Logo
আজঃ Wednesday ০৮ December ২০২১
শিরোনাম
নৌকা পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান হলো তৃতীয় লিঙ্গের ঋতু! তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা কুমিল্লায় নৌকা পেয়েও সরে দাড়ালেন বাহালুল, প্রাথমিক সদস্য না হয়েও মনোনীত নূরুল! মাতুয়াইলে সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্ধোধন করলেন সংসদ সদস্য কাজী মনু পলো উৎসবে মাছ ধরায় মেতেছে মানুষ, চির চেনা বাংলা গাজীপুরে ৩০ সেকেন্ডেই মা-মেয়ের জীবন শেষ করল দুই খুনি হয়নি হাফ পাসের সিদ্ধান্ত,টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব আলেম-ওলামাদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা-ভক্তি রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রংপুরের তারাগঞ্জে ট্রাকচাপায় তিন নারী শ্রমিক নিহত কুমিল্লার তিতাস ও মেঘনা উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী যারা !
গন্ডারের পঁচা মাংসে হাজী বিরিয়ানি, ৭০ কেজি কাঁচা ও ৩০ কেজি রান্না করা গন্ডারের পঁচা মাংস জব্দ

গন্ডারের পঁচা মাংস দিয়ে রান্না হচ্ছে স্বাদের হাজী বিরিয়ানি

প্রকাশিত:Sunday ১৭ October ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ০৮ December ২০২১ | ৪৮৫জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image



গন্ডারের পঁচা মাংস দিয়ে বিরিয়ানি বিক্রির দায়ে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীর হাজী বিরিয়ানি হাউজকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আর দোকানও সাময়িক বন্ধ করে দিয়েছে। এ সময় ৭০ কেজি কাঁচা ও ৩০ কেজি রান্না করা গন্ডারের পঁচা মাংস জব্দ করা হয়।

 

শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাত ১০টার দিকে এ অভিযান পরিচালনা করেন সোনাইমুড়ী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ফজলুর রহমান।

 

সোনাইমুড়ী বাজারের বাসিন্দা খলিলুর রহমান বলেন, স্বাদের কারণে অনেক জনপ্রিয়তা অর্জন করে এই হাজী বিরিয়ানি হাউজ। কিন্তু জনপ্রিয়তার আড়ালে এমন ক্ষতিকর পঁচা মাংস বিক্রি করবে তা আমরা ভাবতেও পারিনি। প্রশাসনের এমন অভিযান অব্যাহত থাকলে ভোক্তাদের ঠকাতে পারবে না তারা।

 

সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ফজলুর রহমান বলেন, সোনাইমুড়ী বাজারের হাজী বিরিয়ানি হাউজ দীর্ঘ দিন ধরে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ১০০ কেজি ক্ষতিকর ও গন্ডারের পঁচা মাংস জব্দ করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটিকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা ও সাময়িক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

 

অভিযান পরিচালনার সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাফিজুল হক ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর



নাসিরনগরে খেলনার প্রলোভনে শিশুকে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:Friday ০৩ December ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ December ২০২১ | ১০২জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নান,

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ভলাকূট ইউনিয়নে ৭ বছরের শিশুর সাথে যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘঠেছে।

ওই ঘটনায় শিশুর  মা সালেহা বেগম বাদী হয়ে নাসিরনগর থানায় একটি এজাহার দায়ের করলে। অভিযুক্ত হাকিম মিয়া (৩০)কে আটক করে পুলিশ। 

এজাহার ও ভুক্তভোগীর পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ২৯ নভেম্বর  সাড়ে ৪ ঘটিকার সময় ভলাকূট নদীর তীরে মেলায় ঘুরতে যায় ওই শিশু। এসময় একই গ্রামের হাকিম মিয়া শিশুকে খেলনা কিনে দেয়ার কথা বলে নৌকাতে করে নদীর অপর পাড়ে নিয়ে যায়।

সেখানে নিয়ে ওই শিশুকে যৌন নির্যাতনের পর মেলাতে রেখে পালিয়ে যায় হাকিম। 

পরে শিশুটির কান্নাকাটিতে আশেপাশের লোকজন এসে শিশুটিকে বাড়িতে নিয়ে যায়। তখন ওই শিশুর বায়ু পথে রক্তক্ষরণ হলে চিকিৎসার জন্য প্রথমে নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে জেলা সদর হাসপতালে ভর্তি করা হয়।

