Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার বর ও কনের বাড়ীতে শোকের মাতম রাশিয়ায় বন্দুকধারীদের ভয়াবহ হামলায় ১৫ পুলিশ সদস্য নিহত

হজে যেতে নিবন্ধনের সময় বাড়ল

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৩৩৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: নির্ধারিত কোটা‌ পূরণ না হওয়ায় চলতি বছর হজে যেতে নিবন্ধনের সময় আগামী ১৬ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

এরপর আর সময় বাড়ানো হবে না বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, কোটা পূর্ণ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নিবন্ধন সার্ভার স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে।

নিবন্ধন ভাউচার প্রস্তুতের পরবর্তী দুই কার্যদিবসের মধ্যে অর্থ ব্যাংকে জমা দিয়ে নিবন্ধন নিশ্চিত না করলে উক্ত ভাউচার স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যাবে‌ বলেও জানানো হয়।

আগামী ১৬ মার্চের মধ্যে হজ কার্যক্রম পরিচালনাকারী সব ব্যাংককে অফিস সময়ের পরও প্রস্তুতকৃত ভাউচারসমূহের অর্থ পরিশোধ না হওয়া পর্যন্ত ব্যাংকের শাখাসমূহ খোলা রাখার জন্য অনুরোধ করেছে মন্ত্রণালয়

এ নিয়ে হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় তৃতীয় দফায় বাড়ানো হয়েছে।  গত ৮ ফেব্রুয়ারি হজযাত্রী নিবন্ধন শুরু হয়। ২৩ ফেব্রুয়ারি নিবন্ধন শেষ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নিবন্ধনে সাড়া না পাওয়ায় ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়। পরে নিবন্ধনের শেষ সময় বাড়িয়ে ৭ মার্চ করা হয়। এবার ১৬ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো  হলো।

এবার সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ পালনের ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ছয় লাখ ৮৩ হাজার ১৮ টাকা। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নির্ধারণ করা হয়েছে ছয় লাখ ৭২ হাজার ৬১৮ টাকা। গত বছরের চেয়ে এবার উভয় প্যাকেজে বেড়েছে প্রায় দেড় লাখ টাকা। এর মধ্যে বিমান ভাড়া বেড়েছে ৪০ শতাংশেরও বেশি

সৌদি আরবের সঙ্গে হজ চুক্তি অনুযায়ী, এ বছর বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজ পালন করার সুযোগ পাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন ১৫ হাজার হজযাত্রী। এ বছর বয়সের সর্বোচ্চ সীমার শর্ত তুলে দেওয়া হয়েছে, অর্থাৎ ৬৫ বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তিরাও হজ পালন করতে পারবেন। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২৭ জুন (৯ জিলহজ) পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



পুলিশের গুলিতে পুলিশ নিহত, যা বললেন আইজিপি

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:পুলিশ কনস্টেবল কাউসার আহমেদের গুলিতে সহকর্মী মনিরুল ইসলাম নিহত হয়েছেন রাজধানীর গুলশানে। এ হত্যাকাণ্ড কী কারণে ঘটানো হয়েছে তা জানতে এরই মধ্যে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

শনিবার (৮ জুন) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান আইজিপি পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল-মামুন। এ সময় ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমানসহ পুলিশ সদর দপ্তর ও ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রাত পৌনে ১২টার দিকে বারিধারা কূটনীতিক এলাকায় অবস্থিত ফিলিস্তিন দূতাবাসের সামনে হত্যাকাণ্ডটি ঘটে।

আইজিপি বলেন, রাত ১১টা ৪৫ মিনিটের দিকে ফিলিস্তিনি দূতাবাসের সামনে আমাদের দুজন কনস্টেবল ডিউটিরত ছিলেন। এদের মধ্যে কনস্টেবল কাউসারের গুলিতে কনস্টেবল মনিরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে মারা যান। এ সময় জাপান দূতাবাসের গাড়িচালক সাজ্জাদ হোসেন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন। ঘটনার সময় তিনি পথচারী হিসেবে সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন। তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গাড়িচালক সাজ্জাদ হোসেনের গায়ে তিন রাউন্ড গুলি লেগেছে।

পুলিশ প্রধান বলেন, আক্রমণকারী কনস্টেবলকে থানায় নেওয়া হয়েছে এবং তাকে নিরস্ত্র করা হয়েছে। আমরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। মনিরুল ইসলামের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে কিছু গুলির খোসা ও ২০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আমরা তদন্ত করছি। প্রকৃত রহস্য জানাটা খুব কঠিন হবে না।

