Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

কলকাতাসহ পশ্চিমবঙ্গে বৃষ্টি শুরু

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১০৩জন দেখেছেন
Image

শুরু হয়েছে বর্ষাকাল। কলকাতায় এখনো ভারি বৃষ্টি হয়নি। তবে গতকাল ও আজ সকালে কলকাতাসহ দুই উত্তর ২৪ পরগনায় কিছুটা বৃষ্টি হয়েছে। তাছাড়া রাজ্যের দক্ষিণাঞ্চলেও বৃষ্টি শুরু হয়েছে। দুই ২৪ পরগনার পাশাপাশি, হাওড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, কলকাতা, হুগলি, নদীয়া, দুই বর্ধমান ও বীরভূমেও বৃষ্টি হয়েছে।

আগামী দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে রাজ্যের সব জায়গায়তেই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এখন সব জায়গায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

বেশি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর ও দুই ২৪ পরগনাতে। কাল একটু বেশি বৃষ্টি হতে পারে মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, মালদা ও দুই দিনাজপুরে। তাপমাত্রা অনেকটাই কমেছে ও এই তাপমাত্রাটা বজায় থাকবে। ভারি বৃষ্টি হতে পারে উত্তরাঞ্চলে। তাছাড়া কুচবিহার, আলিপুরদুয়ারে, দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়িতেও ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে ১০ দিনের লাগাতার বৃষ্টিতে ভয়ানক রূপ নিয়েছে কোচবিহারে তোরসা। এর পাশাপাশি সর্তকতা জারি করা হয়েছে কোচবিহারের চারটি নদী রায়ডাক, কালজানি১, তোরসা ও মানসাই নদীতে।

গতকালের যে পরিস্থিতি ছিল তার থেকে অনেকটাই ভিন্ন পরিস্থিতি কোচবিহারে তোরসা নদীতে। যত বেলা বাড়ছে পানির স্তরও ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাচ্ছে কোচবিহারে তোরসা নদীতে। যদিও কাল রাতে মাঝারি বৃষ্টি লক্ষ করছে কোচবিহারবাসী।


আরও খবর



অভিজ্ঞতা ছাড়াই অ্যাসিস্ট্যান্ট নেবে আড়ং

প্রকাশিত:Wednesday ০৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

পোশাক প্রস্তুতকারক ও বিপণন প্রতিষ্ঠান আড়ংয়ে ‘অ্যাসিস্ট্যান্ট’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ১৩ জুন পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: আড়ং
বিভাগের নাম: ওয়্যারহাউজ, ই-কমার্স

পদের নাম: অ্যাসিস্ট্যান্ট
পদসংখ্যা: নির্ধারিত নয়
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতক অধ্যয়নরত/সমমান
অভিজ্ঞতা: প্রযোজ্য নয়
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে

চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ
বয়স: নির্ধারিত নয়
কর্মস্থল: ঢাকা

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা jobs.bdjobs.com এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ১৩ জুন ২০২২

সূত্র: বিডিজবস ডটকম


আরও খবর



কেমিক্যাল ছড়িয়ে পড়া রোধে ড্রেনেজব্যবস্থা বন্ধ করলো সেনাবাহিনী

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে বিস্ফোরণে কেমিক্যাল ছড়িয়ে পড়া রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। এরই মধ্যে বালুর বস্তা দিয়ে ড্রেনেজব্যবস্থা বন্ধ করে দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটি বিশেষ ইঞ্জিনিয়ারিং টিম।

সোমবার (৬ জুন) বিকেলে জাগো নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সেনাবাহিনীর ব্যাটালিয়ন-১ এর লেফটেন্যান্ট কর্নেল মনিরা সুলতানা।

army2.jpg

সরেজমিনে দেখা যায়, বিএম কনটেইনার ডিপোর পশ্চিমে একটি ড্রেন রয়েছে। সেই ড্রেন দিয়ে কেমিক্যালযুক্ত পানি প্রবাহিত হচ্ছিল। সেনাবাহিনীর একটি বিশেষ টিম বালি দিয়ে ড্রেনেজব্যবস্থা বন্ধ করে দিয়েছে।