বর্তমানে ওই শিশু জেলা সদর হাসপতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মামলার বাদী ও ভিকটিমের মা সালেহা বেগম বলেন,, আমার ভিকটিম  বর্তমানে হাসপতালে ভর্তি আছে।

আমাদেন বিভিন্নভাবে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে।

আমরা ওই ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চাই।

নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ  হাবিবুল্লা সরকার বলেন,আমরা  ১ জনকে গ্রেফতার করেছি।

তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা হবে বলে ও জানান এ কর্মকর্তা।


-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর



গাজীপুরে ৩০ সেকেন্ডেই মা-মেয়ের জীবন শেষ করল দুই খুনি

প্রকাশিত:Saturday ২৭ November ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ০৮ December ২০২১ | ৩২৫জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image

 

 

 গাজীপুরে মা-মেয়েকে গলা কেটে হত্যার রহস্য ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে উদঘাটন করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে দুই খুনিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মাত্র ৩০-৪০ সেকেন্ডেই মা-মেয়েকে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছেন তারা।

 

জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার সালদিয়া গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতাররা হলেন- একই গ্রামের সাত্তার খানের ছেলে জাহিদুল ইসলাম ও মনির হোসেনের ছেলে মহিউদ্দিন ওরফে বাবু।

শনিবার দুপুরে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর দফতরে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান উপ-পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) মো. জাকির হাসান।

তিনি জানান, ১২ বছর আগে রাজশাহী জেলার বাসিন্দা জয়নাল আবেদীনের সঙ্গে ফেরদৌসীর বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ১১ বছরের মেয়ে হাফসা ও চার বছরের তাসমিয়া রয়েছে। কিন্তু বনিবনা না হওয়ায় স্বামীকে তালাক দিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসেন ফেরদৌসী। এরপর মোবাইল ফোনে পরিচয়ের মাধ্যমে তিন বছর আগে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার রবিউল ইসলামের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। রবিউলেরও আরেক সংসার ছিল। কিন্তু দুই বছর আগে তার সঙ্গেও ফেরদৌসীর ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

 

এরপর দুই মেয়েকে নিয়ে হাড়িনাল এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে গার্ডিয়ান লাইফ ইনস্যুরেন্স লিমিটেডে চাকরি করেন। এছাড়া তিন মাস আগে স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয় বাবুর। পরে ফেরদৌসীর সহায়তায় একই কোম্পানিতে চাকরি নেন বাবু। কিন্তু বিচ্ছেদের ঘটনায় ফেরদৌসীকেই দায়ী মনে করেন তিনি। আর এ প্রতিশোধ নিতেই হত্যার পরিকল্পনা।

 

পরিকল্পনা অনুযায়ী বুধবার সন্ধ্যায় ইনস্যুরেন্সের টাকা দেওয়ার কথা বলে মোবাইল ফোনে ফেরদৌসীকে ডাকেন বাবুর বন্ধু জাহিদুল। ফোন পেয়ে মেয়ে তাসমিয়াকে নিয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের দেশীপাড়া এলাকায় যান ফেরদৌসী। সেখানে যেতেই তাকে ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কাটেন জাহিদুল ও বাবু। মাকে রক্তাক্ত দেখে চিৎকার করলে মেয়েকেও গলা কেটে হত্যা করেন তারা। দুটি খুন করতে তারা সময় নেন মাত্র ৩০-৪০ সেকেন্ড। এরপর তারা মোটরসাইকেলে পালিয়ে যান।

বুধবার রাতে দেশীপাড়া এলাকায় সড়কের পাশে মা-মেয়ের লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন এক কেয়ারটেকার। পরে লাশ দুটি উদ্ধার করে পুলিশ।

 

