Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

ডিবি কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যা বললেন শাকিব খান

প্রকাশিত:সোমবার ২০ মার্চ ২০23 | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ২৯৫জন দেখেছেন

Image

বিনোদন প্রতিবেদক: ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কার্যালয়ে চার ঘণ্টা অবস্থান করেছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের নায়ক শাকিব খান। আজ রোববার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে তিনি সেখানে যান। আর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কার্যালয় থেকে বেরিয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

শাকিব খান বলেন, ‘গতকাল রাতে ভুয়া-প্রতারক নামধারী প্রযোজক রহমত উল্লাহর বিরুদ্ধে মামলা করতে আমি গুলশান থানায় গিয়েছিলাম। আপনার জানেন, আপনারও গিয়েছিলেন সেখানে। অনেক চেষ্টার পর আমি ওসি সাহেবের সঙ্গে কথা বলতে পেরেছি। কিন্তু গতকাল ওসি সাহেব আমার মামলাটা নিলেন না। তিনি বললেন, “আপনি যেখানের খুশি গিয়ে অভিযোগ করতে পারেন যে, আমি আপনার মামলাটা নিলাম না।” আমি সেখান থেকে বেড়িয়ে আসলাম।

ওই প্রযোজক সম্পর্কে নায়ক শাকিব খান বলেন, ‘এই বাটপার-প্রতারক রহমত উল্লাহ শুধু আমার সঙ্গে প্রতারণা করেনি, এই দেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। এই দেশের লাখো মানুষ যারা আমাকে ভালোবাসে, তাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। আমার মনে হয়, এই রহমত উল্লাহ একা ছিল না। এই রহমত উল্লাহর পেছনে অনেক লোক জড়িত। না হলে এই রহমত উল্লাহর মতো এমন ভুয়া প্রযোজক নামধারী বাটপার, ভুয়া প্রযোজক সেজে আমার নামে বিচার চেয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা। এ কারণে আমি ভুয়া প্রযোজকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেব। প্রযোজক নামধারী এ প্রতারক যেন দেশ ছেড়ে পালাতে না পারে, সেই কারণে আইনি ব্যবস্থা নিতে এখানে এসেছি।

ডিএমপির ডিবিপ্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদের থেকে আশ্বাস পেয়েছেন জানিয়ে শাকিব খান বলেন, ‘ডিবির মোহাম্মদ হারুন অর রশীদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি আমার সকল অ্যাভিডেন্স দেখেছেন। আমার সঙ্গে অনেকক্ষণ কথা বলেছেন। প্রতারণ রহমত উল্লাহর সকল অ্যাভিডেন্স দেখেছেন। তিনি আমাকে আশ্বস্ত করেছেন, অতিদ্রুত এই অভিযোগগুলো আমলে নিয়ে এই প্রতারণের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন। আমি ডিবি অফিসে লিখিত মামলা করেছি। তারা আমার মামলা আমলে নিয়ে দ্রুত একটি ব্যবস্থা নেবেন।

শাকিব খানের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ায় ‘অপারেশন অগ্নিপথ’ সিনেমার শুটিংয়ে শিডিউল ফাঁসানো ও সহনারী প্রযোজককে ধর্ষণের মতো গুরুতর অভিযোগ তোলেন রহমত উল্লাহ নামের সহপ্রযোজক। এই অভিযোগ তোলার পর তার নামে মামলা করতে গতকাল গুলশান থানায় যান শাকিব খান। থানায় মামলা না নেওয়ায় সেই প্রযোজকের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে আজ ডিবি কার্যালয়ে আসেন এই সুপারস্টার।


আরও খবর



ফুলবাড়ীতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগদানের প্রতিবাদে বিক্ষোভসহ মানববন্ধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৬৫জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের যোগসাজসে তাদের মনোনিত ব্যক্তিকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগদানের উদ্যোগের প্রতিবাদে বিক্ষোভসহ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারি-অভিভাবকসহ এলাকাবাসী।

