Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

কোথাও হালকা কোথাও ভারি বৃষ্টি হতে পারে

প্রকাশিত:Tuesday ২৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
Image

দেশের কোথাও হালকা, কোথাও ভারি বৃষ্টি হতে পারে আজ (মঙ্গলবার)। আবার কোনো কোনো স্থান থাকতে পারে বৃষ্টিহীন।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) আবহাওয়াবিদ খো. হাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়, ঢাকা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

এসময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী তিন দিনে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, দিনাজপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে এক নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এদিকে, সোমবার (২৭ জুন) সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার (২৮ জুন) সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সব বিভাগেই কম-বেশি বৃষ্টি হয়েছে। তবে খুলনা ও রংপুর বিভাগে বৃষ্টি প্রবণতা বেশি ছিল। এসময়ে সবচেয়ে বেশি ১৩১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে মোংলায়। পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ১১৮ ও সীতাকুণ্ডে ১৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া আর দেশের কোথাও বৃষ্টির পরিমাণ ১০ মিলিমিটার পার হয়নি। অন্যদিকে গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টিহীন ঢাকা, এতে ফের গরমের দুর্ভোগে পড়েছে নগরবাসী।

এদিন দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল চুয়াডাঙ্গায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


আরও খবর



বাংলাদেশের জয় নিয়ে একটি লেখা পড়েই বদলে যায় রাজার ভাবনা

প্রকাশিত:Saturday ০৬ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ১৪জন দেখেছেন
Image

ইনিংসের মাঝপথে চোটে কাবু মনে হচ্ছিল। কিন্তু বারবার শুশ্রুষা নিয়ে ব্যাটিংটা চালিয়ে গেলেন সিকান্দার রাজা। জিম্বাবুইয়ান এই ব্যাটার দলকে জিতিয়েই তবে থামলেন। খেললেন ১৩৫ রানের হার না মানা ইনিংস।

দীর্ঘ ৯ বছর আর ১৯ ম্যাচ পর ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে হারানোর সুযোগটা কিছুতেই হাতছাড়া করতে চাননি রাজা। জানালেন, ম্যাচের আগে একটি আর্টিকেল (লেখা) পড়েই ভাবনা বদলে গিয়েছিল। মনে মনে পণ করেছিলেন, এবার জিততেই হবে।

রাজা বলেন, ‘আপনারা জানেন, আমি এমন একজন মানুষ যে কিনা পরিসংখ্যান দেখতে পছন্দ করি। গতকাল একটি পরিসংখ্যান চোখে পড়ে। আমি একটি আর্টিকেল পড়ছিলাম, যেখানে বলা হয়েছে সম্ভবত বাংলাদেশের বিপক্ষে আমরা ২০ ম্যাচ (প্রকৃতপক্ষে ১৯ ম্যাচ) জয় পাইনি। আমি এটা দেখলাম। মনে হচ্ছিল যদি ম্যাচটা জিততে পারি দারুণ হবে।’

৩০৪ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করে জিততে পারবেন, ইনিংস বিরতির সময়ও কি এমনটা ভেবেছিলেন? রাজা জানালেন, তার বিশ্বাস ছিল ৩ ওভার হাতে রেখেই জিততে পারবেন।

জিম্বাবুইয়ান এই অলরাউন্ডার বলেন, ‘আমরা চেঞ্জিং রুমে একসাথে হলাম। ব্যাটারদের একসঙ্গে দাঁড় করিয়ে বললাম, ইনশাআল্লাহ আমরা এই ম্যাচটা তিন ওভার রেখেই জিতব।’


আরও খবর



আমাকে প্রতিনিয়তই লিখতে হয়: রাকিব হাসান

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ২৫জন দেখেছেন
Image

রাকিব হাসানের জন্ম ও বেড়ে ওঠা খুলনায়। বাবার নিবাস বরিশালে। রাকিব একজন কনটেন্ট ক্রিয়েটর। ‘ফ্যামিলি এন্টারটেইনমেন্ট বিডি’র পরিচালক তিনি। ১ আগস্ট প্রকাশিত হলো তার রম্যগল্পের বই ‘বিনোদনের বারবিকিউ’। রকমারি ডটকমে বইটির প্রি-অর্ডার শুরু হয়েছে। সম্প্রতি কনটেন্ট ও লেখালেখির বিষয়ে জাগো নিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন কথাশিল্পী ও সাংবাদিক সালাহ উদ্দিন মাহমুদ—

জাগো নিউজ: এই প্রথম আপনার একটি বই প্রকাশিত হচ্ছে, এ বিষয়ে আপনার অনুভূতি কী?
রাকিব হাসান: এই অনুভূতি আসলে ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন। প্রথম বই প্রকাশ হচ্ছে, বেশ কিছু প্রশ্ন মস্তিষ্কে ঘুরপাক খাচ্ছে। বইটি বিভিন্ন শ্রেণির পাঠকের হাতে যাবে, তারা কীভাবে নেবেন; সেই সাথে আমার দর্শকরা এটা কীভাবে দেখবেন। সব মিলিয়ে একটি মিশ্র অনুভূতি কাজ করছে।

জাগো নিউজ: প্রকাশিত বইটির বিষয়বস্তু ও প্রকাশের কারণ সম্পর্কে যদি বলতেন—
রাকিব হাসান: হাস্যরসে সমৃদ্ধ বেশ কিছু ছোটগল্প দিয়ে বইটি সাজনো হয়েছে। সেখানে গল্পের মাধ্যমে সমাজের বিভিন্ন অসঙ্গতিকে তুলে ধরা হয়েছে। সমাজ থেকে এসব অসঙ্গতি দূর করতে সমাজ সচেতনতামূলক বার্তা দেওয়া হয়েছে। বইটি প্রকাশের কারণ যদি বলতে হয়, একটা সময় বই ছিল বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম। বর্তমানে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার যুগে আমাদের মধ্য থেকে গতানুগতিক পাঠ্যবইয়ের বাইরে বইপড়ার অভ্যাসটা ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে। আমি যেহেতু অভিনয়ের মাধ্যমে মানুষের মাঝে বিনোদন এবং সচেতনতা ছড়িয়ে দিতে চেষ্টা করে যাচ্ছি। বইটি পড়ে যদি কিছু মানুষ তৃপ্তি পায়, তাদের মধ্যে বইপড়ার আগ্রহটা জেগে ওঠে। তবে আমার কষ্ট সার্থক হবে।

জাগো নিউজ: আপনি ডিজিটাল কনটেন্ট ক্রিয়েটর হিসেবে ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন, কবে থেকে শুরু করেছিলেন?
রাকিব হাসান: পরিচিতি বলতে সবই দর্শকদের ভালোবাসা। ফ্যামিলি এন্টারটেইনমেন্ট বিডির মাধ্যমে আমাদের শুরুটা হয়েছিল ২০১৮ সালের অক্টোবরের ১ তারিখ থেকে।

জাগো নিউজ: হঠাৎ করে বই লেখার অনুপ্রেরণা কোথায় পেলেন?
রাকিব হাসান: লেখালেখি আমাকে করতেই হয়। কনটেন্ট তৈরির জন্য আমাকে প্রতিনিয়তই লিখতে হয়। এভাবেই কনটেন্টের প্রয়োজনে লিখতে লিখতে মনে হলো—যারা বইপ্রেমী আছেন; তাদের জন্য যদি আমি লেখার মাধ্যমে আমার বার্তাগুলো ফুটিয়ে তুলতে পারি। তাহলে এগুলো আরও বিস্তৃত হবে এবং একসাথে বইপ্রেমীদের মনের খোরাকও মিটবে।

জাগো নিউজ: আপনার কনটেন্টের ভিউ মিলিয়ন ছাড়িয়েছে, কনটেন্টের মতোই কি বইয়ের জনপ্রিয়তা আশা করছেন?
রাকিব হাসান: আমার কনটেন্টগুলো যেমন আমার ভালোবাসা এবং পরিশ্রম সবকিছু মিশিয়েই তৈরি করা। তেমনই বইটাও আমার ভালোবাসা, চিন্তা-চেতনা ও পরিশ্রমের সংমিশ্রণ। দর্শকদের কাছ থেকে আমি অকল্পনীয় ভালোবাসা পেয়েছি। আশা করি পাঠকদের কাছ থেকেও অনুরূপ ভালোবাসা পাবো।

জাগো নিউজ: কনটেন্ট তৈরির পাশাপাশি নিয়মিত লেখালেখি করবেন?
রাকিব হাসান: আগেই বলেছি, লেখালেখি আমাকে প্রতিদিনই করতে হয়। আর যদি প্রকাশনার কথা বলেন তাহলে বলবো, আমার চেষ্টা সব সময়ই থাকবে। বাকিটা উপরওয়ালার ইচ্ছা এবং পাঠকদের ভালোবাসার ওপরই নির্ভর করবে।

জাগো নিউজ: কাজ করতে গিয়ে কখনো কি প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হয়েছেন?
রাকিব হাসান: প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন তো প্রতিনিয়তই হতে হয়। ভালো কাজে প্রতিবন্ধকতা সব সময়ই থাকবে। প্রতিবন্ধকতার সাথে সাথে উৎসাহ পেয়েছি সমানতালে। কিছু ক্ষেত্রে অনেক বেশিই পেয়েছি। সে জন্যই সব প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে এখনো এগিয়ে চলেছি।

জাগো নিউজ: আপনার ভবিষ্যৎ পকিল্পনা সম্পর্কে যদি বলতেন—
রাকিব হাসান: সব সময় দেশের মানুষের জন্য সুস্থ ধারার বিনোদনকে আরও বিস্তৃতভাবে সর্বত্র ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা থাকবে। বিভিন্ন সামাজিক অসঙ্গতিগুলোকে দূর করতে মানুষকে আরও বেশি উদ্বুদ্ধ করতে চেষ্টা করবো।


আরও খবর



ব্রাজিলে পুলিশের অভিযানে নিহত ১৮

প্রকাশিত:Friday ২২ July 20২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
Image

ব্রাজিলের রিওডি জেনিরোর সহিংসতাপূর্ণ ফাভেলায় একটি অপরাধী চক্রকে ধরতে পুলিশের অভিযানে অন্তত ১৮ জন নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে আলেমাও ফাভেলায় ভারী অস্ত্রসহ চারশ'র মতো পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল ওই এলাকায়।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে ১৬ জন সন্দেহভাজন সন্ত্রাসী। নিহত হন এক পথচারী ও আরেক পুলিশ সদস্যও।

দিনব্যাপী চলা অভিযানে নিজেদের বাড়ির মধ্যে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন কয়েক হাজার মানুষ। পুলিশ বলছে, সন্ত্রাসীদের হামলার পরিকল্পনা নস্যাৎ করতে ও তাদের আটক করার জন্যই এ অভিযান।

Brazil-body

অ্যানাক্রিম হিউম্যান রাইটস কমিশনের গিলবার্তো সান্তিয়াগো লোপেস বলেছেন, অভিযান চলাকালে পুলিশ স্থানীয়দের সাহায্য করতে অস্বীকার করে। তিনি রয়টার্সকে বলেন, পুলিশ ‘তাদের গ্রেফতার করার লক্ষে নয়, তাদের লক্ষ্য ছিল হত্যা করা। সেকারণে আহতদের সাহায্য করতে অস্বীকার করে তারা’।

রিও ডি জেনিরোর ফাভেলায় এ ধরনের অভিযান অস্বাভাবিক নয়। পুলিশ মাদক পাচারকারী চক্রকে খুঁজে বের করতে প্রায়ই অভিযান চালায় সেখানে।

কিন্তু ব্রাজিলের মানবাধিকার সংস্থাগুলোর নানাবিধ অভিযোগ রয়েছে এ ধরনের অভিযান নিয়ে। তারা বলছে, জনাকীর্ণ, নিম্ন-আয়ের মানুষ বসবাসকারী এলাকায় পুলিশের এ ধরনের অভিযান সন্ত্রাসীদের নিয়ন্ত্রণ নয় বাসিন্দাদের জীবনকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলেছে।

এর আগে গত মে মাসে, ভিলা ত্রুুজেইরো ফাভেলায় এক পথচারী নারীসহ ২২ জন নিহত হন। গত বছর শহরের জ্যাকারেজিনহো এলাকায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে একজন পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত ২৫ জন নিহত হন।

সূত্র: বিবিসি


আরও খবর



প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ছেলের পরিকল্পনায় ঘুমন্ত বাবাকে হত্যা

প্রকাশিত:Tuesday ১৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

গাজীপুরে বৃদ্ধ গিয়াস উদ্দিন হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ছেলে ও ভাতিজার পরিকল্পনায় ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) বিকেলে গ্রেফতার দুজনকে আদালতে তোলা হলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন তারা। এ সময় হত্যাকাণ্ডে নিহতের ছেলে ও ভাতিজার জড়িত থাকার কথাও জানান।

গ্রেফতাররা হলেন- ময়মনসিংহের পাগলা থানার কোকসাইর এলাকার কেরামত আলীর ছেলে মো. আলম (৩৮) একই জেলার ত্রিশাল উপজেলার কুষ্টিয়া এলাকার মো. আবু কালামের ছেলে মো. আরাফাত (২৬)। এদের মধ্যে সোমবার রাত দেড়টার দিকে কোকসাইর এলাকা থেকে আলমকে এবং মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর থানাধীন কেওয়া এলাকা থেকে আরাফাতকে গ্রেফতার করা হয়।

পিবিআইর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান জাগো নিউজকে বলেন, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ছেলে আবুজর ও ভাতিজা সবুজের পরিকল্পনায় ২০২০ সালের ১১ ডিসেম্বর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় গিয়াস উদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পিবিআইকে গ্রেফতার আলম ও আরাফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।

পুলিশ সুপার আরও বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুর আদালতে তোলা হলে তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। একই সঙ্গে হত্যাকাণ্ডে জড়িত অন্যদেরও নাম প্রকাশ করে। হত্যার পরিকল্পনা ও অন্য আসামিদের কার কী ভূমিকা ছিল তার বর্ণনা দেয়। পরে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বাকি আসামিদেরও গ্রেফতারে অভিযান চলছে।


আরও খবর



বাংলাদেশের জলসীমানায় মাছ শিকার, ভারতীয় ১৬ জেলে আটক

প্রকাশিত:Thursday ২১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের জলসীমানায় প্রবেশ করে অবৈধভাবে মাছ শিকারের দায়ে ভারতীয় ১৬ জেলেসহ ১টি মাছধরা ট্রলার আটক করেছে মোংলা জোন নৌ-বাহিনী। পরে পায়রা বন্দর নৌ-পুলিশের কাছে তাদের হস্তান্তর করা হয়।

মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) রাত ১২টায় পটুয়াখালীর পায়রা বন্দরের ফেয়ার বয়া হতে ৩৫ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণ অংশের গভীর সমুদ্র থেকে তাদের আটক করা হয়। পরে বুধবার সন্ধ্যায় তাদের ট্রলারসহ পায়রা বন্দর নৌ-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

আটক জেলেদের বাড়ি ভারতের দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা প্রদেশে। তারা হলেন- হরলাল দাস (৫০), ব্রিটিশ দাস (৪৮), পঙ্কোজ দাস (২৬), রাজা দাস (২২), স্বপন দাস (৪৮), জগবন্ধু দাস (৬২), আপন দাস (৬০), হৃদয় দাস (২৭), দীপক দাস (৩০), শুনিল দাস (৪৭), জয় হরিদাস (৪৫), সত্য লালদাস (২৫), রনজিত (২৪)। আর নদিয়া জেলার গোপাল পাল (৩৯), হরিদাস (৩২) ও সমির (৫০)।

নৌ-বাহিনী জানায়, গতকাল রাতে তাদের জাহাজ নিয়ে গভীর সমুদ্রে টহল দিচ্ছিলো। এ সময় বাংলাদেশের জলসীমানায় অনুপ্রবেশ করে মাছ শিকার করছিলো ভারতীয় ৫ থেকে ৬টি ট্রলার। পরে তাদের ধাওয়া দিয়ে মা ত্রিপুরা সুন্দরী নামের একটি ট্রলারসহ ১৬ জেলেকে আটক করা হয়।

মোংলা জোনের বানৌজা গোমতী জাহাজের অধিনায়ক কমান্ডার আরিফ হোসেন জানান, গভীর সাগরে টহলকালে তাদের ধাওয়া দিয়ে ট্রলারসহ আটক করা হয়েছে। পরে বুধবার সন্ধ্যায় তাদের পায়রা বন্দর নৌ-পুলিশের কাছে তাদের হস্তান্তর করা হয়েছে।

আটকদের নামে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পায়রা বন্দর নৌ-পুলিশের ওসি মোমেনুর রহমান জানান, নৌ-বাহিনীর সদস্যরা ইন্ডিয়ান একটি ট্রলারসহ ১৬ জেলেদের আমাদের কাছে হস্তান্তর করেছে। আমরা কলাপাড়া থানা পুলিশের কাছে এসব জেলেদের সোপর্দ করবো। এ ঘটনায় নৌ-বাহিনী বাদী হয়ে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসিম জানান, ভারতীয় জেলেসহ ট্রলার আটকের খবর পেয়েছি। পায়রা বন্দর নৌ-পুলিশ আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে।


আরও খবর