Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

দ্রব্যমুল্য নিযে বিপাকে আছে সাধারন মানুষ

প্রকাশিত:Monday ২১ March ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৯৫জন দেখেছেন
Image

সোহরাওয়ার্দীঃ

সুজলা-সুফলা শস্যশ্যামলায় ভরপুর বাংলাদেশ আজ শ্রীহীন হয়ে পড়ছে। অভাব ও দারিদ্র্যের কশাঘাতে আজকের জনজীবন দুঃখ ও হাহাকারে পূর্ণ। মানুষের ওপর চেপে বসেছে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির ঘোটক। জীবনধারণের উপযোগী প্রতিটি জিনিসের অগ্নিমূল্য। চাল, ডাল, মাছ, মাংস, তেল, তরিতরকারি, ফলমূল, চিনি, লবণ, গম, আটা, রুটি, বিস্কুট ইত্যাদি দ্রব্যের মূল্য আগের তুলনায় কয়েক গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে সাধারণ মানুষ, বিশেষ করে খেটে খাওয়া মেহনতি মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে।


নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য মানুষের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে চলে যাওয়ায় নানা ধরনের অসুবিধা ও অশান্তি বিরাজ করছে মানুষের মাঝে। বর্তমানের সংকটময় মুহূর্তে এ ধরনের অসুবিধায় দিন পার করছে দেশের অধিকাংশ মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষ। যারা লজ্জায় না পারছে কাউকে কিছু বলতে, না পারছে কারও কাছে হাত পাততে।


বিগত কয়েক মাসের ব্যবধানে ভোজ্যতেল, চাল, ডাল, চিনি ইত্যাদিসহ অনেক নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম কয়েক দফা বেড়েছে। এর ফলে সমাজের মধ্য ও নিম্নমধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্ত শ্রেণি খুবই খারাপ অবস্থায় আছে। তাই এ ব্যাপারে সরকারের দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া আবশ্যক। নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখার পাশাপাশি যাতে কোনো ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট পণ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে পণ্যের দাম আরও বাড়িয়ে দিতে না পারে, সে বিষয়ে কঠোর নজরদারি প্রয়োজন।


রমজান মাসকে সামেনে রেখে দ্রব্যমুল্য যাতে অস্থিরতার দিকে না গড়ায় সেদিকেও নজরদারী প্রয়োজন সরকারের।


আরও খবর



বরিশালে পুকুরে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১১১জন দেখেছেন
Image

বরিশালের হিজলায় পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (৬ জুন) দুপুরে গৌরবদী ইউনিয়নের হিজলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত দুই শিশু হলো- ওই গ্রামের মো. হারুনের ছেলে মোহাম্মদ আলী (৬) ও পার্শ্ববর্তী মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার উলানিয়া ইউনিয়নের আব্দুল লতিফের মেয়ে লিমা আক্তার (৫)। তারা সম্পর্কে মামাতো ভাই ও ফুফাতো বোন।

স্থানীয়রা জানান, মহেন্দীগঞ্জের উলানিয়া থেকে লামিয়া মা-বাবার সঙ্গে নানা বাড়ি হিজলা গ্রামে বেড়াতে এসেছিল। কাউকে না বলে দুপুরে নানা বাড়ির মসজিদের পাশের পুকুরে লিমা তার মামাতো ভাই মোহাম্মদ আলীর সঙ্গে গোসল করতে নামে। তারা সাঁতার জানতো না। এক পর্যায়ে তারা পুকুরের পানিতে ডুবে যায়। তাদের না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা খোঁজাখুঁজি শুরু করে।

একপর্যায়ে পুকুরে নেমে সিঁড়ির (ঘাটলা) নিচ থেকে অজ্ঞান অবস্থায় ওই দুই শিশুকে উদ্ধার করা হয়। তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

হিজলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইউনুস মিয়া জাগো নিউজকে বলেন, দুই শিশুর পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



প্রতিবন্ধীদের ভাতা ন্যূনতম ২ হাজার টাকা করার দাবি

প্রকাশিত:Thursday ১৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ভাতা ন্যূনতম দুই হাজার টাকা করার দাবি জানিয়েছেন প্রতিবন্ধীদের অধিকার নিয়ে কাজ করা ছয়টি সংগঠনের নেতাকর্মীরা। পাশাপাশি এবারের বাজেটে শতভাগ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি, ভাতা, চাকরিতে নিয়োগ এবং কর্মসংস্থান নিশ্চিত করার জন্য বিশেষ নীতিমালা প্রণয়নের দাবি জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) সকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের আব্দুস সালাম হলে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান তারা।

এ সময় বক্তারা বলেন, ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে মন্ত্রণালয়ভিত্তিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি সংবেদনশীল বাজেটের প্রতিফলন নেই। দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিবান্ধব সরকারের কাছে এমন বাজেট হতাশাজনক।

প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সংগঠনগুলোর পক্ষে বি-স্ক্যান ও পিএনএসপির সাধারণ সম্পাদক সালমা সালমা মাহবুব লিখিত বক্তব্যে বলেন, বাজেট মানে সংখ্যাগত বা পরিসংখ্যানগত তথ্য বা তত্ত্বের আড়ম্বরতা নয়। একটি বাজেট হচ্ছে সরকারের অর্থনৈতিক দর্শনের প্রতিবিম্ব। ২০১৮ সালে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ভাতা ৭৫০ টাকা করার সময় মাথাপিছু গড় আয় ছিল ১ হাজার ৭৫১ ডলার এবং ৭৫০ টাকায় ২০ কেজি মোটা চাল পাওয়া যেত। ২০২২ সালে যখন ভাতা বাড়িয়ে ৮৫০ টাকা করা হচ্ছে তখন মাথাপিছু আয় ২ হাজার ৮২৪ ডলার এবং ৮৫০ টাকায় ১৭ কেজি মোটা চাল পাওয়া যায়। অথচ সরকার ২০১৫ সালে জাতীয় সামাজিক সুরক্ষা কৌশলপত্রে ২০২০ সালের মধ্যে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ভাতা ১ হাজার ৫০০ টাকা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। অন্যদিকে সরকারের অষ্টম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় ২০২৫ সালের মধ্যে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ভাতা ৩ হাজার টাকায় উন্নীত করার প্রতিশ্রুতি রয়েছে। যেখানে আগের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ১ হাজার ৫০০ টাকা ভাতা পূরণের কোনো লক্ষণই দেখা গেলো না, সেখানে আগামী তিন বছরে এ ভাতা ৩ হাজার টাকায় উন্নীত করা হবে কি না তা আমরা জানি না।

সালমা মাহবুব আরও বলেন, সরকার ‘অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা’ নামটি সংস্কার করে ‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ভাতা’ করলেও সরকারি নথিতে তা বাস্তবায়নের কোনো লক্ষণ নেই। এছাড়া ‘সামাজিক সুরক্ষায় একজনকে একটির বেশি সুবিধা দেওয়া যাবে না’ নীতির কারণে অনেক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি শিক্ষা উপবৃত্তি বা ভাতা যে কোনো একটি পান, যা চরম বৈষম্যমূলক। তিন বছর ধরে প্রতিবন্ধী শিক্ষা উপবৃত্তির বরাদ্দ ও উপকারভোগীর সংখ্যা একই স্থানে থেমে রয়েছে। গুরুতর প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মধ্যে যাদের ব্যক্তিগত সহায়তাকারীর প্রয়োজন তাদের অমানবিক জীবনযাপন করতে হচ্ছে। তাই তাদের অতিরিক্ত খরচ বিবেচনা করে ব্যক্তিগত সহায়তাকারি ভাতা প্রণয়নের আহ্বান জানাচ্ছি।

