Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
গ্রীষ্মের রুক্ষ প্রকৃতিতে শোভা ছড়াচ্ছে সোনালু ফুল ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২৬২ জন নিহত মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার

জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৪৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জানিয়েছেন ২০২৪-২৫ অর্থবছরে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হবে এবং মধ্যমেয়াদে তা বেড়ে ৭ দশমিক ২৫ শতাংশে পৌঁছাবে বলে।

বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) বিকেল ৩টায় জাতীয় সংসদে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে বাজেট উপস্থাপন বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এমনটি জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরে বাংলাদেশের গড় প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৬ দশমিক ৭১ শতাংশ, যা বিশ্বের সব দেশের মধ্যে অন্যতম সর্বোচ্চ। উচ্চ মূল্যস্ফীতির কারণে দেশের অর্থনীতি বর্তমানে কিছুটা চাপের সম্মুখীন হলেও প্রাজ্ঞ ও সঠিক নীতিকৌশল বাস্তবায়নের ফলে জিডিপি প্রবৃদ্ধির গতিধারা অব্যাহত রয়েছে।

মাহমুদ আলী বলেন, কোভিড-১৯ অতিমারির পূর্বের বছরে অর্থাৎ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে রেকর্ড ৭ দশমিক ৮৮ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছিল। রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট এবং অন্যান্য বৈশ্বিক অস্থিরতার ফলে সৃষ্ট সব প্রতিকূলতা সত্ত্বেও বাংলাদেশ ২০২১-২২ অর্থবছরে ৭ দশমিক ১০ শতাংশ, ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৫ দশমিক ৮ শতাংশ এবং ২০২৩-২৪ অর্থবছরে ৫ দশমিক ৮২ শতাংশ (সাময়িক) প্রবৃদ্ধি অর্জনে সক্ষম হয়েছে; যা আমাদের অর্থনীতির অন্তর্নিহিত শক্তির পরিচায়ক।

তিনি বলেন, জিডিপি প্রবৃদ্ধির এ গতি আগামীতে ধরে রাখার লক্ষ্যে কৃষি ও শিল্প খাতের উৎপাদন উৎসাহিত করতে যৌক্তিক সকল সহায়তা চলমান থাকবে। পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো প্রকল্পসমূহের যথাযথ বাস্তবায়ন এবং রপ্তানি ও প্রবাস আয় বৃদ্ধির লক্ষ্যে সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ কাঙ্কিত মাত্রায় জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনে সহায়ক হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আশা করছি আমাদের এ সকল প্রাজ্ঞ নীতিকৌশলের সুফল হিসেবে আগামী অর্থবছরে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অজিত হবে এবং মধ্য মেয়াদে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৭ দশমিক ২৫ শতাংশে পৌছাবে।


আরও খবর



‘নানা বাড়িতে ঈদ’

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৬জন দেখেছেন

Image
বিনোদন প্রতিবেদক:আসছে ঈদের জন্য পলাশ মণি দাস নির্মান করলেন নাটক ‘নানা বাড়িতে ঈদ’। নাটকটি রচনা করেছেন রাজীব মণি দাস। নাটকরে বভিন্নি চরিত্রে অভনিয় করছেনে- হান্নান শেলি, আখম হাসান, পুনম হাসান জুঁই, তারকি স্বপন, নিথর মাহবুব, সূচনা শকিদার, সাজু আহমদে, সগ্ধিা হোসাইন, ফরদি হোসাইন প্রমুখ।

দীর্ঘ বছর পর নানা বাড়িতে ঈদ করতে আসে হাবিব(আখম হাসান)। এত বছর পর হাবিবকে কাছে পেয়ে নানা ও নানিসহ বাড়ির সবাই বেশ উৎফুল্ল। নানা বাড়িতে আনন্দ করতে এস হাবিবের মন খারাপ হয়ে যায় নানান বাড়ির পাশের বাড়ির হান্নান(নিথর মাহবুব) মামাকে দেখে। অবিবাহিত হান্নান তার জমিজামা ভাগ করে ভাতিজাদের দিয়ে নিজের জন্য অল্প কিছু রেখেছিরৈন, কিন্তু তার পরই সে আক্রান্ত হয় কঠিন অসুখে, যেটুকু জমি ছিল চিকিৎসার জন্য বিক্রি করে শেষ, অন্যদিকে সম্পদ ভাগ করে দেওয়ার পর ভাই ভাতিজারা এখন আর কেউ তার খবর নেয় না।

বিভিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে ঈদের সময় ঘনিয়ে আসে। নানা তার নাতি-পুতিকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নেয় এবাবের কোরবানির হাটের সবচেয়ে বড় গরুটি তারা কিনবে। হাটে গরু কিনতে যাওয়ার জন্য সবাই প্রস্তুতি নিয়ে বের হয়েছে। কিন্তু মন খারাপ করে দাঁড়িয়ে আছে হাবিব, নানা তার পাশে গিয়ে জানতে চায় কেউ কি তাকে কিছু বলেছে। হাবিব বলে নানা এবার যদি আমরা কোরবানি না দেই তাহলে কি হবে? হাবিবের কথা শোনে সবাই হতভম্ব হয়ে যায়। হাবিব বলে- হান্নান মামা টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছে না, প্রতিবেশী হিসাবে কি আমাদের কোনো দায়িত্ব নেই? গরু কিনার টাকাটা যদি হান্নান মামার হাতে তুলে দেওয়া হয় তাহলে সে সুস্থ হয়ে যাবে। হাবিবের এই মানবিক কথা শোনে নানার চোখ দিয়ে পানি চলে আসে। সৃষ্টি হয় আবেগঘন মুহূর্ত। সিদ্ধান্ত হয় কোরবানির টাকা দিয়ে হান্নানের উন্নত চিকিৎসা হবে শহরে। এরপরও যদি টাকার প্রয়োজন হয় সেই টাকা নানা দিবে বলে অঙ্গীকার করে। 

নাটকটি নিয়ে নিথর মাহবুব বলেন, ‘এখন নাটকে যে-সব হালকা চরিত্র থাকে; তাতে অভিনয় করার সুযোগ থাকে না। তবে এবার ঈদের এই নাটকে অভিনয় করলাম মন ভরে। নাটকে আমার উপস্থিতি কম হলেও আমার  চরিত্রটি নাটকের কেন্দ্র। রাজীব মণি দাস বরাবরই গতানুগতিক এর বাইরে গিয়ে পরিবারকেন্দ্রিক নাটক লিখেন। কখনও কখনও তার গল্পের কেন্দ্র হয়ে উঠে নায়ক-নায়িকার বাইরের চরিত্রগুলে। সবাই যখন খরচ বাঁচাতে এক দুইজনকে নিয়ে নাটক বানাতে ব্যস্ত সেখানে  রাজীব মণির গল্পে থাকা নানা ধরনের চরিত্রের সমাবেশ। আর তাই তার নাটকের শুটিংয়ের সেট হয়ে উঠে উৎসব মুখর। কাজ হয়ে উঠে আনন্দময়।’

আরও খবর



প্রধানমন্ত্রীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন নরেন্দ্র মোদি

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

খবর প্রতিদিন ২৪ডেস্ক:ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি পাঠিয়ে মোদির শুভেচ্ছা জানানোর তথ্য আজ রবিবার ১৬ জুন এক বার্তায় জানায় ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশন।

হাইকমিশন জানায়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে উষ্ণ শুভেচ্ছা জানিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী মোদি জোর দিয়ে উল্লেখ করেছেন, এই উৎসবটি আমাদের ত্যাগ, সহানুভূতি ও ভ্রাতৃত্বের মূল্যবোধের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়। যা একটি শান্তিপূর্ণ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক বিশ্ব গড়তে অপরিহার্য। তিনি ঈদুল আজহাকে বহু-সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবেও বর্ণনা করেছেন।

চিঠিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও মঙ্গল কামনা করেছেন।


আরও খবর



পোরশায় তেঁতুলিয়া ইউপির উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১১৫জন দেখেছেন

