Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে বাধা নেই

প্রকাশিত:সোমবার ০২ জানুয়ারী 2০২3 | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৩৫৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: গ্রামীণফোনের সিম বিক্রির নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন-বিটিআরসি। গতকাল রোববার কমিশনের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। ফলে অপারেটরটির সিম বিক্রিতে আর কোনো বাধা থাকল না।

এ ব্যাপারে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘মানসম্মত সেবা নিশ্চিতে যে কয়েকটি শর্ত ছিল গ্রামীণফোন তার সবকটি পূরণ করেছে। সেজন্যই তাদের এই সিম বিক্রির নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

সেবার মানের প্রশ্নে চলতি বছরের ২৯ জুন গ্রামীণফোনের সব রকমের সিম বিক্রি বন্ধের নির্দেশনা দেয় বিটিআরসি। এরপর ১৩ লাখ রিসাইকেল সিম বিক্রির অনুমতি দিয়ে কিছুদিন পর তা আবার প্রত্যাহার করা হয়। পরে সম্প্রতি সরকারি-বেসরকারি দপ্তর-প্রতিষ্ঠানে ৭৮ হাজার সিম বিক্রির অনুমতি দেওয়া হয় গ্রামীণফোনকে। এরমধ্যে ২০২২ সালের ২৫ নভেম্বর বিটিআরসিকে দেওয়া এক চিঠিতে সেবার মানোন্নয়নে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রতিশ্রুত কেপিআই (কি পারফরম্যান্স ইন্ডিকেটর) পূরণ করার কথা জানায় অপারেটরটি।

বিটিআরসির চেয়ারম্যানকে দেওয়া ওই চিঠিতে গ্রামীণফোন সিইও ইয়াসির আজমান বলেছিলেন, ‘সেবার মান্নোয়নে বিটিআরসির দেওয়া কেপিআই এবং গ্রামীণফোনের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, বিটিআরসির পরামর্শ অনুযায়ী মানোন্নয়ন করে নিয়মিতভাবে হালনাগাদ অবস্থা জানানো হয়। আরও মানোন্নয়নের প্রয়োজন হলে যৌথ ড্রাইভ টেস্ট করে তা যাচাইয়ের কথাও তখন বলেছিলেন গ্রামীণফোন সিইও।’


আরও খবর



২০০ বছরের পুরোনো রোপনকৃত গাছ ভেংগে পরার ঝুঁকি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image

 জহুরুল ইসলাম খোকন (নীলফামারী) প্রতিনিধি:রেলওয়ের শহর নীলফামারীর সৈয়দপুরে। প্রায় ২০০ বছরের পুরোনো গাছগুলো উপড়ে বা ভেংগে পরার ঝুঁকিতে থাকায় আতংকিত শহরবাসী। পর্যাপ্ত বৃষ্টি বা  ঝড় হলে যে কোন সময় বাড়তে পারে প্রানহানীর ঘটনা।গাছগুলো কেটে ফেলার জন্য রেলবিভাগও  বনবিভাগকে স্হানীয়রা অনুরোধ জানালেও কাটা হচ্ছে না। এর ফলে লোকজন আতংক ও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওই গাছগুলোর নিচে বসবাস ও চলাচল করছেন।

সৈয়দপুর রেলবিভাগ জানায়, ১৮৭০ সালে আসাম বেঙ্গল রেলওয়ের বিশাল কারখানা গড়ে উঠে সৈয়দপুরে। ওই সময় এ শহরে ৮০০ একর রেলওয়ের এ্যাকোয়ারকৃত জমিতে বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় দুই হাজারেরও বেশি বিশাল বিশাল বৃক্ষ রোপন করা হয়। এছাড়া দেশের বৃহত্তম রেলওয়ে কারখানা সহ রেলওয়ে পুলিশ লাইন, রেলের প্রশাসনিক দপ্তর, রেলওয়ে হাসপাতাল, খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের দুটি গির্জা, রেলওয়ে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বসবাসের জন্য একাধিক বাংলো ও কোয়ার্টার নির্মাণ করা হয় এই জমিতে।

রেলবিভাগ আরো জানায় বৃটিশ আমলে সৈয়দপুর শহরের শোভা বৃদ্ধি ও শীতল ছায়া দিতে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ওই সময় প্রায় দুই হাজার গাছ রোপণ করেন এ্যাকোয়ারকৃত জমিতে ।গাছ গুলোর মধ্যে রয়েছে রেইনট্রি, কড়াই, সিরিস, কৃষ্ণচূড়া, ইউক্যালিপটাস, শাল, অর্জুন, দেবদারু ইত্যাদি। ১৮৭০ সালে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা স্থাপনের সময় সৈয়দপুর শহরের রেলওয়ে অফিসার্স কলোনি, সাহেবপাড়া, মিস্ত্রিপাড়া, নতুন ও পুরাতন বাবুপাড়া, মুন্সিপাড়া, খালাসি মহল্লা, গার্ড পাড়া, হাওয়ালদার পাড়া, রোমান ক্যাথলিক ও প্রোটেস্ট্যান্ট গির্জা, পুলিশ লাইন, রেলওয়ে হাসপাতাল এমনকি রেলওয়ে কারখানায় রোপণ করা হয় ওই গাছগুলো।

১৮ জুন বেলা সারে ১১ টায় শহরের হাওয়ালদার পাড়া গিয়ে দেখা যায়, ১৭ জুন রাতে বৃষ্টি ও সামান্য বাতাসে বিশাল মাপের একটি সিরিস গাছের ডাল আলতো ভাবে ভেঙে টিনের চালে পড়ে আছে। শুকিয়ে যাওয়া ওই সিরিস গাছের বাকি ডাল গুলোও সামান্য বাতাসে ভেঙে ভেঙে পরছে। ঘুর্ণিঝড়ের মতো বাতাস বইলে ওই গাছের ডাল ভেঙে পরা সহ উপড়ে পরারও আশংকা রয়েছে বলে জানান এলাকাবাসী। অতিসত্বর গাছটি কেটে না ফেললে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে অর্ধশতাধিক মানুষের প্রানহানী ঘটতে পারে বলে জানান আতংকিত এলাকাবাসী। 

সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেট বিভাগের ঊর্ধ্বতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম জানান, গাছগুলো বাংলাদেশ রেলওয়ের সম্পদ। ইচ্ছে করলেই এসব কেটে ফেলা সম্ভব নয়। আমরা ১৬টি ঝুঁকিপূর্ণ গাছ চিহ্নিত করেছি। সৈয়দপুর রেলওয়ের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে প্রতিবেদন পাঠানো হয়েছে। তিনি তদন্ত শেষে ওইসব গাছ কেটে ফেলার অনুমতি দিবেন বলে জানান। 

সৈয়দপুর সামাজিক বনায়ন ও নার্সারি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাহিকুন ইসলাম মুশকরি জানান, সৈয়দপুর শহরের অনেক গাছই ঝুঁকিপূর্ণ। এর মধ্যে রেলওয়ের অর্ধশতাধিক গাছ কেটে ফেলা দরকার।কারন এ গাছ গুলো অতি পুরাতন। যেকোনো সময় উপড়ে বা ভেংগে পরে প্রান হানি ঘটতে পারে। 

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক (ডিএস) সাদেকুর রহমান জানান, শিগগিরই রেলের ঝুঁকিপূর্ণ গাছগুলো কেটে ফেলার প্রক্রিয়া চলছে। উর্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি মিললে অল্প দিনের মধ্যেই ঝুকিপুর্ন সব ধরনের গাছ কাটা হবে বলে জানান তিনি।


আরও খবর



রূপগঞ্জে জাতীয় ফল মেলা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | ৮০জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ‘ফলে পুষ্টি অর্থ বেশ-স্মার্ট কৃষির বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্যে  জাতীয় ফল মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল  উপজেলা পরিষদের সভা কক্ষে ফল নিয়ে সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহসান মাহমুদ রাসেল।

সভায় বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সিমন সরকার, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিব, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, উপজেলা প্রকৌশলী মেহমুদ মোরশেদ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আফরোজা সুলতানা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আরিফুল হাসান, উপজেলা নির্বাচন অফিসার তাজাল্লী ইসলাম, রূপগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সালাউদ্দিন ভুইয়াসহ আরো অনেকে। 

     -খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর



বিরামপুরে জমি দখলের চেষ্টা: থানায় জিডি

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | ৬৩জন দেখেছেন

Image

মিজান, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুর জেলার বিরামপুরে পৌর এলাকার দেবীপুর গ্রামে রেল বিভাগ থেকে লীজ নেওয়া জমি একটি সংঘবদ্ধ চক্র জবর দখলের চেষ্ঠা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় লীজ গ্রহীতা আবু সাঈদ থানায় সাধারণ ডাইরী করে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

বিরামপুর উপজেলার দেবীপুর গ্রামের বৃদ্ধ আবু সাঈদ জানান, ঐ মৌজায় রেল বিভাগের অনেক পতিত জমি রয়েছে। অন্যনা সে সকল জমি লীজ নিয়ে ভোগ দখল করছে। আবু সাঈদ তার বাড়ির সামনে ১৪ শতক জায়গা রেল বিভাগ থেকে লীজ নিয়ে র্দীদিন ধরে ভোগ দখল করে আসছেন। তিনি চলতি বছরও খাজনার টাকা দিয়ে লাইসেন্স নবায়ন করেছেন। কিন্তু ঐ গ্রামের একটি সংঘবদ্ধ চক্র বৃদ্ধ আবু সাইদের বাড়ির সামনের জমিটি জোর পূর্বক দখলে নেওয়ার চেষ্টা ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে।

