Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম

হারের বৃত্ত থেকেই বের হতে পারছে না মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

প্রকাশিত:Thursday ২১ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১২০জন দেখেছেন
Image

স্পোর্টস ডেস্কঃ

আইপিএলের সবচেয়ে সফল দল, পাঁচ-পাঁচটি ট্রফি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ঘরে। অথচ রোহিত শর্মার দল এবারের আসরে হারের বৃত্ত থেকেই বের হতে পারছে না। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা টানা পাঁচ ম্যাচে পেয়েছে পরাজয়ের স্বাদ।পুনেতে আজ পাঞ্জাব কিংসের কাছে ১২ রানে হেরেছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। পাঁচ ম্যাচে তিন জয় নিয়ে পয়েন্ট তালিকার তিন নম্বরে উঠে এসেছে মায়াঙ্ক আগারওয়েলের দল।


লক্ষ্যটা বেশ কঠিন ছিল, ১৯৯ রানের। ৩২ রানের মধ্যে সাজঘরে ফেরেন রোহিত শর্মা (১৭ বলে ২৮) আর ইশান কিশান (৬ বলে ৩)। তবে দুই ওপেনারকে হারালেও জয়ের লক্ষ্যে ভালোভাবেই ছুটছিল মুম্বাই।ডেওয়াল্ড ব্রেভিস (২৫ বলে ৪৯), তিলক ভার্মা (২০ বলে ৩৬) আর সূর্যকুমার যাদব (৩০ বলে ৪৫) ঝড়ো ব্যাটিংয়ে দলকে এগিয়ে দেন। তবে শেষ রক্ষা হয়নি।


শেষ ওভারে মুম্বাইয়ের দরকার ছিল ২২ রান। ওডিয়েন স্মিথের প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে আশা জাগিয়েছিলেন জয়দেব উনাদকাত। তবে ওই ওভারেই তিন উইকেট তুলে নিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন স্মিথ। ৩ ওভারে ৩০ রান খরচায় মোট ৪টি উইকেট শিকার করেন এই পেসার।




এর আগে মায়াঙ্ক আগারওয়েল আর শিখর ধাওয়ানের জোড়া সেঞ্চুরিতে ভর করে ৫ উইকেটে ১৯৮ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করায় পাঞ্জাব কিংস।উদ্বোধনী জুটিতেই উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়েছিলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল ও শিখর ধাওয়ান। আর শেষে ঝড়ো ফিনিশিংয়ের দায়িত্বটা দারুণভাবে পালন করলেন শাহরুখ খান ও জিতেশ শর্মা।


মায়াঙ্ক ও শিখরের ব্যাটে উদ্বোধনী জুটিতে ৯.৩ ওভারে আসে ৯৭ রান। ঝড়ো ফিফটি হাঁকিয়ে ৩২ বলে ৬ চার ও ২ ছয়ের মারে ৫২ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন মায়াঙ্ক। এরপর হতাশ করেন জনি বেয়ারস্টো (১২ বলে ১৩) ও লিয়াম লিভিংস্টোন (৩ বলে ২)।


তবে একপ্রান্ত ধরে রেখে খেলতে থাকা ধাওয়ান হাত খুলে মারতে শুরু করলে রানের চাকা থামেনি পাঞ্জাবের। ইনিংসের ১৭তম ওভারের শেষ বলে থামেন এ বাঁহাতি ওপেনার। তার ব্যাট থেকে আসে ৫ চার ও ৩ ছয়ের মারে ৫০ বলে ৭০ রান।


এরপর মাত্র ২.৪ ওভারে ৪৬ রানের জুটি গড়েন জিতেশ ও শাহরুখ। শেষ ওভারে আউট হওয়ার আগে ৬ বলে ১৫ রান করেন শাহরুখ। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকা ইনিংসে ১৫ বলে ৩০ রানের ক্যামিও খেলেন জিতেশ। যা দলকে পৌঁছে দেয় দুইশ ছুঁইছুঁই স্কোরে।


আরও খবর



পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ

সব ধরনের যান চলাচলের জন্য প্রস্তুত পদ্মা সেতু

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ

সকল জল্পনা কল্পনা শেষে সব ধরনের যান চলাচলের জন্য প্রস্তুত হয়ে উঠেছে পদ্মা সেতু।পদ্মা সেতুর মূল অংশের পিচ ঢালাই শেষে বাকি ছিল দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই। কর্মযজ্ঞের ধারাবাহিকতায় শেষ হয়েছে দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই।


সোমবার (২৩ মে) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সর্বশেষ জাজিরা অংশের সংযোগ সড়কের (সাউথ ভায়াডাক্ট) পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ করেন সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও নির্মাণশ্রমিকরা।


পুরো সেতুর পিচ ঢালাই শেষ হওয়ায় এখন যানচলাচলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সড়কপথ।পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, যান চলাচল উপযোগী করে তুলতে সেতুতে পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়েছিল গত বছরের ১০ নভেম্বর। পাঁচ মাস ১৯ দিনের মাথায় গত ২৯ এপ্রিল মূল সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার অংশে সে কাজ শেষ হয়। এরপরই সমানতালে শুরু হয় দুই পাড়ের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই।



বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ হয়। সর্বশেষ জাজিরা প্রান্তের সংযোগ সড়কের পিচ ঢালাই শেষ হলো আজ।


এদিকে সেতুর অবশিষ্ট কাজের মধ্যে রোড মার্কিং ও সেতুকে আলোকিত করতে বসানো ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে পুরোদমে। শুরু হয়েছে রেলিং বসানোর কাজ।



সূত্র জানায়, চলতি মাসের মধ্যেই শেষ হবে রোড মার্কিংয়ের কাজ। বিদ্যুৎ সংযোগের কাজও চলছে। পরিকল্পনা মতো কাজ এগুলোই নির্ধারিত সময় ১ জুনে জ্বলে উঠবে বাতিগুলো।



আরও খবর



এসএসসি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ April ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৩৬জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

দেশের সকল মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের ২০২২ সালের এসএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড।রুটিন মোতাবেক আগামী ১৯ জুন তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা শুরু হয়ে শেষ হবে ৬ জুলাই।আর ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৩ থেকে ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে শেষ করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।


বুধবার (২৭ এপ্রিল) আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কমিটির আহ্বায়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক এসএম আমিরুল ইসলামের সই করা সময়সূচি প্রকাশ করা হয় প্রতিবছর ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষা নেওয়া হলেও করোনা মহামারির কারণে এ বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়।


পরীক্ষার নির্দেশনায় বলা হয়- পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট পূর্বে অবশ্যই পরীক্ষার্থীদের কক্ষে আসন গ্রহণ করতে হবে। প্রশ্নপত্রে উল্লিখিত সময় অনুযায়ী পরীক্ষা নিতে হবে।


প্রথমে বহুনির্বাচনি ও পরে সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে এবং উভয় পরীক্ষার মধ্যে কোনো বিরতি থাকবে না। বহুনির্বাচনী পরীক্ষার ক্ষেত্রে সময় ২০ মিনিট এবং সৃজনশীল/রচনামূলক পরীক্ষার ক্ষেত্রে সময় ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট।


পরীক্ষার্থীরা তাদের প্রবেশপত্র নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান প্রধানের নিকট থেকে পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে তিনদিন পূর্বে সংগ্রহ করবে। সব শিক্ষাবর্ষের পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও খেলাধুলা এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়সমূহ এনসিটিবির নির্দেশনা অনুসারে ধারাবাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে প্রাপ্ত নম্বর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করবে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরের সঙ্গে ধারাবাহিক মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর বোর্ডের ওয়েবসাইটে অনলাইনে পাঠাবে।


পরীক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ উত্তরপত্রের ওএমআর ফরমে তার পরীক্ষার রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, বিষয় কোড ইত্যাদি যথাযথভাবে লিখে বৃত্ত ভরাট করবে। কোন অবস্থাতেই উত্তরপত্র ভাঁজ করা যাবে না।


পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়), বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক অংশে পৃথকভাবে পাস করতে হবে। প্রত্যেক পরীক্ষার্থী কেবল নিবন্ধনপত্রে বর্ণিত বিষয়/বিষয়সমূহের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। কোনো অবস্থাতেই ভিন্ন বিষয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না।


কোনো পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা (সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়), বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক) নিজ বিদ্যালয়ে/প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হবে না। পরীক্ষার্থী স্থানান্তরের মাধ্যমে আসন বিন্যাস করতে হবে এবং পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় নন-প্রোগ্রামেবল সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে।


কেন্দ্র সচিব ছাড়া অন্য কোন ব্যক্তি/পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন আনতে এবং ব্যবহার করতে পারবেন না। সৃজনশীল/রচনামূলক (তত্ত্বীয়), বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর উপস্থিতির জন্য একই উপস্থিতি পত্র ব্যবহার করতে হবে।


আরও খবর



রেলমন্ত্রীর আত্মীয়কে জরিমানা করায় বরখাস্ত টিটিই

প্রকাশিত:Saturday ০৭ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৮৩জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়দানকারী বিনা টিকিটের ৩ যাত্রীকে জরিমানা করায় বরখাস্ত রেলওয়ের টিটিই।



তবে রেলওয়ে জানিয়েছে, যাত্রীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করায় তাকে বরখাস্ত করা হয়।