Image

ডিএম রাশেদ,পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর পোরশায় তেঁতুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ২০২৪-২০২৫ইং অর্থ বছরের উন্মুক্ত বার্ষিক বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। 

গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক শাহ্ এর সভাপতিত্বে বাজেট সভায় উন্মুক্ত বাজেট উপস্থাপনা করেন ইউপি সচিব ইখতিয়ার হোসেন।

বাজেটে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে ১৮,৫৪,৬০২টাকা। রাজস্ব ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭,০০৪০২টাকা। বাজেটে উন্নয়ন আয় ধরা হয়েছে ৪,৮৬,৩৬,৭৮০টাকা। উন্নয়ন ব্যয় ধরা হয়েছে ৪,৮৬,৩৬,৭৮০টাকা। অর্থবছর শেষে বাজেট উদ্বৃত্ত থাকবে ১,৫৪,২০০টাকা।

বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে সকল ইউপি সদস্য, গ্রাম পুলিশ ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



এমপি আনার হত্যা মামলায় আটক শিমুল ভূঁইয়ার 'সেকেন্ড ইন কমান্ড' সাইফুল বিস্ফোরক সহ আটক

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৯২জন দেখেছেন

Image
ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:ভারতের কলকাতায় সাংসদ আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যা মামলায় জড়িত চরমপন্থি পূর্ব বাংলার নেতা শিমুল ভূঁইয়ার 'সেকেন্ড ইন কমান্ড' সাইফুল আলমকে আটক করেছে যশোর ডিবি পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে একটি ভারতীয় নম্বরের মোবাইল ও বিস্ফোরক জব্দ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮মে) রাত সাড়ে নয়টার দিকে যশোর শহরের রায়পাড়া বাবলাতলা এলাকার  আদর্শ মৎস্য হ্যাচারী থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মৎস্য শ্রমিক পরিচয়ে সাইফুল মেম্বার সেখানে আত্মগোপনে ছিলেন। 

ডিবি পুলিশের দাবী সাইফুল ওই হ্যাচারিতে পাঁচ দিন ধরে অবস্থান করছিলেন। 

যশোর ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, সাইফুল চরমপন্থী শিমুল ভুঁইয়ার 'সেকেন্ড ইন কমান্ড' হিসেবে পরিচিত। সে যশোরের উদয় শঙ্কর হত্যা, রাকিব হত্যা, সুব্রত হত্যা মামলায়  চার্জশিটভুক্ত আসামী ।  সে এসকল হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার  করেছে।  শিমুল ভুইয়া আটকের পর সে গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোপনে চলে যায়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে যশোর শহরের রায়পাড়া বাবলাতলা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ডিবি পুলিশের একটি দল। এ সময় ওই এলাকার আদর্শ মৎস হ্যাচারী থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি ভারতীয় নম্বরের মোবাইল ও বিস্ফোরক জব্দ করা হয়েছে।

সে যশোরের একাধিক  হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

এক প্রশ্নের জবাবে এসআই মফিজুল ইসলাম বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে সাইফুল্লাহ মেম্বার সাতক্ষীরা ও ভারত সীমান্ত এলাকায় ছিল। সে ভারতীয় মোবাইল নম্বর দিয়ে যোগাযোগ করতো ৷

আরও খবর



কুড়িগ্রামের রৌমারী পাহাড়ি ঢলের পানিতে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৭জন দেখেছেন

Image

মাজহারুল ইসলাম, রৌমারী(কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃগত কয়েকদিনের টানা ভারিবৃষ্টি ও ভারতীয় পাহাড়ি ঢলে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার রৌমারী সদর, যাদুরচর, শৌলমারী বন্দবেড় ও চর শৌলমারী ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। 

বুধবার সকালের দিকে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পানিবন্ধি হয়েছে ঝাউবাড়ি, লাঠিয়ালডাঙ্গা, চুলিয়ারচর, বারবান্দা, পূর্বইজলামারী, ভুন্দুরচর, চান্দারচর, নওদাপাড়া, ব্যাপারীপাড়া, বোল্লাপাড়া, খাটিয়ামারী, মোল্লারচর, বেহুলারচর, খেতারচর, বড়াইবাড়ি, রতনপুর, চর শৌলমারী ইউনিয়নের সুখেরবাতি, চর সুখেরবাতি, ঘুঘুমারী, উত্তর খেদাইমারী, মধ্য খেদাইমারী, উত্তর বাগুয়ারচর, বন্দবেড় ইউনিয়নের বাগুয়ারচর, বলদমারা, খেরুয়ারচর, চর খনজনমারা, বাইশপাড়া, পালেরচর, ফলুয়ারচর, বাঘমারা, চর বাঘমারা, চর বাঘমারা, যাদুরচর ইউনিয়নের দিঘলেপাড়া, ধনারচর পশ্চিমপাড়া, কোমড়ভাঙ্গিসহ প্রায় ৫০টি গ্রাম। অপর দিকে চর নতুনবন্দর স্থলবন্দরটিও বন্যার পানিতে তুলিয়ে যাওয়ার আশঙ্খ্ াদেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে মাঠে বৃষ্টির পানি জমে আমদানী ও রপ্তানী বন্ধ রয়েছে। কয়েকদিন থেকে টানা বৃষ্টি ও ভারতীয় আসাম রাজ্যের পাহাড়ি ঢল মানকারচর কালো নদী দিয়ে বাংলাদেশ সীমান্ত ঘেঁষা জিঞ্জিরাম নদী দিয়ে নেমে আসে। বন্যার পানি অস্বাভাবিক ভাবে বৃদ্ধি হওয়ায় জিঞ্জিরাম নদী উপচে গিয়ে ওইসব নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়। এতে পানিবন্ধি হয়ে পড়ে কয়েকটি গ্রাম। ফলে ওই এলাকার মানুষ জীবনের ঝুকি নিয়ে নৌকা বা ভেলা দিয়ে প্রয়োজনীয় তাগিদে বিভিন্ন এলাকায় পারাপার হচ্ছে। গরু, মহিষ, ভেড়াঁ, ছাগলসহ গৃহপালিত পশু পাখি নিয়ে বিপাকে পড়েছেন কৃষকরা। দেখা দিয়েছে গো-খাদ্যের চরম সংকট। স্থলবন্দরের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকায় কয়েক হাজার শ্রমিক বেকার হয়ে পড়েছে। ফলে তারা পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। অপর দিকে বিভিন্ন ফসলি জমি পানির নিচে তলিয়ে গেছে। বন্যায় প্রায় ৭০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হলেও এখন পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের কাছে কোন ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়নি।

রৌমারী সদর ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম শফিক বলেন, কয়েকদিনের টানা বর্ষন ও ভারতের পাহাড়ি ঢলে আমার এলাকার চর নতুনবন্দর, চান্দারচর ও নওদাপাড়াসহ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। ওই এলাকার মানুষ বর্তমানে নৌকা দিয়ে পারাপার হচ্ছে। 

রৌমারী সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক জানান, কয়েকদিনের টানা বর্ষনে আমার ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রাম পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। আরো কয়েকদিন এ অবস্থা থাকলে পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কাইয়ুম চৌধুরী জানান, নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় পাট আংশিক ৩৮, আউস ধান ৮, তিল ৯, চিনা ৫, শাকসবজি ১৮ ও মরিচ ৭ হেক্টর তলিয়ে গেছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবাস্তবায়ন কর্মকর্তা শামসুদ্দিন বলেন, উপজেলা  প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের জন্য ১৬ মেট্রিক টন চাউল ও ৮৫ হাজার টাকা প্রস্তুত রাখা হয়েছে। যে কোন মুহুর্তে এসব বিতরণ করা হবে। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ হাসান খান জানান, খুব শৗঘ্রই ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে জিআরের চাল ও নগদ অর্থ দেওয়া হবে। তাছাড়াও জেলার সাথে পরামর্শ করে শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হবে।


আরও খবর