Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

জনি ডেপকে ক্ষতিপূরণ দিতে পারছেন না, অর্থ সংকটে অ্যাম্বার

প্রকাশিত:Saturday ০৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৪৪জন দেখেছেন
Image

প্রাক্তন স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে করা মানহানির মামলায় জয় হয়েছে হলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা জনি ডেপের। পাঁচ বছর আগে তাদের বিয়ে ভেঙ্গে যায়। বিয়ে বিচ্ছেদের জন্য আবেদন করতে গিয়ে জনির বিরুদ্ধে একাধিক গুরুতর অভিযোগ আনেন অ্যাম্বার।

আনেন অ্যাম্বার গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ।

এরপরই প্রাক্তন বউয়ের নামে মানহানির মামলা করেন জনি ডেপ। তারপর দীর্ঘ সময় মামলা চলে। পরে মামলার রায়ে জনি জয়ী হন।

আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী জনিকে ১৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে অ্যাম্বারকে। কিন্তু অভিনেত্রীর আইনজীবী জানাচ্ছেন, আর্থিক অবস্থা ভালো নয় অ্যাম্বারের। এত ডলার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ক্ষমতা নেই তার পক্ষে।

শুনানি চলাকালীনই অ্যাম্বার হার্ডের আর্থিক সমস্যার কথা জানা গিয়েছিল। ছয় সপ্তাহ লম্বা এই হাই-প্রোফাইল শুনানি শেষ হয় গত ১ মে।

ভার্জিনিয়ার ফেয়ারফ্যাক্স কাউন্টি সার্কিট কোর্টে সাত-সদস্যের বিচারক প্যানেলের ঘোষিত রায়ে জয় হয় জনি ডেপের।


আরও খবর



নির্মাণের ২২ বছর পরও আলোর মুখ দেখেনি ফেনীর সুইমিংপুল

প্রকাশিত:Sunday ০৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

খাল-বিল, নদী-নালার দেশে ভালোমানের সাঁতারু বের করে আনার লক্ষ্যে রাজধানী ঢাকা, বন্দরনগরী চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন বিভাগীয় শহর এবং বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ জেলায় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অর্থায়নে নির্মাণ করা হয়েছে সুইমিংপুল। যে সব সাঁতারুরা শুধুমাত্র এসএ গেমস নয়, দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে এশিয়ান গেমস, এমনকি অলিম্পিক গেমসেও।

শুধু সাঁতারু বের করে আনাই নয়, বিভিন্ন ক্রীড়া ডিসিপ্লিনে খেলোয়াড়দের শরীরচর্চার অন্যতম অনুসঙ্গ হিসেবেও খুব প্রয়োজন সাঁতার। সাধারণ মানুষের সাঁতার শেখাটাও জীবনের অন্যতম প্রয়োজনীয় বিষয়।

সবকিছুকে সামনে রেখে সারা দেশে অন্তত ২৩টি সুইমিংপুল নির্মাণ করা হয়। কিন্তু নির্মাণের পর অধিকাংশ পুলই পড়ে রয়েছে জরাজীর্ণ অবস্থায়। কোনো কোনো পুলে তো একদিনের জন্যও কেউ নামতে পারেনি। কোথাও পানি নেই, কোথাও পাম্প নষ্ট, কোথাও নোংরা পানি- নানা অব্যবস্থায় পড়ে রয়েছে কোটি কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত সুইমিংপুলগুলো।

অব্যবস্থাপনায় জর্জরিত এসব সুইমিংপুল নিয়েই জাগোনিউজের ধারাবাহিক আয়োজন। চতুর্থ পর্বে আজ থাকছে ফেনী সুইমিংপুলের চালচিত্র...