বরখাস্ত টিটিই মো. শফিকুল ইসলাম রেলওয়ে পাকশী বিভাগের ঈশ্বরদী সদর দপ্তরে কর্মরত ছিলেন। বরখাস্ত হওয়ায় গতকাল শুক্রবার তিনি কাজে যোগ না দিলে ঘটনাটি জানাজানি হয়।


ঘটনার বিষয়ে শফিকুল ইসলাম জানান, গত বৃহস্পতিবার খুলনা থেকে ঢাকাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেসে ঈশ্বরদী থেকে ৩ জন যাত্রী বিনা টিকিটে এসি কেবিনে উঠে বসেন।


তারা নিজেদের রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয় দেন। শফিকুল ওই ৩ যাত্রীকে নন-এসি টিকিটের ভাড়া হিসেবে ৩৫০ টাকা করে এক হাজার ৫০ টাকা নিয়ে নন-এসির টিকিট দেন।


শফিকুল ইসলাম বলেন, 'তাদের কাছ থেকে মোট ১ হাজার ৫০ টাকা ভাড়া আদায় করেছি এবং তার রিসিটও দিয়েছি। 


এ সময় তাদের সঙ্গে আমি কোনো খারাপ আচরণ করিনি এবং তারাও কিছু বলেননি। খারাপ আচরণ করার তো প্রশ্নই ওঠে না।'


এ সময় রেলের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন জানিয়ে শফিকুল বলেন, 'তারা এসি কামরাতে বসেই ঢাকা এসেছেন।


বিষয়টি নিয়ে ট্রেনের মধ্যে কোনো সমস্যা না হলেও পরবর্তীতে ঢাকা পৌঁছানোর পর ওই যাত্রীরা আমার বিরুদ্ধে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে অসদাচরণের অভিযোগ করেছেন বলে শুনেছি এবং এরপর আমাকে বরখাস্ত করা হয়।'


টিটিই শফিকুল ইসলামকে বরখাস্তের বিষয়টি জানানো হয় মোবাইল ফোনের মাধ্যমে।


অভিযোগের বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের বাণিজ্যিক কর্মকর্তা মো. নাসির উদ্দিন বলেন, 'যাত্রীদের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।'


তিনি জানান, এ ঘটনায় মো. ইমরুল কায়েস প্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন রেল কর্তৃপক্ষের কাছে।


অভিযোগে বলা হয়েছে, ৫ মে দিবাগত রাত সোয়া ২টায় ঈশ্বরদী স্টেশনে গিয়ে টিকিট পাননি অভিযোগকারী। তখন ট্রেন চলে আসায় তিনি ও তার সঙ্গে থাকা অপর ২ জন ট্রেনে উঠে পরেন।


অভিযোগে তিনি লিখেছেন, 'আমিসহ আমার ছোট ২ মামা তারাহুরা করে ট্রেনের যেখানে জায়গা পাব সেখানেই বসে পরব এমন অবস্থায় ট্রেন ছাড়ার অবস্থায় আমরা কোনোমতে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে দরজার সামনে উঠে পড়ি।


ট্রেন চলার মিনিট ৩০ এর মধ্যে টিটিই আমাদের সামনে টিকিট চাইলো। আমি বলি ট্রেনে উঠতে তারাহুরাতে টিকিট কাটতে পারি নাই।'


'বললো কয়জন আমি বলি ৩ জন তখন বলে ৫০০ করে ১৫০০ টাকা দেন আমি তাকে টাকা দেই এবং বলি সাধারণত ৩০০ টাকা ভাড়া আপনি ৫০০ করে নিলেন। এবার টিকিট দেন ১৫০০ টাকার। উনি বলে টিকিট চাইলে ৩৬০০ করে ৩ জন দেন তাহলে টিকিট দিচ্ছি।'


'আমি বললাম টেক্সটাইলে চাকুরী করি আমার পক্ষে এতো টাকা দেওয়া সম্ভব না। আপনি ১৫০০ টাকার টিকিট দেন, এ কথা বিনয়ী সাথে বলেছি। হঠাত করে উনি অনেক উচ্চ স্বরে বলে যে ট্রেন কি তোর বাপের লাথি দিয়ে দরজা দিয়ে বাহিরে ফেলে দিবো। তারপর বাবা, মা তুলে মুখে যা আসে তাই বলে আমাকে গালি দেই (দেয়)।'


এ ঘটনায় তিনি মর্মাহত উল্লেখ করে লিখেছেন, 'আমি বাংলাদেশ রেলওয়ের উর্দ্ধতম কর্মকর্তাদের জানাচ্ছি টিটিই শফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হক।'


