Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

ক্ষমা চাইলেন সুনেরাহ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ জুন ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ২৮৪জন দেখেছেন

Image

বিনোদন প্রতিবেদক:চিত্রনায়ক শরিফুল রাজের ফেসবুকে থেকে ‘গোপন’ ভিডিও ফাঁসের ঘটনায় সবচেয়ে বেশি সমালোচিত হয়েছেন ন ডরাই’খ্যাত অভিনেত্রী সুনেরাহ বিনতে কামাল। আর এই ঘটনার পরপরই প্রকাশ্যে আসে রাজ-পরী দম্পতির ব্যক্তিজীবনের নানা বিষয়। তাদের সংসারজীবন এখন ‘বিচ্ছেদ’র পর্যায়ে। ভিডিও ও ছবি ফাঁসের পরপরই ফেসবুকে এক পোস্ট দেন সুনেরাহ। তবে সেখানে ভিডিওগুলো প্রসঙ্গে খুব একটা কথা না বললেও অভিযোগের আঙ্গুল তুলেন শরিফুল রাজের স্ত্রী পরীমণির দিকে।

অবশেষে প্রকাশিত ‘গোপন’ ভিডিও ও ছবিগুলোর জন্য ক্ষমা চাইলেই তিনি। সুনেরাহর কথায়, ‘ভিডিওতে যে ধরনের শব্দ আমি ব্যবহার করেছি, সেটার কারণে আমি সবার কাছে স্যরি বলতে চাই। আসলে ওই সময়টা আমি খুব চঞ্চল ছিলাম। আমার যারা ফ্রেন্ড তারা বিষয়টি খুব ভালো করেই জানেন। তখন বন্ধুদের সঙ্গে আমি ওইভাবেই মজা করতাম। আর ভিডিওটা আমি নিজেও করিনি। এখানে আসলে খারাপ কোনো উদ্দেশ্য ছিল না।

তিনি আরও বলেন, ‘আমি আবারও ক্ষমা চাইছি, এই ঘটনার জন্য। সবাইকে অনুরোধ করব, বিষয়টি নিয়ে আর কোনো আলোচনা না করার। তখনকার সুনেরাহ আর এখনকার সুনেরাহর মধ্যে আকাশ-পাতালতফাত।

তবে এই ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে সুনেরাহ বলেন, ‘কোনো প্রমাণ ছাড়া ভিডিও ফাঁসের ঘটনায় আমাকে দোষারোপ করাটা ঠিক হয়নি। আমার জায়গা থেকে যতটুকু ক্লিয়ার করার দরকার ছিল, তা আমি করেছি। কারও প্রতি আমার কোনো ক্ষোভ নেই। তবে যে পরিস্থিতি এখন চলছে, সেটা আসলে আমি ডিজার্ভ করি না। এটা নিয়ে কোনো কথাও আর বলতে চাই না।

এর আগে, ছবি ও ভিডিও ফাঁসের ঘটনার পরপরই সুনেরাহ এক ফেসবুক পোস্টে জানান, আমি রাজকে ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে চিনি। সে আমার অনেক ভালো বন্ধু ছিল। একটাই সমস্যা তা হলো সে ছেলে আর আমি মেয়ে। তার বিয়ের পর থে‌কে আমাদের প্রায় যোগাযোগই ছিল না। সেদিন একটা ডাবিং স্টুডিওতে আমা‌দের দেখা হলো। আমরা একস‌ঙ্গে ছ‌বি তুললাম। আমি জানি না, পুরোনো বন্ধুর সঙ্গে একটা ছবি তোলা কী অপরাধ। কোনো কারণ ছাড়াই তার স্ত্রী (পরীমণি) আমার ওপর রেগে গেল।

ফাঁস হওয়া ভিডিওগুলো নিয়ে এই অভিনেত্রী লিখেন, ‘যে ভিডিওগুলো আপনারা দেখেছেন, সেগুলো পাঁচ বছর আগের। তখন আমাদের বয়স কম ছিল এবং সবসময় মজা করতাম, প্রতিদিন আমরা এভাবে কথা বলার প্রাকটিস করতাম। কারণ, আমাদেরকে (বিশেষ করে আমাকে) সিনেমার প্রয়োজনে এভাবে গালি দিতে হয়েছে।’

