Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ইউক্রেনজুড়ে রাশিয়ার ফের হামলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৭৭জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভসহ বিভিন্ন শহরে ফের অতর্কিত হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী। এতে অন্তত একজন নিহত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা ও ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর ওডেসায় একজন নিহত হয়েছে। এ ছাড়া রাজধানী কিয়েভের দুই শহরে বিধ্বস্ত ক্ষেপণাস্ত্রের ধ্বংসাবশেষ পড়ে দুই জায়গায় অগ্নিকাণ্ড হয়েছে।

রাশিয়ান মিসাইল ভূপাতিতের দাবি ইউক্রেনের 

বৃহস্পতিবার বার্তা আদান প্রদানের অ্যাপ টেলিগ্রামে ইউক্রেনের সামরিক প্রশাসনের মুখপাত্র সেরহি ব্রাতচাক লিখেছেন, ওডেসায় রুশ বাহিনীর হামলায় আরও দুইজন আহত হয়েছে।

ইউক্রেনের সেনাবাহিনী কিয়েভের দেসনিয়াস্কি জেলায় বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণের খবরও জানিয়েছে। দেশটির সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, কেন্দ্রীয় ভিনিতসিয়া অঞ্চলে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়েছে রাশিয়ান বাহিনী। স্থানীয় মিডিয়ার খবরে খামেলিতস্কি অঞ্চলেও বিস্ফোরণের রিপোর্ট জানানো হয়েছে।

এ দিকে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি মাসে এখন পর্যন্ত ৯ বারের মতো ব্যাপক হামলা চালালো রাশিয়ান বাহিনী। ইউক্রেনের বাহিনী রাশিয়ার বিরুদ্ধে যখন পাল্টা হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল তখনই ইউক্রেনের ওপর ক্রমাগত হামলা চালিয়ে যাচ্ছে রাশিয়া।

গত বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এরপর আজ পর্যন্ত টানা এক বছরের বেশি সময় ধরে চলছে ইউক্রেন রাশিয়া যুদ্ধ। এতে দুই পক্ষের বহু হতাহতের খবর পাওয়া যাচ্ছে। তবে যুদ্ধ বন্ধের এখন পর্যন্ত কোনো লক্ষণ নেই। উল্টো পূর্ব ইউক্রেনে দেশ দুইটির মধ্যে সংঘাতের পরিমাণ অনেক বেড়েছে।


আরও খবর



গলাচিপায় শিল্পকলা একাডেমি সংস্কার ও আধুনিকায়নের উদ্বোধন

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

রিয়াদ হোসাইন,গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:ঐতিহ্যবাহী গলাচিপা শিল্পকলা একাডেমি সংস্কার ও আধুনিকায়নের উদ্বোধন করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মহিউদ্দিন আল হেলালের পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে মঙ্গলবার বেলা ২টায় শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত শিল্পকলা একাডেমি সংস্কার ও আধুনিকায়নের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. নূর কুতুবুল আলম। 

ইউএনও মো. মহিউদ্দিন আল হেলালের সভাপতিত্বে ও গলাচিপা বেইজ বিল্ড ডিজিটাল একাডেমির সিনিয়র শিক্ষক লুৎফর রহমান আওলাদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ওয়ানা মার্জিয়া নিতু।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নাসিম রেজা, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নুসরাত জাহান ইথিনা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা খোকন চন্দ্র দাস, গলাচিপা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক সমিত কুমার দত্ত মলয়, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নিজাম উদ্দিন তালুকদার, শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত শিক্ষক কার্তিক চন্দ্র দাস, বেইজ বিল্ড ডিজিটাল একাডেমির প্রধান শিক্ষক রেদওয়ান করিম তালাল প্রমুখ। 

জেলা প্রশাসক নূর কুতুবুল আলম বলেন, ‘এক সময় এখান থেকে অনেক কন্ঠ শিল্পী তৈরি হতো, এখন কেন নয়? তোমরা কন্ঠ শিল্পীরা তাদের মতো হওয়ার চেষ্টা কর। তোমাদের গান শুনে আমি আনন্দিত ও মুগ্ধ হয়েছি। শিল্পীরা স্বতঃস্ফূর্ত ও আনন্দের সাথে গান গেয়েছে। এর সাথে কলকুশলীরাও ভাল পারফরমেন্স করেছেন। শিল্পকলা একাডেমির পক্ষ থেকে আপনারা যা দাবি করেছেন তার চেয়ে বেশি দেওয়ার চেষ্টা করব। ছোট ছোট শিশুরা শিল্পকলা একাডেমিতে যাতে স্বাচ্ছন্দে সঙ্গীত শিখতে পারে সেজন্য যথাযথ পরিবেশ ও সুযোগ-সুবিধার ব্যবস্থা করতে হবে। তবেই শিশুরা উৎসাহ ও উদ্দীপনার সাথে সঙ্গীত শিক্ষা করে দেশের সুনাম অর্জন করে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খ্যাতি ছড়িয়ে দিতে পারবে।’  

