Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

গাজীপুরে ট্রেন চলাচল শুরু

প্রকাশিত:Sunday ০৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
Image

গাজীপুরের জয়দেবপুর রেলস্টেশন এলাকায় তেলবাহী ট্রেনের চারটি বগি লাইনচ্যুত হওয়ার দেড় ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। রোববার (৫ জুন) দুপুর সোয়া ২টার দিকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এর আগে দুপুর পৌনে ১টার দিকে জয়দেবপুর রেল জংশনের কাছে উত্তরবঙ্গগামী একটি মালবাহী ট্রেনের চারটি বগে লাইনচ্যুত হয়। এতে ঢাকার সঙ্গে ময়মনসিংহ, উত্তরবঙ্গ, দক্ষিণবঙ্গ ও পশ্চিমাঞ্চলের ট্রেন চলাচল সাময়িক বিঘ্নিত হয়। পরে রেলওয়ের স্থানীয় প্রকৌশলী ও উদ্ধার কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে ট্রেনের বগিগুলো লাইনে উঠালে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

জয়দেবপুরে রেলওয়ে জংশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার সোহরাব হোসেন জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা রংপুরগামী ৯৮১ আপ বিটিও তেলবাহী ট্রেনটি দুপুর পৌনে ১টার দিকে জয়দেবপুর রেলস্টেশন ছেড়ে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নেয়। জয়দেবপুর লেভেলক্রসিং পার হওয়ার আগেই ট্রেনটির পেছনের চারটি বগি লাইনচ্যুত ও একটি বগির সংযোগ হুক ভেঙে যায়। এতে ঢাকার সঙ্গে ময়মনসিংহ, উত্তরবঙ্গ, দক্ষিণবঙ্গ ও পশ্চিমাঞ্চলের ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত হয়। পরে রেলওয়ের স্থানীয় উদ্ধারকারী কর্মীরা বগি উদ্ধার কাজ শুরু করেন।

জয়দেবপুর জংশনের স্টেশন মাস্টার রেজাউল ইসলাম জানান, মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ার পর ট্রেনের লেভেল ক্রসিং বন্ধ হয়ে যায়। এতে দুই পাশে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এ পথে জেলা প্রশাসক কার্যালয়, জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়, গাজীপুর আদালতপাড়া, ফায়ার স্টেশন, তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেলসহ গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় গাড়ি, অ্যাম্বুলেন্স এমনকী রিকশা পর্যন্ত চলাচল বন্ধ ছিল।


আরও খবর



বিচার বিভাগে বরাদ্দ দ্বিগুণ করার দাবি

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

আইন ও বিচার বিভাগের জন্য বাজেটে প্রস্তাবিত বরাদ্দ প্রয়োজনের তুলনায় খুবই অপ্রতুল। বিচার বিভাগ পর্যাপ্ত অবকাঠামো ও জনবল সংকটসহ নানা সমস্যায় জর্জরিত। তাই জাতীয় সংসদে ঘোষিত ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে বিচার বিভাগের বরাদ্দ বাড়িয়ে দ্বিগুণ করার দাবি জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর কাছে আবেদন জানানো হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট এস এম আরিফ মন্ডল এ আবেদন জানান। বিষয়টি মঙ্গলবার (১৪ জুন) জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন আইনজীবী নিজেই। জাতীয় বাজেট ২০২২-২৩ এর মন্ত্রণালয়/বিভাগভিত্তিক বরাদ্দের সংশ্লিষ্ট নথি যুক্ত করে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলের মাধ্যমে প্রধান বিচারপতির কাছে রোববার (১২ জুন) এ আবেদন জমা দেন তিনি।

আইনজীবী জানান, আগামী অর্থবছরে আইন ও বিচার বিভাগের জন্য বাজেটে প্রস্তাবিত বরাদ্দ প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। বিচার বিভাগ পর্যাপ্ত অবকাঠামো ও জনবল সংকটসহ নানা সমস্যায় জর্জরিত।

তারই পরিপ্রেক্ষিতে এই বিভাগের বাজেট বৃদ্ধি করে অবকাঠামোগত উন্নয়ন, পর্যাপ্ত বিচারক ও লজিস্টিক সাপোর্ট নিশ্চিত করা গেলে মামলাজটসহ বিচার বিভাগের নানা সমস্যা সমাধান করা সম্ভব। তাই বিচার বিভাগের নানা সমস্যা উল্লেখ করে বাজেট বৃদ্ধির উদ্যোগ গ্রহণের জন্য স্বপ্রণোদিত হয়ে প্রধান বিচারপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করে এই আবেদন করেছি।

আবেদনে বলা হয়, এ বছরে জাতীয় সংসদে ঘোষিত বাজেটে আইন ও বিচার বিভাগের সর্বসাকুল্যে ১ হাজার ৯২৪ কোটি টাকা এবং সুপ্রিম কোর্টের জন্য ২৩০ কোটি টাকা বরাদ্দ ঘোষণা করা হয়েছে। যা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। বর্তমানে অধস্তন আদালতের অন্যতম সংকট বিচারক স্বল্পতা ও লজিস্টিক সাপোর্ট। ক্ষেত্র বিশেষে কোনো কোনো আদালতে দশ হাজারের বেশি মামলা চলমান রয়েছে। দেশে বিশ কোটি মানুষের বিপরীতে অধস্তন আদালত বিচারকের সংখ্যা এক হাজার ৮০০ জন। এ বিচারকদের মধ্যে বেশিরভাগ বিচারকই প্রয়োজনীয় লজিস্টক সাপোর্ট থেকে বঞ্চিত। বিচারিক আদালতের মামলা ব্যবস্থাপনার মূল সমস্যা তথা অন্তরায়গুলোর মধ্যে রয়েছে-

ক. দেওয়ানি আদালতে স্টেনোগ্রাফারের মতো অতিপ্রয়োজনীয় পদের কর্মচারি না থাকা।

খ. উন্নত এবং যুগোপযোগী বিচারিক কর্মপরিবেশ না থাকা। অথচ সরকারের অন্যান্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা তাদের চাকরির প্রথমদিন থেকেই থানা পর্যায়েও সব সুযোগ-সুবিধা পেয়ে থাকেন।

গ. জেলা পর্যায়ে দেওয়ানি আদালতের বিচারকদের রায়/আদেশ কম্পিটার, প্রিন্টারসহ সংশ্লিষ্ট স্টেশনারি ও প্রশিক্ষিত জনবলের অভাবে নিজ হাতে লিখতে বাধ্য হন, ফলে সংশ্লিষ্ট বিচারকের অনেক সময় অপচয় হয়। বিচারপ্রার্থীদের নকল পেতে বিলম্ব হয়। তাই সহকারী জজ থেকে জেলা জজ পর্যন্ত সব আদালতে প্রয়োজনীয় সংখক স্টেনো পদসহ ডেক্সটপ কম্পিউটার, প্রিন্টার, ফটোকপিয়ার মেশিন এবং ইন্টারনেট নিশ্চিত করা।

ঘ. ঢাকা, চট্টগ্রামের মতো ব্যয়বহুল শহরে অধস্তন আদালতের বিচারকদের পর্যাপ্ত আবাসিক সুবিধার অপ্রতুলতা রয়েছে, তাছাড়া বর্তমানে জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় সংশ্লিষ্টদের খরচে হিমশিম খেতে হয়। এ জন্য সব জেলায় বিচারকদের আবাসন সুবিধা নিশ্চিত করা দরকার

ঙ. অধস্তন আদালতের বেশিরভাগ বিচারকই তাদের কর্মস্থলে প্রতিদিন মাইক্রোবাসে গাদাগাদি করে যাওয়া-আসা করেন। উপজেলা পর্যায়ে বিচারকরা রিকশা বা হেঁটে তাদের কর্মস্থলে যাওয়া-আসা করেন। গুরুত্বপূর্ণ মামলা পরিচালনায় জীবন সংশয়ের সম্ভবনা থাকে আর সামাজিকভাবে মর্যাদাহানির শঙ্কাও থাকে। এক্ষেত্রে বিচারিক কর্মকর্তাদের গাড়ি ঋণ সুবিধার আওতায় আনা, যা অন্যান্য সার্ভিসের কর্মকর্তাদের মধ্যে চালু করা হয়েছে।

চ. অবকাঠামো, যানবাহন, আবাসিক সমস্যাসহ আদালত প্রাঙ্গণের অন্যান্য সমস্যাদির সমাধানের জন্য সরকারের অপরাপর মন্ত্রণালয়ের মুখাপেক্ষী থাকতে হয় যা স্বাধীন বিচার বিভাগের মূল স্পিরিটের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

ছ. ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় উন্নত প্রশিক্ষণ প্রয়োজন। বিচারকদের প্রশিক্ষণের জন্য বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট থাকলেও প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের অভাবে প্রতিষ্ঠানটির কাঙ্ক্ষিত সফলতা ও প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বাড়ানো সম্ভব হয়নি। এক্ষেত্রে সক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি বিচারকদের দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আরও প্রশিক্ষণ বাড়ানো প্রয়োজন।

পার্শ্ববর্তী দেশের বিচারকদের বেতন-ভাতা, গাড়ি,নিরাপত্ত এবং আবাসিক সুবিধাসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা তুলনা করলে দেখা যাবে তাদের তুলনায় আমাদের দেশের বিচারকদের সুবিধা অতি নগণ্য। মামলা নিষ্পত্তিতে হাইকোর্টেও বিচারক স্বল্পতা বিদ্যমান। বিচার বিভাগের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ সক্ষমতা অর্জন করা আর এর প্রধান অন্তরায় বাজেটে প্রাপ্ত সীমিত অর্থ যা দেশের মোট বাজেটের তুলনায় অতি নগণ্য।

সরকারের সব মন্ত্রণালয়ের আইন কর্মকর্তা পদে একজন করে বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তার নিয়োগ নিশ্চিত করা গেলে সরকারি মামলা পরিচালনাসহ ক্রয় ও ব্যয়ের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা যাবে। অন্যান্য দেশের মতো মোবাইল কোর্ট জুডিসিয়াল অফিসারের মাধ্যমে পরিচালিত হলে সাধারণ মানুষের আস্থা আরো বেশি বাড়বে।

ওই সমস্যাগুলো সমাধানে রাষ্ট্রপতির পরামর্শে আইনমন্ত্রীর মাধ্যমে জাতীয় সংসদে উপস্থাপনক্রমে বিচার বিভাগের জন্য এ বছরে ঘোষিত বাজেটকে কমপক্ষে দ্বিগুণ করার প্রস্তাব করছি। আবেদনের একটি করে অনুলিপি অ্যাটর্নি জেনারেল, আইনমন্ত্রী, আইনসচিব, অর্থসচিব এবং সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সম্পাদক বরাবর পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



জমির বিরোধে টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারের ওপর হামলা

প্রকাশিত:Thursday ২৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

ময়মনসিংহের ভালুকায় জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন রাশেদ সরকার (৩৫) নামের একজন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার।

বুধবার (২২ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার কাচিনা ইউনিয়নের কাদিগড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহত রাশেদ সরকার ওই এলাকার শামছুল হকের ছেলে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় শামছুল হক ভালুকা মডেল থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, কাদিগড় গ্রামের হোসেন আলী সরকারের ছেলে শফি সরকারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল রাশেদ সরকারের। বুধবার রাতে রাশেদ সরকার মোটরসাইকেলযোগে কর্মস্থলে রওনা হন। পথে আগে থেকে ওতপেতে থাকা শফি সরকার, তার স্ত্রী লাকী আক্তার (৩৮), ছেলে লিমন সরকারসহ (২১) অজ্ঞাতপরিচয় আরও কয়েকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে।

এ সময় উভয়ের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে দেশীয় অস্ত্র দা, রড দিয়ে রাশেদ সরকারকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করেন তারা। খবর পেয়ে রাশেদের স্বজনরা এসে তাকে উদ্ধার করে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তিনি বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগীর বাবা শামছুল হক বলেন, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষ শফি সরকার সপরিবারে আমার ছেলের ওপর হামলা করেছে। আমরা এ ঘটনার বিচার চাই।

জানতে চাইলে অভিযুক্ত শফি সরকার বলেন, রাশেদকে কেউ মারধর করেননি। কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে ধাক্কায় পড়ে গিয়ে টিনে লেগে তার মাথা কেটে গেছে।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার কামাল হোসেন বলেন, ‘শফি সরকারের সঙ্গে শামছুল হকের জমি নিয়ে বিরোধ আছে। তবে গতরাতে মারধর করার বিষয়টি আমার জানা নেই। দুই পক্ষের কেউই আমার কাছে আসেনি।’

এ বিষয়ে ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন বলেন, অভিযোগ এখনো আমার হাতে আসেনি। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



বাইডেনের বাড়ির ওপর দিয়ে উড়ে গেলো প্লেন, নিরাপদে উদ্ধার

প্রকাশিত:Sunday ০৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
Image

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ডেলাওয়্যার অঙ্গরাজ্যের সমুদ্রসৈকত সংলগ্ন বাড়ির আকাশসীমায় ভুল করে একটি প্লেন ঢুকে পড়ে। এসময় দ্রুত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেনকে ওই বাড়ি থেকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়। স্থানীয় সময় শনিবার ( ৪ জুন) এ ঘটনা ঘটে।

পরে হোয়াইট হাউজের তরফে বিষয়টি নিশ্চিত করা হলেও বলা হচ্ছে এটি ‘হামলা’ নয়।

ওয়াশিংটনের পূর্বে দু’শো কিলোমিটার দূরে ডেলাওয়্যার অঙ্গরাজ্যের রেহোবোথ সৈকতের ওই বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। যদিও পরে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন আবারও ফিরে যান ওই বাড়িতে।

প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অভিযুক্ত সিক্রেট সার্ভিস জানিয়েছে, প্লেনটি ভুলবশত নিরাপত্তাবেষ্টনীর মধ্যে প্রবেশ করেছিল এবং এটিকে দ্রুত বের করা হয়।

সিক্রেট সার্ভিসের মুখপাত্র অ্যান্থনি গুগলিয়েলমি জানান, প্লেনটির পাইলট ঠিকমত যোগাযোগ করতে পারছিলেন না এবং প্লেন চালানোর নীতিও অনুসরণ করেননি। তবে ওই পাইলটের নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি এবং তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছে তারা।

সূত্র: রয়টার্স, এএফপি


আরও খবর



কোনো গাফিলতি পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডে যাদেরই গাফিলতি পাওয়া যাবে তাদের শাস্তি পেতে হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, তদন্তের ফলাফল পাওয়ার পর আমরা সেটি নির্ধারণ করবো।

মঙ্গলবার (৭ জুন) বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর পুরান ঢাকার ফুলবাড়ীয়ায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরে নিহত ফায়ার ফাইটার শাকিল তালুকদারের জানাজা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, দুটি উচ্চপর্যায়ের অতন্ত দল দুর্ঘটনাস্থলে কাজ করছে। তদন্তের ফল প্রকাশ না পাওয়া পর্যন্ত কার গাফিলতি কিংবা নাশকতা বা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ঘটনা কি না তা বলতে পারছি না। কিছু একটা ঘটেছে, তা না হলে এত প্রাণ যায় না, এটাও আমি বিশ্বাস করি।

কোনো গাফিলতি পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

তিনি বলেন, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা যে অকুতোভয় সৈনিক, তারা সবসময় এটার প্রমাণ দিয়েছে। এফআর টাওয়ারসহ বিভিন্ন সময় আপনারা দেখেছেন। এখানেও তারা সেই সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। এক মুহূর্ত তারা দেরি করেননি, ছুটে গিয়েছেন। তারা যথাযথ প্রচেষ্টাই নিয়েছিলেন। দুর্ভাগ্য এতে তাদের ৯ জন নিহত হয়েছেন, তিনজনের মৃতদেহ শনাক্ত হয়নি। সিএমএইচসহ বিভিন্ন হাসপাতালে গুরুতর আহত হয়ে ১৫ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন।

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রভাবশালীদের হাত থাকলে সেক্ষেত্রে নমনীয় হবেন কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, আপনারা দেখেছেন, প্রধানমন্ত্রী কাউকে ছাড় দিয়েছেন? উনি সংসদ সদস্যদেরও ছাড়েন না। কাজেই বার্তাটা স্পষ্ট, যদি কারও সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়, যদি কারও গাফিলতি দেখা যায়, যদি কেউ কোনোভাবে নাশকতা করে থাকে, তার শাস্তি তাকে পেতেই হবে। তারপর আমরা সেটি নির্ধারণ করবো।

কোনো গাফিলতি পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ফায়ার সার্ভিসের সক্ষমতার বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা ঘণ্টা বাজানো ফায়ার সার্ভিস থেকে আধুনিক ফায়ার সার্ভিস নিয়ে আসছি। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই উপস্থিত হযন। আগে আমরা দেখতাম ঘটনা শেষ হয়ে গেছে, আগুন নিভে গেছে, তখন ফায়ার সার্ভিস গিয়ে উপস্থিত হতো। পার্থক্যটা এখন এখানেই। প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনায় আমরা ফায়ার সার্ভিসকে একটি সক্ষম বাহিনীতে পরিণত করতে পেরেছি এবং ক্রমাগতভাবে আমরা তাদের আরও সক্ষমতা বৃদ্ধি করবো। সর্বাত্মকভাবে তারা যেন অগ্নিনির্বাপণে তারা ভূমিকা রাখতে পারে।

এর আগে নিহত ফায়ার ফাইটার শাকিল তরফদারের মরদেহে শ্রদ্ধা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। পরে তার জানাজায় অংশ নেন তিনি।


আরও খবর



মার্কেটিং ম্যানেজার পদে চাকরি দেবে এসিআই

প্রকাশিত:Monday ১৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৮জন দেখেছেন
Image

অ্যাডভান্সড কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডে (এসিআই) ‘মার্কেটিং ম্যানেজার/সিনিয়র মার্কেটিং ম্যানেজার’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ১৯ জুন পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: অ্যাডভান্সড কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড (এসিআই)
বিভাগের নাম: ফুডস

পদের নাম: মার্কেটিং ম্যানেজার/সিনিয়র মার্কেটিং ম্যানেজার
পদসংখ্যা: নির্ধারিত নয়
শিক্ষাগত যোগ্যতা: বিবিএ/এমবিএ (মার্কেটিং)
অভিজ্ঞতা: ০৮ বছর
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে

চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ
বয়স: ৪০ বছর
কর্মস্থল: ঢাকা

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা jobs2.bdjobs.com এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ১৯ জুন ২০২২

সূত্র: বিডিজবস ডটকম


আরও খবর