সুনেরাহ আরও লিখেছেন, ‘তাকে (রাজকে) একটি ছবি আমি তখন পাঠিয়েছিলাম, তাকে এটা জানানোর জন্য যে আমি শুটিংয়ে মার খেয়েছি (যেখানে লিয়াকত আমাকে মারে, “ন ডরাই” সিনেমাটা যারা দেখেছেন, তারা জানবেন), মার খেয়ে কালশিটে পড়ে গিয়েছিল, উঠে দাঁড়াতেও পারছিলাম না। শুটিংয়ে যেতে পারব না এটা জানানোর জন্য ছবিটা পাঠিয়েছিলাম। তবে শুধু তাকে না, পরিচালককেও পাঠিয়েছিলাম।

বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার অনুরোধ জানিয়ে ন ডরাই’খ্যাত এই অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘আমি নিশ্চিত, ওর (রা‌জের) আইডি হ্যাকড হয়েছে। আর কে হ্যাক করেছে, সেটা আমরা সবাই জানি, প্রকাশ্যে হইচই করতে যার কোনো কারণ লাগে না (সে-ই করেছে)। এ ভিডিওগুলো যারা ছড়াবে তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে আমি আইনগত ব্যবস্থা নেব।


আরও খবর



সড়কে চাপ আছে, কিন্তু রাস্তার কোনো যানজট নেই: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিকর হয়েছে , সড়কে চাপ আছে কিন্তু রাস্তার কোনো যানজট হচ্ছে না। শুক্রবার (১৪ জুন) ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদযাত্রা স্বস্তিকর হয়েছে। গত কয়েকবছর ধরেই মানুষ স্বস্তি পাচ্ছে। এবার আমরা আরও মনোযোগী হচ্ছি দুর্ঘটনা কমাতে। সড়কে চাপ আছে, কিন্তু যানজট নেই। সড়কে চাপ থাকবেই। রাস্তার জন্য কোনো যানজট হচ্ছে না। সর্বকালের সবচেয়ে ভালো সড়ক এখন। পশুর হাট, গাড়ি রাস্তায় চাপ সৃষ্টি করে।

কোরবানি ঈদের সময় পশুর হাট চাপ সৃষ্টি করে । পশুবাহী গাড়ি, যত্রতত্র পশুর হাট যেন রাস্তায় দূর্ভোগ সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন ওয়ায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বৃষ্টি হলে দুর্ভোগ এড়ানো কঠিন।

বাজেট বাস্তবতা ভারসাম্যমূলক বাজেট উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, আজকে আমাদের দেশে বাজেট সেশন চলছে। এই বাজেট নিয়ে আলোচনা আছে, সমালোচনা আছে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও বাজেট আছে। এই বছর ৬৪ দেশে নির্বাচন হওয়ার কথা। আমাদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতেও নির্বাচন শেষ হয়েছে।

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, বাজেট নিয়ে আলোচনা, সমালোচনা আছে, মূল্যস্ফীতি নিয়ে সরকারে উদ্বেগ আছে। কিন্তু সরকার কোন কিছুই গোপন করছে না। মূল্যস্ফীতি নিয়ে ইউরোপও ভুগছে। তাদের মূল্যস্ফীতি ১০ শতাংশ। আশপাশের দেশগুলোতেও মূল্যস্ফীতি অনেক বেশি। দ্রব্যমূল্য নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন হই কিন্তু অন্যদেশের গুলোও দেখা দরকার।

কাদের বলেন, আমাদের ভোটার টার্নআউট নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোটার টার্নআউট অনেক কম। বিরোধী দলের ভোট বর্জনের পরও বাংলাদেশে ভোটার উপস্থিতি ৪২ শতাংশ হয়েছে। এটা কম নয়।

কাদের বলেন, আওয়ামী লীগে ভুল ত্রুটি আছে। কিন্তু ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ। দূর্নীতিবাজ কারো বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সাহস দেখায়নি বিএনপি। আওয়ামী লীগের সময় ঝিনাদহের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমের হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককেও রিম্যান্ডে আনা হয়েছে। অভিযুক্ত হলে ছাড় দেওয়া হবে না। কারণ, দুদক, বিচার বিভাগ স্বাধীন।

এসময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, আফজাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।


আরও খবর



ছাতকে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ৬৯জন দেখেছেন

Image

আনোয়ার হো‌সেন র‌নি,ছাতক প্রতি‌নি‌ধি:সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামের মরহুম মাস্টার হাবিবুর রহমান ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে এবং আলো রক্তদান সমাজ কল্যান সংস্থার সহযোগিতায় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উপজেলার ছৈলা-আফজলাবাদ ইউনিয়নের নোয়াপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়। বেলা ৩টা পর্যন্ত টানা পাঁচঘন্টা ব্যাপী চলে এ রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন।

প্রধান অতিথি হিসেবে ক্যাম্পেইন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুর রউফ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পরিচালনা কমিটির সাবেক সদস্য জাকির হোসেন, ব্যবসায়ী মুহিবুর রহমান, রশিদ আহমদ, শাহাব উদ্দিন।

উপস্থিত ছিলেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল আলী, সহকারী শিক্ষক রেজ্জাদ আহমদ শিক্ষিকা হোসনেয়ারা বেগম ও লাভলী বেগম, পরিচালনা কমিটির সদস্য শাহনুর আলী, তরুন সমাজকর্মী তাহমিদ আহমদ, আলো রক্তদান সমাজ কল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ফজলুল করিম সুমন, সাংগঠনিক সম্পাদক লিয়ন আহমেদ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল হাসান, অর্থ সম্পাদক জামিল আহমেদ ইসমাঈল, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রেদওয়ান আহমেদ চৌধুরী, সহ প্রচার সম্পাদক সাকির হোসেন প্রমুখ।ক্যাম্পেইনে বিদ্যালয়ের আড়াইশ শিক্ষার্থীসহ এলাকার অর্ধশতাধিক লোকজনের বিনা মূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করেন আলো রক্তদান সমাজ কল্যাণ সংস্থার নেতৃবৃন্দ।


আরও খবর



আফগানিস্তানের শুভসূচনা রেকর্ড গড়া জয় দিয়ে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১২৩জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:আফগানিস্তানের লক্ষ্যটা উগান্ডার বিপক্ষে কেবল জয় না। রশিদ খানের দল চেয়েছিল রানরেটের ব্যবধানটাও এগিয়ে রাখতে। সেই লক্ষ্যে অনেকটাই সফল হয়েছে তারা। ১২৫ রানের বিশাল জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছে দলটি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে যা চতুর্থ বৃহত্তম জয়। রহমানউল্লাহ গুরবাজ আর ইব্রাহিম জাদরানের ফিফটির পর ফজল হক ফারুকির ফাইফার নিশ্চিত করেছে আফগানদের বড় জয়।

মঙ্গলবার (৪ মে) গায়ানায় উগান্ডার বিপক্ষে ১২৫ রানে জয় পেয়েছে রশিদ খানের দল। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ১৮৩ রানের বড় সংগ্রহ পায় আফগানিস্তান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৫৮ রানেই গুটিয়ে যায় প্রথমবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে আসা দল উগান্ডা। আফগানিস্তানের হয়ে ৫ উইকেট নিয়েছেন ফজলহক ফারুকী। ম্যাচ সেরাও হয়েছেন বাঁহাতি এই পেসার।

১৮৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই উইকেট হারাতে থাকে উগান্ডা। ফজলহক ফারুকীর প্রথম ওভারেই দুই উইকেট হারায় তারা। এরপর দ্বিতীয় ওভারেও উইকেট হারায় উগান্ডা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা। শেষ পর্যন্ত মাত্র ৫৮ রানে থামে উগান্ডার ইনিংস। উগান্ডার হয়ে মাত্র দুইজন ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের রান করতে পেরেছেন। তাতে ১২৫ রানে বিশাল জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আফগানিস্তান।

আফগানদের হয়ে ফারুকী ৪ ওভার বোলিং করে ৯ রানে ৫ উইকেট নেন। এছাড়াও নবীন-উল-হক ২ ওভারে ৪ রানে দুইটি এবং অধিনায়ক রশিদ খান ৪ ওভারে ১২ রানে ২টি উইকেট পেয়েছেন। বাকি উইকেটটি পেয়েছেন মুজিব উর রহমান।

এর আগে দুই আফগান ওপেনার ইব্রাহিম জাদরান এবং রহমানুল্লাহ গুরবাজের ব্যাটিং তাণ্ডবে উগান্ডার বিপক্ষে বিশাল সংগ্রহ পায় রশিদ খানের দল। আফগানিস্তানের ওপেনিং জুটি থেকে আসে ১৫৪ রান। গুরবাজ ৪৫ বলে ৪ চার এবং সমান সংখ্যক ছক্কার মারে ৭৬ রানের ইনিংস খেলেন। অপরদিকে আরেক ওপেনার ইব্রাহিম জাদরান করেন ৪৬ বলে ৭০ রান। এই জুটি ভাঙার পরই রানের চাকা ধীরগতির হয়ে যায়। উগান্ডার নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে দুই ওপেনার ছাড়া কোন ব্যাটসম্যান বাউন্ডারি হাঁকাতে পারেননি।

এদিকে মাত্র ৫৮ রানে অলআউট হয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে লজ্জার রেকর্ডে নাম লিখিয়েছে উগান্ডা। বিশ্বকাপে চতুর্থ দলীয় সর্বনিম্ন রান এটি। বিশ্বকাপে সর্বনিম্ন দলীয় রানের রেকর্ডটি অবশ্য নেদারল্যান্ডসের দখলে। ২০১৪ বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাত্র ৩৯ রানে অলআউট হয়েছিল ডাচরা।


আরও খবর



রাফায় মোতায়েন ইসরায়েলের ট্যাঙ্ক,নিহত ২১

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ১৪৮জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:মঙ্গলবার (২৮ মে) প্রথমবারের মতো রাফাহের কেন্দ্রে ইসরায়েলি ট্যাঙ্কগুলি অগ্রসর হয়েছে। মিশরের সীমান্ত থেকে এই জায়গাটি প্রায় ৫০০ মিটার দূরে। সেখানে তুমুল গোলা হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েল।

সাংবাদিক ও প্রত্যক্ষদর্শীরা এ কথা জানিয়েছে। রাফার আশ্রয় শিবিরগুলোতেও ইসরায়েলের বিমান হামলা চলছে। সর্বশেষ হামলায় নিহত হয়েছে ২১ জন।

আল আওদা মসজিদের কাছে ইসরায়েলের ট্যাংক এবং মেশিনগান সজ্জিত সাজোঁয়া যান দেখা গেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

ওদিকে, রাফার পশ্চিমে উদ্বাস্ত ফিলিস্তিনিদের আরেক তাঁবু শিবিরে ইসরায়েলের বিমান হামলায় ২১ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

গাজার জরুরি সেবা বিভাগ জানিয়েছে, উপকূলীয় এলাকার আল-মাওয়াসির কয়েকটি তাঁবু শিবিরে আঘাত হেনেছে ইসরায়েলি ট্যাংকের গোলা।

ইসরায়েল রাফার পূর্বাঞ্চলে দু’সপ্তাহের বেশি সময় ধরে অভিযান চালাচ্ছে। এরমধ্যে রবিবার রাতে রাফার তেল আল-সুলতান আশ্রয়শিবিরে ইসরায়েলের হামলায় ৪৫ জন নিহতের ঘটনায় বিশ্বব্যাপী নিন্দার ঝড় বইছে।

তবে ইসরায়েলের ভাষ্য, তারা কেবল ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাসের কমান্ডারদের লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে। সাধারণ মানুষদেরকে হত্যার কোনও অভিপ্রায় তাদের নেই।

সূত্র:মিডলইস্ট মনিটর


আরও খবর



মাগুরার মহম্মদপুর ও শালিখা উপজেলায় ভোট গ্রহণ চলছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ১৩২জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে  মাগুরার মহম্মদপুর এবং শালিখা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে । সকাল ৮ টা থেকে ভোটার উপস্থিতি কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে সেই সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে। ভোটকে নির্বিঘ্ন করতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তৎপর রয়েছে।  
 
মহম্মদপুর উপজেলায় ৭ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে আব্দুল মান্নান আনারস এবং কবিরুজ্জামান কবিরের শালিক পাখি মার্কার মধ্যে মূল  প্রতিদ্বন্দ্বিতা হওয়ার আশা করছেন ভোটাররা। 
অন্যদিকে শালিখায় ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে শ্যামল কুমার দে এবং রেজাউল ইসলামের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দিতা হওয়ার সম্ভাবনার কথাও বলছেন ভোটাররা । 

মহম্মদপুর উপজেলার আটটি ইউনিয়নের ৬৪ টি ভোট কেন্দ্রে  এক লাখ ৮১ হাজার ৩৬২ জন ভোটার এবং শালিখা উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ৫৪ টি ভোট কেন্দ্রে ১ লাখ ৪৪ হাজার ২৫৫ জন ভোটারের জন্য ভোট প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

আরও খবর