নিহতরা হলেন- গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার জাঙ্গালীয়া ইউনিয়নের বড়াইয়া গ্রামের বাছির উদ্দিন বছুর মেয়ে ফেরদৌসী আক্তার ও তার চার বছর বয়সী মেয়ে তাসমিয়া আক্তার। ফেরদৌসী স্থানীয় চান্দনা চৌরাস্তার এলাকার গার্ডিয়ান লাইফ ইনস্যুরেন্স লিমিটেডের মাঠকর্মী হিসেবে কাজ করতেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর



রংপুরের তারাগঞ্জে ট্রাকচাপায় তিন নারী শ্রমিক নিহত

প্রকাশিত:Saturday ২৭ November ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ০৮ December ২০২১ | ১৩০জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

রংপুরের তারাগঞ্জে ট্রাকচাপায় তিন নারী শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৩ জন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

 

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার ঘোনিরামপুর এলাকায় ব্রাদার্স কোল্ড স্টোরেজ সংলগ্ন রংপুর-সৈয়দপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় করে বাড়ি ফিরছিলেন তিন নারী শ্রমিক। ব্রাদার্স কোল্ড স্টোরেজের সামনে পৌঁছলে বিপরীত থেকে আসা একটি ট্রাক তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তিন শ্রমিকই নিহত হন।

 

তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি নুরুন্নবী প্রধান জানান, তিন নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

-খবর প্রতিদনি/ সি.বা


আরও খবর



নাসিরনগরে শহিদ শেখ ফজলুল হক মনির জন্মদিন পালন

প্রকাশিত:Saturday ০৪ December ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ December ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া), 

জেলার নাসিরনগর উপজেলার যুবলীগের উদ্যোগে মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বিশিষ্ট লেখক ও সাংবাদিক শহিদ শেখ ফজলুল হক মনির ৮৩ তম জন্মদিন পালন করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে ৪ ডিসেম্বর ২০২১ রোজ শনিবার সকাল ১১ ঘটিকার সময় স্থানীয়  ডাকবাংলো চত্বরে এক আলোচনা সভা ও দোয়ার  মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মোঃ রায়হান আলী ভূইয়ার সভাপতিত্বে আর যুগ্ন আহবায়ক ভানু চন্দ্র দেব ও মোজাম্মেল হক দানার সঞ্চালনায় উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ সংসদীয় ২৪৩ নাসিরনগরের আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য জনাব আলহাজ্ব বিএম ফরহাম হোসেন সংগ্রাম এমপি, বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি রাফি উদ্দিন আহমেদ, স্বাগত

বক্তব্য রাখেন যুবলীগ নেতা মহিউদুজ্জামান টিটু, অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অঞ্জন কুমার দেব, যুবলীগ নেতা ও ভলাকুট ইউপি চেয়ারম্যান রুবেল মিয়া, চাপরতলা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মনছুর আহমেদ ভূইয়া, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা নির্মল চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক নাছির উদ্দিন রানা প্রমুখ।

পরে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিলের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের পরিসমাপ্তি ঘটে। 



আরও খবর



তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

প্রকাশিত:Sunday ২৮ November ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ০৮ December ২০২১ | ১৫৬জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

দেশের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে এবং ১০ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। এখন চলছে ভোট গণনা।

তৃতীয় ধাপের এ ভোটগ্রহণ রোববার সকাল ৮টায় শুরু হয়ে বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এবার ৩৩টি ইউপিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম), বাকিগুলোতে ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হয়েছে।

সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ উপলক্ষে সতর্ক অবস্থায় ছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এছাড়া প্রতিটি ইউপিতে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন।

সারাদেশে তৃতীয় ধাপে ইউপি নির্বাচনে ১০১ জন চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। চেয়ারম্যান ছাড়াও সাধারণ সদস্য পদে ৩৩৭ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৩২ প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

ইসি সূত্রে জানা যায়, তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ২ কোটি ১ লাখ ৪৯ হাজার ২৭৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ কোটি ২ লাখ ১৫ হাজার ৪২৩ জন, মহিলা ভোটার ৯৯ লাখ ৩২ হাজার ৫৩৮ জন এবং হিজড়া ভোটার ১৯ জন। এই ধাপের নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১০ হাজার ১৫৯টি এবং ভোটকক্ষের সংখ্যা ৬১টি হাজার ৮৩০টি।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর