Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম
ইউপি নির্বাচনে শৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে কঠোর ব্যবস্থা: সেতুমন্ত্রী

ইউপি নির্বাচনে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৩১৮জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে মনোনয়নকে কেন্দ্র করে যারা সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গ করছেন, নিজেদের মধ্যে সংঘাত- সংঘর্ষে লিপ্ত হচ্ছেন তাদেরকে সাংগঠনিক শৃঙ্খলা বিরোধী তৎপরতা থেকে বিরত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।

 

তিনি বলেন, সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গকারী এবং তাদের মদদদাতা, উস্কানিদাতা নেতা ও জনপ্রতিনিধিরাও দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থার সম্মুখীন হবেন।সোমবার সকালে সংসদ ভবন এলাকায় নিজ বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

 

শৃঙ্খলা ভঙ্গকারী এবং তাদের মদদদাতাদের বিরুদ্ধে দলীয় প্রধানের নির্দেশে তালিকা তৈরি করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, অপকর্ম করলে কেউ রেহাই পাবে না; শাস্তি তাদের  পেতেই হবে। কৌশলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কেউ নির্বাচিত হলে শৃঙ্খলা বিরোধী অপকর্ম বলে গণ্য করা হবে।

 

তিনি বলেন, ক্ষমতায় যেতে আওয়ামী লীগের কোন ষড়যন্ত্রের প্রয়োজন হয় না, আওয়ামী লীগ এদেশের মাটি ও মানুষের দল। বঙ্গবন্ধু এ দেশের মানুষের জন্য আজীবন সংগ্রাম করেছেন, আর এখন তার কন্যা শেখ হাসিনা পিতার স্বপ্ন পূরণে অবিরাম লড়ে যাচ্ছেন।

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণের রাজনীতি করে বলেই জনগণ আওয়ামী লীগের প্রাণ শক্তি। অপরদিকে যারা ক্ষমতাকে নিজের ভাগ্য বদলের চাবি মনে করে এবং দেশে বিদেশে সম্পদের পাহাড় গড়ে,ষড়যন্ত্র, হত্যা ও সন্ত্রাস নির্ভর রাজনীতি করে তাদের জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে।

 

খবর প্রতিদিন /সি.বা 


আরও খবর



ডেমরায় অটো রিক্সা চুরির দায়ে গ্রেফতার -১

প্রকাশিত:Tuesday ১০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ১০১জন দেখেছেন
Image

বজলুর রহমানঃ

রাজধানীর ডেমরা থানা এলাকায় ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা চুরির ঘটনা ঘটেছে।



অটোরিকশা চুরির দায়ে মিরাজ জমাদার (২৮) নামে এক চোরকে গ্রেফতার করেছে ডেমরা থানা পুলিশ। 


এ সময় আল-আমিন (২৫) নামে সহযোগী আরেক চোর পালিয়ে যায়।



রবিবার দুপুরে মিরাজ সরদারকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। শনিবার ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে পালানোর সময় টহলরত পুলিশ পূর্ব ডগাইর মদিনাবাগ কোদালদোয়া এলাকা থেকে মিরাজ সরদারকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে।


সে পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানি উপজেলার চরখালি গ্রামের মৃত হোসেন জমাদারের ছেলে।


 এ বিষয়ে শনিবার রাতে ডেমরা থানায় উক্ত দুই চোরের বিরুদ্ধে মামলা করেন অটোরিকশার মালিক মো. মিজানুর রহমান (৫২)।



বিষয়টি নিশ্চিত করে ডেমরা থানার ওসি অপারেশন সুব্রত কুমার পোদ্দার বলেন, গত ১ বছর ধরে মিজানুর রহমান ওই রিকশাটি কিনে নিজেই চালাতেন। গত ৭ মে শনিবার ভোরে গ্যারেজ থেকে রিকশাটি চুরি করে পালাচ্ছিল মিরাজ ও ফার্মের মোড় এলাকায় বসবাসরত পলাতক চোর আল আমিন। 


এ সময় টহলরত পুলিশ তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা কোন সঠিক উত্তর দিতে পারেনি। তখন দৌড়ে পালিয়ে যায় আল আমিন।



আরও খবর



শ্রীলঙ্কায় তুমুল বিক্ষোভের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

প্রকাশিত:Monday ০৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৭৫জন দেখেছেন
Image

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

শ্রীলঙ্কায় তুমুল বিক্ষোভের মধ্যে পদত্যাগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে।


