Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্রে করে হামলা

জগন্নাথপুরে হামলা-সংঘর্ষ-গুলি, আটক ১৪

প্রকাশিত:Tuesday ০২ November 2০২1 | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৩৫২জন দেখেছেন
Image


 

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি:

 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্রে করে হামলা-সংর্ঘষের ঘটনায় গুলিবদ্ধসহ ছয় জন আহত হয়েছেন। এরমধ্যে দু'জনকে সিলেট ওসমানিতে ও অপরজনরা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

 

গত সোমবার রাতে জগন্নাথপুর পৌরসভার ইসহাকপুর এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। এঘটনায় পুলিশ ১৪জনকে আটক গতকাল মঙ্গলবার আদালতে পাঠিয়েছে।

 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ইসহাকপুরের যুক্তরাজ্য প্রবাসী উস্তার গণি ও একই এলাকার যুক্তরাজ্য প্রবাসী সুরুজ আলী পক্ষের লোকজনের মধ্যে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্রে করে দীর্ঘদিন করে পূর্ববিরোধ চলছিল। যার জের করে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে দু'পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

 

এতে গুলিবিদ্ধসহ ছয়জন আহত হন। এরমধ্যে নোমান আহমদ (২৪)  ও আব্দুস সালাম (৪৫)কে সিলেট ওসমানি হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর আহতদের স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

 

এদিকে সংঘর্ষচলাকালে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে উভয়পক্ষের ১৪জনকে আটক করেছে। এসময় সংঘর্ষে ব্যবহিত বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

 

-খবর প্রতিদিন /সি.বা

 

নিউজ ট্যাগ: হামলা আধিপত্য

আরও খবর



নাসিরনগরে শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে বই বিক্রেতা জেলহাজতে

প্রকাশিত:Tuesday ১০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৩৫৬জন দেখেছেন
Image


নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতাঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর নগর উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরীর ভেতরে এক তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে লাইব্রেরীর মালিক মোঃতাহের মিয়া (৪৪) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।সোমবার গ্রেপ্তারকৃত আসামি তাহের মিয়াকে আদালতের  মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।


জানা গেছে রোববার বিকেলে উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরীর ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই দিন রাতেই শিশুটির বাবা বাদী হয়ে নাসিরনগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন।


পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত তাহের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরির মালিক।সে উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক গ্রামের মোঃ জয়নাল আবেদিনের ছেলে। রোববার রাত ৯টার দিকে তাহের কে ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেতে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। 


মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে অভিযুক্ত তাহের দীর্ঘদিন ধরে ফান্দাউক বাজারে লাইব্রেরির ব্যবসা করে আসছেন। ভুক্তভোগী শিশুটিকে প্রায় সময়ই তাহের তাঁর লাইব্রেরির পেছনে নিয়ে যৌন হয়রানি করতেন। ঘটনার দিন বিকেলে ওই শিশুটি একটি কলম কেনার জন্য তাহেরের দোকানে যায়। সে সময় তাহের  শিশুটিকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে ও ফুসলিয়ে তার দোকানের পেছনে নিয়ে শিশুটিকে যৌন হয়রানি করে। পরে শিশুটি কান্না করে বাড়িতে চলে গিয়ে তার মাকে বিষয়টি জানায়। 


বিষয়টি জানাজানির পর তার বাবা স্থানীয়দের সঙ্গে আলোচনা করে নাসিরনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখীল করেন।শিশুর বাবার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই দিনই রাত ৯ঘটিকার সময় অভিযান পরিচালনা করে তাহেরকে লাইব্রেরী থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ 


জানতে চাইলে নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাবিবুল্লাহ সরকার বলেন, ‘শিশুটিকে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত আসামী তাহের কে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 



আরও খবর



১৭৪ রানে অপরাজিত

ডাবল সেঞ্চুরি মিস হলো মুশফিকের

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

স্পোর্টস রিপোর্টারঃ

মুশফিকুর রহিম একাই লড়াই করছিলেন। ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ডাবল সেঞ্চুরির দিকে। কিন্তু এগার নম্বর ব্যাটার এবাদত হোসেনকে স্ট্রাইক দেবেন না বলে ডাবলস নিতে গিয়েই বাধলো বিপত্তি।


ননস্ট্রাইকে রানআউট হয়ে গেলেন এবাদত। মুশফিকের ডাবলের স্বপ্ন পূরণ হলো না, ১৭৪ রানে অপরাজিতই থেকে গেলেন। ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ অলআউট হয়েছে ৩৬৫ রানে।


আরও খবর



এসএসসি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৩৬জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

দেশের সকল মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের ২০২২ সালের এসএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড।রুটিন মোতাবেক আগামী ১৯ জুন তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা শুরু হয়ে শেষ হবে ৬ জুলাই।আর ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৩ থেকে ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে শেষ করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।


বুধবার (২৭ এপ্রিল) আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কমিটির আহ্বায়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক এসএম আমিরুল ইসলামের সই করা সময়সূচি প্রকাশ করা হয় প্রতিবছর ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষা নেওয়া হলেও করোনা মহামারির কারণে এ বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়।


পরীক্ষার নির্দেশনায় বলা হয়- পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট পূর্বে অবশ্যই পরীক্ষার্থীদের কক্ষে আসন গ্রহণ করতে হবে। প্রশ্নপত্রে উল্লিখিত সময় অনুযায়ী পরীক্ষা নিতে হবে।


প্রথমে বহুনির্বাচনি ও পরে সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে এবং উভয় পরীক্ষার মধ্যে কোনো বিরতি থাকবে না। বহুনির্বাচনী পরীক্ষার ক্ষেত্রে সময় ২০ মিনিট এবং সৃজনশীল/রচনামূলক পরীক্ষার ক্ষেত্রে সময় ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট।


পরীক্ষার্থীরা তাদের প্রবেশপত্র নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান প্রধানের নিকট থেকে পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে তিনদিন পূর্বে সংগ্রহ করবে। সব শিক্ষাবর্ষের পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও খেলাধুলা এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়সমূহ এনসিটিবির নির্দেশনা অনুসারে ধারাবাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে প্রাপ্ত নম্বর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করবে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরের সঙ্গে ধারাবাহিক মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর বোর্ডের ওয়েবসাইটে অনলাইনে পাঠাবে।


পরীক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ উত্তরপত্রের ওএমআর ফরমে তার পরীক্ষার রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, বিষয় কোড ইত্যাদি যথাযথভাবে লিখে বৃত্ত ভরাট করবে। কোন অবস্থাতেই উত্তরপত্র ভাঁজ করা যাবে না।


পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়), বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক অংশে পৃথকভাবে পাস করতে হবে। প্রত্যেক পরীক্ষার্থী কেবল নিবন্ধনপত্রে বর্ণিত বিষয়/বিষয়সমূহের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। কোনো অবস্থাতেই ভিন্ন বিষয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না।


কোনো পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা (সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়), বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক) নিজ বিদ্যালয়ে/প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হবে না। পরীক্ষার্থী স্থানান্তরের মাধ্যমে আসন বিন্যাস করতে হবে এবং পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় নন-প্রোগ্রামেবল সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে।


কেন্দ্র সচিব ছাড়া অন্য কোন ব্যক্তি/পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন আনতে এবং ব্যবহার করতে পারবেন না। সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়), বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর উপস্থিতির জন্য একই উপস্থিতি পত্র ব্যবহার করতে হবে।


আরও খবর



বিষাক্ত সাপের কামড়ে কৃষকের মৃত্যু

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় খড়ের গাদা থেকে গরুর জন্য খড় আনতে গিয়ে সাপের কামড়ে আজিজুর রহমান (৪৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।


শুক্রবার (২০ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।



আজিজুর রহমান উপজেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের রনবাগ গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।


বড়বাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আকরাম হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যার আগে বাড়ির পাশে আজিজুর রহমান গরুর জন্য খড়ের গাদা খড় টেনে বের করার সময় একটি সাপ তাকে কামড় দেয়। পরে চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. রাকিবুল আলম চয়ন বলেন, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা থেকে সাপে কামড়ানো আজিজুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে আনা হয়েছিল। কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই তার মৃত্যু হয়।


আরও খবর



ব্যক্তি নামে কারো ৬০ বিঘার ওপর সম্পত্তি থাকলে সরকার নিয়ে নেবে

ব্যক্তি নামের ৬০বিঘার বেশি সম্পত্তি রাখা যাবে না

প্রকাশিত:Friday ২০ May ২০22 | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬৯জন দেখেছেন
Image
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ব্যক্তি নামে ৬০ বিঘার বেশি জমি থাকলে সরকার তা নিয়ে নেবে- এমন বিধান রেখে নতুন ‘ভূমি উন্নয়ন কর আইন, ২০২২’ ও ‘ভূমি সংস্কার আইন, ২০২২’-এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

গতকাল বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।


বৈঠক শেষে সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

ভূমি উন্নয়ন কর আইনের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘একজনের নামে ৬০ বিঘার বেশি কৃষিজমি থাকলে সরকার তা নিয়ে নেবে।’


তবে ভূমি সংস্কার আইনের খসড়ার বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘৬০ বিঘার বেশি কৃষিজমি একজনের নামে রাখা না গেলে রপ্তানিমূলক কৃষিপণ্য বা অন্য কোনো প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প হয়, তবে সেক্ষেত্রে ৬০ বিঘার বেশি জমি রাখা যাবে।’

ভূমি উন্নয়ন করের আইনের খসড়া নিয়ে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘আগের একটি অধ্যাদেশকে পরিমার্জন করে নতুন আইন করা হচ্ছে। নতুন আইন পাস হলে কৃষিকাজের ওপর নির্ভরশীল ব্যক্তি ও পরিবারভিত্তিক কৃষিজমির পরিমাণ ৮ দশমিক ২৫ একর বা ২৫ বিঘা পর্যন্ত ট্যাক্স দিতে হবে না। তবে জমি ২৫ বিঘার ওপরে থাকলে সব জমির জন্য ট্যাক্স দিতে হবে। তিন বছর ভূমি উন্নয়ন কর না দিলে ৬ দশমিক ২ শতাংশ হারে জরিমানা করে আদায় করা হবে।’


তিনি বলেন, ‘সরকারি কবরস্থান, শ্মশান, মসজিদ, ঈদগাহ মাঠ, মন্দির, গির্জা বা সব সাধারণের প্রার্থনার স্থানকে ভূমি উন্নয়ন করের আওতামুক্ত রাখা হয়েছে। ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কবরস্থানকে ট্যাক্স দিতে হবে। কারণ পারিবারিক কবরস্থানের রেকর্ড ব্যক্তিনামে থাকে। এলাকাবাসী মিলে মসজিদের পাশে যে কবরস্থান করে, সেটি মসজিদের নামে হওয়ায় সেটির কর দিতে হবে না।’

ভূমি সংস্কার আইনের খসড়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘পল্লি এলাকায় বাস্তুভিটা হিসেবে ব্যবহারের জন্য কোনো খাস জমি পাওয়া গেলে সরকার ভূমিহীন, মুক্তিযোদ্ধা বা তার পরিবার, ভূমিহীন কৃষিক ও তাদের পরিবারকে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে লিজ দেবে। তবে কাউকে পাঁচ শতাংশের বেশি লিজ দেওয়া যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘এই আইন পাস হলে পাঁচ বছরের চুক্তি করে জমি বর্গা দিতে হবে। বর্গাদার মারা গেলে তার ওয়ারিশদারের ওপর বর্গার চুক্তি বর্তাবে।’

এ আইনের আদেশ লঙ্ঘন করলে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে এক মাস পর্যন্ত বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হবে হবে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

আরও খবর