এঘটনায় তিনি গত ৮ জুন বিরামপুর থানায় সাইম, ইদ্রিস, আর্জিনা ও হাছেন মিয়ার নামে একটি সাধারণ ডাইরী করেছেন। এতেও ক্ষান্ত না হয়ে ঐ চক্রটি ১২জুন সকালে আবারো জমিটি জবর দখলের চেষ্টা করেছে। বাড়ির সামনের জমি জবর দখলের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বৃদ্ধ আবু সাঈদ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আরও খবর



অনন্য স্মার্টফোন অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে টেকনো’র যুগান্তকারী এআই ফিচার

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জুন 2০২4 | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৬জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:একটি ঝড়ো সকাল, কাজে তাড়াহুড়ো করে এয়ার কন্ডিশনার বন্ধ করতে ভুলে যান এবং আপনার হাতের কাছে আপনার রিমোট খুঁজে পাচ্ছেন না। এখন আপনার হাতে থাকা টেকনো স্মার্টফোনের আইআর ব্লাস্টার দিয়ে এসি বন্ধ করতে পারবেন। ফলে, আপনি বিদ্যুৎ খরচ আর দুশ্চিন্তা এই দুই থেকেই মুক্ত থাকতে পারবেন। এরকম বহু এআই-নির্ভর প্রযুক্তি আমাদের দেখিয়ে দিচ্ছে আমরা কীভাবে দিনদিন প্রযুক্তি ব্যবহার করে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি এবং এর উপযুক্ত ব্যবহার আমাদের জীবনকে সহজ করে তুলছে।স্মার্টফোন প্রতিনিয়ত পরিবর্তিত হচ্ছে, আর ক্রেতাদের চাহিদাও যেন এর সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে।

টেকনো’র মতো গ্লোবাল ব্র্যান্ডগুলো সর্বাধুনিক এআই সক্ষমতা ব্যবহার করে ক্রেতাদের এসব চাহিদা পূরণ করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। বিশেষ করে, স্মার্টফোন ফটোগ্রাফিতে উদ্ভাবনের ছোঁয়া লাগাতে টেকনো এর ক্যামন ৩০ সিরিজের জন্য সনির সাথে কোলাবেরেশন করেছে। এমনকি কম আলোতেও নিখুঁত ও ঝকঝকে ছবি তোলা নিশ্চিত করতে এই সিরিজে সনি সেন্সর ও পোলারএইস এআই ইমেজ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে।

পাশাপাশি, ব্যবহারকারীরা টেকনো’র এআই ইমেজ জেনারেটর (এআইজিসি) কাজে লাগিয়ে ৪৮০টি স্টাইলে ব্যক্তিনির্ভর (কাস্টমাইজড) এআই পোর্ট্রেট তৈরি করতে পারবেন। ব্যবহারকারীদের সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করতে এলা ভয়েস অ্যাসিসট্যান্ট, এলা ট্রান্সলেটর, আস্ক এআই এবং এআই স্কেচ ড্রয়িংয়ের মত এআই ফিচার সংযুক্ত করা হয়েছে ক্যামন ৩০ সিরিজে।

এআই-নির্ভর স্মার্টফোনের চাহিদা প্রতিদিন বাড়ছে। আইডিসি’র ধারণা অনুযায়ী, ২০২৪ সালে বিশ্বে ১৭০ মিলিয়ন এআই স্মার্টফোন বিক্রি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আর প্রযুক্তিপ্রেমী ব্যবহারকারীদের প্রয়োজন পূরণের উপযোগী ডিভাইস তৈরি করার মাধ্যমে এই পরিবর্তনের নেতৃত্ব দিচ্ছে টেকনো।


আরও খবর



ভূমিকম্পে কাঁপলো জাপান

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৩জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে জাপানের মধ্যাঞ্চল ইশিকাওয়াতে। জাপানের আবহাওয়া সংস্থা (জেএমএ) এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মার্কিন বার্তাসংস্থা এপি জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সোমবার (৩ জুন) কয়েক মিনিটের ব্যবধানে ৫ দশমিক ৯ এবং ৪ দশমিক ৮ মাত্রার দুটি ভূমিকম্প আঘাত হানে।

জেএমএ জানায়, এতে এখন পর্যন্ত ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের বিষয়ে কোনো তথ্য জানা যায়নি। ভূমিকম্পে দেশটিতে কোনো সুনামি সতর্কতাও জারি করা হয়নি। জাপানের আবহাওয়া কর্মকর্তা সাতেশি হারদা বলেন, সোমবারের ভূমিকম্পগুলোকে গত ১ জানুয়ারি ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পের আফটারশক বলে মনে করা হচ্ছে।

ভূমিকম্পের কারণে স্থানীয় রেল পরিষেবা সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়। তবে কিছু সময়রে পর আবার বেশিরভাগ রেল পরিষেবা চালু হয়।

জাপানে ভূমিকম্প নিত্যদিনের ঘটনা। দেশটিতে প্রায়ই শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনে থাকে। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসের প্রথমদিনে ইশিকাওয়া অঞ্চলে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্পে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। ওই ভূমিকম্পে ২৪১ জনের মৃত্যুর তথ্য জানা যায়।


আরও খবর