* ২০০০ সালে ৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যায়ে নির্মাণ করা হয় ফেনী সুইমিংপুল।
* ২২ বছরেও চালু না হওয়ায় অযত্ন আর অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে বিভিন্ন স্থাপনাসহ যন্ত্রপাতি।
* টাইলস্গুলো উঠে যাচ্ছে, পলেস্তারা খসে পড়ছে, দেয়ালে দেখা দিয়েছে ফাটল।
* পুল এলাকা এখন দিন-রাত মাদকের আখড়া ও বখাটেদের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছে।
* ক্রীড়ামোদীদের ক্ষোভ ও অসন্তোষ।
* জেলা ক্রীড়া সংস্থা বলছে, ২০২২ সালের মধ্যেই এটি চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

নির্মাণের ২২ বছর পরও ফেনীতে নির্মিত মরহুম মাহবুবুল হক পেয়ারা সুইমিংপুলটি চালু করা হয়নি। নির্মাণ ক্রুটির অজুহাতে এটি চালু না রাখায় অযত্ন আর অবহেলায় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে পুলটিতে স্থাপিত মোটর ও যন্ত্রপাতি, দেয়ালে দেখা দিয়েছে ফাটল, ধসে পড়ছে পলেস্তারা।

Feni Swimmingpool

পুল চাল না থাকায় জনমানবশূন্য তিন একরের এ জায়গাটিতে এখন দিন-রাত মাদকের আখড়া ও বখাটেদের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছে। তবে জেলা ক্রীড়া সংস্থা বলছে, ২০২২ সালের মধ্যেই এটি চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ২০০০ সালে ৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে ফেনী শহরের দাউদপুর এলাকায় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের উদ্যোগে নির্মাণ করা হয় ফেনী জেলা সুইমিংপুল।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার তত্ত্বাবধানে ৩ একর জায়গাজুড়ে নির্মিত ৮ লেনের এ সুইমিংপুলটি ২০১৪ সালে মরহুম মাহবুবুল হক পেয়ারা সুইমিংপুল নামকরণ করা হয়। জেলা পর্যায়ে সাঁতার শেখানো, বিভিন্ন সাঁতার প্রতিযোগিতার আয়োজন এবং স্থানীয় ও আশপাশের জনসাধারণের জন্য সাঁতারের ব্যবস্থা করতেই সুইমিংপুলটি নির্মাণ করা হয়।

ঢাকা-চট্টগ্রামের মাঝামাঝি হওয়ায় ফেনীর এ সুইমিংপুলটি সাঁতার প্রতিযোগীতার জন্য জাতীয় একটি গুরুত্বপূর্ণ ভেন্যু হওয়ার কথা ছিলো; কিন্তু ক্রীড়া সংস্থার উদাসীনতা, আর্থিক সংকট, জনবল না পাওয়া ও সংস্কারের প্রয়োজনীয় বরাদ্দ না পাওয়ার কারণে নির্মাণের ২২ বছর পরও এটি চালু করা যায়নি।

Feni Swimmingpool

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সুইমিংপুলের মূল ভবনের সামনে বৃহদায়তনের মাঠে ক্রিকেট প্র্যাকটিস গ্র্যাউন্ড। যেখানে কয়েকজন কিশোর অনুশীলন করছে। আশপাশে শুনশান নীরবতা। এখানে একজন দারোয়ান নিয়োজিত থাকলেও দীর্ঘ ২ ঘণ্টা পর্যন্ত তার দেখা মেলেনি।

সুইমিংপুলের পাশে দাঁড়িয়ে কয়েকজন কিশোর ধুমপানের পাশাপাশি আড্ডায় মত্ত্ব। দীর্ঘদিন পরিচ্ছন্নতা না করায় পূর্বপাশ এবং পশ্চিম পাশ আগাছায় ভরে উঠেছে। মূল ভবনের ভেতরে প্রবেশ করে দেখা যায়, দীর্ঘদিন অব্যবহৃত থাকায় এখানকার পুলের বেসিনের টাইলস্গুলো উঠে যাচ্ছে, পলেস্তারা খসে পড়ছে, দেয়ালে দেখা দিয়েছে ফাটল। অযত্ন আর অবহেলায় যন্ত্রপাতিগুলো মরিচা পড়ে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

পুল থাকার পরও ব্যবহার করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করে স্থানীয় কিশোর সায়মন বলেন, ‘নগরায়নের কারণে দিনদিন ফেনী শহরে পুকুরের সংখ্যা কমছে। কোটি কোটি টাকা ব্যয় করে এখানে সুইমিংপুলটি নির্মাণের পরও কেন এটি চালু হচ্ছে না তা কেউ জানে না। এটি চালু না হওয়ায় দিনরাত এখানে বখাটেদের আড্ডা জমে উঠেছে। জিনিসপত্র নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এটি চালু করলে আমরা সাঁতার শিখতে পারতাম। বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় অংশ নিতে পারতাম। এতে করে স্থানীয় যুবকদের মাঝে মাদকাসক্তের হার কমতো, কিশোরগ্যাং সমস্যা থাকতো না।’

Feni Swimmingpool

কিশোর ক্রিকেটার নিহান বলেন, ‘ফেনীর বিভিন্ন উপজেলা থেকে প্রায় সময় ক্রিকেট প্র্যাকটিসের জন্য আমাদেরকে এ মাঠে আসতে হয়। প্র্যাকটিস শেষে শরীরে দুর্গন্ধ, ঘাম আর ক্লান্তিতে একাকার হয়ে যাই। ভেজা শরীর নিয়ে বাড়ি ফিরতে হয়। এখানে সুইমিংপুলটি চালু থাকলে প্র্যাকটিস শেষে গোসল করে বাড়ি ফিরতে পারতাম।’

ফেনী জেলা ক্রিকেট এসোসিয়েশনের সভাপতি ইমন উল হক বলেন, ‘২২ বছরেও ফেনীর সুইমিংপুলটি চালু না হওয়া দুঃখজনক। এটি শুধু শিশু-কিশোরদের জন্য প্রয়োজন তা নয়; এটি চালু হলে সাঁতারু সৃষ্টি হবে। প্রতিযোগিতার আরো একটি ইভেন্ট যোগ হবে। আমরা বিষয়টি নিয়ে জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে বারবার আলোচনা করেও কোন ফল পাইনি।’

ফেনী জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার জাগোনিউজকে বলেন, ‘এটি ২০০০ সালে নির্মাণ করা হয়েছে। কিছু ক্রুটির কারণে এটি চালু করা সম্ভব হয়নি। ২০১০ সালে আমি দায়িত্বে আসার পর চেষ্টা করেছি এটি চালু করার জন্য। এখানে বসানো মোটরে ক্রুটি রয়েছে। পুলেও ক্রুটি আছে। চেষ্টা করেছি ক্রুটিগুলো সংস্কার করে চালু করার জন্য। এর সংস্কারের জন্য যে পরিমাণ বরাদ্দ প্রয়োজন তা বহনের সক্ষমতা ক্রীড়া সংস্থার নেই। তারপরও ২০২২ সালের মধ্যেই এটি চালুর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।’

Feni Swimmingpool

এ বিষয়ে ফেনী জেলা প্রশাসক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি আবু সেলিম মাহমুদ উল হাসান জাগো নিউজকে বলেন, ‘ফেনীর সুইমিংপুলটি বড় একটি স্থাপনা; কিন্তু দূর্ভাগ্যের বিষয় যে, শুরুর পর থেকে এটি চালু করা হয়নি। এটি চালু করতে হলে নতুনভাবে অনেক কাজ করতে হবে। বিষয়টি আমরা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করবো। এটি চালু হলে স্থানীয়রা সুইমিং শিখতে পারবে। সাধারণ মানুষও সুইমিং করতে পারবে। ফেনীতে সাঁতার প্রতিযোগী সৃষ্টি হবে।’


আরও খবর



সময় কাটাতে ইউটিউব চ্যানেল খুলে সিলভার প্লে বাটন পেলেন তিশা

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৬৩জন দেখেছেন
Image

করোনাকালে সময় কাটাতে গত বছর ইউটিউব চ্যানেলে খুলেছিলেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তানজিন তিশা। তার চ্যানেলেন নাম ‘তানজিন তিশা অফিশিয়াল’।

সেই চ্যানেলের জন্য ইউটিউব কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ‘সিলভার প্লে বাটন’ পেলেন অভিনেত্রী।

তিশা বলেন, ‘করোনাকালে ঘরে বসে ছিলাম। চিন্তা করলাম, বাসায় আছি। একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলি। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো, লকডাউনে জন্মদিন, নিজের মেকআপ করাসহ নানা ঘটনার স্মৃতি ভিডিও করে চ্যানেলে রাখা যাবে। সেভাবেই করেছিলাম।’

ভিডিওগুলো চ্যানেলে দেওয়ার পর বেশ সাড়া পাচ্ছিলেন তিশা। তিনি বলেন, ‘এসব ভিডিও দেখে আমার ভক্ত-শুভাকাঙ্ক্ষীরা ইতিবাচক মন্তব্য করছিলেন। আরও নতুন নতুন ভিডিও চাচ্ছিলেন তারা। দেখলাম, এক বছর না যেতেই সাবস্ক্রাইব এক লাখ পার হয়ে গেল।’

ছোট পর্দা, বড় পর্দার অনেক তারকারই এখন ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেল আছে। তাদের কেউ কেউ ইউটিউব কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সিলভার আবার কেউ কেউ গোল্ডেন প্লে বাটনও পেয়েছেন।


আরও খবর



ভৈরব নদে গোসলে নেমে যুবক নিখোঁজ

প্রকাশিত:Sunday ০৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
Image

যশোরের অভয়নগরে ভৈরব নদে গোসলে নেমে আল মামুন মল্লিক (২০) নামের এক যুবক নিখোঁজ হয়েছেন। রোববার (৫ জুন) দুপুরে উপজেলার সিদ্ধিপাশা ঘেয়াঘাটে এ ঘটনা ঘটে। আল মামুন মল্লিক সিদ্ধিপাশা গ্রামের মোজাফ্ফার মল্লিকের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী নৌকার মাঝি সজীব হাওলাদার জানান, দুপুরে তিন যুবক নৌকায় উঠে নদীর মাঝে এক সঙ্গে ঝাঁপ দেন। এসময় দুই যুবক সাঁতরে নদীর তীরে পৌঁছালেও অপরজন নদীতে ডুবে যায়। পরে কয়েকটি নৌকা নিয়ে এলাকাবাসী উদ্ধারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য শেখ তরিকুল ইসলাম জানান, দুপুরে সিদ্ধিপাশা গ্রামের মিজানুর বিশ্বাসের ছেলে জুয়েল বিশ্বাস (২০), একই গ্রামের ইয়াছিন মোড়লের ছেলে বোরহান মোড়ল (১৯) ও তাদের বন্ধু আল মামুন মল্লিক এক সঙ্গে ভৈরব নদে গোসল করতে যায়। তারা এক সঙ্গে নদীতে ঝাঁপ দিলে আল মামুন নিখোঁজ হন।

খুলনা ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দলের সদস্য হুমায়ুন আহমেদ জানান, ছয় সদস্যের একটি ডুবুরীদল উদ্ধার অভিযানে নিয়োজিত রয়েছে।


আরও খবর



সবাইকে ভুল প্রমাণ করার ভালো সুযোগ এবার: সাকিব

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৭৫জন দেখেছেন
Image

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে নামার আগে অন্যরকম এক অভিজ্ঞতাই হলো বাংলাদেশ দলের নতুন অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের। দেশে যেকোনো সংবাদ সম্মেলনে তার সামনে থাকেন অনেক সাংবাদিক, ডাইসে যেন বুম রাখার জায়গাও পাওয়া যায় না। সেই সাকিবই এবার সিরিজ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে সামনে দেখলেন একটিমাত্র বুম!