সোমবার তিনি পদত্যাগ করেন বলে তার মুখপাত্র রোহান ওয়েলিউইটার বরাত দিয়ে জানিয়েছে দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম।


মাহিন্দা রাজা পাকসে সমর্থক ও সরকারবিরোধীদের মধ্যে সংঘর্ষের পর তিনি পদত্যাগ করেন। ওই সংঘর্ষে ৭৮ জন আহত হন।


এরপর দেশটিতে কারফিউ জারি করা হয়


৭৬বছর বয়সী মাহিন্দা তার পদত্যাগপত্র ছোট ভাই প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের কাছে পাঠান।



গত শুক্রবার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে তার ভাইকে চলমান রাজনৈতিক সংকট সমাধানের জন্য পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা জানিয়েছিলেন।


গত এপ্রিল থেকে শ্রীলংকায় অর্থনৈতিক সংকট শুরু হয়।


বৈদেশিক ঋণে জর্জরিত দেশটি নিজেকে ‘অর্থনৈতিকভাবে দেউলিয়া’ ঘোষণা করে। এরপর থেকেই প্রধানমন্ত্রী রাজাপক্ষের পদত্যাগের দাবি জোরদার হয়।  


শ্রীলঙ্কায় অর্থনৈতিক সংকটের কারণে রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্য দিয়ে রাজা পাকসে পদত্যাগ করলেন।


আরও খবর



নাসিরনগর হরিপুরের এক ত্রাসের নাম ভয়ংকর কাপ্তান

প্রকাশিত:Monday ০৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২২ May 20২২ | ৮৫জন দেখেছেন
Image


নাসিরনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের মন্দির ভাংঙ্গা, মাদক,ডাকাতি,খুন ও মারামারী সহ একাদিক মামলার গ্রেপ্তারী ফরোয়ানা ভুক্ত আসামী ও হরিপুরের এক  ভয়ংকর ত্রাসের নাম কাপ্তান।


কাপ্তানের ভয়ে গ্রামের তিতন ফকির সহ অনেকেই আতংকে  দিন কাটাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।জানা গেছে ২০১৬ সালের ৩০ অক্টোবরে নাসিরনগরে হিন্দুদের বাড়িঘর ও মন্দির ভাঙ্গার অন্যতম আসামী কাপ্তান।তাছাড়াও কাপ্তানের বিরোদ্বে  নাসিরনগর ও পার্শ্ববর্তী মাধবপুর থানায় রয়েছে একাদিক ডাকাতি,মারামারী,মাদক ও খুনের মামলা।


হরিপুর গ্রামের  তিতন ফকির জানান ভয়ংকর কাপ্তানের ভয়ে তিনি ও তার পরিবারের লোকজন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন।হরিপুরের টেকপাড়ার আওয়াল মিয়া অভিযোগ করে জানায়,কাপ্তান একটি সরকারী জায়গা থেকে মাটি কেটে ট্রাক বোঝাই করে সরকারী ও জনগনের হাটাচলাফেরা করার রাস্তা ভেঙ্গে গর্তে পরিনত করে ব্রিক ফিল্ডে মাটি বিক্রি করার সময় তারা বাধা দেয়।তাতে কাপ্তান ক্ষিপ্ত হয়ে পরদিন কেউ বাঁধা দিলে তাকে ট্রাকের চাকার নীচে ফেলে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে আসেন।


তিনি জানান কাপ্তানের যেই কথা সেই কাজ।পরদিন কাপ্তানের ট্রাক মাটি বোঝাই  করে সেই রাস্তা দিয়ে আসার সময় আমার তৃতীয় শ্রেণী পড়ুয়া ছেলে রাসেল রাস্তায় গেলে তাকে ট্রাকের চাকার নীচে পেলে মেরে ফেলে।এ সব ছাড়াও আরো অনেক অভিযোগ রয়েছে কাপ্তানের বিরোদ্বে।হরিপুরের নিরীহ ও শান্তিপ্রিয় লোকজন এই জগন্য,ভয়ংকর কাপ্তানের অত্যাচার থেকে মুক্তি চায়।কাপ্তানের গ্রেপ্তারী পরোয়ানার বিষয়ে জানতে চাইলে হরিপুরের বিট অফিসার এস আই রূপন নাথ জানান,কাপ্তানের বিরোদ্বে তার হাতে দুটি গ্রেপ্তারী ফরোয়ানা রয়েছে।পুলিশ কাপ্তানকে গ্রেপ্তারের জন্য হন্যে হয়ে খুঁজছে।



আরও খবর



মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী আনার কলি বেপরোয়া

আশুগঞ্জে মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী আনার কলির বিরুদ্ধে থানায় জিডি

প্রকাশিত:Thursday ১৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১০৭জন দেখেছেন
Image
আশুগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে দিন দিন অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছেন মহিলা আওয়ামীলীগের নেত্রী আনার কলি। 

সম্প্রতি  তার দখল বাণিজ্যের তথ্য অনুসন্ধ্যান করতে গিয়ে ওই নেত্রীর হুমকি-ধামকিসহ তোপের মুখে পড়েছেন উপজেলা সহকারি (ভূমি) ও গনমাধ্যম কর্মীরা। এ ঘটনায় উপজেলা প্রশাসন ও গণমাধ্যম কর্মীরা ওই নেত্রীর বিরুদ্ধে আশুগঞ্জ থানায় পৃথক দুটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।


মহিলা আওয়ামীলীগের নেত্রীর বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসন এবং সাংবাদিকের জিডি করার বিষয়টি টক অব দ্যা আশুগঞ্জে পরিণত হয়েছে।
অনুসন্ধ্যানে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের অর্থ সম্পাদক  ও আশুগঞ্জের প্রভাবশালী নেত্রী আনার কলি স্থানীয় রওশন আরা জলিল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন রেলওয়ের ১১৮৮ বর্গফুট জায়গা লীজ নেন মৎস্য, কৃষি ও নার্সারী করার শর্তে ।


ওই জায়গা লীজ নিয়ে আনার কলি লীজের শর্ত ভঙ্গ করে সেখানে মার্কেট করার জন্য জলাশয় ভরাট করতে থাকেন। খবর পেয়ে  গত ৩০ এপ্রিল আশুগঞ্জ উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ঘটনাস্থলে গিয়ে অবৈধ মাটি ভরাটে বাঁধা দেন। এ সময় সেখানে থাকা আনার কলি ও তার সাথে থাকা অজ্ঞাতনামা আরো ২/৩ জন সহকারি কমিশনার (ভূমি) কে অকথ্য ভাষায় গালাগালসহ সরকারি কাজে বাঁধা প্রদান করেন।
 এ ঘটনায় সহকারি কমিশনারে পক্ষে নাজির মনিরুজ্জামান বাদী হয়ে গত ৩০ এপ্রিলই  আশুগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করেন। জিডি নং-২৭৩৬।


এদিকে মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী আনার কলির জলাশয় ভরাট করে অবৈধভাবে সেখানে মার্কেট নির্মান করার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক লেখালেখি শুরু হলে সময় টেলিভিশনের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ব্যুরো প্রধান উজ্জ্বল চক্রবর্তী তার ক্যামেরাপারসন মোঃ জুয়েলুর রহমানকে সাথে নিয়ে গত বুধবার দুপুর  সোয়া ১২ টার দিকে আশুগঞ্জে ঘটনাস্থলে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে থাকলে খবর পেয়ে মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী আনার কলি ঘটনাস্থলে এসে চিৎকার করে বলতে থাকেন ‘আপনারা ভুয়া সাংবাদিক, আমার কাছ থেকে টাকা নিতে এসেছেন।’ 

এ সময় আনার কলি তাদের অকথ্য ভাষায় গালাগালসহ তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি এবং নারী নির্যাতনের মামলা করার হুমকি দেন। এ সময় আনার কলি মোবাইলে সাংবাদিক উজ্জল  ও তার ক্যামেরাপারসন জুয়েলুর রহমানের ভিডিও ধারণ করেন এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছাড়ারও হুমকি দেন। এ সময় আনার কলি সাংবাদিক উজ্জ্বল চক্রবর্তী দেখে নেয়ার হুমকি দেন।
এ ঘটনায় সাংবাদিক উজ্জ্বল চক্রবর্তী বুধবার দুপুরে আশুগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। জিডি নং-১০৪৬।


স্থানীয়রা জানান, আনার কলি রেলওয়ে থেকে এগারশ আটাশি বর্গফুট জায়গা লীজ নিয়ে জলাশয় ভরাট করে কয়েকগুণ বেশি জায়গা জুড়ে মার্কেটের কাঠামো নির্মাণ করছেন।
স্থানীয় বাসিন্দা, নূর উল্লাহ সরকার সাংবাদিকদের বলেন, ওই নেত্রী লীজ নেয়া জায়গায় অবৈধভাবে দোকান নির্মান করেছেন। অথচ এলাকায় কোন সিএনজিচালিত অটোরিকসা স্ট্যান্ড করার মতো কোন জায়গা নেই। প্রতিদিন এখানে যানজট লেগে থাকে। ওই নেত্রীকে কেউ কিছু বলতে পারে না। যে তার বিরুদ্ধে কথা বলেন, তাকে চাঁদাবাজি ও নারী নির্যাতন মামলা দেয়ার ভয় দেখায়। 

মোঃ সালমান নামে আরেক বাসিন্দা মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী আনারকলি  রেলওয়ের কাছ থেকে এই জায়গা মাছ চাষ করার কথা বলে লীজ নিয়েছেন বলে শুনেছি। মাছ চাষ করার কথা বলে ওই জায়গা লীজ এনে তিনি জলাশয় ভরাট করে দোকানপাট  নির্মান করেছেন। তার ভয়ে কেউ তাকে কিছু বলতে সাহস পায়না।

মার্কেটে দোকান ভাড়া নেয়া মোঃ আল-আমিন বলেন, আমি আনার কলির কাছ থেকে মাসিক ৪ হাজার টাকা ভাড়ায় একটি দোকান ভাড়া নিয়েছি। সিকিউরিটি বাবদ দিয়েছি ৬০ হাজার টাকা।
এ ব্যাপারে সাংবাদিক উজ্জ্বল চক্রবর্তীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী আনার কলি আমাদের সাথে আপত্তিজনক আচরণসহ চাঁদাবাজি নারী নির্যাতন করার হুমকি দেন এবং মোবাইলে আমাদের ভিডিও ধারণ করেন অসৎ উদ্দেশ্যে ।

এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অরবিন্দু বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লীজের শর্ত ভঙ্গ করে আনার কলি অবৈধভাবে জলাশয় ভরাট করছে খবর পেয়ে এসিল্যান্ড বাঁধা প্রদান করলে আনার কলি তার সাথে অশোভন ও আপত্তিকর আচরণ করেন। আমরা বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। এ ঘটনায় এসিল্যান্ড আশুগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। আমরা বিষয়টি রেলের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানাবো। 

এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হানিফ মুন্সী সাংবাদিকদেরকে বলেন, উপজেলা পরিষদের আসার পথে আমি এই জায়গাটি দেখেছি। বালু দিয়ে ভরাটের সময় সময় আমি স্থানীয়দের কাছ থেকে জানতে পারি জায়গাটি আনারকলি ভরাট করছেন। পরে আনার কলির সাথে কথা বললে তিনি জানান, এই জায়গা তিনি রেলওয়ের কাছ থেকে লীজ এনেছেন। তবে এখানকার অটোরিক্সা চালকদের দাবি ছিল এখানে একটি সিএনজি স্ট্যান্ড করার জন্য । 

কিন্তু রেলওয়ের জায়গা হওয়ার কারণে আমরা সেখানে হস্তক্ষেপ করতে পারিনি। জলাশয় ভরাটের বিষয়ে আমরা অবগত হয়েছি এবং এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।
এ ব্যাপারে রেলওয়ের ভূ-সম্পদ কর্মকর্তা শহীদুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, লীজের শর্ত ভঙ্গ করলে এবং অবৈধভাবে জলাশয় ভরাট করলে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও খবর



বিষাক্ত সাপের কামড়ে কৃষকের মৃত্যু

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় খড়ের গাদা থেকে গরুর জন্য খড় আনতে গিয়ে সাপের কামড়ে আজিজুর রহমান (৪৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।


শুক্রবার (২০ মে) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।



আজিজুর রহমান উপজেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের রনবাগ গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন।


বড়বাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আকরাম হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যার আগে বাড়ির পাশে আজিজুর রহমান গরুর জন্য খড়ের গাদা খড় টেনে বের করার সময় একটি সাপ তাকে কামড় দেয়। পরে চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. রাকিবুল আলম চয়ন বলেন, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা থেকে সাপে কামড়ানো আজিজুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে আনা হয়েছিল। কিন্তু হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই তার মৃত্যু হয়।


আরও খবর