Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ইউক্রেনের প্রধান বিচারপতি ঘুষের অভিযোগে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২০৫জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে ইউক্রেনের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান ও প্রধান বিচারপতি ভেসেভলোদ কেনিয়াজিয়েভকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির আইন প্রয়োগকারী সংস্থা।

আজ মঙ্গলবার রাজধানী কিয়েভে প্রধান বিচারপতির সরকারি বাসভবন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

দেশটির প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা সেরহি লেশচেঙ্কো টেলিগ্রামে বলেছেন, ইউক্রেনীয় দুর্নীতি দমন ব্যুরো এবং বিশেষায়িত দুর্নীতিবিরোধী প্রসিকিউটরের কার্যালয় তার বিরুদ্ধে ২৭ লাখ ডলার ঘুষ গ্রহণের প্রমাণ পেয়েছে।

এর আগে রয়টার্স জানিয়েছিল, দেশটির দুর্নীতি দমন সংস্থা সুপ্রিম কোর্টের বড় আকারের একটি দুর্নীতি তদন্ত করছে। তারা সোফায় ডলারের বান্ডিল স্তূপ করে রাখা একটি ছবিও প্রকাশ করেছে। সংস্থাটি সোমবার দুর্নীতিতে জড়িত হিসেবে কারও নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, প্রধান বিচারপতিকে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নে যোগদানের শর্ত হিসেবে ইউক্রেনকে দুর্নীতি দমন করতে হবে। গত কয়েক বছর ধরে এই ক্ষেত্রে অগ্রগতি অর্জন করলেও টিআইবি সূচকে বিশ্বের ১৮০টি দেশের মধ্যে ১১৬তম স্থানে রয়েছে দেশটি।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, উদ্ধারকৃত ডলার এসেছে ইউক্রেনীয় ধনকুবের কস্টিয়ান্টিন জেভাগোর কাছ থেকে। ডিসেম্বরে কিয়েভের অনুরোধে ফ্রান্সে তিনি গ্রেপ্তার হয়েছেন।

কস্টিয়ান্টিনের মামলার সঙ্গে জড়িত দেশটির সুপ্রিম কোর্টের ১৮ জন বিচারপতির বাস ভবনে তল্লাশি চালানো হয়েছে।


আরও খবর



স্বামীর সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার, প্রেমিকসহ গ্রেফতার ৭

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৫জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার,স্টাফ রিপোর্টার:রাজধানীর খিলক্ষেতে স্বামীর সঙ্গে ঘুরতে যাওয়া এক নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ভুক্তভোগীর প্রাক্তন প্রেমিকসহ ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঐ নারীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার খিলক্ষেত থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৬ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন ধর্ষণের শিকার নারী। এর আগে, শুক্রবার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বনরূপা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ডিএমপির ক্যান্টনমেন্ট জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) শেখ মুত্তাজুল ইসলাম এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ঐ নারী শুক্রবার সন্ধ্যায় তার স্বামীর সঙ্গে খিলক্ষেত এলাকার ঢাকা–ময়মনসিংহ মহাসড়কের বনরূপা এলাকায় ঘুরতে যান। সেখানে তার প্রাক্তন প্রেমিক আবুল কাশেম ওরফে সুমনের নেতৃত্বে ৭ জনের একটি দল তাদের অপহরণ করে। এরপর ভুক্তভোগী নারী ও তার স্বামীকে বনরূপা এলাকার ঝোপঝাড়ের ভেতরে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে তার স্বামীর কাছে ৭০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। তিনি মুক্তিপণের টাকা আনতে বেরিয়ে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল দেন।

এসি শেখ মুত্তাজুল ইসলাম বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে বনরূপা এলাকায় যায়। পুলিশ সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে দুর্বৃত্তরা ঝোপঝাড়ের ভেতরে বারবার তাদের অবস্থান পরিবর্তন করতে থাকে। ভোর ৪টার দিকে পুলিশ সেখান থেকে ভুক্তভোগী নারীকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। কিন্তু দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যান। পরে ভুক্তভোগী নারীর সঙ্গে কথা বলে পুলিশ জানতে পারে  চারজন দুর্বৃত্ত তাকে ধর্ষণ করেছে।

