Logo
আজঃ Friday ১৯ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে আবাসিকের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ডেমরায় প্যাকেজিং কারখানায় ভয়বহ অগ্নিকান্ড রূপগঞ্জে পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর গ্রেফতার রূপগঞ্জে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ॥ সভা সরাইলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত। নারায়ণগঞ্জে পারিবারিক কলহে স্ত্রীকে পুতা দিয়ে আঘাত করে হত্যা,,স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জ ইউএনও’র বিদায় সংবর্ধনা নাসিরনগরে স্বামীর পরকিয়ার,বলি ননদ ভাবীর বুলেটপানে আত্মহত্যা নাসিরনগরে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত ডেমরায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি পালিত
একই রুমের ফেনে ঝুলছিল নারী-পুরুষের মরদেহ

একই রুমের ফেনে ঝুলছিল নারী-পুরুষের মরদেহ

প্রকাশিত:Sunday ০৯ January ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৩৬০জন দেখেছেন
Image


গাজীপুর প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরের গাছা এলাকার একটি বাড়ি থেকে গলায় ফাঁস লাগানো দুই নারী-পুরুষের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে জাঝর উত্তর পাড়া এলাকার শাহীন মিয়ার বাড়ির দ্বিতীয় তলার রুম থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।


নিহতরা হলেন, গাজীপুর জেলার কালিগঞ্জ থানার বেতয়া গ্রামের মিজানুর রহমানের মেয়ে লিমা রহমান (২৫) ও সিলেট সদর এলাকার বোরাইয়া এলাকার রঞ্জিত চৌধুরীর ছেলে রজত কান্তি চৌধুরী । লিমা মোটেক সোয়েটার কারখানার মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট হিসেবে চাকুরি করতেন এবং রজত গাজীপুর সদর এলাকার সিগমা ডায়েগনষ্টিক সেন্টারের পরিচালক। 


বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গাছা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নন্দলাল চৌধুরী।


তিনি জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে কর্মস্থল মোটেক সোয়েটার কারখানা থেকে বাসায় ফিরে লিমা রহমান। শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় শনিবার কর্মস্থলে যাওয়ার কথা ছিল তার। কিন্তু শনিবার কর্মস্থলে না যাওয়ায় কারখানার মালিক পক্ষ দুপুরের খাবারের বিরতিতে লিমার বাসায় লোক পাঠায়।

বাসায় ডাকাডাকি করে কোন সারাশব্দ না পেয়ে দরজা ধাক্কা দিয়ে দেখতে পান লিমা রহমান ও রজত কান্তি চৌধুরী গলায় ওরনা পেঁচিয়ে সিলিং ফ্যানের হুকের সাথে ঝুলে আছে। পরে গাছা থানা পুলিশকে খবর দিলে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়।


গাছা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার আহসানুল হক জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে পূর্বে সিগমা ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট পদে চাকুরী করতেন লিমা। চাকুরীর সুবাদে প্রতিষ্ঠানের পরিচালক রজত কান্তি চৌধুরীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় তার।


মাস দুয়েক আগে লিমা চাকুরী ছেড়ে সোয়েটার কারখানায় চাকুরী নেন। লিমা ওই বাড়িতে একাই ভাড়া থাকতেন। পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে রজত ওই বাড়িতে নিয়মিত যাতায়ত করতেন। তবে তাদের মধ্যে কি সম্পর্ক এবং কেন আত্মহত্যা করেছে সেটি জানা যায়নি।



আরও খবর



স্নাতক পাসে ড্রাগ ইন্টারন্যাশনালে চাকরি

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ১৮ August ২০২২ | ৬৫জন দেখেছেন
Image

ড্রাগ ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডে ‘প্রোডাক্ট অ্যাসোসিয়েট’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ১২ আগস্ট পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: ড্রাগ ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড

পদের নাম: প্রোডাক্ট অ্যাসোসিয়েট
পদসংখ্যা: নির্ধারিত নয়
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতক (ফার্মেসি)
অভিজ্ঞতা: প্রযোজ্য নয়
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে

চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ
বয়স: ৩০ বছর
কর্মস্থল: যে কোনো স্থান

আবেদনের ঠিকানা: ম্যানেজার, ডিপার্টমেন্ট অব হিউম্যান রিসোর্স, ড্রাগ ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, খাজা এনায়েতপুরী (আর) টাওয়ার, ১৭, কেএম শফিউল্লাহ রোড (গ্রিন রোড), ঢাকা -১২০৫, বাংলাদেশ।

আবেদনের শেষ সময়: ১২ আগস্ট ২০২২

সূত্র: বিডিজবস ডটকম


আরও খবর



একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা বুলবুলের মা

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ১৮ August ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে নিহত সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ছাত্র বুলবুল আহমেদের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা বুলবুলের মা। তাকে সান্ত্বনা দিতে বাড়িতে ভিড় জমিয়েছেন স্বজন, এলাকাবাসী ও বন্ধুরা। একই সঙ্গে বুলবুল হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে সবোর্চ্চ শাস্তির দাবি জানান তারা।

