Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

এসএসসি পাসে আকিজ ফুডে চাকরি

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
Image

শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডে ‘অপারেটর’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ০৫ জুলাই পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেড
বিভাগের নাম: বেকারি

পদের নাম: অপারেটর
পদসংখ্যা: নির্ধারিত নয়
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এসএসসি
অভিজ্ঞতা: ০২-০৫ বছর
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষ

চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: পুরুষ
বয়স: ২০-৩৫ বছর
কর্মস্থল: ঢাকা (ধামরাই)

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা jobs.bdjobs.com এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ০৫ জুলাই ২০২২

সূত্র: বিডিজবস ডটকম


আরও খবর



১৪ বছরেই রুশোর এমআইটি-হার্ভার্ড-স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সনদ

প্রকাশিত:Saturday ৩০ July ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image

বয়স মাত্র ১৪। এই বয়সেই জটিল সব গাণিতিক সমস্যার সমাধান করে তাক লাগিয়ে দিয়েছে রুশো। সমাধান করছে বিশ্ববিদ্যালয় স্তরের সব অঙ্ক ও বিজ্ঞানের নানা সূত্র। এই কিশোরের পুরো নাম মাহির আলি রুশো।

রাজধানীর মনিপুর হাইস্কুলের নবম গ্রেডের শিক্ষার্থী রুশো। রুশোর এমন সব আগ্রহ দেখে উচ্ছ্বসিত তার বাবা-মা, স্কুলের শিক্ষকরা। তারা চান, রুশোর প্রতিভা আরও বিকশিত হোক, দেশ এবং বিশ্ব দেখুক, বাংলাদেশের এক ক্ষুদে বালক গাণিতিক আর বৈজ্ঞানিক সমাধানে সবাইকে হার মানাচ্ছে।

রুশোর বাবা-মা দুজনেই চিকিৎসক। ছোটবেলা থেকে ছেলের বিজ্ঞান আর গণিতের প্রতি ঝোঁক দেখে কিছুটা অবাক হয়েছেন। প্রথমদিকে নিজেরাও বিশ্বাস করতে চাননি। কিন্তু যখন দেখলেন, একের পর এক জটিল এবং উচ্চপর্যায়ের গাণিতিক সমস্যার সমাধান করছেন, তখন তারা ছেলের প্রতিভা বিকাশে হাতে তুলে দিতে থাকেন বইপত্র। তারা চান, ছেলে যা করছে সেটা করুক একদম জেনে-বুঝে। তার জানা-শোনায় যেন কোনো ফাঁকফোকর না থাকে।

রুশোর প্রতিভার কথা বলতে গিয়ে তার বাবা সেন্ট্রাল মেডিক্যাল হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান প্রফেসর মোহাম্মদ আলী বলেন, সে যখন ক্লাস ফাইভে পড়ে, তখন থেকেই তার বিজ্ঞানের প্রতি প্রচণ্ড ঝোঁক ছিল। সেসময় আমার একটা ল্যাপটপ ছিল, সেটাও খুব বেশি ভালো ছিল না। কিন্তু একটা পর্যায়ে আমি খেয়াল করি, সে আমার ল্যাটপটে ভিডিও দেখছে। এসব ভিডিও ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি, ম্যাথের ভিডিও। সবগুলো তার চেয়ে অনেক আপার লেভেলের। সেসব ক্লাসের ভিডিও দেখে।

তিনি বলেন, এরপর আমি একদিন তাকে ডেকে নিয়ে বলি, বাবা তুমি যেসব ভিডিও দেখো সেসব কি তুমি বুঝো, নাকি শুধু দেখো? তার উত্তর ছিল- বাবা আমি এসবই বুঝি। এরপর তার সঙ্গে কয়েকদিন আমি নিয়মিত কথা বলি। দেখলাম আসলেই সে বোঝে।

সেসময় রুশো তার বাবা-মায়ের কাছে একটি আবদার করে বসে। সে প্রতিদিন অন্তত দুই ঘণ্টা ইউটিউবে ভিডিও দেখতে চায়। প্রথমে বাবা-মা এতো সময় ভিডিও দেখায় কিছুটা আপত্তি করলেও পরে শর্ত দেয় যে, প্রতিদিনের পড়াটুকু ঠিকভাবে সেরে সকালে এক ঘণ্টা এবং রাতে এক ঘণ্টা করে ইউটিউব দেখতে পারবে। তাতেই রাজি হয় রুশো।

মোহাম্মদ আলী বলেন, তার বয়স যখন ১১ বছর, তখন সে ক্যালকুলাস এবং জ্যামিতিক বিভিন্ন সমাধান রপ্ত করে ফেলে। ১২ বছর বয়সে কলেজ পর্যায়ের গণিত ও ফিজিক্স অনায়াসে করতে পারতো রুশো। এই জানাশোনার বিষয়টা আরও বেড়ে যায় করোনাভাইরাস সংক্রমণের সময় স্কুল বন্ধ হলে। তখন অনেক বেশি সময় রুশো বিজ্ঞানের এসব বিষয়ে জানতে ব্যয় করতে থাকে। ২০২০ সালের মার্চ থেকে সে অনলাইনে বিভিন্ন দেশি-বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত, ক্যালকুলাস, ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি বিষয়ে অসংখ্য অনলাইন কোর্সে অংশ নেয়।

তার মধ্যেই রুশো জানতে পারে অনলাইনে ‘সেন্ট জোসেফ ন্যাশনাল পাই অলিম্পিয়াড’ সম্পর্কে, অংশ নেয় এবং হয়ে যায় চ্যাম্পিয়ন। তার মনোবল বেড়ে যায়। পর্যায়ক্রমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের অনলাইন কোর্সে অংশ নিতে থাকে। এখন পর্যন্ত রুশো ৫০টিরও বেশি অনলাইন কোর্স সম্পন্ন করেছে বিশ্বের স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে। এসব বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটি, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব এডিনবার্গ অন্যতম।

রুশোর মা চিকিৎসক রুমা আক্তার বলেন, তাকে অনেক ছোটবেলা থেকেই দেখেছি পড়ালেখার প্রতি ভীষণ ঝোঁক। আমার জন্য যখন কোনো বই কিনেছি, তখন তার জন্যও আমি কিনেছি। আসলে সন্তানকে বুঝতে হবে। সে কী চায় সেটাই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা অনেক সময় তার চাওয়ার থেকে আমাদের চাওয়াকে বেশি গুরুত্ব দেই, যা তাদের বিকাশকে বাধা দেয়।

কিশোর মাহির আলি রুশো তার অর্জনে গর্বিত। তার কাছে মনে হয়, সায়েন্স আসলে ভয়েস অফ গড, যার মধ্যে ডমিনেন্ট করে ফিজিক্স। আর এর মূলে রয়েছে ম্যাথ। যা জানার কোনো বিকল্প নেই।

রুশো জানায়, সে আসলে কোনো কিছু কীভাবে, কেমন করে হচ্ছে সেটা জানতে চেয়েছে। আর এর জন্য অবশ্য পড়োশোনা এবং জ্ঞান অর্জন করতে হবে। কেউ কাউকে শেখাতে পারে না। নিজে থেকে শিখতে হয়। আমাদের সবসময় অ্যাকাডেমিক বইয়ের বাইরে পড়ার অভ্যাস তৈরি করতে হবে। কেননা আমরা নিজের বই তো পড়বোই, তার বাইরে সেটা কেন হচ্ছে সেটা জানতে অন্য বইও পড়বো। আমরা আসলে যা পড়ি সেটা খুব শর্টকাট। সেখানে গভীরভাবে কোনো কিছু দেখানো হয় না। তাই সেটা জানতে হলে পড়াশোনার বিকল্প নেই।

বিভিন্ন প্রতিযোগিতা ও অর্জন

এই ক্ষুদে জিনিয়াস দেশে এবং দেশের বাইরের অসংখ্য প্রতিযোগিতা ও অলিম্পিয়াডে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ওপেন কনটেস্ট অলিম্পিয়াডে রুশোকে প্রতিযোগিতা করতে হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় স্কলারদের সঙ্গে এবং রুশো প্রায় সবগুলোতেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

‘ওয়ার্ল্ড গ্লোবাল চাইল্ড প্রডিজি অ্যাওয়ার্ড কমিটি’ মাহির আলি রুশোর সম্মানসূচক অর্জনগুলোর প্রসংসা করেছেন। কমিটি জানিয়েছে, তারা রুশোকে নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করবে।

সেন্ট জোসেফ ন্যাশনাল পাই অলিম্পিয়াডে অংশ নিয়ে নটরডেমের শিক্ষার্থীকে হারিয়ে হয়েছেন চ্যাম্পিয়ন। বাংলাদেশ ম্যাথমেটিক্স অলিম্পিয়াড, বাংলাদেশ ফিজিক্স অলিম্পিয়াড, জামাল নাল কেমিস্ট্রি অলিম্পিয়াড চ্যাম্পিয়ন এবং জামাল নাক্রল জ্যোতির্বিদ্যা উৎসব, ন্যাশনাল সাইবার অলিম্পিয়াড, বাংলাদেশ জ্যোতির্বিদ্যা অলিম্পিয়াডসহ অসংখ্য প্রতিযোগিতায় আঞ্চলিকভাবে বিজয়ী হয়েছে রুশো।

এছাড়া বাংলাদেশ আইকিউ অলিম্পিয়াডে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে এবং ভারতের সিপিএস অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছে রুশো। বাংলাদেশ বিজ্ঞান সংগঠন থেকে ‘গুগল-আইটি অলিম্পিয়াডে চ্যাম্পিয়ন পদক পেয়েছে। `Higsinno Biology Olympiad' বিজয়ীও হয় রুশো। এছাড়াও বিভিন্ন মেধা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা এবং অর্জন

দেশের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক `Online Physics Olympiad-2021' এ তার দল Invitational Round বিজয়ী; তার অধিনায়কত্বে ১৫ সদ্যসদ্যের একটি দল আন্তর্জাতিক `Perple Math Comet Met' প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান দখল করে।

ভারতে জ্যোতির্বিদ্যার সর্বোচ্চ আসর আইওএসএ-২০২১ একক প্রতিযোগিতায় গোল্ড মেডেল অর্জন করে এবং আন্তর্জাতিক আসরে `School Connection Math, Science And Artificial Intelligence Contest' এ স্বর্ণপদক পায়। `Stemco international Physics, Chemistry, Biology' প্রদত্ত বিষয়ে `Besty Award' পায় এবং সেরা মেধা তালিকায় থাকার গৌরব অর্জন করে।

এই মেধাবি কিশোর দেশভিত্তিক আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা `Owlpya Science And Tech Contest' এ পরপর দুবার রৌপ্য, একবার স্বর্ণপদক এবং দুবার ব্রোঞ্জ পদক নিয়ে বিজয়ী হয় এবং বিশ্বব্যাপী চ্যালেঞ্জের জন্য ২০২২ সালের জুনে যুক্তরাজ্য সফরের জন্য আমন্ত্রণপত্রও পায়।

রুশো যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক অলিম্পিয়াড `Genius Cerebrum Olympiad' থেকে আর্ট, জেনারেল নলেজ এবং সাইবারে জিনিয়াস পদক পায়।

এছাড়া সম্প্রতি হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি স্নাতকোত্তর স্টুডেন্ট কর্তৃক চালিত `Internationonal Leadership ethics and life skill Olympiad' এ শ্রেষ্ঠ ৫০ জনের মধ্যে স্থান পেয়েছে।

গবেষণা ও প্রকাশনা

রুশো ৫০টিরও বেশি অনার্স ও মাস্টার্স কোর্স শেষ করেছে এবং এমআইটি, হার্ভার্ড, স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি থেকে সনদ লাভ করেছে। রুশো বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, ক্যামব্রিজের আওতায় ম্যানুফ্যাকচার ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে মাইক্রোমাস্টার্স কোর্সে অধ্যয়নরত।

একই সঙ্গে সে বিশ্বখ্যাত হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে কেমিস্ট্রিতে মাইক্রোমাস্টার্স কোর্সে সুযোগ করে নিয়েছে। ১৪ বছর বয়সে আইজেএসআর, আইওএসআর, কোয়েস্ট-এ তার অনেক জার্নাল ও গবেষণাপত্র প্রকাশিত হয়েছে।


আরও খবর



থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধে বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষায় আইন জরুরি

প্রকাশিত:Thursday ২৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ০৪ August ২০২২ | ১৮জন দেখেছেন
Image

থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধে কাজি অফিসে বিয়ে পড়ানোর আগে রক্ত পরীক্ষার ব্যাবস্থা করতে হবে। প্রয়োজনে এটি নিশ্চিতে আইন পাস করতে হবে। একই সঙ্গে স্কুল-কলেজে ভর্তির আগে রক্ত পরীক্ষা করতে হবে। দুশ থেকে তিনশ টাকা হলে হিমোগ্লোবিন ও রক্ত পরীক্ষাসহ থ্যালাসামিয়ার স্ক্রিনিং করা যাবে। এজন্য স্থানীয় পর্যায়ে সে ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। একই সঙ্গে এ রোগ নিয়ন্ত্রণে বাহকদের মধ্যে বিয়ে বন্ধেরও পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অডিটরিয়ামে ‘থ্যালাসেমিয়া এন ইমার্জিং ন্যাশনাল হেলথ ইস্যু: ওয়ে টু মিনিফাই’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলা হয়।

থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধে বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষার পাশাপাশি স্কুল-কলেজে শিক্ষার্থীদের ভর্তির আগে স্ক্রিনিংয়ের (শনাক্তকরণ) পরিকল্পনা করছে সরকার। এজন্য একটি প্রকল্প হাতে নেওয়ার কথা জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ।

অনুষ্ঠানে চিকিৎসকরা বলেন, থ্যালাসেমিয়া একটি বংশানুক্রমিক রোগ। দেশের মোট জনগোষ্ঠীর শতকরা ৬ থেকে ১২ শতাংশ মানুষ বিভিন্ন ধরনের থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত। এছাড়াও প্রতিবছর প্রায় ৭ হাজার নতুন শিশু থ্যালাসেমিয়া রোগের জীনসহ জন্মগ্রহণ করে থাকে। থ্যালাসেমিয়া রোগীরা সাধারণত দুই ধরনের হয়ে থাকে। একটি থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত রোগী অন্যটি থ্যালাসেমিয়ার বাহক। যারা থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত রোগী তাদের প্রতি মাসেই দুবার রক্ত দিয়ে বাঁচিয়ে রাখা হয়। তারা সারাজীবন এ রোগ বহন করে। এদের অনেকেই ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের জটিলতায় মারা যান।

থ্যালাসেমিয়া প্রতিরোধে বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষায় আইন জরুরি

চিকিৎসকরা বলেন, বোনম্যারো ট্রান্সপ্লানটেশন করে এদের চিকিৎসা করা হলে সুস্থ করার সম্ভাবনা আছে। কিন্তু এ দেশে বোনম্যারো ট্রান্সপ্লানটেশন একটি জটিল প্রক্রিয়া, ব্যয়বহুল এবং অপ্রতুল। অন্যদিকে যারা থ্যালাসেমিয়ার বাহক তারা এ রোগ বহন করেন এবং আরেকজন বাহককে বিয়ে করলে তাদের সন্তানদের এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। কিন্তু একজন থ্যালাসেমিয়া বাহক যদি একজন নরমাল ব্যক্তিকে (ক্যারিয়ার নয়) বিয়ে করে তবে তাদের সন্তানদের থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম। কাজেই সমাজের সর্বস্তরে এ রোগের ব্যাপকতা এবং একজন বাহক যাতে অন্য একজন বাহককে বিয়ে না করে সেটার ওপর জোর দেন বিশেষজ্ঞরা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, দেশের প্রায় ১০ ভাগ লোক থ্যালাসিমিয়া রোগে আক্রান্ত। বিয়ের আগে যদি পরীক্ষার মাধ্যমে নবদম্পত্তি ঠিক করা হয় তাহলে এটা কমানো সম্ভব। এ জন্য যে আর্থিক সহযোগিতা লাগে তা আমরা দেব।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, পুনর্বাসন ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেন, দেশে এক কোটি ৬০ লাখ মানুষ থ্যালাসেমিয়ার বাহক। আমরা যদি বাহকদের মধে বিয়ে বন্ধ করতে পারি তাহলেই দেশ থেকে রোগ নির্মূল করা সম্ভব। এজন্য সচেতনতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। পাশাপাশি আইনি বাধ্যবাধকতা আরোপ করতে হবে। প্রয়োজনে থ্যালাসেমিয়া সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক করা যেতে পারে। থ্যালাসেমিয়া নিয়ন্ত্রণ আইন করতে হবে এবং তা বাস্তবায়ন করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, থ্যালাসেমিয়ার চিকিৎসা অত্যন্ত ব্যয়বহুল এবং রোগী ও পরিবারের জন্য কষ্টদায়ক। আমরা আমাদের সচেতনতার মাধ্যমে এ থেকে মুক্তি পেতে পারি।


আরও খবর



মিরপুরে বাস-লেগুনা মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর মিরপুর শাহ আলীর বেড়িবাঁধ এলাকায় বাস এবং লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। রোববার (৩১ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, মো. রবিউল ইসলাম রুবেল (৩৮) ও মো. জুবায়ের হোসেন (৪৫)। এর মধ্যে জুবায়ের ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারিয়েছেন। আহতদের মধ্যে মো. মিলন গাজী (৪২) ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন। অন্যরা বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা নিয়েছেন।

নিহত রুবেলের ভাই মো. ছোটন বলেন, আমার ভাই ঢাকায় রিকশা চালাতেন। ঈদের চার/পাঁচ দিন পর গ্রাম থেকে ঢাকায় আসেন। এনজিও লোন আছে তার। লোনের কিস্তি দিতে পারছিলেন না। এ কারণে ঢাকায় এসে রিকশা চালানো শুরু করেন।