ডিএমপির এ কর্মকর্তা বলেন, পুলিশ শনিবার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি কাশেমসহ ৭ জনকে গ্রেফতার করে। জিজ্ঞাসাবাদে কাশেম জানান,ঐ নারীর সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল; তাকে বিয়ে না করায় পরিকল্পিতভাবে দলবল নিয়ে ঐ নারীকে তুলে এনে ধর্ষণ করা হয়েছে।

আরও খবর



খাগড়াছড়িতে অফিসার ও ফোর্সদের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা প্রীতিভোজে অংশগ্রহণ করেন পুলিশ সুপার মুক্তা ধর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৪জন দেখেছেন

Image
জসীম উদ্দিন জয়নাল,পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি:খাগড়াছড়িতে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষ্যে  অফিসার ও ফোর্সদের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়  ও বিশেষ প্রীতিভোজ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন পুলিশ সুপার  মুক্তা ধর পিপিএম (বার)

সোমবার ( ১৭ জুন)  খাগড়াছড়ি পুলিশ লাইন্স জামে মসজিদে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। ঈদের জামাতে সর্বস্তরের মুসল্লিগণ অংশগ্রহণ করেন।
নামাজ শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ, দেশের অব্যাহত অগ্রযাত্রা, সমৃদ্ধি এবং দেশবাসীর সুখ-শান্তি ও সার্বিক মঙ্গল কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করা হয়।

ঈদের জামাত শেষে খাগড়াছড়ি পুলিশ লাইন্সে  খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশের অফিসার ও ফোর্সদের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন খাগড়াছড়ি জেলার পুলিশ সুপার  মুক্তা ধর পিপিএম (বার)।

শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে দুপরে পবিত্র ঈদুল আযহা  উপলক্ষ্যে খাগড়াছড়ি পুলিশ লাইন্স সহ জেলা পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের পুলিশ সদস্যদের অংশগ্রহণে বিশেষ প্রীতিভোজ অনুষ্ঠিত হয়। খাগড়াছড়ি পুলিশ লাইন্স-এ অফিসার ও ফোর্সের সাথে প্রীতিভোজ অংশগ্রহণ করেন খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার  মুক্তা ধর পিপিএম (বার)।

পরবর্তীতে সম্মানিত পুলিশ সুপার মহোদয় জেলা পুলিশের সকল পদমর্যাদার সহকর্মীদের নিয়ে এক সাথে বসে দুপুরের খাবার পরিবেশন করেন।

ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় ও বিশেষ প্রীতিভোজ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল)  তফিকুল আলমসহ জেলা পুলিশের সকল পদমর্যাদার সদস্যগণ।

খাগড়াছড়ি বাসীর ঈদ আনন্দকে নিরাপদ করতে, আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখতে জেলা পুলিশের সদস্যরা দিনভর পেশাদারিত্বের সাথে জেলাব্যাপী দায়িত্ব পালন করে।পেশাগত দায়িত্বকে সর্বাগ্রে বিবেচনা করে বিশেষ দিন ছাড়াও প্রতিটি দিনকে গুরুত্ব দিয়ে খাগড়াছড়িবাসীকে নিরাপত্তা দিতে জেলা পুলিশ বদ্ধ পরিকর বলে জানান খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার  মুক্তা ধর পিপিএম (বার)।

আরও খবর



উলিপুরে তিস্তায় নৌকাডুবির ঘটনায় ২৪ ঘন্টা পরেও ৬ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৩জন দেখেছেন

Image
সহিদুল আলম বাবুল, কুড়িগ্রাম ব্যুরো:কুড়িগ্রামের উলিপুরে ঈদের তৃতীয় দিন সন্ধ্যার পূর্বক্ষণে তিস্তা নদীতে নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটে lসরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নৌকায় শিশু ও নারীসহ ২৬ জন যাত্রী ছিল lএ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ডুবে যাওয়া নৌকার এক শিশুর মৃতদেহ ও ১৯ জন যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার হলেও ঘটনার প্রায় ২৪ ঘন্টা পরেও একই পরিবারের ৪ জনসহ ৬ জনকে খুঁজে পাওয়া যায়নি lঘটনার পর পরই উলিপুর উপজেলা প্রশাসন, ফায়ার সার্ভিস, থানা প্রশাসন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন l