নিহত বুলবুল আহমেদ নরসিংদী শহরের ভেলানগর এলাকার মৃত উহাব মিয়ার ছেলে। দুই ভাই ও দুই বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন সবার ছোট। ২০১৮ সালে নরসিংদীর আবদুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। পরে বুলবুল শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগে ভর্তি হন। বর্তমানে তিনি তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

সোমবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের পাশে গাজীকালুটিলা লাগোয়া ‘নিউজিল্যান্ড’ এলাকায় ছুরিকাঘাত করা হয় বুলবুলকে। সহপাঠীরা উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা বুলবুলের মা

সন্ধ্যায় বুলবুল নিহতের খবর বাড়িতে এলে পরিবারের সদস্যরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। পরিবারের সদস্যদের কান্না ও আহাজারিতে আকাশ ভারি হয়ে ওঠে। আদরের ছেলেকে হারিয়ে মা ইয়াসমিন বেগম বারবার বিলাপ করছিলেন। কোনোভাবেই তাকে সান্ত্বনা দিতে পারছিল না পরিবারের সদস্যরা। রাতেই বুলবুলের বড় ভাই জাকারিয়া এলাকার কয়েকজনকে নিয়ে সিলেটের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। রাতে নিহতের মরদেহ নরসিংদীর বাড়িতে আসার কথা জানিয়েছেন স্বজনরা।

নিহতের মা ইয়াসমিন বেগম বলেন, ‘আমার জীবনের একমাত্র সম্বল এ ছেলে। ছেলেটাকে মেরে আমাকে নিঃস্ব করে দিয়েছে। আমার কষ্ট দেখে বুলবুল প্রায়ই বলতো, মা আর এক বছর ধৈর্য ধরো। আমার পড়ালেখা শেষে হয়ে গেলেই তোমার সব কষ্টের অবসান হয়ে যাবে। আমি চাকরি করে সংসার চালাবো। কিন্তু তা আরা হলো না। আমার সুখ ও শেষ সম্বল ছেলেটাকে মেরে ফেললো। আমি তাদের বিচার চাই।’

একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা বুলবুলের মা

নিহতের বোন সোহাগী বলেন, ‘বুলবুল পরীক্ষা শেষে তার এক বান্ধবীর সঙ্গে টিলা পাহার এলাকায় ঘুরতে যান। ওইখানেই কিছু একটা হয়েছে। ঘটনা যাই হোক আমি আমার ভাই হত্যার বিচার চাই।’

বুলবুলের সহপাঠী হৃদয় বলেন, ‘সে খুবই মেধাবী ছিল। পড়ালেখা শেষ করে পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছে ছিল তার। মাত্র এক বছর আগে তার বাবা মারা গেলো। এখন তার মৃত্যুতে পরিবার কীভাবে শোক সামলাবে? আমরা অবিলম্বে বন্ধুর হত্যার বিচার চাই।’

শাবিপ্রবির নরসিংদী জেলা ছাত্র কল্যাণ সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন বলেন, ‘ক্যাম্পাসের ভেতরে সহপাঠীর এমন নির্মম মৃত্যু কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছি না। আমরা এখন ক্যাম্পাসে অবস্থান করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে বুলবুল হত্যার বিচার দাবি করছি। পাশাপাশি তার পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ারও দাবি জানাচ্ছি।


আরও খবর



পরকীয়ার জেরে মামিকে গলা কেটে হত্যা, ভাগনে আটক

প্রকাশিত:Saturday ২৩ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

কিশোরগঞ্জে পরকীয়ার জেরে রেক্সোনা আক্তার (৩০) নামে এক নারীকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ভাগনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ভাগনে মো. মামুনকে (৩০) আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৩ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে জেলা শহরের হারুয়া কলেজ রোড এলাকায় ওয়াসীমুদ্দিন ছাত্রাবাসের বিপরীতে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরপরই অভিযুক্ত মো. মামুনকে আটক করেছে পুলিশ। মামুন কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের চর শোলাকিয়া এলাকার সোরাফ উদ্দিনের ছেলে।

নিহত রেক্সোনা আক্তার হারুয়া কলেজ রোড এলাকার মো. তাইজুলের স্ত্রী। তিনি দুই ছেলে ও এক কন্যা সন্তানের জননী। তার স্বামী একজন চা বিক্রেতা।

স্বজন ও এলাকাবাসী জানায়, নিহত রেক্সোনার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে তার ভাগনে মামুনের পরকীয়া সম্পর্ক ছিল। সেই সুবাদে রেক্সোনার বাসায় ভাগনের যাতায়াত ছিল। শনিবার দুপুরে মামির বাসায় আসেন মামুন। এসময় বাসায় অন্য কেউ ছিল না। একপর্যায়ে দুজনের মতের অমিল হলে সঙ্গে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে মামির গলা কাটেন মামুন। পরে রক্তমাখা ছুরি নিয়ে মরদেহের পাশে বসে ছিলেন তিনি। এলাকাবাসী ঘটনা টের পেয়ে মামুনকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

jagonews24

নিহতের স্বামী তাইজুল বলেন, আমার স্ত্রী রেক্সোনার সঙ্গে ভাগনে মামুনের পরকীয়ার বিষয়টি অনেক আগেই আমি জানতে পারি। এ বিষয়ে ভাগনেকে আমার বাসায় আসতে নিষেধ করি। কিন্তু আমি চায়ের দোকান করি। সকালেই চলে যাই, রাতে বাসায় ফিরি। আমার বড় মেয়ে স্কুলে চলে যায়, এই সুযোগে ভাগনে আমার বাসায় প্রতিদিনই যাতায়াত করে। আমি এ হত্যাকাণ্ডের সঠিক বিচার চাই।

কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মাদ দাউদ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত মামুনকে আটক করে। এসময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিটি উদ্ধার করে জব্দ করা হয়। পারিবারিক কোনো বিরোধের জের ধরে হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, মামুন একাই এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে। তবে, এ ঘটনায় আর কেউ সম্পৃক্ত আছে কি না তদন্ত করে দেখা হবে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহতের স্বামী তাইজুল বাদী হয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরও খবর



বন্ধুর সংসার ‘ভেঙেছেন’ ইলন মাস্ক!

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

টেসলার মালিক ইলন মাস্কের বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছে না। বন্ধুর স্ত্রীর সঙ্গেই না কি ‘প্রেম’ এই ধনকুবেরের। তাও আবার গুগলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা সের্গেই ব্রিনের স্ত্রী নিকোল শানহানের সঙ্গে। দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে এমনটাই দাবি করা হয়েছে।

যদিও সেই খবর সাফ প্রত্যাখ্যান করেছেন ইলন মাস্ক। টুইট করে ওই প্রতিবেদনের খবর ‘ভিত্তিহীন’ বলে দাবি করেছেন তিনি। টুইটারে ইলন মাস্ক লিখেছেন, ‘গত তিন বছরে নিকোলকে মাত্র দু’বার দেখেছি। আমাদের যখন দেখা হয়েছিল, তখন আশেপাশে আরও অনেকেই ছিলেন। রোমান্টিক ব্যাপার নয়’।

ব্রিনের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব এখনো অটুট রয়েছে, সে কথাও জানিয়েছেন তিনি। টুইটারে লিখেছেন, ‘সের্গেই ও আমি বন্ধু। গত রাতেও একটা পার্টিতে একসঙ্গে ছিলাম।’

২০২১ সালের ১৫ ডিসেম্বর স্ত্রী নিকোলের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ হয় ব্রিনের। তাদের কন্যা সন্তান যাতে দুজনেরই জিম্মায় থাকে, এ ব্যাপারে সে সময় ব্রিন আবেদনও করেন। তবে খবর চাওড় হয়েছে, টেসলার সিইওর সঙ্গে সের্গেই ব্রিনের স্ত্রীর প্রেমের জেরেই না কি স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন তিনি।

বন্ধুর সংসার ‘ভেঙেছেন’ ইলন মাস্ক!

ওই প্রতিবেদনে এটাও দাবি করা হয়েছে যে, চলতি বছরের শুরুতে এক পার্টিতে ব্রিনের কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন ইলন মাস্ক।

জানা গেছে, ইলন ও ব্রিনের বন্ধুত্ব এতটাই গাঢ় ছিল যে, টেসলা গাড়ির উৎপাদন যখন শুরু হয়, সে সময় যাদের প্রথম গাড়ি দিয়েছিলেন মাস্ক, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন ব্রিন।

আবার আর্থিক সংকটের সময় প্রকৃত বন্ধুর মতোই ইলন মাস্কের পাশে ছিলেন ব্রিন। ২০০৮ সালে মাস্ককে পাঁচ লাখ মার্কিন ডলার দিয়ে সাহায্যও করেন গুগলের এই সহ-প্রতিষ্ঠাতা।

ইলন মাস্ককে ঘিরে অবশ্য গুজনের শেষ নেই। এর আগেও তার প্রেমকাহিনী নিয়ে নানা গুঞ্জন শোনা যায়।

সূত্র: বিবিসি


আরও খবর



ঝিনাইদহে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু

প্রকাশিত:Monday ১৫ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
Image

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১৫ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। তবে নিহতের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যায় কালীগঞ্জ উপজেলার চাপড়া এলাকায় রেল লাইনের পাশে দাঁড়িয়েছিলে অজ্ঞাতপরিচয় ওই যুবক। চিলাহাটি থেকে খুলনাগামী রুপসা এক্সপ্রেস চাপড়া অতিক্রম করার সময় ট্রেনের সামনে ঝাপ দেন তিনি। এতে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মোবারকগঞ্জ রেলস্টেশন মাস্টার মোহাম্মদ শাহজাহান শেখ বলেন, ট্রেনটি অতিক্রম করার কিছু সময় পর ঘটনাটি জানা যায়। যশোর থেকে জিআরপি পুলিশ রওয়ানা হয়েছে। তারা এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করবে।


আরও খবর