এর আগে শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে আগুন লাগে। আগুন লাগার পর রাসায়নিকের কনটেইনারে একের পর এক বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটতে থাকলে বহু দূর পর্যন্ত কেঁপে ওঠে। অগ্নিকাণ্ড ও ভয়াবহ বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ জন হয়েছে। তবে জেলা প্রশাসনের তথ্য মতে মৃতের সংখ্যা ৪৬ জন। দগ্ধ ও আহত ১৬৩ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রাতেই শনাক্ত হওয়া নিহতদের জেলা প্রশাসনের সহায়তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

army2.jpg

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াস হোসেন চৌধুরী জানান, নিহতদের মধ্যে ডিপোর শ্রমিকদের পাশাপাশি ফায়ার সার্ভিসের ৯ সদস্যও রয়েছেন। হাসপাতালে ভর্তি অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে।

ফায়ার সার্ভিস জানায়, আগুন লাগার প্রায় ৪০ ঘণ্টা পার হলেও তা নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এখনো বেশ কয়েকটি কনটেইনার দাউ দাউ করে জ্বলছে। ধোঁয়া বেরোচ্ছে বেশ কয়েকটি কনটেইনার থেকে।


আরও খবর



‘আরআরআর’ ছবির থিম নিয়ে রেস্তোরাঁ খুলছেন পরিচালক ও দুই নায়ক

প্রকাশিত:Sunday ২৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

বহুল আলোচিত দক্ষিণ সিনেমা ‘আরআরআর’। মুক্তির পর থেকে এখন পর্যন্ত তার রেশ যেন কাটছেই না। বক্স অফিসে শীর্ষ আয়কারী এবং দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক হিট হয়ে উঠেছে সিনেমাটি। এতে অভিনয় করেছেন দক্ষিণ সুপারস্টার রাম চরণ, জুনিয়র এনটিআর, আলিয়া ভাট, অজয় দেবগণসহ অনেকেই।

সিনেমাটি নেটফ্লিক্সেও মুক্তি পেয়েছে। সেই সুবাদে অনলাইনে সবচেয়ে বেশি দেখা সিনেমাগুলোর মধ্যে একটি হয়ে উঠেছে ‘থ্রি আর’।

সিনেমার এমন জনপ্রিয়তা দেখে প্রযোজক-নির্মাতারা ভাবছেন নতুন কিছু করার। মনে হচ্ছে ভক্তরা এখন 'আরআরআর' থিমযুক্ত রেস্তোরাঁ উপভোগ করতে পছন্দ করবেন। তাই সে পথেই হাঁটছেন তারা

বলিউড হাঙ্গামা থেকে জানা যায়, পরিচালক এসএস রাজামৌলি এবং দুই অভিনেতা হায়দ্রাবাদে একটি রেস্তোঁরা তৈরি করবেন। রেস্তোরাঁটি তৈরি করা হবে সিনেমার দৃশ্য দিয়ে। থাকবে সিনেমার পোস্টার। মজার বিষয় হচ্ছে চরিত্রগুলোর নামে থাকছে খাবারের মেনু।

এরইমধ্যে পরিচালক এসএস রাজামৌলি এবং রাম চরণ ও এনটিআর এই প্রকল্পের জন্য একটি বিশাল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশীদার হবেন বলে জানা গেছে।


আরও খবর



চট্টগ্রামে মাসব্যাপী ‘সংগীতের জাতীয় উৎসব ও সম্মেলন’

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
Image

সংগীত ঐক্য বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো সংগীতের জাতীয় উৎসব ও সম্মেলনের আয়োজন করেছে। মাসব্যাপী চলচে এই উৎসব। আগামী ১৭ জুন থেকে এটি শুরু হবে চট্টগ্রামের জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে।

