে ভয়াবহ দুর্নীতির কথা উঠে আসে। আমাদের হাতে এগুলো আসে ২০২৩ সালে। আরও আসছে।

মাসুদ আখতার আরও বলেন, ব্যক্তি ইউনূসের সঙ্গে আমাদের কোনো ব্যক্তিগত আক্রোশ নেই। তার কর্মকাণ্ড, অপকর্মের, পারিবারিক সুবিধা দিয়েছেন তা নিয়ে আমাদের অভিযোগ। ড. ইউনূস অর্থলোভী। আমাদের কোনো কিছু বানোয়াট নয়। গ্রামীণ ব্যাংকের গ্রাহকদের সঙ্গে তিনি প্রতারণা করেছেন। সেই পাপের ফল তিনি ভোগ করছেন।


আরও খবর



সৈয়দপুরে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৬জন দেখেছেন

Image
সৈয়দপুর( নীলফামারী) প্রতিনিধি:কুখ্যাত রাজাকারকে স্বাধীনতার পক্ষের মানুষ উল্লেখ করে প্রতিবেদন দাখিলের প্রতিবাদে নীলফামারীর সৈয়দপুরে বিশাল মানববন্ধন হয়েছে। মঙ্গলবার (৪ জুন) বেলা ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত ওই মানববন্ধন চলে শহরের স্বাধীনতা ভবনের সামনে। এর আয়োজক ছিলো মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সৈয়দপুর উপজেলা কমান্ড ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের সংগঠন মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন। বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা সালাহউদ্দিন বেগ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোনায়মুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক অ্যাডভোকেট সুজাউদ্দৌলা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, শহরের নঈম খান ওরফে নঈম গুন্ডা ছিলেন একজন কুখ্যাত রাজাকার। ওই ব্যক্তি মুক্তিযুদ্ধে বাঙ্গালী নিধন, ধর্ষণ ও লুটপাটে জড়িত ছিলেন। অথচ স্বাধীনতার ৫৩ বছর পর একটি মামলার তদন্ত প্রতিবেদনে ওই কুখ্যাত রাজাকারকে স্বাধীনতার স্বপক্ষের মানুষ হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রতিবেদনটি দাখিল করেন সিআইডির রেজাউল করিম নামে এক কর্মকর্তা। প্রতিবেদনটি প্রত্যাহার ও দালিলকারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে মানববন্ধনে দাবি তোলা হয়।

সমাবেশটি সঞ্চালনা করেন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও শিক্ষিকা লিপি রানী রায়। মানববন্ধন ও সমাবেশে বীর মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ পরিবারের সন্তান, মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান ও সর্বস্তরের নারী-পুরুষ অংশ নেন।

আরও খবর



সৌদিতে তীব্র তাপপ্রবাহে ৫৫০ হজযাত্রীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭১জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে সৌদী আরবে চলতি বছরে হজের সময় অন্তত সাড়ে ৫০০ হজযাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। দুই আরব কূটনীতিকের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা ডব্লিউআইওএন।

এএফপির তথ্যানুযায়ী, এখন পর্যন্ত একাধিক দেশ থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে হজযাত্রী মৃতের সংখ্যা ৫৭৭। শুধু আল-মুয়াইসেমের মর্গে ৫৫০ জনের মরদেহ রয়েছে বলে জানিয়েছেন কূটনীতিকেরা। মারা যাওয়াদের মধ্যে ৩২৩ জনই মিশরীয়। এছাড়া জর্ডানের মারা গেছেন ৬০ জন। যদিও এর আগে দেশটির ৪১ নাগরিকের মৃত্যুর কথা জানানো হয়েছিল।

সৌদি কর্তৃপক্ষ হজযাত্রী মৃত্যুর বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি। তবে তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে গরমে অসুস্থ হয়ে ২ হাজার জনের বেশি হজযাত্রীর চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানানো হয়েছে।

সৌদির জাতীয় আবহাওয়া কেন্দ্র জানায়, সোমবার (১৭ জুন) মক্কার গ্রান্ড মসজিদ এলাকায় তাপমাত্রা ৫১.৮ ডিগ্রি হয়ে যায়।

সৌদি কর্তৃপক্ষের হিসাব অনুযায়ী, এ বছর ১৮ লাখ মানুষ হজে অংশ নিয়েছে। যার মধ্যে ১৬ লাখই বিদেশি নাগরিক।

গত বছর হজ মৌসুমে বিভিন্ন দেশের ২৪০ জন মারা যান। তাদের মধ্যে অধিকাংশই ছিল ইন্দোনেশিয়ার নাগরিক।


আরও খবর



ehp[

ঈদযাত্রার শেষ দিনেও কাউন্টারে মানুষের ভিড়

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ৮৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে শেষ দিনেও রাজধানী থেকে বাড়ি ফিরছে মানুষ। সকাল থেকেই বাস কাউন্টারে অপেক্ষা করছেন অনেকে। বাস পেলেই রওনা হচ্ছেন বাড়ির পথে।রোববার (১৬ জুন) সকালে রাজধানীর ধোলাইপাড়, যাত্রাবাড়ী ও সায়েদাবাদ ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

যাত্রীরা বলছেন, প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে বাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা। তবে গাড়ি সেভাবে মিলছে না। অনেকক্ষণ অপেক্ষার পর মিলছে গাড়ি। তবে কষ্ট করে হলেও পরিবারের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে চান তারা।


আরও খবর