রাতেই ফায়ার সার্ভিসের লোকজন উদ্ধার কাজের জন্য ঘটনাস্থলে এসেছিলেন l বৈরী আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার কাজে কিছুটা বিঘ্ন ঘটে lআজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল নিখোঁজদের উদ্ধারের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন lঘটনাস্থলের প্রত্যক্ষদর্শী ও নিখোঁজদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে উলিপুর উপজেলার বজরা ইউনিয়নের পশ্চিম বজরা ঘাট থেকে ভাড়া করা একটি ইঞ্জিন চালিত ছোট শ্যালো নৌকা যোগে ২৬ জন যাত্রী যাত্রা শুরু করে l

উদ্দেশ্য ছিল উপজেলার থেতরাই ইউনিয়নের বিরহীমের চর এলাকায় বিয়ের এক বছর পর সাগাই ফিরাইনি দাওয়াত খাওয়া lবজরা ঘাট থেকে নৌকা ছেড়ে দেয়ার পর তিস্তার প্রবল স্রোতের বিপরীত দিকে প্রায় ২ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে নৌকাটি l  নৌকাটি একই ইউনিয়নের সাদুয়া দামার হাট নামক স্থানের বিপরীত পাড়ে অর্থাৎ  আলিবাবা থিম পার্কের সন্নিকটে পৌঁছাতেই প্রবল স্রোতের মুখে পড়ে l এ সময় নদীতে বৈরী আবহাওয়া বিরাজ করছিল l ফলে মুহূর্তের মধ্যেই নৌকাটি ডুবে যায় lতাৎক্ষণিকভাবে ১০ জন যাত্রী সাঁতরিয়ে  তীরে পৌঁছায় l

খবর পেয়ে দ্রুত উলিপুর ফায়ার সার্ভিসের টিম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আতাউর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাজাদুর রহমান তালুকদার সাজু, উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম মর্তুজা রাতের বেলায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন lখবর পেয়ে রাতেই জেলা প্রশাসক মোঃ সাইদুল আরিফ, পুলিশ সুপার আল আসাদ মোঃ মাহফুজুল ইসলামসহ ফায়ার সার্ভিসের জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন lপরবর্তীতে আরও ৯ জনকে জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে l এদের মধ্যে চারজনকে উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয় l

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তিকৃতরা হলেন, আনজু বেগম (৪৫), চায়না বেগম (২৪),শরিফা বেগম ( ২৫), ও রাশেদা বেগম (৪৮) lওই রাতের মধ্যেই ১৩/১৪  মাস বয়সী আয়েশা সিদ্দিকা নামের এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস lআয়েশা সিদ্দিকার মা চায়না বেগম (২৪) ও পিতা আজিজুল হককে উদ্ধার করা সম্ভব হলেও তাদের আরেক সন্তান শামীম (৭) এখন পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছে l  উদ্ধারের পর অসুস্থ চায়না বেগমকে উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয় lতাদের বাড়ি বজরা ইউনিয়নের মিয়াজি পাড়া গ্রামে l

অপরদিকে, পশ্চিম বজরা এলাকার একই পরিবারের চারজন এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত  নিখোঁজ রয়েছে, নিখোঁজরা হলেন, আনিসুর রহমান (২৫), আনিসুর রহমানের স্ত্রী রূপালী বেগম (২৩), তাদের একমাত্র দশ বছরের কন্যা সন্তান আইরিন বেগম, এবং রুপালির বোনের সন্তান ইরামনি(৯),এছাড়াও নিখোঁজের তালিকায় রয়েছে, কয়জল এর পাঁচ বছরের কন্যা সন্তান কুলসুম l
এদিকে, আজ ২০ জুন বৃহস্পতিবার দুপুর বেলা ২৭ কুড়িগ্রাম-৩ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য সৌমেন্দ্র প্রসাদ পান্ডে গবা,  উলিপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাঈদ সরকার পশ্চিম বজরা তিস্তা নদীর ঘাট পরিদর্শনে যান l এ সময় ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরি দল নিখোঁজদের উদ্ধারে পশ্চিম বজরার ঘাট এলাকায় অভিযান করার জন্য অপেক্ষা করছিলেন l দুপুর আড়াইটার দিকে পশ্চিম বজরা ঘাট এলাকায় নৌ পুলিশের একটি নৌকা পৌঁছায় lশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিখোঁজ ৬ জনকে উদ্ধারের জন্য ফায়ার সার্ভিসের একটি চৌকস ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে l