অবশ্য অভিজ্ঞতা নতুন হলেও, সম্মেলনের প্রসঙ্গ সেই পুরোনো। ক্রমাগত ব্যর্থতার বৃত্তে ঘুরতে থাকা টাইগাররা কি এবার পারবে ঘুরে দাঁড়াতে? নাকি আবারও একরাশ হতাশা নিয়েই শেষ হবে টেস্ট সিরিজ? যেমনটা হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজে ২০১৮ সালের সফরে।

অধিনায়ক সাকিব অবশ্য সাম্প্রতিক ব্যর্থতাকেই নিচ্ছেন চ্যালেঞ্জ হিসেবে। যেহেতু সবাই ভাবছে, আবারও মুখ থুবড়ে পড়বে বাংলাদেশ তাই সবাইকে ভুল প্রমাণের বড় সুযোগ হিসেবেই দেখছেন তিনি। যা তিনি শুরু করতে বৃহস্পতিবার মাঠে গড়াতে যাওয়া সিরিজের প্রথম ম্যাচ দিয়েই।

বুধবার ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেন, ‘টেস্টে আমরা সাম্প্রতিক সময়ে ভালো খেলছি না। এটা একটা সুযোগ সবাইকে ভুল প্রমাণ করার, আমরা এই টেস্ট ম্যাচটাতে খুব ভালো করে এখান থেকে শুরু করতে পারি পুরো সিরিজের জন্য।’

সিরিজ শুরুর আগে উইন্ডিজে একটি তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যেখানে রান পেয়েছেন তামিম ইকবাল, নাজমুল হোসেন শান্তরা। বোলিংয়ে ভালো করেছেন এবাদত হোসেন, খালেদ আহমেদরা। দলের সঙ্গে থাকায় সাকিব ম্যাচটি খেলতে পারেননি। তবু নিজের প্রস্তুতি নিয়ে চিন্তিত নন টাইগার অধিনায়ক।

সাকিবের ভাষ্য, ‘প্রস্তুতির দিক থেকে আমি ভালো অবস্থায় আছি। ফর্ম নিয়েও খুব একটা চিন্তিত না, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ দুইটা ম্যাচ ভালো খেলেছি। আমি নিজের ফর্ম নিয়ে তাই খুব বেশি চিন্তিত না। এখানে দলের পারফরম্যান্সটাই বেশি জরুরি, যেটা আমরা করতে চাচ্ছি।’

এসময় দলের নতুনদের ওপর নিজের আস্থার কথা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘কয়েকজন নতুন ছেলে আছে। (মাহমুদুল হাসান) জয় আমাদের ওপেনার, নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকায় ও ভালো করেছে। এটা তার জন্য আরেকটা চ্যালেঞ্জ। একই সঙ্গে তার সক্ষমতা আছে বাংলাদেশ ক্রিকেটে ভালো কিছু করার।’

‘(রেজাউর রহমান) রাজা নতুন পেসার, আমরা যার দিকে দেখতে পারি। আরও কয়েকজন ছেলে আছে। মিরাজ দলে ফিরেছে, এটা আমাদের জন্য বড় বুস্ট। (নুরুল হাসান) সোহান আরেকজন, যে আসা যাওয়ার মধ্যে আছে। ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ ফর্মে আছে, আশা করি সে এটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এনে বাংলাদেশকে আনন্দ এনে দিতে পারে।’


আরও খবর



স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের দ্বারপ্রান্তে ইউক্রেন

প্রকাশিত:Thursday ০২ June 2০২2 | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

একে একে মাঠে প্রবেশ করছেন ইউক্রেনের ফুটবলাররা। প্রত্যেকের গায়ে জড়ানো দেশের নীল-হলুদ জাতীয় পতাকা। তাদের দেখে গ্লাসগো হ্যাম্পডেন পার্ক স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে উঠে দাঁড়ালেন স্কটল্যান্ডের সমর্থকেরা। হাততালি দিয়ে স্বাগত জানালেন।

ম্যাচটা বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের প্রি-প্লে অফের। বলা হচ্ছে প্লে-অফ সেমিফাইনালের। কাতার বিশ্বকাপে জায়গা পেতে প্রথমে এই ম্যাচটি জিততে হবে। ইউক্রেনের ফুটবলাররা মাঠে নেমেছিলেন অনেক বড় এক আবেগকে সঙ্গে করে। দেশের মানুষ যখন রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে ব্যস্ত, তখন তারা হৃদয় জিততে নেমেছেন মাঠে।

ইউক্রেনীয় আবেগের কাছে পরাজিত হলো স্কটল্যান্ড। ৩-১ গোলে স্কটিশদের হারিয়ে বিশ্বকাপের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেলো ইউক্রেন। শেষ বাধা হিসেবে তাদের সামনে রয়েছে ওয়েলস। আগামী রোববার কার্ডিফে ওই ম্যাচটি জিততে পারলেই কাতার বিশ্বকাপে নাম লিখে ফেলবে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ ইউক্রেন। যারা বিশ্বকাপে খেলবে গ্রুপ ‘বি’তে ইংল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরানের সঙ্গে।

Ukrain

একই সঙ্গে ইউক্রেনের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হলো স্কটল্যান্ডের। ২৪ বছর ধরে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি তারা। যে কারণে হতাশ স্বাগতিক সমর্থকরা। তবুও আবেগে হৃদয় জেতা ইউক্রেন ফুটবলাররা যখন মাঠ ছেড়ে যাচ্ছিল, তখন তাদের উদ্দেশ্যে উঠে দাঁড়িয়ে হাততালি দিলেন তারা।

গত ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার হামলার পর থেকে এই প্রথম কোনো অফিসিয়াল ম্যাচ খেলতে নেমেছিল ইউক্রেন। গ্লাসগোর হ্যাম্পডেন পার্ক মাঠের ৫১ হাজার দর্শকের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাত্র তিন হাজার ইউক্রেনীয়। গ্যালারির এক কোনে জায়গা নিয়েছিল তারা। জাতীয় সঙ্গীতের সময় বুকে হাত, চোখে পানি। জাতীয় সঙ্গীত শেষ হওয়ার পরে হাততালি দিল বাকি ৪৮ হাজার দর্শকও। খেলা শেষেও সেই ছবি। তিন হাজার দর্শক যখন মাঠ ছেড়ে বেরোচ্ছেন তখন প্রায় ১০ হাজার তাদের হাততালি দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছিলেন।

এমনই বেশ কিছু টুকরো টুকরো ছবি। এই টুকরো টুকরো ছবিতেই বুধবার রাতে এক অন্য ফুটবল দেখল বিশ্ব। যেখানে একদিকে যুদ্ববিধ্বস্ত ইউক্রেন, তারা খেলেছে, জয় করেছে, সেখানে অন্যদিকে জয়ীকে বরণ করে নেওয়া রয়েছে। গ্লাসগো থেকে বার্তা ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে, মানবতার, বন্ধুত্বের, সহমর্মিতার।

Ukrain

ম্যাচের ৩৩তম মিনিটে আন্দ্রে ইয়ারমোলেঙ্কোর বাম পায়ের গোলে প্রথমে এগিয়ে যায় ইউক্রেন। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে ইউক্রেন। দ্বিতীয়ার্ধ শুরু হওয়ার পরপরই দ্বিতীয় গোল করে ইউক্রেন। ৪৯তম মিনিটে গোলটি আসে রোমান ইয়ারেমচুকের হেড থেকে। ওলেক্সান্ডার কারাভায়েভের ক্রস থেকে ভেসে আসে বলটি।

৭৯ মিনিটে স্কটল্যান্ডের হয়ে একটি গোল শোধ করেন কলাম ম্যাকগ্রেগার। বাম পায়ের দুর্দান্ত এক শটে গোলটি করেন তিনি। ম্যাচ শেষ হওয়ার খানিক আগে, ইনজুরি সময়ে বাম পায়ের শটে গোল করে স্কটল্যান্ডের পরাজয়ের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন আর্তেম ডভোবায়েক।


আরও খবর