Logo
আজঃ রবিবার ২৬ মে ২০২৪
শিরোনাম

কুষ্টিয়ার ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আবারো দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image
কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃকুষ্টিয়ার সদর উপজেলার হরিনারায়ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান সম্রাটের বিরুদ্ধে একের পর এক দুর্ণীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। তবে তার বিরুদ্ধে এখনো কোন ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। যার ফলে চেয়ারম্যান আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন এবং সবকিছু তার নিজের মর্জিতে লুটপাট করে চলেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন- ওই ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা মেম্বার সহ আরও অনেকে। তিন মহিলা মেম্বার কোন উপায় না পেয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দপ্তরে গেলেও কোন সমাধান মিলছে না। আবার উল্টো চেয়ারম্যানের গুন্ডা বাহিনীর হুমকি ও লাঞ্চিত হচ্ছে। এবার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দুদকে। 
 
লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন- আমি মোছাঃ রূপসী আকতার, ১২নং হরিণারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদ ৭,৮,৯, নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর ও প্যানেল চেয়ারম্যান ২, ১২নং হরিনারায়ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান সম্রাট এর নামে আনিত অভিযোগ। দূর্নীতি ও অনিয়মগুলো তুলে ধরা হলো- বরাদ্দকৃত কাজের কোন মিটিং আলোচনা ছাড়াই সবকিছু নিজের লোকজন দিয়ে পরিচালনা করেন। আবার কৌশলে সচিবকে দিয়ে সাদা কাগজে সই করিয়ে নিয়ে পরে ইচ্ছামত গদ বসিয়ে দেন। ১৫টি প্রকল্পের টাকা লামছাম কাজ করে প্রায় কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এছাড়া- ১। হাট বাজারের টাকা পায় ৩,৫০,০০০/- তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা ২। ট্রেড লাইসেন্স প্রায় ৪,৫০,০০০/- চার লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা ৩। বাসা বাড়ীর ট্যাক্স প্রায় ১০,০০,০০০/- দশ লক্ষ টাকা ৪। কাজ করার কথা বলে প্রস্তাব দিয়ে ১% এর ২,০০,০০০/- দুই লক্ষ টাকা, আবার কাজ না করে নিজেই তুলে আত্মত্মসাৎ করেন। ৫। প্রতিবছর ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় ১০,০,০০০/- দশ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা সর্বনিম্ন আয় এতকিছুর পরেও ৩,০০,০০০/- তিন লক্ষ টাকা বাজেট ঘাটতি দেখিয়েছেন। এর হিসাব চাইলে সচিব কোন হিসাব দেয় না। এদিকে প্রতি মাসে মেম্বরদের বেতন ৪৪০০/- টাকা বহন করবে সরকারি নিয়ম অনুযায়ী। কিন্তু ৮-৯ মাস পর চার মাসের বেতন দিলেও আবার তার থেকে ৪০০/- কেটে নেওয়া হয়। হাট বাজার বরাদ্দের টাকার নামে আবার বেতনের টাকা না দিয়েও বেতন বহিতে স্বাক্ষর করিয়ে নিয়েছেন এই আলোচিত চেয়ারম্যান। এদিকে কৃষকের বরাদ্দের কোন মেম্বরদের সাথে আলোচনা না করেই দেওয়া হয় ও নির্যাতন চালানো হয়।

আমি এর প্রতিবাদ করলে আমার বাড়ীতে রাতের বেলা চেয়ারম্যানের নাম করে ০৪ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমি এবং আমার পরিবারের প্রাণ নাশের হুমকী দিয়ে যায়। তারপর আমি এ বিষয়ে ইবি থানাতে গিয়ে ওসি স্যারকে সকল বিষয়গুলো বলি। তারপর তিনি অজ্ঞাত নামে একটি অভিযোগ নেই। এতে আমার প্রাণ নাশের হুমকী আরও বেড়ে যায়। তখন আমি এর থেকে বাচার জন্য একটি পেপারিং করে সকলকে বিষয়টি জানাই। তারপর সে আমাকে মারতে না পেরে আমার উপর বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন করা শুরু করে। আমাকে বিভিন্ন অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে হুমকী দেয় এবং আমাকে পরিষদের সকল প্রকার বরাদ্দকৃত জিনিস থেকে বঞ্চিত করে আসছে। এ বিষয়ে আমি একটি মিটিং এ হাজির হয়ে চেয়ারম্যানের কাছে বলি আমাকে কেন কোনকিছু দেওয়া হচ্ছে না? তাতে চেয়ারম্যান বলে, আমি তোমাকে কোন কিছু দিব না এবং আমি তোমাকে এখন পর্যন্ত সুস্থ্য রেখেছি সেটাই তোমার জন্য বড় কপাল। উপরোক্ত বাক্যটি সকল মেম্বরগণ উপস্থিত থাকাবস্থায় শ্রবণ করেন এবং মেম্বারকে উক্তি করে এমন কথা বলেছেন বলে স্বীকার করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট। এই বিষয়ে চেয়ারম্যান প্রতিনিধি’কে বলেন, ভাই আপনারা মহিলাদের কথা শুনেই নিউজ করতে ব্যস্ত হয়ে যান । আরও আমার অনেক সদস্য আছে তারা কখনও কি আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে । আপনারা সাংবাদিক যা ভালো বুঝেন তাই লিখবেন , তবে অবশ্যই সত্যটা লিখবেন ।