আরও খবর



বাজেট পাস হয়নি,অনেক কিছু পুনর্বিবেচনা করা সম্ভব: অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:জাতীয় সংসদের বাজেট পেশ করার পর নানা মহল থেকে নানা প্রতিক্রিয়া আসছে,বলেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।আমরা সব প্রতিক্রিয়া আমলে নিচ্ছি। যেগুলো বাস্তবসম্মত এবং বাজেটে বাস্তবায়নযোগ্য সেগুলো অবশ্যই পুনর্বিবেচনা করা হবে। কারণ এখনো বাজেট পাস হয়নি।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) রাজধানীর ফার্মগেটে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) মিলনায়তনে ‘বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের অর্থনীতি : প্রবৃদ্ধি, মুদ্রাস্ফীতি, খাদ্য ও পুষ্টি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বাজেট পেশ করার পর নানা মহল নানা বক্তব্য দিচ্ছে। আবার অনেকেই সমালোচনা করছেন। তাদের উদ্দেশে বলব আমাদের অর্থনীতি নিয়ে, বাজেট নিয়ে বিশ্বব্যাংক কি বলছে সেদিকেও নজর দিয়েন।

তিনি বলেন, বাজেট নিয়ে আরও বক্তব্য আছে, বিশ্বব্যাংক বলেছে ভালো হয়েছে। আমার টাকা লাগবে, বিশ্বব্যাংকের কথা শুনতে হবে। না হলে আপনারা (সমালোচকরা) টাকা দেন।

আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, শেখ হাসিনা সরকার জনবান্ধব সরকার। অনেকেই বলে, সরকার শিগগিরই পড়ে যাবে, কই সরকার তো পড়ে না। সরকার দেউলিয়া হয়ে গেছে, দেউলিয়া মানে কি? দেউলিয়া তো হলো না। বিশ্বব্যাংক কিছু বোঝে না, আপনি সব কিছু বোঝেন? বাজেট দিলাম, এটা দেখেন ও বোঝার চেষ্টা করেন। এই বাজেট জনবান্ধব বাজেট। কোনো কিছুতে সমস্যা থাকলে পুনর্বিবেচনা করার সম্ভাবনা আছে।

সংসদ সদস্য সাজ্জাদুল হাসানের সভাপতিত্ব সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু, বাংলাদেশে নিযুক্ত জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার প্রতিনিধি ড. জিয়াকুন শি, সাবেক পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম প্রমুখ।


আরও খবর



তিতাস গ্যাসের ঈদ পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৯৮জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃ 

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি,র পরিকল্পনা ও উন্নয়ন, ভিজিল্যান্স ই.এস.ডি, আইসিটি ডিভিশন এর আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ৬৩ ইস্কাটন রোডের বিয়াম ফাউন্ডেশন এ এই কর্মসূচি আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি'র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হারুনুর রশিদ মোল্লাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রশাসন ডিভিশন  মহাব্যবস্থাপক হাসান আহম্মদ ভিজিলেন্স  ডিভিশনের মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী প্রকৌশলী তওহিদুল ইসলাম পরিকল্পনা ও উন্নয়ন  ডিভিশন মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সত্যজিৎ ঘোষ ,আইসিটি ডিভিশনের মহাব্যবস্থাপক মো: তারিক আনিস খান মেট্রো ঢাকা রাজস্ব ডিভিশনের মহাব্যবস্থাপক মো: রশিদুল আলম। এ সময় তিতাস গ্যাসের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা, কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের ইভেন্টের আয়োজন করা হয়। 


এছাড়াও র‍্যাফেল ড্র এর মাধ্যমে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।এ সময় জিএম হাসান আহম্মদ ও জিএম রশিদুল আলম এর হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন সিবিএ নেতা মোঃ ফারুক হোসেন শেখ ।অনুষ্ঠান শেষে বিশিষ্ট শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা আয়োজন করা হয়।


আরও খবর