Logo
আজঃ মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

ইভিএম নির্ভরযোগ্য, এখন পর্যন্ত অভিযোগ আসেনি: সিইসি

প্রকাশিত:শনিবার ১১ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৩৫৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক : ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত নির্বাচন নিয়ে এখন পর্যন্ত তথ্যনির্ভর কোনো অভিযোগ আসেনি বলে দাবি করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

আজ শনিবার সকালে কক্সবাজারের একটি হোটেলে ‘নির্বাচনী ব্যবস্থায় আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার: চ্যালেঞ্জসমূহ এবং উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক দিনব্যাপী আয়োজিত কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

সিইসি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের প্রধানতম কাজ ভোটাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ করে দেওয়া। ভোটাররা কে, কোন দলকে ভোট দিয়েছে; সেটা কমিশনের দেখার বিষয় নয়। ভোটাররা যদি ভোট দিতে না পারেন, তাদেরকে যদি প্রতিহত করা হয়; ভোট কেন্দ্রে যদি তাদের অধিকার খর্ব করা হয়- তাহলে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নিয়ে আমাদের ব্যর্থতার দায় নিতে হবে।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেই ব্যাপকভাবে আস্থাভাজন হয়ে ইসি ইভিএমের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে। ইতোপূর্বে ইভিএম পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত নির্বাচন নিয়ে এখন পর্যন্ত তথ্য নির্ভর কোনো অভিযোগ আসেনি। তাই ইসির যে সক্ষমতা রয়েছে- তাতে আগামী সংসদ নির্বাচনে ৫০ থেকে ৮০টি আসনে নির্বাচন করা সম্ভব হবে।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার ড. মো. আমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. আহসান হাবিব খান, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ, প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুল হাসনাত মোহাম্মদ সায়েম, চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপ-মহাপুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি) মো. আনোয়ার হোসেন, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মুহম্মদ শাহীন ইমরান ও জেলা পুলিশ সুপার মো. মাহফুজুল ইসলাম প্রমুখ।


আরও খবর



ঈদ জামাতের নিরাপত্তায় প্রস্তুত র‍্যাবের স্পেশাল কমান্ডো টিম

প্রকাশিত:বুধবার ১০ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৬১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ঈদুল ফিতরের জামাত উপলক্ষ্যে র‍্যাবের পক্ষ থেকে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে,বলেছেন র‍্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) অতিরিক্ত আইজিপি এম খুরশীদ হোসেন। নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রতিটি এলাকায় পর্যাপ্ত র‍্যাব সদস্য নিয়োজিত করা হয়েছে। এছাড়া রয়েছে র‍্যাবের কন্ট্রোল রুম, স্ট্রাইকিং রিজার্ভ, ফুট ও মোবাইল পেট্রল, চেকপোস্ট, সিসিটিভি মনিটরিং করা হচ্ছে। চেকপোস্ট এমনভাবে করা হবে যাতে ঘরমুখো মানুষদের হয়রানির মুখে পড়তে না হয়।

মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) জাতীয় ঈদগাহ ময়দান পরিদর্শন শেষে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতীয় ঈদগাহসহ অন্যান্য ঈদগাহে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ঈদের নামাজে ডগ স্কোয়াড ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট সার্বক্ষণিক নিয়োজিত থাকবে। যে কোনো হামলা ও নাশকতা মোকাবিলার র‍্যাবের স্পেশাল ফোর্সের কমান্ডো টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। গোয়েন্দা তথ্য ও সাইবার মনিটরিংসহ অন্যান্য তথ্য বিশ্লেষণ করে এবারের ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কোনো জঙ্গী হামলার ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যায়নি। তবুও আমাদের গোয়েন্দা নজরদারি ও তৎপরতা সার্বক্ষণিক সময়ের জন্য বজায় থাকবে।

র‍্যাব ডিজি আরও বলেন, ইতোমধ্যে ট্রেনে কালোবাজারি রোধে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে, লঞ্চপথে হয়রানি রোধে র‍্যাবের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বাসচালকদের লাইসেন্স ও গাড়ির ফিটনেস চেক করাসহ বাড়তি ভাড়া আদায়ের কোনো অভিযোগ থাকলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর



ওদের পরিবারে ঈদ আনন্দ ম্লান

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৭৩জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুরঃদেড়শ’ মুরগি বিক্রি করে ঈদের নতুন জামা কাপড় কেনা কাটা করা ছাড়াও স্কুলের বেতন দেয়ার কথা ছিল। আর বাকি টাকা দিয়ে আবারো নতুন করে মুরগির বাচ্চা কিনে ফার্মটাকে চালু রাখতাম কিন্তু সেটি হলো না। আমাদের পরিবারে সকলেরই ঈদের আনন্দ ম্লান। ঘুরে দাঁড়াতেও অন্ততঃ ছয় মাস সময় লাগবে। অশ্রুসিক্ত নয়নে এমনি ভাবে আক্ষেপ করে কথা গুলো বলছিলেন স্কুল ছাত্র রিদয়। সে মেহেরপুরের গাংনীর পশ্চিম মালসাদহ গ্রামের টেপি পাড়ার হামিদুল ইসলামের ছেলে।

শুক্রবার দিবাগত রাতে পূর্ব শত্রতার জেরে ফার্মের বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেড় শতাধিক মুরগি পরিকল্পিতভাবে মেলে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। এমনি দাবী করেছেন রিদয়।

রিদয়ে বাবা হামিদুল ইসলাম জানান, নিজে ও ছেলে রিদয় মিলে বাড়ির ছাদে একটা মুরগির ফার্ম দেয়া হয়। এখান থেকে যা আয় হয় তা দিয়ে সংসারের খরচাদি ও ছেলে মেয়ের লেখাপড়ার খরচ দেয়া হতো। বাড়ির প্রাচিরের সাথেই রয়েছে ফার্মের বৈদ্যুতিক সংযোগ। দৃর্বৃত্তরা পরিকল্পিতভাবে সেই বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে। সেই সাথে কোন গ্যাস ছেড়ে দেয় ফার্মে। ফলে গরমে সব মুরগি ক্রমান্বয়ে মারা যায়। মধ্যরাত থেকে মরতে থাকে মুরগি। মৃতপ্রায় কিছু মুরগি প্রতিবেশিদেরকে দেয়া হয়েছে। বাকি মুরগি মাটিতে পুঁতে ফেলা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

রিদয়ে মা বেলি খাতুন জানান, অন্যান্য দিনের মতো মধ্যরাত পর্যন্ত ছাদে মুরগির ফার্মে কাজ করা হয়েছে। তার পর ঘরে আসার কিছুক্ষণ পর মুরগির সাড়া শব্দ না পেয়ে গিয়ে মুরগি মরতে দেখা যায়। কারো সাথে শত্রুতা নেই, তবে জমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে একজনের সাথে। তিনিই এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে বলে আশংকা করছেন তিনি। গাংনী থানার ওসি (তদন্ত) মনোজিৎ কুমার নন্দী জানান, এ বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করেন নি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর



জলঢাকায় গুণীজনদের নিয়ে 'বন্ধন' এর আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৫১জন দেখেছেন

Image
জলঢাকা,নিলফামারী, প্রতিনিধি:নীলফামারীর জলঢাকায় মানবতার সেবায় সামাজিক সংগঠন "বন্ধন" এর  উদ্যোগে গুণীজনকে নিয়ে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার জলঢাকা সরকারী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় হলরুমে "বন্ধন"র এই আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, জলঢাকা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সেকশন কমান্ডার ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আব্দুল গফফার। বিশেষ অতিথি ছিলেন, থানা পুলিশ পরিদর্শক আব্দুর রহিম।এতে সভাপতিত্ব করেন "বন্ধন" এর সভাপতি শাহজাহান কবির লেলিন।

মানবতার সেবায় নিয়োজিত সামাজিক সংগঠন "বন্ধন" এর সাংগঠনিক সম্পাদক হাসানুজ্জামান সিদ্দিকী হাসান এর সঞ্চালনায়  অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন,তাক্বওয়া চ্যারিটি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ কৈমারী সভাপতি শায়েখ আব্দুর রহমান,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক, ৩ নং বালাগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান আহম্মেদ হোসেন ভেন্ডার, প্রধান শিক্ষক আমিনুর রহমান, বিশিষ্ট ঠিকাদার ও সমাজসেবক গোলাম মোস্তফা সোহাগ, পৌর জাতীয় পার্টির সভাপতি আনিছুর রহমান যাদু, "বন্ধন" এর সাধারণ সম্পাদক  সাংবাদিক আবেদ আলী, সিনিয়র সাংবাদিক মাহাদী হাসান মানিকআজম বাদশা সাবু, এরশাদ আলম ও মশিয়ার রহমান প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, বন্ধন একটি সেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন।এর লক্ষ উদ্দেশ্য সরকারের পাশাপাশি শিক্ষা, স্বাস্থ্য, দারিদ্রমুক্ত ও পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী এবং অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়ানো সহ সমাজের ভাল কাজ গুলোতে অংশগ্রহণ করা।কাজের মাধ্যমে "বন্ধন" এগিয়ে যাবে, এটাই সবার প্রত্যাশা। 

আরও খবর



শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি ইয়াছিন আলী আটক

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ১১৬জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলার মামলায় ৭ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ইয়াছিন আলীকে (৫৭) আটক করেছে র‌্যাব। বুধবার (২৭ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে র‌্যাব-৬ এর খুলনা ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। গত ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট সাতক্ষীরার কলারোয়ায় শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা চালায় আসামিরা।

মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে যশোর কোতয়ালী মডেল থানাধীন শানতলা মোড়ে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ইয়াছিন আলী কলারোয়া উপজেলার তুলশীডাঙ্গা গ্রামের মৃত ইউসুফ আলীর ছেলে।

র‌্যাব জানায়, ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক মুক্তিযোদ্ধার নির্যাতিত স্ত্রীকে দেখে ফেরার পথে কলারোয়া থানা এলাকায় পৌঁছলে কতিপয় সন্ত্রাসীরা শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র, হাত বোমা সহ তার গাড়িবহরে হামলা চালায়। এই হামলার ঘটনায় সাতক্ষীরার কলারোয়া থানায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইন সহ অন্যান্য আইনে পৃথক তিনটি মামলা হয়। পরে মামলাগুলোর বিচারকার্য শেষে ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় ২০২৩ সালের ১৮ এপ্রিল সাতক্ষীরার স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক হামলার সঙ্গে জড়িত আসামিদের দোষী সাব্যস্ত করে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করেন। এর মধ্যে ইয়াছিন আলী অন্যতম এবং তিনি সাত বছরের সাজাপ্রাপ্ত হন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিলেন।

তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে তার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে ২৬ মার্চ রাতে তাকে যশোরের শানতলা মোড় থেকে আটক করতে সক্ষম হয় র‌্যাব-৬এর সদস্যরা। পরে তাকে সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরও খবর



৬ দিন বন্ধ থাকবে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৯৯জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর,পহেলা বৈশাখ উদ্ধসঢ়;যাপন উপলক্ষে টানা ৬ দিন দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকবে। সেই সাথে বন্দরে পণ্য লোড- আনলোডসহ সকল প্রকার কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। তবে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে পাসপোর্টযাত্রী চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।এক চিঠির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হিলি স্থলবন্দর আমদানি ও রপ্তানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান।

তিনি জানান,আগামী ৯ এপ্রিল থেকে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ঈদুল ফিতরের এবং ১৪ এপ্রিল বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে টানা ৬ দিন বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

১৫ এপ্রিল (সোমবার) থেকে পুনরায় আমদানি-রপ্তানি চালু হবে। ভারত হিলি এক্সপোর্ট অ্যান্ড কাস্টমস ক্লিয়ারিং অ্যাসোসিয়েশন,বাংলা হিলি কাস্টমস,পানামা পোর্ট,হিলি সিএ্যন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনসহ আমদানি-রপ্তানি সংশ্লিষ্টদের ইতিমধ্যেই পত্র প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে হিলি ইমিগ্রেশন এর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আশরাফুল ইসলাম জানান,ঈদুল ফিতর উপলক্ষে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে পাসপোর্টযাত্রী চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।


আরও খবর