Logo
আজঃ Friday ১৯ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে আবাসিকের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ডেমরায় প্যাকেজিং কারখানায় ভয়বহ অগ্নিকান্ড রূপগঞ্জে পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর গ্রেফতার রূপগঞ্জে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ॥ সভা সরাইলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত। নারায়ণগঞ্জে পারিবারিক কলহে স্ত্রীকে পুতা দিয়ে আঘাত করে হত্যা,,স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জ ইউএনও’র বিদায় সংবর্ধনা নাসিরনগরে স্বামীর পরকিয়ার,বলি ননদ ভাবীর বুলেটপানে আত্মহত্যা নাসিরনগরে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত ডেমরায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি পালিত

করোনাভাইরাসে আরও ছয়জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:Wednesday ০৮ December ২০২১ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৩৯৬জন দেখেছেন
Image

দেশে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ১৫ জনে। দেশে নতুন করে ২৯১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট ১৫ লাখ ৭৮ হাজার ২৮৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে ২৯৬ জন। এ নিয়ে দেশে মোট ১৫ লাখ ৪৩ হাজার ২০৪ জন করোনা থেকে সুস্থ হলো।

আজ বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৪৮টি ল্যাবে ২০ হাজার ৫৪৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা সংগ্রহ করা হয় ২০ হাজার ৬৪৪টি। করোনা শনাক্তের হার এক দশমিক ৩৫ শতাংশ। এই পর্যন্ত গড় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ২৯ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারী চারজন পুরুষ ও দুজন নারী। তাদের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে একজন ও ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে দুজন ও ৮১ থেকে ৯০ বছরের দুজন রয়েছেন। 

মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে তিনজন, চট্টগ্রাম বিভাগে একজন ও রাজশাহী বিভাগে একজন এবং সিলেট বিভাগে একজন রয়েছেন। এদের মধ্যে চারজন সরকারি ও দুজন বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছে। এ পর্যন্ত পুরুষ মারা গেছে ১৭ হাজার ৯২৪ জন আর নারী মারা গেছে ১০ হাজার ৯২ জন।

দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। ওই বছরের ১৮ জুন তিন হাজার ৮০৩ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে লাখ ছাড়িয়েছিল করোনার রোগী। সেদিন পর্যন্ত মোট শনাক্ত ছিল এক লাখ দুই হাজার ২৯২ জন। এ ছাড়া দেশে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে গত বছরের ১৮ মার্চ।


আরও খবর



ভোক্তা অধিদপ্তরের জরিমানা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে সহজ ডটকমের রিট

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ১৫ August ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
Image

রেলের টিকিট ও বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী মো. মহিউদ্দিন হাওলাদার রনির করা অভিযোগের ভিত্তিতে সহজ ডটকমকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। তবে এ জরিমানার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) সহজ ডটকমের পক্ষে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় ব্যারিস্টার তানজিবুল আলম এ রিট দায়ের করেন। তানজীব উল আলম নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রিটে জারিমানার আদেশ স্থগিতের পাশাপাশি এ আদেশ কেন বেআইনী ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারির প্রার্থনা করা হয়েছে। রিটে বাণিজ্য সচিব ও ভোক্তার অধিকারসহ চারজনকে বিবাদী করা হয়েছে।

এ বিষয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবির লিটনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন রিটকারী আইনজীবী।

গত ৭ জুলাই থেকে টাকা কেটে নিলেও ট্রেনের টিকিট না পাওয়ার অভিযোগে ঢাবির শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি কমলাপুর রেলস্টেশনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন। রেলের অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে ৬ দাবিতে এ কর্মসূচি শুরু করেন রনি।

রনির অভিযোগের পর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর গত ২০ জুলাই রেলের টিকিট বিক্রির দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান সহজ ডটকমের বিরুদ্ধে গ্রাহক অবহেলার প্রমাণ পাওয়ায় ২ লাখ টাকা জরিমানা করে। রাজধানীর কারওয়ান বাজারে অধিদপ্তরের কার্যালয়ে শুনানি শেষে এ জরিমানা করা হয়।

পরে এক ব্রিফিংয়ে সংস্থার মহাপরিচালক এ এইচ এম সফিকুজ্জামান বলেন, আইন অনুযায়ী ভোক্তার প্রতি সহজের অবহেলা পাওয়া গেছে। সহজের এই অবহেলা প্রমাণ হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটিকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী, জরিমানার ২৫ শতাংশ অর্থ দেওয়া হবে অভিযোগকারী রনিকে। অর্থাৎ তিনি পাবেন ৫০ হাজার টাকা।

‘সহজ যে সিস্টেমে অপারেট করে, সেটা কতটা ভোক্তাবান্ধব, বিশেষজ্ঞদের দিয়ে তা মূল্যায়ন করা হবে। যে ৫০ শতাংশ টিকিট অনলাইনে বিক্রি করার কথা তা পুরোপুরি অনলাইনে বিক্রি হয় কী না সেটিও খতিয়ে দেখা হবে।’

এদিকে, গতকাল (সোমবার) টানা ১৯ দিন আন্দোলনের পর রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা দেন মহিউদ্দিন রনি।

একই দিনে সহজ-জেভি সংবাদমাধ্যমে বিবৃতি দিয়ে রনির অভিযোগের বিষয়ে ব্যাখ্যা দেয়। সেই সঙ্গে প্রতিষ্ঠান দুটি দাবি করে, তারা গ্রাহকদের কোনো হয়রানি করে না। এমনকি রনির অভিযোগের পর মাত্র ২ মিনিটের মধ্যেই তারা ব্যবস্থা নিয়েছে।

এ সময় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর যে জরিমানা করেছে, সেই রায় চ্যালেঞ্জ করার কথাও জানায় প্রতিষ্ঠানটি।


আরও খবর



স্কুলছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে শিক্ষককে গণপিটুনি

প্রকাশিত:Sunday ১৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে দুলাল নামে এক স্কুলশিক্ষককে গণপিটুনির পর পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয় জনতা।

শনিবার (১৩ আগস্ট) বিকেলে পশ্চিম বন্দর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত দুলাল ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

ভুক্তভোগী শিশু জানায়, ‘আগেও বেশ কয়েকবার শিক্ষক দুলারের দ্বারা বলাৎকার শিকার হয়েছে সে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার আবার তাকে বলাৎকার করা হয়। বিষয়টি পরিবারের সদস্যদের জানালে শনিবার শিক্ষককে গণপিটুনি দেন স্থানীয়রা।’

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মেহেরুবা বেগম জাগো নিউজকে বলেন, ‘অভিযুক্ত শিক্ষক এক ছাত্রের সঙ্গে অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত হয়েছেন। তাই স্থানীয়রা তাকে গণপিটুনি দিয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে আটক করে নিয়ে গেছে।’

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা জাগো নিউজকে বলেন, ‘বলাৎকারের অভিযোগে এক শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’


আরও খবর



নদীর চর থেকে মাটি কাটায় ৫ জনকে লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ১৩ August ২০২২ | ২০জন দেখেছেন
Image

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার তুলাতলী নদীর চর থেকে অবৈধভাবে মাটি কাটার অপরাধে দুই ট্রলারসহ আটক পাঁচজনকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (১ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার কলসকাঠী ইউনিয়নের নারাঙ্গল গ্রাম সংলগ্ন তুলাতলী নদীর চর থেকে মাটি কাটার সময় তাদের আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুজর মো. ইজাজুল হক তাদের এক লাখ টাকা জরিমানা করেন।

অভিযানে সহায়তা করেন বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশের সদস্যরা।

অর্থদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন শাহিন গোলদার, কবির সানা, আসাদ গাজী, শহিদুল সরদার ও জিয়ারুল গোলদার। তাদের বাড়ি সাতক্ষীরা ও খুলনা জেলায়।

কলসকাঠী এলাকার কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি তাদের দিয়ে নদীর চর থেকে অবৈধভাবে মাটি কাটিয়ে বিভিন্ন ইটভাটায় বিক্রি করে আসছিলেন বলে জানা গেছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুজর মো. ইজাজুল হক জানান, নদীর চর থেকে মাটিকাটার অপরাধে পাঁচজনকে একলাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার টাকা পরিশোধ এবং এ ধরনের কাজ আর করবেন না বলে মুচলেকা দিলে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

সাইফ আমীন/এসআর


আরও খবর



প্রকাশ্যে মাদক সেবন, ২ শিক্ষার্থীর এক মাসের কারাদণ্ড

প্রকাশিত:Wednesday ১০ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

নীলফামারীর ডোমারে প্রকাশ্যে মাদক সেবনরত অবস্থায় আটক দুই শিক্ষার্থীকে এক মাসের কারাদণ্ড ও ৫০০ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার (১০ আগস্ট) দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও ডোমার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রমিজ আলম এই সাজা দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- উপজেলার বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের রাজপাড়া এলাকার মিতু রায়ের ছেলে সবুজ রায় (২৪) এবং ডোমার পৌর শহরের পূর্ব চিকনমাটি উদয়ন পাড়ার ফজলুল হকের ছেলে মো. সোহেল রানা (২৫)। তারা দুজনেই স্থানীয় একটি ভোকেশনাল কলেজের শিক্ষার্থী।

বুধবার দুপুরে ডোমার উপজেলা পরিষদের উত্তরে ফরেস্ট বাগানে প্রকাশ্যে মাদক সেবনের সময় ওই দুই শিক্ষার্থীকে হাতেনাতে আটক করে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি দল। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আলমগীর পাশা এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন। এর পর ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রকাশ্যে মাদক সেবনের দায়ে তাদের প্রত্যেককে এক মাসের কারাদণ্ড ও ৫০০ টাকা জরিমানার আদেশ দেন।