প্রতিদিন বিকেল ৫টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে এই আয়োজন।

এ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে উৎসবের উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

অনুষ্ঠান সভাপতিত্ব করবেন সংগীত ঐক্য বাংলাদেশের সভাপতি রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা।


আরও খবর



কোথাও কোথাও ভোটগ্রহণে ধীরগতির অভিযোগ

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
Image

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে কোনো কোনো কেন্দ্রে ভোটগ্রহণে ধীরগতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভোটাররা এ অভিযোগ করলেও তা স্বীকার করেছেন নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তাদের দাবি, ইভিএম (ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন) ব্যবহারে অভ্যস্ত না হওয়ায় ভোটগ্রহণে দেরি হচ্ছে।

বুধবার (১৫ জুন) সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, কেন্দ্রে পুরুষ ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতি রয়েছে। কিন্তু ভোটাররা অভিযোগ করছেন, ইভিএমের কারণে ধীরগতিতে ভোটগ্রহণ চলছে। তবে, নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, মানুষ ইভিএমে অভ্যস্ত নন বলে ভোটগ্রহণে দেরি হচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নগরীর বিদ্যানন্দ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষক বলেন, ইভিএমে ভোটগ্রহণের জন্য মঙ্গলবার (১৪ জুন) অনুশীলনমূলক ভোট (মকভোট) অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এ মকভোটে মাত্র ১০ জন উপস্থিত ছিলেন। এজন্য আজ ভোটগ্রহণে সমস্যা হচ্ছে।

বিভিন্ন কেন্দ্র সরেজমিনে দেখা যায়, ধীরগতির কারণে ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে অনেক ভোটারকে। এজন্য হতাশা প্রকাশ করেছেন তারা।

দিশাবন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পুরুষ কেন্দ্রে দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে গিয়ে দেখা যায়, ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। কেন্দ্রের বাইরে একঘণ্টার বেশি দাঁড়িয়ে থেকে ভোট দিতে পারেননি ষাটোর্ধ্ব আনিসুর রহমান। হতাশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, ভোট কাস্টিং অনেক স্লো (ধীর)। একঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও এখনো ভোট দিতে পারেননি।

একই অভিযোগ করেন লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা ষাটোর্ধ্ব আবুল কাশেম। আবুল কাশেম বলেন, সকাল ১০টায় এসেছি। বাইরে অনেকক্ষণ অপেক্ষা করার পর এখন লাইনে দাঁড়িয়েছি। এখনো ভোট দিতে পারিনি।

jagonews24

আফ্রিন নামে এক নারী ভোটার বলেন, সকাল ৯টায় এসে ১২টায় ভোট দিতে পেরেছি। অনেক দেরি হলেও ভোট দিতে পেরে ভালো লাগছে।

তিনি বলেন, শুরুতে কেন্দ্রের বাইরে অপেক্ষায় ছিলাম। এরপর ১২টায় কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পেরেছিলাম। অনেকক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে ভোট দিতে পেরেছি।

ভোটারদের অভিযোগ প্রসঙ্গে পুরুষ কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. নাজমুল হক বলেন, ইভিএমে কীভাবে ভোট দিতে হয় অনেকে তা জানেন না। এ জন্য দেরি হচ্ছে। এক্ষেত্রে অধিকাংশই বয়স্ক ভোটার। তাদের দেখিয়ে দিতে হচ্ছে।

ভোটগ্রহণ শুরুর দিকে ইভিএম সংযোগে সমস্যা হয়েছিল জানিয়ে তিনি বলেন, পরে সমাধান হয়ে গেছে।

এ প্রতিবেদন লেখার সময় দুপুর দেড়ায় মো. নাজমুল হক জানান, তার কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা ১ হাজার ৬৯৪ জন। দুপুর ১২টা পর্যন্ত ৫২৩ জন ভোট দিয়েছেন।


আরও খবর