সোমবার (১০ জুন) সকাল ১১ টায় ফুলবাড়ী উপজেলার দৌলতপুর ইউপির জয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারি-অভিভাবকসহ এলাকাবাসী বিদ্যালয় চত্বরে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালনসহ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে দাবির সমর্থনে বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. রায়হান আলী, সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মোছা. তাহেরা বেগম, সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. শাহানুর আলম, সহকারী শিক্ষক ওয়াহেদ আলী, সহকারী শিক্ষক আশরাফুল আলম, বিদ্যালয়ের জমিদাতা আফজাল তালুকদার, অভিভাবক মোহাম্মদ আলম, এজাজ ম-ল, শিক্ষার্থী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সুমাইয়া আক্তার, ফাহারিয়া আক্তার রিয়া, জান্নাতুন তাজরিন, মোহনা জান্নাত, ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী ¯িœগ্ধা আক্তার ইতিমনি, তাজমুন নাহার রীতা সহ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন।

মানবন্ধন শেষে বিদ্যালয় চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল প্রদর্শন করেন শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারি-অভিভাবকসহ এলাকাবাসী।

জয়নগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. রায়হান আলী, সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মোছা. তাহেরা বেগম ও সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. শাহানুর আলম বলেন, ম্যানেজিং কমিটিকে পাশ কাটিয়ে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আব্বাস উদ্দিন মন্ডল ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুনীল চন্দ্র রায় যোগসাজস করে সরকারি বিধি বহির্ভূতভাবে পার্শ্ববর্তী বিরামপুরের মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মামুনুর রশিদকে প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগের পাঁয়তারা করছেন। গত ১৮/০৫/২০২৪ ইং তারিখের ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তে প্রধান শিক্ষকের পদের নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও সেই সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে এবং কমিটির কাউকে কোনো কিছু না জানিয়ে গোপনে মামুনুর রশিদকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য আজ সোমবার (১০ জুন) সকাল ১০টায় দিন ধার্য করেন প্রধান শিক্ষক ও কমিটির সভাপতি। এজন্য আবেদনকারিদের কাউকে মৌখিকভাবে আবার কাউকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হলে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারি-অভিভাবকসহ এলাকাবাসী বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছেন। এরই অংশ হিসেবে তারা অবৈধ প্রক্রিয়া মামুনুর রশীদকে প্রধান শিক্ষকের পদে নিয়োগের উদ্যোগ বন্ধসহ অবৈধ পন্থা অবলম্বনকারিদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভসহ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। তবে বিক্ষোব ও মানববন্ধনের জন্য সকালে নিয়োগ পক্রিয়া স্থাগিত করেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। তবে বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ ১১/০৬/২০২৪ ইং তারিখ মঙ্গলবার শেষ হয়ে যাবে। এ কারণে সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক তড়িঘড়ি করে নিয়োগ পক্রিয়া শেষ করে তাদের অসৎ উদ্দেশ্য হাসিলের অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। 

বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থী সুরাইয়া আক্তার রিতু ও রিক্ত চন্দ্র রায় বলে, কোনো বিতর্কিত ব্যক্তিকে প্রধান শিক্ষক হিসেবে বিদ্যালয়ে চাই না। মামুনুর রশিদকে নিয়োগ দেওয়া হলে তারা বিদ্যালয়ে তারা ঝুঁলিয়ে দেবেন বলে জানান। 

 অভিভাবক মোহাম্মদ আলম ও এজাজ ম-ল বলেন, কোনো বিতর্কিত ব্যক্তিকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিতে দেবে এলাকাবাসী। স্বচ্ছ ও সরকারি বিধি মোতাবেক একজন যোগ্য ব্যক্তিকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ দিতে হবে। এটা করা না হলে এলাকাবাসী বিদ্যালয়ে তালা ঝুঁলিয়ে দিতে বাধ্য হবেন।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুনীল চন্দ্র রায়কে তার ০১৩০৯ ১২০৪২৩ এবং ০১৭৬১ ৩৮১৮৭৯ নম্বরে মুঠোফোন একাধিকবার ফোন করা হলে মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্বাস উদ্দিন মন্ডলের ০১৭৪৭ ৫৪৭৭২৫ নম্বরের মুঠোফোনে ফোন করা হলে ফোনে গ্রহণ করেন’নি।