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



তানোরে গ্রামীণ ব্যাংকের গাছ বানিজ্য

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে অভিনব কায়দায় গ্রামীণ ব্যাংক গাছ বানিজ্য করছেন বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেন। গ্রাহককে ঋন দিয়ে সেখান থেকে ১০০ টাকা  কর্তন করে গাছ কিনতে বাধ্য করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত চলে গাছ বানিজ্যের ঘটনাটি। গ্রামীণ ব্যাংক কর্মকর্তার এমন কান্ডে গ্রাহকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন। এতে করে অসহায় গরীব দুঃখী গ্রাহকরা চরম বিব্রত প্রকাশ করেন।তানোর পৌর সদর এলাকার এক গ্রাহক জানান, গাছ না কিনলে ঋন দিবে না, আমি ঋন নিচ্ছি প্রয়োজনের তাগিদে। আর তারা সুযোগ বুঝে গাছ বিক্রি শুরু করেছেন। গাছ কিনতেই হবে। এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে গ্রামীণ ব্যাংক তানোর শাখায় গিয়ে দেখা যায়, বাহিরে গাছ নিয়ে দাড়িয়ে আছেন কয়েকজন গ্রাহক। আরেকজন গাছ নিবেনা এজন্য ভ্যানে বসে আছেন। তিনি জানান, গাছ নেয়া হশনি এজন্য আমাকে এখনো ঋণ দেয়নি। ঋণ নিলে গাছ কিনতেই হবে।যে সব গাছ গ্রামীণ ব্যাংক বিক্রি করছে সেগুলো কোন জাতের না। অল্প দামে কিনে এনে ৫০ টাকা পিচ বিক্রি করছেন। ৫০ টাকা সঞ্চয়ের বকেয়া থাকলে ঋণ দেয়না, তাহলে গাছ কেন কিনতে হবে।ব্যাংকের ভিতরে গিয়ে দেখা যায়, ম্যানেজার রেজাউল করিম ঘরের পশ্চিম দিকে বসে আছেন। সেখান থেকে যার নামে ঋন লিখছেন তাকে গাছ কিনার জন্য সাদা কাগজে লিখে দিচ্ছেন। ওই কাগজ দেখিয়ে যারা গাছ কিনছেন তাদেরকে আগে ঋন দেয়া হচ্ছে। আর যারা নিতে চাচ্ছে না তাদেরকে ঋন দিচ্ছেনা। দুজন মাঠ কর্মী ১০০ টাকা করে নিয়ে একটি আম ও একটি মেহগনি গাছ দিচ্ছেন।গ্রামীণ ব্যাংক তানোর শাখার ম্যানেজার রেজাউল করিম জানান, জলবায়ুর বিরুপ প্রভাবের কারনে দেশে ব্যাপক তাপমাত্রা শুরু হয়েছে। এজন্য বন ও পরিবেশ মন্ত্রী বৃক্ষ রোপনের শুভ উদ্ধোধন করে গাছ লাগানোর জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। সে মোতাবেক গ্রাহকদের মাঝে গাছ বিক্রি করা হচ্ছে। গাছ না কিনলে কোনভাবেই ঋন দিচ্ছেনা জানতে চাইলে তিনি জানান, বাধ্য করা হচ্ছেনা। গাছ না কিনলে ঋনও দিচ্ছেনা কেন প্রশ্ন করা হলে উত্তরে অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি।এরিয়া ম্যানেজার শুভংকার বলেন, আমরা গাছ রোপনের জন্য গ্রাহকদের পরামর্শ দিতে বলেছি, গাছ বিক্রির কথা বলা নাই। খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর



তীব্র গরমে পাকিস্তানে ছয় দিনে ৫৬৮ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | ১৩৮জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:তীব্র গরমে গত ছয়দিনে পাকিস্তানে ৫৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে একদিনেই (মঙ্গলবার) ১৪১ জনের মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, পাকিস্তানের করাচি শহরে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে গেছে। তবে, উচ্চ আর্দ্রতার কারণে ৪৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস অনুভব হচ্ছে। গত চার দিনে হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ২৬৭ জন ভর্তি হয়েছেন, যাদের অধিকাংশের বয়স ৬০ থেকে ৭০।