আবেদনে মো. ইমরুল কায়েস প্রান্তর সই রয়েছে।


তবে, তার এবং তার সঙ্গে থাকা অপর ২ জনের সুনির্দিষ্ট পরিচয় জানা যায়নি।


রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের বাণিজ্যিক কর্মকর্তা মো. নাসির উদ্দিন বলেন, 'যাত্রীদের সঙ্গে অসদাচরণের জন্য গত ৩ মাস আগে টিটিই শফিককে পাকশী দপ্তরে বুক অফ করা হয়। তারপর তিনি যাত্রীদের সঙ্গে এমন আচরণ করবেন না বলে প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পর তাকে কর্মস্থলে ফেরত পাঠানো হয়।'


গতকালের ঘটনায় ব্যাখ্যার জন্য টিটিই শফিককে আগামী রোববার ডিসিও পাকশী দপ্তরে তলব করা হয়েছে জানিয়ে নাসির উদ্দিন বলেন, 'সরকারি পরিবহন কর্মকর্তা পাকশীকে আহ্বায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে এই ঘটনা তদন্তে।'


আরও খবর



নাসিরনগরে বিড়ির গোডাউনের তালা ভেঙ্গে দুধর্ষ চুরি

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬৩জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ

 ১৯ মে ২০২২ রোজ বৃহস্পতিবার গভীর রাতে-ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা সদরে অবস্থিত খেলার মাঠের কোনায় দেওয়ান মঞ্জিলে মা বাবার দোয়া নামক আঁকিজ বিড়ির গোডাউনে ১৮ তালা ভেঙ্গে দুধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে বলে জানা গেছে।


আকিজের ডিলার মোঃ নেওয়াজ শরীফ জানায় চোরেরা রাতের অন্ধকারে গোডাউনের ১৮ টি তালা ভেঙ্গে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে ঘরে থাকা ৯০ কার্টন বা ৯ লক্ষ শলাকা আকিজ বিড়ি নিয়ে যায় যার বর্তমান বাজার মুল্য প্রায় ৬ লক্ষ ৪৬ হাজার টাকা।


তাছাড়াও একই রাতে অলি মেম্ভারের সুমন এন্টার প্রাইজ নামক একটি দোকানের,অগ্রণী ব্যাংকের তালা ভেঙ্গে পেলেছে, রহিম আফরোজ নামক একটি সোলার কোম্পানীর তালা ভেঙ্গে আই,পি,এসের একটি ব্যাটারী নিয়ে গেছে,তাছাড়াও সাইদুর রহমান খসরুর হক ট্রেডার্স নামক দোকানের দরজা ভেঙ্গে ফেলেছে।


 এ বিষয়ে মুঠোফোনে নাসিরনগর সদরের বিট অফিসার নাসিরনগর থানার এস আই সৈয়দ সারোয়ারের সাথে যোগাযোগ করে ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন,"আমি ওসি স্যার সহ ঘটনাস্থলে আছি।আমরা বিষয়টির খোঁজ খবর নিচ্ছি"।


পরে ওই ঘটনায় আকিজের ডিস্ট্রিভিউটর মোঃ নেওয়াজ শরীফ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরোদ্ধে নাসিরনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন।এখনো পুলিশ ওই চুরির ঘটনার  সাথে জড়িত সন্দেহে কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।


আরও খবর



সম্রাটের কারামুক্তিতে আর কোন বাধা-ই রইল না

প্রকাশিত:Wednesday ১১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১০৪জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাবেক সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। সম্রাটের বিরুদ্ধে আর কোনো মামলা না থাকায় মুক্তিতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।


বুধবার (১১ মে) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন।




এদিন দুদকের মামলার অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য ছিল। সম্রাটের আইনজীবী অভিযোগ গঠন শুনানি পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন। এছাড়া সম্রাটের আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। অন্যদিকে দুদকের আইনজীবী জামিনের বিরোধীতা করেন। 


আদালত উভয়পক্ষের শুনানি শেষে তিন শর্তে ১০ হাজার টাকা মুচলেকায় ৯ জুন পর্যন্ত সম্রাটের জামিন মঞ্জুর করেন। শর্তসমূহ হলো-আদালতের অনুমতি ব্যতীত দেশ ত্যাগ করতে পারবে না সম্রাট,পার্সপোর্ট জমা দিতে হবে এবং স্বাস্থ্যগত পরীক্ষার প্রতিবেদন আগামী ধার্য তারিখে জমা দিতে হবে।


সম্রাটের আইনজীবী আফরোজা শাহনাজ পারভীন হিরা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সম্রাটের বিরুদ্ধে করা চার মামলার মধ্যে ইতোমধ্যে তিন মামলার জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। 


এছাড়া ভ্রাম্যমাণ আদালতের দেওয়া ছয় মাসের সাজা অনেক আগেই শেষ হয়েছে।অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের মামলায় আজ জামিন পেয়েছেন সম্রাট। তার বিরুদ্ধে আর কোনো মামলা না থাকায় মুক্তিতে বাধা নেই।


আরও খবর