নিয়োগ বোর্ডের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষার মহাপরিচালকের প্রতিনিধি বিরামপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যায়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল খালেক মুঠোফোনে বলেন, ওই বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে মৌখিকভাবে বলেছেন, তবে লিখিতভাবে এখনও জানাননি। ফলে এ বিষয়ে কোনো কিছু জানেন না তিনি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নূর আলম বলেন, মৌখিকভাবে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে বলা হলেও লিখিতভাবে কোনো কিছু বলা হয়নি। ফলে নিয়োগ হবে কি না তাও তিনি জানেন না।

জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ জাফর আরিফ চৌধুরী বলেন, ওই বিদ্যালয়ে নিয়োগ বোর্ডের সদস্য হিসেবে তাকে লিখিতভাবে কোনো কিছু জানানো হয়নি। ফলে তিনিও জানেন না নিয়োগ হবে কি না।


আরও খবর

ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪




বগুড়ায় হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ২০ মে ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | ১১৩জন দেখেছেন

Image
বগুড়া বিশেষ প্রতিনিধি:বগুড়া"র র‌্যাব-১২, সিপিএসসি,  সদস্য গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, বগুড়া জেলার শেরপুর থানাধীন সীমাবাড়ী এলাকায় ধুনট থানার মামলা নং-৬, জিআর ১১২/৯৯ (ধুনট) এর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী মোঃ আব্দুর রহিম (৫৫) অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে ১৯ মে ২০২৪ ইং তারিখে বগুড়ার র‌্যাব-১২, সিপিএসসি,  একটি আভিযানিক দল  জেলার শেরপুর থানাধীন সীমাবাড়ী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী মোঃ আব্দুর রহিম (৫৫), পিতা- খলিলুর রহমান, সাং- প্রতাব খাদুলী, থানা- ধুনট, জেলা- বগুড়া’কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। 

মোঃ সোহেল রানা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার স্কোয়াড কমান্ডার সিপিএসসি, র‌্যাব-১২, বগুড়া একটি প্রেস রিলিজ জানান, ১৯৯৯ সালে আসামী তার আপন চাঁচাকে জমিজমার বিরোধ নিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে আত্মগোপন করে। আসামী নিজ পরিচয় গোপন করে ভুয়া এনআইডি তৈরী করে স্ত্রীসহ ঢাকায় বসবাস করতেন। দীর্ঘ ২৪ বছর পর র‌্যাবের তৎপরতায় তাকে সনাক্ত করে গ্রেফতার। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ধুনট থানা, বগুড়ায় হস্তান্তর করা হয়েছে। 

আরও খবর



‘বিএনপি দেশটাকে শ্রীলঙ্কা বানানোর চেষ্টা করছে’

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৫৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মন্তব্য করেছেন বিএনপিসহ তাদের সমর্থকরা দেশটাকে শ্রীলঙ্কা বানিয়ে ফেলার চেষ্টা করছে। 

মঙ্গলবার (১৮ জুন) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, মূল্যস্ফীতির মধ্য দিয়ে এক কোটি ৪০ লাখের বেশি কোরবানি হয়েছে। যা গতবারের তুলনায় বেশি। মূল্যস্ফীতির কারণে ঈদ ব্যাহত হয়েছে, বিএনপির এ তথ্য ঠিক নয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, মূল্যস্ফীতি আছে তবে এটা কমাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঈদের দিনেও সরকারের বিরুদ্ধে বিএনপির অপপ্রচার বন্ধ হয়নি। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে কোনো বক্তব্য দেওয়া হয়নি।

মিয়ানমারের বিষয়ে মির্জা ফখরুলকে চ্যালেঞ্জ করে তিনি বলেন, সার্বভৌমত্বের কোথায় আঘাত হানা হচ্ছে। অনুপ্রবেশকারীরা চলে গেছে জাহাজও সরে গেছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা দিয়েছে শেখ হাসিনা এবং দুদককেও স্বাধীন করেছেন তিনি। যতই প্রভাবশালী হোক দুর্নীতি করলে কারো ছাড় নেই। বিএনপি শাসনামলে এমন কোনো পদক্ষেপ দেখা যায়নি।