করোনা পরিস্থিতি ও জি২পি পদ্ধতি চালু করার দুই বছর পেরিয়ে গেলেও ভাতা পেতে দীর্ঘসূত্রিতা এখনো কাটেনি জানিয়ে সালমা মাহবুব বলেন, সাধারণ নাগরিকেরা প্রত্যাশা করে সরকার হবে গরিবের। অথচ আমরা দেখতে পাচ্ছি, সামাজিক সুরক্ষাখাত থেকে সরকারি কর্মচারীদের পেনশন, জাতীয় সঞ্চয়পত্রের সুদ এবং এমনকি প্রণোদনার অর্থও দেওয়া হলেও বঞ্চিত হচ্ছেন প্রান্তিক, দরিদ্র প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা। তাহলে প্রশ্ন এসেই যায় যে, সামাজিক সুরক্ষা খাত কি আসলেই শুধু দরিদ্রদের জন্য? সরকার দেশের ১ কোটি পরিবারকে ফ্যামিলি কার্ড দিচ্ছে। কিন্তু এ কার্যক্রমে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি বা তার পরিবারের যুক্ত হওয়ার কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। এমনকি বাংলাদেশ ব্যাংক তাদের ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের তথ্যভাণ্ডারে নারী ও পুরুষ উদ্যোক্তাদের তথ্য রাখলেও প্রতিবন্ধী উদ্যোক্তাদের কোনো তথ্য নেই।

এ সময় চলতি ২০২২-২৩ বাজেটে জাতীয় সংসদের বিবেচনার জন্য ১২টি দাবি তুলে ধরেন সালমা মাহবুব।

দাবিগুলো হলো: ১। ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটেই প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ভাতা ন্যূনতম ২,০০০ (দুই হাজার) টাকা করতে হবে।

২। ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটেই শতভাগ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপবৃত্তি ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ভাতা, উভয়ই নিশ্চিত করতে বরাদ্দ বৃদ্ধি করতে হবে।

৩। অবিলম্বে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া প্রতিশ্রুতি- প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের চাকরিতে নিয়োগ এবং কর্মসংস্থান নিশ্চিতকরণে বিশেষ নীতিমালা প্রণয়ন করতে হবে।

৪। সরকারি-বেসরকারি সব সেবার তথ্যভাণ্ডারে প্রতিবন্ধিতা বিভাজিত তথ্য রাখতে হবে।

৫। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের প্রবেশগম্যতা নিশ্চিতে সুনির্দিষ্ট বাজেট বরাদ্দ করতে হবে।

৬। মন্ত্রণালয়ভিত্তিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি সংবেদনশীল বাজেট বাস্তবায়নে বরাদ্দ দিতে হবে।

৭। নিউরো ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্ট (এনডিডি ট্রাস্ট), জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন (জেপিইউএফ) ও শারীরিক প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্টে মাধ্যমে গুরুতর প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য ব্যক্তিগত সহায়তাকারী (পরিচর্যাকারী/ব্যক্তিগত সহায়ক) ভাতা চালু করতে হবে।

৮। প্রতিবন্ধী ব্যক্তির করমুক্ত আয়সীমা ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা থেকে ৬ লাখ টাকায় উন্নীত করতে হবে।

৯। কর্মস্থলে ঝুঁকি বিমার গাইডলাইনে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার নিশ্চিত করতে হবে।

১০। প্রতিবন্ধী ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য নতুন প্রকল্প চালু করতে হবে।

১১। ভালো ফলাফল করে উচ্চশিক্ষায় উত্তীর্ণ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ৩ বছরের জন্য বেকারভাতা চালু করতে হবে।

১২। অবিলম্বে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি উন্নয়ন অধিদপ্তর বাস্তবায়ন করে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি সংগঠন ও অভিভাবক সংগঠনের কার্যক্রমকে বেগবান করতে এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের আরও সংগঠিত করতে সংগঠনগুলোর প্রতিটি কার্যক্রমের ব্যাপকতা অনুযায়ী সরকারি তহবিল থেকে প্রতি বছর ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত অনুদান দিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন এবিএফের প্রতিষ্ঠাতা ও জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মহুয়াপাল, ডিসিএফের সভাপতি হারুনউর রশীদ, নির্বাহী পরিচালক নাসরিন জাহান, ডিডিপির সভাপতি জাকির হোসেন প্রমুখ।


আরও খবর



সপ্তাহের রসালাপ: গোপালের গরু

প্রকাশিত:Friday ২৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

গোপাল ভাঁড় ছিলেন মধ্যযুগে নদিয়া অঞ্চলের একজন প্রখ্যাত রম্য গল্পকার, ভাঁড় ও মনোরঞ্জনকারী। তার আসল নাম গোপাল চন্দ্র প্রামাণিক। তিনি অষ্টাদশ শতাব্দীতে নদিয়া জেলার প্রখ্যাত রাজা কৃষ্ণচন্দ্রের রাজসভায় নিযুক্ত ছিলেন।

তিনি ছিলেন সৎ ও বুদ্ধিমান। বুদ্ধি ও সৎসাহস থাকার কারণে রাজা কৃষ্ণচন্দ্র তাকে তার সভাসদদের মধ্যকার নবরত্নদের একজন হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন।

গোপালের একবার একটি গরু হারিয়ে গিয়েছিল। চৈত্রের কাঠ ফাটা রোদ্দুরে বনবাদাড়ে খুঁজে খুঁজে সে বিকেলে নিজের বাড়ির দাওয়ায় ধপাস করে বসে ছেলেকে ডেকে বললে, ও ভাই, জলাদি এক ঘটি জল আনো, তেষ্টায় ছাতি ফেটে যাচ্ছে।

গোপাল হা-হুতাশ করে বলতে থাকে, ভাইরে! আর বুঝি বাঁচি না। কিন্তু ঘরে গোপালের কোন ভাই থাকত না। একমাত্র ছেলে, বৌ নিয়ে গোপালের সংসার।

গোপালের স্ত্রী রান্নাঘরে ছিল, সে গোপালের কথা শুনে বললে, মিনসের এতটা বয়েস হলো তবু যদি একটু কান্ডজ্ঞান থাকত! নিজের ছেলেকে ভাই বলে ডাকছে গা! ঘরে ছেলে ছাড়া কি আর কটা ভাই আছে গো তোমার!

স্ত্রীর কথা শুনে গোপাল বললে, সাধের গরু হারালে এমনই হয় মা! স্ত্রী মা ডাক শুনে একহাত জিভ বের করে সেখান থেকে পালিয়ে যেন বাঁচে। এ আবার কি কথা?

লেখা: সংগৃহীত
ছবি: সংগৃহীত

প্রিয় পাঠক, আপনিও অংশ নিতে পারেন আমাদের এ আয়োজনে। আপনার মজার (রম্য) গল্পটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়। লেখা মনোনীত হলেই যে কোনো শুক্রবার প্রকাশিত হবে।


আরও খবর



সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মোদীর শোক

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৭০জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের দুর্ঘটনায় শোক জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পাঠানো এক চিঠিতে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ ও পুনর্বাসনের জন্য বাংলাদেশ সরকারকে সব ধরনের সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।

মঙ্গলবার (৭ জুন) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রেস উইং।

চিঠিতে মোদী তার সরকার এবং ভারতের ভ্রাতৃপ্রতিম জনগণের পক্ষ থেকে আন্তরিক সমবেদনা ও সহানুভূতি প্রকাশ করেছেন এবং আহতদের দ্রুত সুস্থতার জন্য প্রার্থনা করেছেন।


আরও খবর



এজিএম পদে চাকরি দেবে প্রমি এগ্রো ফুডস

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

প্রমি এগ্রো ফুডস লিমিটেডে ‘অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার (এজিএম)’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ২৬ জুলাই পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: প্রমি এগ্রো ফুডস লিমিটেড
বিভাগের নাম: ফ্যাক্টরি

পদের নাম: অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার (জিএম)
পদসংখ্যা: নির্ধারিত নয়
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এমএসসি
অভিজ্ঞতা: ১৫ বছর
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে

চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: পুরুষ
বয়স: ৪০-৫০ বছর
কর্মস্থল: ঢাকা

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা jobs.bdjobs.com এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ২৬ জুলাই ২০২২

সূত্র: বিডিজবস ডটকম


আরও খবর