আরও খবর



মানবতা ও মহৎ গুণের অধিকারী কাফরুল থানার ওসি ফারুকুল আলম

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ২৩জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার:ডিএমপি মিরপুর বিভাগের  কাফরুল  থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা  (ওসি) ফারুকুল আলম সম্পর্কে যতটাই জানা যায় ততটাই যেন মানবতার এক বিরল দৃষ্টান্ত লক্ষ্যনীয়। মানুষের বিপদে পাশে থেকে সর্বদা সাহায্য সহোযোগিতার করার মাধ্যমে এক মহৎ গুণ ফুটে ওঠে তার চরিত্রে। 

বাংলাদেশ পুলিশে কর্মরত এই (ওসি) সাধারণ মানুষের জন্য সর্বদাই কাজ করে থাকেন । রাত যত গভীর হওয়া হোক না কেন তার ফোনে কল দিয়ে তাকে পাইনি এমন মানুষ পাওয়া যাবে না। 

তিনি তার চাকুরী জীবনের শুরু থেকেই মানুষকে আলোর পথে আনতে বিভিন্ন মহৎ কর্মকাণ্ড নিজেই পরিচালনা করে এসেছেন। 

অনেক অসহায় দরিদ্র শিশুদেরকে শিক্ষার আলোয় আলোকিত করতে তাদের পড়াশোনার খরচ বহন করে চলেছেন তিনি।

কাফরুল থানাকে একটি রোল মডেল থানা  পরিণত করার জন্য তিনি দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। সম্প্রতি তিনি কাফরুল থানা এলাকার তাই সকল রাস্তা কে সিসি ক্যামেরার আওতায় এনেছেন। এদিকে তীব্র তাপদাহে  যখন মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছিল তখন তিনি সাধারণ মানুষের জন্য পানি ব্যবস্থা করেন।

আরও খবর



মেট্রোরেল শুক্রবারও চালু রাখার সিদ্ধান্ত আসছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ১০৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মেট্রোরেল রাজধানীতে যানজটমুক্ত গণপরিবহন হিসেবে দ্রুতই জনপ্রিয়তা পেয়েছে । বর্তমানে মেট্রোরেল সপ্তাহে ছয় দিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলাচল করছে। সাপ্তাহিক বন্ধ রাখা হয় শুক্রবার।

সম্প্রতি যাত্রীরা সাপ্তাহিক ছুটির দিনও মেট্রোরেল সুবিধা পেতে চাচ্ছেন। এছাড়া যাত্রী বাড়ায় দ্রুতই শুক্রবারেও এ সুবিধা চালুর প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে মেট্রোরেল পরিচালনা প্রতিষ্ঠান ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল)।

ডিএমটিসিএল সূত্রে জানা গেছে, আগামী জুলাই মাস থেকে শুক্রবারেও অন্যান্য দিনের মতো মেট্রোরেল চলাচলের বিষয়ে প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে।

মেট্রোরেল সূত্র জানায়, যাত্রীর চাপ বাড়ায় সকাল ও সন্ধ্যায় পিক আওয়ারের হেডওয়ে সময় (দুই ট্রেনের মধ্যবর্তী অপেক্ষমাণ সময়) কমানো হবে বলেও জানা গেছে। এটি জুনে কার্যকর হতে পারে। এক্ষেত্রে হেডওয়ে সময় কমিয়ে ৫ মিনিট করা হতে পারে; যা বর্তমানে ৮ মিনিট আছে।