আরও খবর



ehp[

দেশজুড়ে বইছে ঈদ আনন্দ, চলছে পশু কোরবানি

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার,স্টাফ রিপোর্টার:মহান আল্লাহর অপার অনুগ্রহ লাভের আশায় সারাদেশে উদযাপিত হচ্ছে মুসলমানদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা। মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সামর্থ্য অনুযায়ী পশু কোরবানি করছেন।

সোমবার (১৭ জুন) সকালে ঈদের নামাজ শেষেই পশু কোরবানিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন মুসলমানরা। দেশজুড়ে পাড়া-মহল্লার অলিগলিতেই পশু কোরবানির দৃশ্য চোখে পড়ে।

জাতীয় ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত

জাতীয় ঈদগাহ মাঠে সকাল সাড়ে ৭টায় ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঈদের প্রধান জামাতে অংশ নিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন, প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান,  ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, মন্ত্রীপরিষদ সদস্য, সংসদ সদস্য, সুপ্রিম কোর্ট ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতিরা।

এছাড়াও জাতীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় করেন রাজনৈতিক নেতা, সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকসহ নানান শ্রেণিপেশার ও বয়সের মুসল্লিরা।

রাজধানীতে ঈদ আয়োজন 

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কোথাও বাসার নিচের গ্যারেজে, কোথাও বাসার সামনের রাস্তায়, আবার কোথাও এলাকার ফাঁকা মাঠের মধ্যে পশু কোরবানি চলছে।

এদিকে, চুক্তিতে পশুর মাংস কাটতে আসা কসাইরাও ব্যস্ত সময় পার করছেন। একটার পর একটা পশুর চামড়া ছাড়িয়ে মাংস প্রস্তুত করে দিচ্ছেন তারা।

চট্টগ্রামে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত, চলছে পশু কোরবানি

চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ৭টায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) তত্ত্বাবধানে জমিয়তুল ফালাহ মসজিদ মসজিদে প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। একই মসজিদে সোয়া ৮টায় দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবার নামাজ শেষে খুতবা দেওয়া হয়। খুতবা শেষে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে দোয়া করা হয়। 

মসজিদটিতে শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এবং বিএনপি নেতা মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন নামাজ আদায় করেন।

নামাজ শেষে ফিলিস্তিনিদের জন্য বিশেষ দোয়া

আল্লাহর উদ্দেশে পশু কোরবানির আগে মসজিদ ও ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হয়েছে ঈদুল আজহার নামাজ। নামাজের আগে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় ধর্মীয় বিধিবিধান, নিয়ম মেনে কোরবানি করা, অসহায়দের মাঝে কোরবানির গোশত বিতরণের বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেন ইমামরা। নামাজ শেষে সব জায়গায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। দেশজুড়ে ফিলিস্তিনের নির্যাতিত মুসলমানদের নিয়ে প্রার্থনা করা হয়েছে। পাশাপাশি দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

সিলেটে জলমগ্ন ঈদ, বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

ভারি বৃষ্টিতে সিলেট নগরে ভয়াবহ জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। পানিতে তলিয়ে গেছে নগরের বেশির ভাগ এলাকা। ঈদের সকালে এমন পরিস্থিতি দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী।

জলাবদ্ধতার কারণে নগরের অনেক ঈদগায়ের ঈদের জামাত পেছানো হয়েছে। বাসা বাড়ি ও সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় কোরবানি দেয়া নিয়েও দুশ্চিন্তায় স্থানীয়রা।

এদিকে পাহাড়ি ঢলে নগরের বাইরে উপজেলাগুলোতে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। বিশেষত সুনামগঞ্জ শহরে ঢুকে পড়েছে বন্যার পানি।

আরও খবর



শীঘ্রই সুফল পেতে যাচ্ছে তিতাস গ্যাসের গ্রাহকরা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ২৪০জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃসরকারের সদিচ্ছা এবং তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হারুনুর রশিদ মোল্লাহ নানামুখী সংস্কার মূলক কাজ হাতে নেওয়ায় তিতাস গ্যাসের গ্রাহকদের সুদিন ফিরছে শীঘ্রই। গ্রাহকদের জন্য নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যেই বেশ কিছু ছোট বড় মাঝারি প্রকল্প হাতে নিয়েছে তিতাস গ্যাস। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনায় এবং জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, পেট্রো বাংলার চেয়ারম্যান জনেন্দ্র নাথ সরকারসহ তিতাস গ্যাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জ্বালানি খাতকে আরো জনবান্ধব হিসেবে গড়ে তুলতে নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছেন। যার মধ্যে রয়েছে পুরাতন বিতরণ লাইন গুলো অপসারণ করে আধুনিক বিতরণ লাইন স্থাপন, আবাসিক বাড়িতে এবং শিল্প বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে সম্পূর্ণ ডিজিটাল পদ্ধতিতে গ্যাস বিতরণ ব্যবস্থা এবং সেবা নিশ্চিত করে তিতাসকে একটি স্মার্ট কোম্পানিতে রূপান্তর করা। তিতাস গ্যাসের উৎসে মিটার বসিয়ে গ্যাসের খরচ নিরূপণ করা, এবং বাসা বাড়ি কলকারখানায় মিটার বসিয়ে গ্যাসে প্রকৃত রাজস্ব আদায় করে লোকসান কমিয়ে আনা, অনিয়ম দুর্নীতি রোধকল্পে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের শাস্তি মূলক ব্যবস্থা গ্রহণ, কোম্পানির বাইরে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের গ্যাস লাইনে অবৈধ হস্তক্ষেপ বন্ধ করা সব মিলিয়ে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে তিতাস গ্যাসকে একটি উন্নয়ন বান্ধব প্রতিষ্ঠান হিসেবে দাঁড় করানোই এখন প্রধান চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জ বাস্তবায়নে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছেন তিতাস গ্যাসের এমডি হারুনুর রশিদ মোল্লাহ। গত তিন মেয়াদে ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে ধারাবাহিক সাফল্যের পরিচয় দিয়ে তিতাসকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরের রোড ম্যাপ তৈরি করেছেন তিতাস গ্যাসের এমডি হারুনুর রশিদ মোল্লা । তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের বর্তমান ব্যাবস্থাপনা পরিচালক হারুনুর রশিদ মোল্লাহ 

জানান,ঢাকা সহ নারায়ণগঞ্জে ১২ হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে যে প্রকল্পে আমরা সহযোগিতা পাচ্ছি এনডিবি ব্যাংক থেকে তারা ৫০০ মিলিয়ন ডলার সহযোগিতা করতে রাজি হয়েছে বাকি টাকা আমরা নিজেরা ইনভেস্ট করব, এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে ঢাকা সহ আশেপাশের এলাকায় নিরবিচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিত হবে, ইন্ডাস্ট্রি যাতে নিরবিচ্ছিন্ন করা যায় সেখানে কিভাবে দ্রুত অটোমোশন আনতে পারি মিটারের আওতায় আনতে পারি সেজন্য তিতাস ইতিমধ্যে ৩০ লক্ষ প্রিপেইড মিটার ইনস্টলেশন করার জন্য এডিবি ওয়ার্ল্ড ব্যাংক এবং জাপান ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ করেছে, তারা আমাদের আর্থিকভাবে সহযোগিতা করার জন্য রাজি হয়েছে, এখন কনসালটেন্ট নিয়োগ করে এই বছরের মধ্যে টেন্ডারে চলে যাবে তিতাস।

এ ধরনের আরো বেশ কিছু প্রকল্প হাতে নিয়েছে তিতাস। যে প্রকল্প গুলো বাস্তবায়িত হলে তিতাস গ্যাস একটি স্মার্ট প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরিত হবে। এবং তিতাস গ্যাসের নিরবচ্ছিন্ন সেবা পাবে আবাসিক বাণিজ্যিক শিল্প কলকারখানা গুলো। গ্যাসের চাপ সব জায়গায় একই রাখা নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে। দেশব্যাপী শিল্প কল-কারখানাগুলোতে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সংযোগ দিতে তিতাস গ্যাস এখন অনেক তৎপর।


আরও খবর