Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

কাবিনের ছবি ভাইরাল শামীম-অহনার

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ জানুয়ারী 20২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১১৩৮জন দেখেছেন

Image

বিনোদন প্রতিবেদক: টিভি নাটকের জনপ্রিয় দুই তারকা শামীম হাসান সরকার ও অহনা রহমান। সম্প্রতি নেটদুনিয়ায় কথা রটেছে, এই দুই তারকা বিয়ে করেছেন। আর কথা ওঠার পেছনে কারণ; গতকাল রাতে শামীম ও অহনা তাদের ফেসবুকে প্রকাশ করেন কাবিন নামার ছবি। যা মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। ছবিতে দেখা যায়, ২০১৩ সালে মার্চর ২৫ তারিখ বিয়ে করেছেন তারা।

ছবিটি প্রকাশে ঘন্টা কয়েকের মধ্যেই নেটিজেনদের মন্তব্যে ওঠে আসে নানা প্রশ্ন। অনেকে শামীম-অহনাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। আবার কেউ কেউ জানতে চেয়েছেন, ঘটনা আসলেই কি সত্য?

এর উত্তর জানতে অভিনেতা শামীম হাসান সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তিনি বলেন, ‘এটা একটি নাটকের ছবি। নাম “কোটি টাকার কাবিন”। আর এটি নির্মাণ করছেন রিফাত আদনান পাপন। আজ শুটিংয়ের দ্বিতীয় দিন। উত্তরায় এর কাজ চলছে।

হঠাৎ এমন ‘বিবাহের হলফনামা’র ছবি প্রকাশের পেছনে অন্য কোনো রহস্য আছে নাকি? উত্তরে শামীম বলেন, ‘কোন রহস্য নেই। মনে হল, একটু মজা করি তাই ছবিটি দেওয়া। আর ছবিটি দেখলেই কিন্তু বোঝা যায়, এটি আসল কাবিন নামার ছবি না নকল। যারা বোঝার তারা কিন্তু ঠিকই মন্তব্য করেছে মজা করে। জানতে চেয়েছেন নাটকের নাম।

এই অভিনেতা জানান, ‘কোটি টাকার কাবিন’ নাটকে শামীমের বিপরীতে অভিনয় করছেন অহনা। আর খুব শিগগিরই এটি প্রচারে আসবে।


আরও খবর



পত্নীতলা থানার ৫ কর্মকর্তা উত্তম কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬৩জন দেখেছেন

Image
পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:পত্নীতলা থানার পাঁচ পুলিশ কর্মকর্তা উত্তম কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন। মঙ্গলবার রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয়ে পদ্মা কনফারেন্স হলে সম্মাননা স্মারক হিসেবে ক্রেস্ট প্রদান করেন ডিআইজি রাজশাহী রেঞ্জ আনিসুর রহমান।

সম্মাননা প্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তারা হলেন, পত্নীতলা সার্কেল (অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নওগাঁ) মুহাম্মদ আব্দুল মমীন, পত্নীতলা অফিসার ইনচার্জ মোজাফ্ফর হোসেন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম রেজা, এসআই (নিরস্ত্র) জাফর আহমেদ ও এএসআই (নিরস্ত্র) আফজাল হোসেন। মঙ্গলবার রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয় পদ্মা কনফারেন্স রুমে রেঞ্জের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল (ডিআইজি) আনিসুর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) এর সভাপতিত্বে সভায় জানুয়ারি ২০২৪ মাসে উত্তম কাজের স্বীকৃতি হিসেবে সম্মাননা স্মারক হিসেবে তাদের এ ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, এডিশনাল  ডিআইজি (ক্রাইম ম্যানেজমেন্ট), এডিশনাল ডিআইজি (অপারেশন) সহ রাজশাহী রেঞ্জের সকল ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ প্রমূখ।

পুরস্কার প্রাপ্তির অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে পত্নীতলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফফর হোসেন জানান, এই র্অজন আমার একার নয়, পত্নীতলা থানা পুলিশের প্রতিটি সদস্যের এবং পত্নীতলাবাসির। এই রকম ভাল কাজের মূল্যায়নে কর্মস্পৃহা আরও বাড়িয়ে দেবে। আগামীতে পত্নীতলার সুধি সমাজ, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকবৃন্দ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষকে সাথে নিয়ে সকলের সহযোগিতায় পত্নীতলাকে মডেল থানায় রুপ দিতে চাই।

উল্লেখ্য, উক্ত কর্মকর্তাগণ এর আগেও একাধিকবার শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তা নির্বাচিত হয়েছেন এবং উত্তম কাজের পুরস্কার হিসাবে সম্মাননা স্মারক পেয়েছেন।

আরও খবর



সুন্দরগঞ্জে সম্ভাব্য উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীর গণসংযাগ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ২৩জন দেখেছেন

Image
সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: তফসীল ঘােষণা না হলেও গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী বিগত ২বারের সফল উপজেলা চেয়ারম্যান,সাবেক এমপি আলহাজ্ব ওয়াহেদুজ্জামান সরকার বাদশা,,, আসন্ন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ব্যাপক গন-সংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।এ ছারাও  বর্তমান ভাইচ চেয়ারম্যান(পুরুষ) উপজেলা আওয়ামী লীগের উপজেলা সিনিয়র সহ-সভাপতি,পল্লী চিকিৎসক শফিউল আলম, সম্ভাব্য আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থি হিসেবে ব্যাপক গণ সংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন,এবং জনগনের মাঝে সাড়া জাগিয়ে তুলছেন।এদিকে চেয়ারম্যান প্রার্থি হিসেবে  আল্পনা রানী গােস্বামী ব্যাপক গণসংযাগ চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রস্তাবিত কমিটির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক । তিনি দিনরাত উপজেলার ১৫ ইউনিয়ন ও ১ পৌর এলাকার বিভিন গ্রাম-গঞ্জ ঘুরে নারী পুরুষের সাথে মতবিনিময়সহ নিজের প্রার্থীতার কথা তুলে ধরছেন। তুলে ধরছেন আগামীতে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে কি কি উনয়ন করবেন তার ফিরিস্তিও। যােগ দিচ্ছেন বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠাঠন ও সভা সমিতিতে। ছাপড়হাটী ইউনিয়নের পুর্ব ছাপরহাটি গ্রামের পুত্রবধু,,,, আল্পনা বিগত ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বদ্বিতা করে় সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হয়েও নির্বাচনের হাল ছাড়েননি তিনি। জনসমর্থনের দিক দিয়ে তিনি এখন পর্যন্ত নারী- পুরুষ ভােটারদের আস্হা অর্জন করতে ব্যস্ত সময় পারকরছেন। 

আরও খবর



স্বাস্থ্যকেন্দ্রের রাস্তার মাঝখানে বৃহদায়তনের গাছ, দুর্ভোগে এলাকাবাসী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | ১০৭জন দেখেছেন

Image
নাজমুল ইসলাম শরণখোলা বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটের শরণখোলার সাউথখালী ইউনিয়নের রায়েন্দা গ্রামের তাফালবাড়ি বাজার সংলগ্ন উপ স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সামনে রাস্তার ঠিক মাঝখানে দাঁড়িয়ে আছে শত বছরের পুরনো একটি কৃষ্ণচূড়া গাছ। রাস্তার পাশেই রয়েছে আবার বড় খাল। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এলাকাবাসী এবং যাত্রীরা। এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায় যে, গ্রামের আঁকাবাঁকা অনুন্নত রাস্তা, সেই সাথে রাস্তার মাঝখানে বৃহদায়তনের গাছ থাকাতে এ পর্যন্ত বেশকিছু দুর্ঘটনাও ঘটেছে এখানে। ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন বহু মানুষ।এমতাবস্থায় গাছটি অপসারণ করা হবে কী না তা নিয়ে এলাকাবাসী এবং পরিবেশবাদীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে মতানৈক্য। এলাকাবাসী চায় অপসারণ আর পরিবেশবাদীরা বলছেন ঐতিহ্য রক্ষার কথা।

রায়েন্দা গ্রামের বিশিষ্ট ব্যক্তি মুক্তিযোদ্ধা হাবীবুর রহমান জানান, এই গাছটি হাসপাতালের গেটের সামনে রয়েছে। একারণে এখানে কোনো গাড়ী আসতে পারে না। রোগীদের অসুবিধে হয়। এ পথে চলাচল করতে গিয়ে বহু মানুষ এক্সিডেন্ট করেছেন। অনেক গাড়ী খাদে পড়ে গেছে‌‌। খুব দ্রুতই এই গাছটি অপসারণ করা দরকার।

গাছটির কারণে রাস্তা ব্লক হয়ে আছে উল্লেখ করে আরেক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রব বলেন, হাসপাতালে রোগীদের আসতে অনেক অসুবিধে হয়। আমি বন ও পরিবেশ বিষয়ক কর্মকর্তাদের অনুরোধ করছি, তারা এসে এই জায়গাটা দেখুক। রাস্তার সংস্কার করা প্রয়োজন।স্থানীয় বাসিন্দা লিটন হাওলাদার জানান যে, আমি নিজে গাড়ী নিয়ে কয়েকবার পড়ে গেছি এখানে।

শরণখোলা উপ স্বাস্থ্যকেন্দ্রের উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ডা. পল্লব বিশ্বাস বলেন, স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সামনের কৃষ্ণচূড়া গাছটি দীর্ঘদিনের পুরনো। গাছটি বড় হতে হতে বর্তমানে রাস্তার অর্ধেক দখল করে আছে। অনেক রোগীকে ভ্যানে করে আনতে হয়। এ পর্যন্ত বহু রোগী ভ্যানসহ খাদে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এসময় তিনি কর্তৃপক্ষের কাছে গাছটি অপসারণের এবং রাস্তা সংস্কারের অনুরোধ জানান।

এ ব্যাপারেসা উথখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমরান হোসেন রাজিব জানান, আমরা সমস্যাটা দেখছি। গাছটি শত বছরের পুরনো। এটি ঐতিহ্যের অংশ। পরবর্তী প্রজন্ম এখান থেকে অনেক কিছু জানতে পারবে। তাই গাছটি বহাল রেখেই আমরা রাস্তার সংস্কার এবং সম্প্রসারণ করব। আগামী এক মাসের মধ্যেই রাস্তার কাজ শুরু হবে। তখন আর সমস্যা থাকবে না।
এ ব্যাপারে শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলামের স্বরণাপন্ন হলে তিনি বলেন, রাস্তার মাঝখানে থাকা এই গাছটির ব্যাপারে আমি অবগত না। এখন জানলাম। খোঁজ নিয়ে ভেবেচিন্তে দেখব কী করা যায়। এলাকাবাসীর প্রত্যাশা এবং পরিবেশ ও ঐতিহ্য রক্ষা—উভয়টির মাঝে সমন্বয়ের চেষ্টাটাই করব।

আরও খবর



সুষ্ঠভাবে নির্বাচন সম্পূর্ণ হয়েছে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৪১জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আলহাজ¦ এ্যাড. আ. ক. ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেছেন, এ বছর একটা ব্যতিক্রম ধর্মী জাতীয় নির্বাচন হয়েছে। সারা পৃথিবীতে নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করে থাকে।

বিভিন্ন দল বা ব্যক্তিরা সেচ্ছায় নির্বাচন কমিশনের বিধান মতে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করে। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য এই জাতির একটা চরম দুর্ভাগ্য যে, নির্বাচন আসলেই কেউ কেউ নির্বাচন না করার ঘোষণা ও নির্বাচন বানচালের ঘোষণা দিয়ে থাকেন। এ বছরও এমনই একটি পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায় এবং আন্তর্জাতিক শক্তি এদের মদদ দিয়েছে। বিদেশী প্রভুদের ইঙ্গিতে অনেকেই সেখানে তাল মেলানোর কারণে আমাদের মহান নেত্রী শেখ হাসিনা ব্যতিক্রম ধর্মী একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। দলের থেকেও যদি কেউ নির্বাচন করতে চায় তাহলে নির্বাচন করতে পারবেন। সেই আলোকে নির্বাচনে আমাদের দলের লোকও সারা দেশে প্রতিদ্দন্দ্বিতা করেছে। সুষ্ঠভাবে নির্বাচন সম্পূর্ণ হয়েছে।

তিনি শুক্রবার সন্ধ্যায় কালিয়াকৈর উপজেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে উপজেলার পল্লীবিদ্যুৎ জোড়াপাম্প এলাকায় খেলার মাঠে গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুরাদ কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন সিকদার। এসময় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীকে সংবর্ধনা জানায় উপজেলা, গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগ, উপজেলা পরিষদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা, কালিয়াকৈর মডেল প্রেসক্লাব, উপজেলা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃ বৃন্দ।

তিনি শিল্পকারখানার কর্তৃপক্ষকে কঠোর হুসিয়ারী দিয়ে বলেন, কালিয়াকৈরবাসীর দুঃখ নদী-নালা, খাল বিলের পানি বিষাক্ত হয়ে গেছে।যেখানে মাছ ধরে মানুষ জীবিকা নির্বাহ করতো, সেখানে হেটেও যাওয়া যায় না। চাষের জমি নষ্ট হয়ে হচ্ছে। তাই সরকার কঠোর আইন প্রয়োগ করবে। এসময় শিল্পকারখানাকে দুষণ বন্ধের অনুরোধ জানান মন্ত্রী।

বন কর্তকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, বন আমাদের রক্ষা করতে হবে। কিন্তু বৈষম্য করে নয়। আপনারা অসহায় এর বিরুদ্ধে আইন প্রয়োগ করেন। কিন্তু ধনী প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে আপনারা সেটা করেন না, বৈষম্য আচরণ করেন। জনগনের হাটার রাস্তা দিবেন না, সেটা হয় না। যারা দোকানপাট করে ব্যবসা করেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেন। প্রিয় নেতৃ ভুমিহীন, গৃহহীনদের ঘর করে দিয়েছেন। আমাদের সরকার ঘর করে দেয়, ঘর ভেঙ্গে দেয় না। অযথা বৈষম্য সৃষ্টির মাধ্যমে বিরক্ত করলে জনগণ প্রতিহত করবে। এসময় নির্বাচনকালীন বেদাবেধ ভুলে সংগঠনের তৃণমুল পর্যায় থেকে উচ্চ পর্যায় পর্যন্ত সমস্ত নেতাকর্মীদেরও ঐক্যবদ্ধ ভাবে আওয়ামী পরিবারকে আদর্শের ভিত্তিকে গড়ে তোলার আহব্বান জানান মন্ত্রী।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৫ ফেব্রুয়ারি সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ১৩৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা সচিবদের নিয়ে আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন। প্রস্তাবিত এ সভা বর্তমান সরকারের প্রথম সভা। সভার স্থান এবং এজেন্ডা দু’একদিনের মধ্যেই চূড়ান্ত করা হবে বলে জানা গেছে। এর আগে, সবশেষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে সচিব সভা হয়েছিল ২০২২ সালের ২৭ নভেম্বর।

জানা যায়, এবারের সচিব সভায় উপস্থিত থাকার জন্য প্রধানমন্ত্রী মৌখিক সম্মতি দিয়েছেন। তবে স্থান এখনও চূড়ান্ত হয়নি। সচিব সভা সাধারণত সচিবালয়েই অনুষ্ঠিত হতো। কিন্তু সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী গত কয়েক বছর ধরে কম যাচ্ছেন।

মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকগুলো প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে হচ্ছে, যেগুলো সাধারণত সচিবালয়ে হতো। তাই এবার সচিবালয়ে সচিব সভা হওয়ার সম্ভাবনা কম। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সভা হওয়া সম্ভাবনা আছে। তবে এর আগে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়েও সচিব সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এবারের সচিব সভায় সাত থেকে আটটি বিষয় এজেন্ডাভুক্ত হতে পারে। সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পেতে পারে আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনের ভূমিকার বিষয়টি। এর বাইরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, আগের সচিব সভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের অগ্রগতি, মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন সংক্রান্ত বিষয়গুলো প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করবেন সচিবরা। পাশাপাশি দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে কড়া বার্তা দিতে পারেন সরকার প্রধান।

প্রসঙ্গত, সচিব সভায় প্রধানমন্ত্রী প্রধান অতিথি এবং মন্ত্রিপরিষদ সচিব সভাপতিত্ব করবেন। এতে সরকারের ৫৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সচিবদের সঙ্গে বিভিন্ন দপ্তর বা সংস্থায় কাজ করা সচিবরাও উপস্থিত থাকবেন। বর্তমানে নিয়মিত ও চুক্তিভিত্তিক মিলিয়ে ৮৭ জন সচিব ও সিনিয়র সচিব দায়িত্ব পালন করছেন।


আরও খবর