দূতাবাস এলাকা খুবই সুরক্ষিত এলাকা। এ ধরনের ঘটনায় আইনশৃঙ্খলার দুর্বলতা প্রকাশ পায় কি-না, এমন প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, ঘটনাস্থলে আমাদের লোক ছিল। ঘটনা যে ঘটিয়েছে সেও আমাদের লোক। আসলে ঘটনাটা কী কারণে ঘটেছে সেটা আমরা জানার চেষ্টা করছি। ঘটনার পর কাউসার তার অস্ত্র রেখে ঘটনাস্থলের আশপাশে ঘোরাফেরা করছিলেন। তখন তাকে আটক করা হয়।

কূটনীতিক এলাকায় একজন কনস্টেবলকে দিনে ১৬ ঘণ্টা ডিউটি করতে হয়। এই ডিউটি করার কারণে অনেকে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হচ্ছেন কি-না, বা কাউসার মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন কি-না, প্রশ্ন করা হলে আইজিপি বলেন, সবগুলো বিষয়ে আমরা তদন্ত করব।


আরও খবর



জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৫তম জন্মজয়ন্তী পালিত

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ১৪২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিনিধি:জাতীয় কবির ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী  উপলক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

শনিবার সকালে রিপোর্টাস্ ইউনিটে হল রুমে জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজনে জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সাংস্কৃতিক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে  উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির স্হায়ী  কমিটির সদস্য  বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র  রায়।

বিশেষ  অতিথি  ছিলেন বিএনপির চেয়ারম্যান এর উপদেষ্টা  ও আহ্বায়ক  ঢাকা  মহানগর দক্ষিণের বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএনপির এডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ।বিএনপির  কেন্দ্রীয় কমিটির  সাংস্কৃতিক সম্পাদক  চিত্রনায়ক  আশরাফ উদ্দিন আহমেদ  উজ্জ্বল,বিএনপির  সহ- সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাঈদ সোহরাব। 

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন,  চিত্রনায়ক হেলাল খান।

আয়োজকরা বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধসহ বাঙালির প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে নজরুলের কবিতা ও গান।

তাই কবির লেখনীর আবেদন চিরদিন নির্যাতিত মানুষকে প্রেরণা জোগাবে। তার কবিতা ও গানে ভালোবাসা, মানবতা ও সাম্যের বাণী বিধৃত হয়েছে।

তিনি বাংলা সাহিত্যের আকাশে ধ্রুবতারা। বাঙালির সব আবেগ, অনুভূতিতে জড়িয়ে আছে চিরবিদ্রোহী কবির যত কবিতা, গান, উপন্যাসে ।

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন সদস্য সচিব জাকির হোসেন রোকন। 

বক্তব্য  রাখেন- চলচ্চিত্র পরিচালক ও জাসাস কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সায়মন তারিক। শিহাব খান। নাসির উদ্দিন মিলন। উত্তর কমিটির সদস্য সচিব  আনু। দক্ষিণের সদস্য সচিব  রতন।কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহবায়ক সাবেক সিনেট সদস্য লিয়াকত আলী। যুগ্ম আহবায়ক প্রকৌশলী   জাকির হোসেন এডভোকেট লিয়নসহ জাতীয় নেতারা।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর



রাফার ৬০ শতাংশ অঞ্চল ইসরায়েলের নিয়ন্ত্রণে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:৪০ দিন ধরে রাফা শহরে স্থল অভিযান চালাচ্ছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। অভিযানে দক্ষিণ গাজার রাফা শহরের প্রায় ৬০ থেকে ৭০ শতাংশ এলাকা নিয়ন্ত্রণ জোরদার করার দাবি করেছে তারা।

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, এখন শাবুরা, ব্রাজিল, তাল আস-সুলতান এবং ফিলাডেলফি করিডোরের আশপাশে তাদের অপারেশনাল নিয়ন্ত্রণ রয়েছে।

এই লড়াইয়ে তারা ২২ সেনা হারিয়েছে এবং ৩০০ জনেরও বেশি আহত হয়েছে বলেও জানিয়েছে তারা। ইসরায়েলি সেনাবাহিনী ৫৫০ ফিলিস্তিনি যোদ্ধাকে হত্যা করেছে বলেও দাবি করেছে।

আন্তর্জাতিক চাপ সত্ত্বেও মে মাস থেকে গাজার রাফা শহরে স্থল অভিযানে নামে ইসরায়েলি বাহিনী।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের সীমান্তে হামলা চালিয়ে ১ হাজার ২০০ জনকে হত্যা করেছিল গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণকারী রাজনৈতিক গোষ্ঠী হামাসের যোদ্ধারা। তার জবাবে গত আট মাস ধরে গাজায় অভিযান চালাচ্ছে ইসরাইলি বাহিনী। সেই অভিযানে এ পর্যন্ত নিহত হয়েছেন ৩৭ হাজার ৬০০ জনেরও বেশি ফিলিস্তিনি। আহত হয়েছেন আরও ৮২ হাজার ফিলিস্তিনি।

 :খবর আলজাজিরার


আরও খবর



রূপগঞ্জে সংখ্যালঘুর ও ব্যবসায়ীর বাড়িতে হামলা,অগ্নিসংযোগ, ৫লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | ৮৩জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধিঃনারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণবাগ গ্রামের সুখেন সরকারের ও ব্যবসায়ী জাকির হোসেনের বাড়িতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করেছে।

গত ৬জুন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়, ২০/২১ সদস্যের একদল সন্ত্রাসী রামদা, চাপাতি, লোহার রড, লাঠিসোঁটাসহ দেশীও অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে দরজা ভেঙ্গে প্রথমে সুখেন সরকারের বসত ঘরে ও পরে তার পাশের বাড়ি ব্যবসায়ী জাকির হোসেনের বাড়িতে প্রবেশ করে হামলা চালায় । 

হামলাকারীরা তাদের বসত ঘরের আসবাপত্র ভাংচুর করে লুটপাট চালায়। এ সময় তাদের ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন ও ৯৯৯এ ফোন করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে সন্ত্রাসীরা তাদের ব্যবহৃত নম্বরপ্লেট বিহীন চারটি মোটরসাইকেল রেখে বাড়ির লোকজনদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। 

হামলার ঘটনায় গৃহকর্তা জাকির হোসেন ভুঁইয়া(৪৬), তার স্ত্রী আফসানা আক্তার লাবনী(৩৫), ভাইয়ের স্ত্রী আরবিনাস আক্তার(৪৫) আহত হয়। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সন্ত্রাসীরা বাড়ির মহিলাদের শ্লীলতাহানী করে নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কারসহ ৫লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়।  

পুলিশ মোটরসাইকেল চারটি উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় সুখেন সরকার ও জাকির হোসেন বাদী হয়ে মোঃ রাশেদুল ইসলাম রাসেল(৩৪), ফালান মিয়া(৩৫), এরশাদ(৩৫), সুজন ভুঁইয়া(৩০), বাবু মিয়া(২৫), এনামুল(২১), আব্দুল্লাসহ(২৩) ১১জনকে নামীয় ও অজ্ঞাত আরো ১০/১২জনকে আসামী করে রূপগঞ্জ থানায় পৃথক দুইটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

রূপগঞ্জ থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, হামলা, ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় পৃথক দুইটি অভিযো পেয়েছি। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

     -খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর



ভোটগ্রহণ চলছে ৮৭ উপজেলায়

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৬৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে ৮৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ চলছে।

নির্বাচন কর্মকর্তারা জানায়, এসব উপজেলার সাড়ে সাত হাজার কেন্দ্রে আজ বুধবার (২৯ মে) সকাল ৮টায় নির্ধারিত সময়েই ভোটগ্রহণ শুরু হয়। যা একটানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে।

জানা গেছে, এবার ১১২ উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে ২২ উপজেলার ভোট স্থগিত হয়েছে। এর মধ্যে ইভিএমের মাধ্যমে ১৬টি, বাকিগুলোতে কাগজের ব্যালটে ভোট হচ্ছে। নির্বাচন উপলক্ষে সংশ্লিষ্ট উপজেলাগুলোতে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া ভোট এলাকায় যান চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

ইসি জানায়, তৃতীয় ধাপে মোট এক হাজার ১৫২ প্রার্থী ভোটের লড়াইয়ে আছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩৯৭, ভাইস চেয়ারম্যান ৪৫৬ এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২৯৯ জন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

তৃতীয় ধাপের ভোটে ৮৭টি উপজেলায় একজন চেয়ারম্যান, চারজন ভাইস চেয়ারম্যান ও সাত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এরই মধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন। এ নির্বাচনে ৫৬টি পৌরসভা ও ৮৪১টি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ২ কোটি ৮ লাখ ৭৫ হাজার ১৮৪ জন; ভোটকেন্দ্র ৭ হাজার ৪৫০টি।

এর মধ্যে দুর্গম এলাকার ৪১৪টি কেন্দ্রে মঙ্গলবার (২৭ মে) রাতেই ব্যালট পেপারসহ নির্বাচনি সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে। বাকি ৭ হাজার ৩৬টি কেন্দ্রে আজ (বুধবার) ভোরে এসব সরঞ্জাম পাঠানো হয়।

এদিকে, ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে তৃতীয় ধাপে আরও তিনটি উপজেলার নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেছে ইসি। ভোট স্থগিত হওয়া উপজেলাগুলো হচ্ছে: নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুরী এবং চাঁদপুর জেলার কচুয়া ও ফরিদগঞ্জ উপজেলা।

নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে যা ছিল, এ ধাপে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় তার চেয়ে আরও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আবহাওয়া কেমন থাকবে বা না থাকবে তার ওপর অনেক কিছুই নির্ভর করছে বলে জানান তিনি।


আরও খবর