করাচির সিভিল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের প্রধান ডা. ইমরান সারওয়ার শেখ জানান, যারা হাসপাতালে আসছেন তাদের বমি, ডায়রিয়া এবং উচ্চমাত্রায় জ্বরসহ নানা উপসর্গ রয়েছে। তাদের অনেকেই বাইরে কাজ করছিল।

দেশটির বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এমনটা হচ্ছে। এটি সারা বিশ্বে ঘটছে। ইউরোপেও ঘটছে। করাচির এই তীব্র তাপপ্রবাহ আগামী সপ্তাহ পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।

এদিকে পাকিস্তানের প্রতিবেশী দেশগুলোতেও সাম্প্রতিক সময়ে তীব্র গরম অনুভূত হচ্ছে। ভারতের রাজধানী দিল্লিও ‘অভূতপূর্ব’ তাপপ্রবাহ প্রত্যক্ষ করে চলেছে। গত মে মাস থেকে সেখানে প্রতিদিনের তাপমাত্রাই ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে।


আরও খবর



যানজট নিরসনে সংসদ সদস্যগণের সাথে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সমন্বয়সভা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৭৭জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃ 

ঈদুল আজহার ছুটি শেষে গ্রামের বাড়ি থেকে কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। রাজধানীতে ফিরতে শুরু করা এসব মানুষের রাস্তায় ভোগান্তি লাঘবে নানা উদ্যোগ নিয়েছে ওয়ারী ট্রাফিক বিভাগ।

বুধবার ১৯ জুন ১৯:০০-২১:০০ ঘটিকা পর্যন্ত ঈদ উপলক্ষে ঘরমুখী মানুষ যাতে মাওয়া ইনকামিং ও আউটগোয়িং রাস্তা দিয়ে স্বস্তিতে ঢাকা মহানগরীতে ফিরতে পারে, সে লক্ষ্যে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের উদ্যোগে ঢাকা-৪ ও ঢাকা-৫ আসনের এমপি ড. মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন এবং মশিউর রহমান মোল্লা  সজলকে নিয়ে এক সমন্বয় সভার আয়োজন করা হয়। ডিসি ট্রাফিক ওয়ারী মোহাম্মদ আশরাফ ইমাম সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করেন এবং এডিসি (ট্রাফিক -ওয়ারী) সঞ্চালনা করেন। এছাড়া, যাত্রাবাড়ীর টিআই পবিত্র বিশ্বাস এবং ধোলাইপাড়ের টিআই মাহমুদ সভায় উপস্থিত ছিলেন। সমন্বয় সভায় উল্লেখিত সংসদ সদস্যদ্বয় তাদের রাজনৈতিক মাঠ পর্যায়ের নেতা/কর্মীকে  ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগকে সহযোগিতা প্রদানের নির্দেশনার পাশাপাশি অন্যান্য যে নির্দেশনা দেন: 

১) যাত্রাবাড়ী হতে ধোলাইপাড় পর্যন্ত (মাওয়া আউটগোয়িং ) ও ধোলাইপার হতে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত  (মাওয়া ইনকামিং) রাস্তা দুটিতে সকল প্রকার ব্যানারের বাস এক সাড়িতে দাঁড়াবে। 

২) একটি কোম্পানির একটি বেশির বাস রাস্তায় বাম লেন ঘেঁষে দাঁড়াবে না।

৩) প্রতিটি ব্যানারের বাস সর্বোচ্চ ১৫ মিনিট দাঁড়াবে। 

৪) এমপিগন আগামী কয়েকদিনের মধ্যে মাঠ পর্যায়ে উপস্থিত থেকে সকল বাস মালিক, কাউন্টার মালিক, পেট্রোল পাম্প মালিক, জ্বালানি পাম্প মালিক  এবং রাজনৈতিক কর্মীদেরকে যানজট নিরসনে অধিকতর কঠোর নির্দেশনা প্রদান করবেন।




আরও খবর



ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস ৫ বিভাগে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | ৮৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দেশের পাঁচটি বিভাগে ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণের আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সেই সঙ্গে বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ভারি বর্ষণের সতর্কবাণীতে এ তথ্য জানিয়েছে সংস্থাটি।

এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের ওপর মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকায় রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ১১ জুলাই বেলা ১১টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে। ভারি বর্ষণজনিত কারণে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের পাহাড়ি এলাকার কোথাও কোথাও ভূমিধসের শঙ্কা রয়েছে।

এদিকে, আবহাওয়ার আরেক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।

সারাদেশে দিনের এবং রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর