Logo
আজঃ শনিবার ২৫ মে ২০২৪
শিরোনাম

লিটনের রেকর্ডে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২০২

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ২৬৫জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক: আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয়টিতে মুখোমুখি বাংলাদেশ। যেখানে প্রথমে ব্যাট করা বাংলাদেশ লিটন দাসের দ্রুততম ফিফটির রেকর্ডে নির্ধারিত ১৭ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০২ রানের বিশাল সংগ্রহ পেয়েছে।

আজ বুধবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে খেলছে দুদল। টস জিতে টাইগারদের ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছেন আইরিশ অধিনায়ক পল স্টার্লিং। তবে টসের পরই দুই দফা বৃষ্টি নামে। অবশেষে স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা ৪০ মিনিটে খেলা শুরু হয়। দুদল ১৭ ওভার করে খেলবে। পাওয়ার প্লে ৫ ওভারে। দুজন বোলার সর্বোচ্চ ৪ ওভার করে করতে পারবেন। বাকিরা ৩ ওভার করে।

প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ উড়ন্ত শুরু পায়। টাইগার ব্যাটার হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে দ্রুততম হাফসেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন লিটন দাস। মাত্র ১৮ বলে দশম ফিফটির দেখা পান তিনি। লিটন ভাঙেন ২০০৭ সালে জোহানেসবার্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মোহাম্মদ আশরাফুলের ২০ বলে ফিফটির রেকর্ড।

অবশেষে দলীয় ১২৪ রানে বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটি ভাঙে। দশম ওভারে বেন হোয়াইটে বলে তুলে মেরে বাউন্ডারি লাইনে মার্ক অ্যাডায়ারকে ক্যাচ দেন রনি তালুকদার। ২৩ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৪৪ করেন রনি। ওপেনিংয়ে এখন এটিই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের জুটি। আগের সর্বোচ্চ ছিল মোহাম্মদ নাঈম ও সৌম্য সরকারের ১০২ রানের।

স্বাগতিকদের ইনিংসে ঝড় তোলা ১২তম ওভারে ব্যক্তিগত ৮৩ রানে বেন হোয়াইটের দ্বিতীয় শিকার হন লিটন দাস। ৪১ বলে ১০টি চার ও ৩টি ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান। এটি টি-টোয়েন্টিতে তার সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। আগেরটি ছিল ৭৩।

তৃতীয় উইকেট জুটিতে ২৯ বলে ৬১ রান তোলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও তাওহিদ হৃদয়। মার্ক অ্যাডায়ারের বলে ইনিংসের শেষ ওভারে আউট হওয়া হৃদয় ১৩ বলে ৩টি চার ও একটি ছক্কায় ২৪ করেন। তবে সাকিব ২৪ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩৮ রানে অপরাজিত থাকেন।

আইরিশ বোলারদের মধ্যে ২টি উইকেট পান বেন হোয়াইট। মার্ক অ্যাডায়ার একটি উইকেট দখল করেন।

সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতে বাংলাদেশ ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে।

বাংলাদেশ একাদশ: লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), রনি তালুকদার, নাজমুল হোসেন শান্ত, শামীম হোসেন, তাওহিদ হৃদয়, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মেহেদি হাসান মিরাজ, নাসুম আহমেদ, তাসকিন আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ।

আয়ারল্যান্ড একাদশ: পল স্টার্লিং (অধিনায়ক), রস অ্যাডেয়ার, লোরকান টাকার (উইকেটরক্ষক), হ্যারি টেক্টর, জর্জ ডকরেল, গ্যারেথ ডেলানি, কার্টিস ক্যাম্ফার, মার্ক অ্যাডায়ার, ফিওন হ্যান্ড, গ্রাহাম হিউম, বেন হোয়াইট।


আরও খবর



এমপি আনার হত্যায় সন্দেহভাজন সিয়াম কলকাতায় গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৮২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকাণ্ডের অন্যতম সন্দেহভাজন সিয়ামকে গ্রেপ্তার করেছে ভারতের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। হত্যার পর মরদেহ টুকরো টুকরো করে ফেলার সঙ্গে এই ব্যক্তি জড়িত বলে মনে করছে তদন্তকারীরা।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) ভারতের পশ্চিমবঙ্গের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) এ তথ্য জানিয়েছে। এর আগে, গতকাল বুধবার (২২ মে) গভীর রাতে সিয়ামকে গ্রেপ্তার করে কলকাতার নিউটাউন থানা পুলিশ।

এদিকে যে গাড়িতে করে এমপি আনারের মরদেহের টুকরো নিয়ে যাওয়া হয় সেই গাড়িটিও জব্দ করেছে পশ্চিমবঙ্গ সিআইডি। গত ৩০ এপ্রিল অনলাইন রেন্টালের মাধ্যমে গাড়িটি ভাড়া করে হত্যাকারীরা।

কলকাতায় খুন হলেও, তার হত্যাকারীরা বাংলাদেশি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। ইতোমধ্যে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার সন্দেহে এরমধ্যেই তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে বাংলাদেশের গোয়েন্দা পুলিশ।

তারা হলেন- হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেওয়া চরমপন্থি দল পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টির নেতা আমানউল্লাহ আমান, মোস্তাফিজ ও ফয়সাল।

গত ১২ মে ভারতের কলকাতায় যাওয়ার পর দুইদিন পর রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়ে যান তিনবারের এই সংসদ সদস্য। চিকিৎসার কথা বলে পরিবারের কাছ থেকে বিদায় নেয়ার পর আনার ১২ মে দর্শনা–গেদে সীমান্ত দিয়ে কলকাতা যান।

সেখানে তিনি উঠেছিলেন দীর্ঘদিনের পরিচিত বরানগরে গোপাল বিশ্বাস নামে এক বন্ধুর বাড়িতে। দুইদিন সেখানে থাকার পর বেরিয়ে যান বেরিয়ে যাওয়ার পর আর তার খোঁজ মেলেনি।

এরপর বুধবার (২২ মে) সকালের দিকে তার খুনের খবর সামনে আসে। জানা যায়, কলকাতার কাছেই নিউটাউনের অভিজাত আবাসন সঞ্জীবা গার্ডেনের (ব্লক ৫৬ বিইউ) একটি ফ্ল্যাটে আনারকে খুন করা হয়।

কলকাতা পুলিশের কর্মকর্তারা জানান, আনারকে সঞ্জীভা গার্ডেনে হত্যা করার পর মরদেহ অন্য কোথাও সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এ নিয়ে এখনো তদন্ত চলছে। তবে মরদেহ পাওয়া নিয়ে পরিষ্কার করে তারা বলছে না এখনও।

এদিকে ঢাকার শেরেবাংলা নগর থানায় নিহত সংসদ সদস্যের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী তারই ছোটবেলার বন্ধু ও ব্যবসায়িক অংশীদার আক্তারুজ্জামান শাহীন। তিনি ঝিনাইদহের বাসিন্দা ও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। শাহীনের ভাই ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর মেয়র।

হত্যার পরিকল্পনা করে তা বাস্তবায়নের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল আরেক বন্ধু ও চরমপন্থি নেতা আমানউল্লাহ আমানকে। কলকাতায় বসে হত্যার চূড়ান্ত ছক কষে বাংলাদেশে আসেন শাহীন।

পরে আমানসহ ছয়জন মিলে এমপি আজিমকে সঞ্জীবা গার্ডেন নামের একটি ফ্ল্যাটে ‘হানি ট্র্যাপে’ ফেলে ডেকে আনেন। এরপর তাকে জিম্মি করে বালিশচাপা দিয়ে হত্যা করা হয়। পরে মরদেহ কেটে টুকরো টুকরো করে ট্রলিব্যাগে ভরে ফেলা হয় অজ্ঞাত স্থানে।


আরও খবর



টানা পাঁচ দিন পর বেনাপোল স্থলবন্দরে ফিরলো কর্মচাঞ্চল্য

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৫৪জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোর জেলার শার্শা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গে লোকসভা নির্বাচন এবং বৌদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে টানা পাঁচ দিন বন্ধের পর আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে পণ্য আমদানি-রপ্তানিসহ বন্দরের সব কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

২৩ মে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম শুরু হয়। টানা পাঁচ দিন ছুটির পর ফের বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হওয়ায় বন্দরে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থলবন্দন চেকপোস্ট কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা আজিজ খান।

বেনাপোল স্থলবন্দর স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সাজেদুর রহমান জানান,ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁয় লোকসভা নির্বাচন, যশোরের শার্শা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ও বৌদ্ধপূর্ণিমা উপলক্ষে টানা পাঁচ দিন বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দুই দেশের মধ্যে সব ধরনের আমদানি-রপ্তানিসহ সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ ছিল। বৃহস্পতিবার সকালে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যিক কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে শুরু হয়েছে। এতে বন্দরের ব্যবসায়ী, শ্রমিক ও চালকদের মাঝে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে।

তবে বাণিজ্য বন্ধ থাকলেও বেনাপোল আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে শুধুমাত্র মেডিকেল ভিসাধারী রোগী পাসপোর্ট যাত্রী পারাপার হয়েছে বলে ইমিগ্রেশন ইনচার্জ আযহারুল ইসলাম জানিয়েছেন।


আরও খবর



বিরামপুরে ধান-চাল সংগ্রহের শুভ উদ্বোধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৬৯জন দেখেছেন

Image

মিজান, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুর জেলার বিরামপুর সরকারি খাদ্য গুদামে চলতি মৌসুমের বোরো ধান, চাল ও গম সংগ্রহ অভিযানের শুভ বভউদ্বোধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ মে) সকালে চলতি মৌসুমের বোরো ধান, চাল ও গম সংগ্রহ অভিযানের শুভ উদ্বোধন করেন, দিনাজপুর-৬ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক এমপি ।

সরকারি খাদ্য গুদামে ধান, চাল ও গম সংগ্রহের সময় উপস্থিত ছিলেন, বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা মঈন উদ্দিন, বিরামপুর (চরকাই) খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লুৎফর রহমান খন্দকার, বিরামপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকার নিজস্ব প্রতিনিধি আকরাম হোসেন, বিরামপুর  প্রেসক্লাবের আহবায়ক সহকারী অধ্যাপক মশিহুর রহমান, যুগ্ম-আহবায়ক হাফিজ উদ্দিন সরকার, চাউল কল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হবিবর রহমান, সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অদৈত কুমার অপু, মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মেজবাউল হক প্রমূখ।

বিরামপুর (চরকাই) খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লুৎফর রহমান খন্দকার জানান, চলতি মৌসুমের বিরামপুর (চরকাই) খাদ্য গুদামে ৩২ টাকা কেজি দরে ১ হাজার ৫৮১ মেট্রিক টন ধান, ৪৫ টাকা কেজি দরে ৪ হাজার ৭৪০ মেট্রিক টন চাল ও ৩৪ টাকা কেজি দরে ২০ মেট্রিক টন গম ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে।


আরও খবর



শার্শা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:২য় ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শার্শা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ করেছেন নির্বাচন কমিশন।

২ মে বৃহস্পতিবার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও রিটার্নিং অফিসার এস এম শাহীন প্রার্থীদের মাঝে এ প্রতীক বরাদ্দ করেন। চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপিত ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মিন্নু ( মটরসাইকেল), যুগ্ম সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ ইব্রহিম খলিল (ঘোড়া), উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অহিদুজ্জামান অহিদ (আনারস) ও উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সোহারাব হোসেন (দোয়াত কলম) মার্কা।

বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী আলেয়া ফেরদৌস (হাঁস), নাজমুন নাহার (ফুটবল), জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শামিমা আলম সালমা (কলস) মার্কা।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সরদার সাহরিন আলম বাদল (টিউবওয়েল), সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদার (তালা), যুবলীগ নেতা তরিকুল ইসলাম মিলন (টিয়া পাখি)। শফিকুল ইসলাম মন্টু (চসমা) মার্কা। আগামী ২১ মে শার্শা উপজেলার ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



মূল্যস্ফীতি সাড়ে ৭ শতাংশে নেমে আসবে: সংসদে অর্থ প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সরকারি ব্যয়ে কৃচ্ছ্রতা সাধনসহ বিভিন্ন পদক্ষেপের ফলে চলতি অর্থবছরের শেষে মূল্যস্ফীতি নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা ৭ দশমিক ৫ শতাংশের মধ্যে নেমে আসবে বলে জানিয়েছেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান।

রোববার (৫ মে) জাতীয় সংসদের বৈঠকে ‘২০২৩-২৪ অর্থবছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকের বাজেট বাস্তবায়ন অগ্রগতি প্রতিবেদন’ উপস্থাপন করতে গিয়ে এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেন, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ সরকারের নির্ধারিত অগ্রাধিকারগুলোর মধ্যে অন্যতম। মূল্যস্ফীতিকে সহনীয় পর্যায়ে রাখতে সরকার গত বছর থেকেই বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে আসছে। তবে রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাত, আন্তর্জাতিক বাজারে পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি এবং মার্কিন ডলারের মূল্য বৃদ্ধির কারণে সারা বিশ্বে উচ্চ মূল্যস্ফীতির চাপ দেখা যায়, যার ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশেও মূল্যস্ফীতির চাপ প্রকট হয়েছে।

মূল্যস্ফীতির মতো বৈদেশিক মুদ্রার মজুত শক্ত অবস্থানে ফিরে আসা, রাজস্ব সংগ্রহ বৃদ্ধি এবং অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যও অর্জন সম্ভব হবে বলে ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন ওয়াসিকা আয়শা খান।

তিনি আরও বলেন, সরকার এরইমধ্যে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়ানোর বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। তাই বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ খুব দ্রুত শক্ত অবস্থানে ফিরে আসবে।

সংসদে উপস্থাপিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি অর্থবছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে রাজস্ব আয়, রপ্তানির প্রবৃদ্ধি, বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির ব্যয়, ব্যাপক মুদ্রার সরবরাহের মতো মৌলিক অর্থনৈতিক চলকগুলো সন্তোষজনক পর্যায়ে রয়েছে। রপ্তানি আয়ে ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি হয়েছে। তবে সরকারের কৃচ্ছ্রসাধনের ফলে আমদানি ব্যয় নেতিবাচক। সার্বিকভাবে চলতি অর্থবছরে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জন হবে বলে এই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আগামী জুলাই থেকে কাস্টমস আইন-২০২৩ বাস্তবায়ন শুরু হবে। এছাড়া দশ লাখ বা তার বেশি টাকার মূল্য সংযোজন কর(মূসক) পরিশোধে ই-পেমেন্ট বা এ চালান ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হবে।

এছাড়া উৎসে কর কাটার জন্য ইলেক্ট্রনিক সিস্টেমের ব্যবস্থা করা করা হবে। এছাড়া ইলেক্ট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস (ইএফডি) এবং সেলস ডেটা কন্ট্রোলার (এসডিসি) মেশিন বসানোর কার্যক্রম চলছে। থার্ড পার্টির মাধ্যমে এ কাজ দ্রুত করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

নতুন করদাতা সনাক্তকরণ, মিডিয়াম অ্যান্ড লং টার্ম রেভিনিউ স্ট্রাটেজি প্রনয়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জাতীয় সংসদকে জানানো হয়েছে। এতে অর্থবছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে রাজস্ব সংগ্রহ বাড়বে বলে অর্থ প্রতিমন্ত্রী মনে করেন।

অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেন, জুলাই থেকে ডিসেম্বর সময়ে কর রাজস্ব ১৩.৯ শতাংশ বেড়েছে। সরকারি ব্যয় হয়েছে ১ লাখ ৯৪ হাজার ৮৯৮ কোটি টাকা, যা আগের অর্থবছরের তুলনায় ৫ দশমিক ৬২ শতাংশ বেশি। প্রথম ছয় মাসে এডিপি বাস্তবায়ন হয়েছে মোট বরাদ্দের ২৩ দশমিক ৩ শতাংশ , যা আগের অর্থবছরের তুলনায় ১ দশমিক ৫ শতাংশ বেশি। ডিসেম্বর শেষে রপ্তানি আয় দাড়িয়েছে ২৭ দশমিক ৫৪ বিলিয়ন ডলার, যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় শুন্য ৮৪ শতাংশ বেশি।

অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে আমদানি ব্যয় ১৯ দশমিক ৮০ শতাংশ কমেছে। বিলাসদ্রব্যের আমদানি পরিশোধ করা এবং মিতব্যয়িতার কারণে আমদানি কমেছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

জুলাই থেকে ডিসেম্বর সময়ে প্রবাস আয় এসেছে ১০ দশমিক ৭৮ বিলিয়ন ডলার, যা আগের অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসের তুলনায় ২ দশমিক ৯১ শতাংশ বেশি।

ওয়াসিকা আয়শা খান বলেন, বিগত কয়েক বছর ধরে কোভিড এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধসহ অন্যান্য ভূরাজনৈতিক কারনে বৈশ্বিক অর্তনীতিতে এক ধরনের অস্থিরতা বিরাজ করছে। বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ও সামগ্রিক পরিস্থিতি বিবেচনায় চলতি অর্থবছরে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৭ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৬ দশমিক ৫ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে।


আরও খবর