তিনি আরও জানান, তাদের গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার পূর্ব ফিলিপনগর গ্রামে। তাদের বাবার নাম মো. শাহজাহান মন্ডল। নিহত রুবেল মিরপুর ১৪ নম্বরে থাকতেন। তার দুটি মেয়ে ও একটি ছেলে রয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সংঘর্ষে আহত দুজনকে ঢাকা মেডিকেলে আনা হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রুবেল মারা যান। আহত মিলন গাজী এখানে চিকিৎসাধীন। রুবেলের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে।


আরও খবর



ওয়াশিংটনে হামলায় নিহত ১, গুলিবিদ্ধ আরও ৫

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে আবারও হামলার ঘটনা ঘটেছে। উত্তর-পূর্বের একটি শহরে হামলায় একজন নিহত ও আরও পাঁচজন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, এফ স্ট্রিট এনই-র ১৫শ নম্বর ব্লকে হামলার ঘটনা ঘটে এবং তদন্ত চলছে।

স্থানীয় সময় সোমবার (১ আগস্ট) এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রধান রবার্ট কন্তি এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, একজন নিহত ও আরও পাঁচজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভুক্তভোগীরা সবাই পুরুষ বলেও জানান তিনি। তবে তাদের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

প্রাথমিকভাবে হামলার কারণ জানাতে পারেনি পুলিশ। চিহ্নিত হয়নি হামলাকারীও।

সূত্র: ফক্স নিউজ


আরও খবর



চ্যাপম্যানের ইতিহাসে স্কটিশ চ্যালেঞ্জ উৎরে গেলো নিউজিল্যান্ড

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
Image

বছর সাতেক আগে হংকংয়ের হয়ে ওয়ানডে অভিষেকে অপরাজিত সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন বাঁহাতি ব্যাটার মার্ক চ্যাপম্যান। মাঝে ২৪৪৯ দিনে আর কোনো সেঞ্চুরির দেখা পাননি তিনি। এসময়ে বদলে গেছে চ্যাপম্যানের ঠিকানা, হংকংয়ের বদলে খেলেন নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলের হয়ে।

দীর্ঘ ২৪৪৯ দিন পর এবার সেই নিউজিল্যান্ডের হয়ে সেঞ্চুরি হাঁকালেন চ্যাপম্যান। ওয়ানডে ইতিহাসে মাত্র তৃতীয় ব্যাটার হিসেবে ভিন্ন দুই দেশের হয়ে সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছেন তিনি। রোববার স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে চ্যাপম্যানের সেঞ্চুরিতেই ম্যাচ জিতেছে কিউইরা।

রোববার এডিনবরায় নিউজিল্যান্ডকে ৩০৭ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছিল স্কটল্যান্ড। জবাবে ২৪ ওভারে ১৩২ রানে ৩ উইকেট হারালেও, শেষ পর্যন্ত চ্যাপম্যান ও ড্যারেল মিচেলের ব্যাটে ভর করে ২৫ বল আগেই সাত উইকেটের সহজ জয় পায় মিচেল স্যান্টনারের দল।

রান তাড়া করতে নেমে ফিল অ্যালেন ও মার্টিন গাপটিল উদ্বোধনী জুটিতে ৭৮ রান যোগ করেন। গাপটিল ৪৭ ও ফিন করেন ৫০ রান। তিন নম্বরে নামা ড্যান ক্লেভার আউট হন ৩২ রান করে। এরপর আর বিপদ ঘটতে দেননি মিচেল ও চ্যাপম্যান। দুজন মিলে ২১.৫ ওভারে অবিচ্ছিন্ন ১৭৫ রানের জুটি গড়েন।

শেষ পর্যন্ত ৭৫ বলে ১০১ রানে অপরাজিত থাকেন চ্যাপম্যান। মিচেলের ব্যাট থেকে আসে ৬২ বলে ৭৪ রান। ইয়ন মরগ্যান ও এড জয়েসের পর মাত্র তৃতীয় ব্যাটার হিসেবে দুই দেশের হয়ে সেঞ্চুরি করলেন চ্যাপম্যান। মরগ্যান ও জয়েস- দুজনই ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের হয়ে এ কীর্তি করে দেখান।

এর আগে ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ২৫ ওভারের মধ্যে ১০৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল স্কটল্যান্ড। সেখান থেকে মাইকেল লিস্কের ঝড়ে বড় সংগ্রহের ভিত পায় স্কটিশরা। ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৮৫ রানের ইনিংসটি খেলতে মাত্র ৫৫ বল খরচ করেন তিনি। এছাড়া ম্যাথু ক্রস করেন ৫৩ রান।


আরও খবর