নীলফামারী মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আলমগীর পাশা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাদের এক মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত দুই শিক্ষার্থীকে বুধবার বিকেলেই জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



ডায়াগনস্টিকে পরীক্ষার সময় বৃদ্ধার হাত ভাঙার অভিযোগ

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Monday ১৫ August ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

ঝিনাইদহে পরীক্ষার জন্য রক্ত নিতে গিয়ে আমেনা খাতুন (৮০) নামের এক বৃদ্ধার হাত ভেঙে ফেলার অভিযোগ উঠেছে একটি বেসরকারি হাসপাতালের আয়া ও টেকনিশিয়ানের বিরুদ্ধে। আমেনা খাতুন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মোমেনা খাতুনের মা। এ ঘটনায় জেলা সিভিল সার্জনের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বৃদ্ধার স্বজনরা।

আমেনা খাতুনের নাতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র নাহিদ আনোয়ার বলেন, গত ২৩ জুলাই দাদির পেট ব্যথা ও বমি হচ্ছিল। পরে ২৫ জুলাই বিকেলে তাকে ঝিনাইদহ মডার্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মোকাররম হোসেনকে দেখালে তিনি দাদিকে কিছু পরীক্ষা করতে দেন।

পরীক্ষা করানোর জন্য দাদিকে ইসিজি কক্ষে নিয়ে যাওয়া হয়। সে সময় ওই কক্ষে একজন নারী আয়া ও একজন পুরুষ টেকনিশিয়ান ছিলেন। একপর্যায়ে ইসিজি কক্ষে আমার দুজন ফুপুকে রেখে আমি বাইরে চলে আসি। এরপর ওই আয়া ফুপুদের একজনকে ইসিজি কক্ষ থেকে বের করে দেন।

নাহিদ বলেন, এর আগে দাদির ডান হাতে ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়। সে কারণে তিনি রক্ত নেওয়ার সময় ব্যথার কারণে আয়াকে হাত সোজা করতে দিচ্ছিলেন না। কিন্তু আয়া ও টেকনিশিয়ান দুজন মিলে দাদির ডান হাতে এতটাই টান দেন যে, হাতের ওপরের দিকের হাড় (হিউমেরাসের উপরের অংশ) ফেটে আলাদা হয়ে যায়। পরে ২৫ জুলাই এক্স-রে করার পর হাত ভাঙার বিষয়টি নিশ্চিত হতে পারি।

টেকনিশিয়ান পাঁচ সিসি রক্ত নিতে দাদির হাতে তিনবার সিরিঞ্জ ঢোকান জানিয়ে নাহিদ বলেন, শারীরিকভাবে অনেক দুর্বল থাকায় হাড় ভাঙার যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে দাদি অজ্ঞান হয়ে যান। তার হৃৎস্পন্দন ছিল না কয়েক সেকেন্ড। এটা বোঝার পরপরই আমি নিজে তাকে সিপিআর দিই। প্রায় এক মিনিট পর তার পালস ফিরে আসে ও শ্বাস নিতে শুরু করেন। এর কিছুক্ষণ পরই দাদি আবার অজ্ঞান হয়ে যান।

‘সঙ্গে সঙ্গে ওই আয়া ও টেকনিশিয়ান ইসিজি কক্ষ থেকে পালিয়ে যান। আমি জরুরি অক্সিজেন দিতে বললেও তারা দেননি। এরপর ডা. মোকাররম এসে কোনো জরুরি সেবা ছাড়াই রোগীকে সদর হাসপাতালে নিতে বলেন। পরে দাদিকে সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মডার্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক সজীব বলেন, রক্ত নিতে গিয়ে হাত ভেঙে ফেলার অভিযোগ ভিত্তিহীন। আমাদের এখানে তার হাত থেকে রক্ত নেওয়া হয়েছে, তবে সে সময় তার হাত ভাঙেনি।

ডায়াগনস্টিকের চিকিৎসক মোকাররম হোসেন বলেন, রক্ত নিতে গিয়ে বৃদ্ধার হাত ভেঙে ফেলার মতো কোনো ঘটনা ঘটেছে বলে আমার জানা নেই।

ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. শুভ্রা রানী বলেন, এ বিষয়ে আমরা একটা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। দ্রুত সময়ের মধ্যে আমরা সেখানে অভিযান চালাবো।

সিভিল সার্জন আরও বলেন, ঝিনাইদহ মডার্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টার সম্পর্কে অনেক অভিযোগ রয়েছে। এর আগেও আমরা বিভিন্ন কারণে ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি বন্ধ করে দিয়েছিলাম। তিন মাসের মতো বন্ধ থাকার পর লাইসেন্স নবায়ন করে আবারও চালু করা হয়েছে।


আরও খবর