এদিকে মেট্রোরেলের জনবল বাড়াতে শিগগিরই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেবে ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল)। তবে এক্ষেত্রে স্থায়ী নয় চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ হতে পারে।

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের কোম্পানি সচিব (যুগ্ম সচিব) মোহাম্মদ আবদুর রউফ বলেন, নিয়োগের বিষয়ে আমার কোনো ধারণা নেই। যদি এরকম কোনো সিদ্ধান্ত হয় তাহলে হয়ত কয়েকদিন পরে আমাদের এমডি এম এ এন ছিদ্দিক সংবাদ সম্মেলন করে জানাবেন।


আরও খবর



জয়পুরহাটে ট্রাক্টর - সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ নিহত ২ আহত ৪

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৬৬জন দেখেছেন

Image
এস এম শফিকুল ইসলাম জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃজয়পুরহাটে ট্রাক্টর -সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন ধানকাটা শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৪ জন। তাদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে । রবিবার সন্ধ্যায় জয়পুরহাট - আক্কেলপুর সড়কের দাদড়া এলাকায়  এ দূর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  হুমায়ুন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- ধানকাটা শ্রমিক পাঁচবিবি উপজেলার সালুয়া গ্রামের জীতেন বর্মন (৪০)। বড় মানিক গ্রামের ইদ্রিস আলী। 

আহতরা হলেন -  পাঁচবিবি উপজেলার সালুয়া গ্রামের মৃত উতিন মন্ডলের ছেলে  সুনীল বর্মন (৪৫) একই গ্রামের আসির উদ্দিনের ছেলে ইসমাইল (৪৩)তোনসেনের ছেলে  আজিজুল ইসলাম (৪৫) 
জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  হুমায়ুন কবির জানান, কয়েকজন শ্রমিক নওগাঁর রানীনগরে ধানকাটা শেষ করে সিএনজি করে  নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। এসময় দাদড়া এলাকায় দ্রুত গামী একটি ট্রাক্টরের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই দু'জন ধানকাটা শ্রমিক মারা যান । এ ঘটনায় আহত হন ৪ জন। তাদের ফায়ারসার্ভিস সদস্যরা  উদ্ধার করে জয়পুরহাট ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আরও খবর



মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় কিশোর নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৯৪জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের তল্লাবাড়িয়া এলাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় বাবুখালী ইউনিয়নের বহলবাড়িয়া গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে জান্নাত (১৭) নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে সদরের বরুনাতৈল গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে ওসমান (১৬)। বৃহস্পতিবার দুপুরে এই দূর্ঘটনা ঘটে।

আরও খবর



সৈয়দপুরে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ,থানায় অভিযোগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | ৪১জন দেখেছেন

Image
সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:বাড়িতে একা পেয়ে সৈয়দপুরের এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে । ধর্ষণের শিকার ওই কলেজছাত্রী ২৪ মে শুক্রবার দুপুরে হাসানুল ইসলাম (৩০)নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে সৈয়দপুর থানায় মামলা করেছে। অভিযুক্ত যুবক হাসানুল ইদলাম অনিক শহরের আতিয়ার কলোনী এলাকার মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে। সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহা আলম  এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

মামলার অভিযোগ ও ভুক্তভোগীর পরিবার সুত্রে জানা যায়, অনিকের সাথে সৈয়দপুর শহরের রসুলপুর এলাকার এক কলেজের একাদশ শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রীর দুই বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মেয়েটির মা বৃহস্পতিবার সকালে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে আনসার ভিডিপির সদস্যের মিটিংয়ে যান। এ সময় মেয়েটি একাই বাড়িতে অবস্থান করছিল । এই সুযোগে ওইদিন দুপুরে কলেজছাত্রীকে তার ঘরে একা পেয়ে হাসানুল ইসলাম ধর্ষণ করেন। পরে মেয়েটির মা বাড়িতে এসে খবর পেয়ে স্হানীয় থানায় অভিযোগ করেন। পুলিশ  হাসানুলকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। 

সৈয়দপুর থানার ওসি শাহা আলম বলেন, ওই কলেজছাত্রী নিজে বাদী হয়ে হাসানুলকে আসামি করে সৈয়দপুর থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন।হাসানুলকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ছাত্রীর পরীক্ষার জন্য নীলফামারী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি। 

আরও খবর