Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম

ধানের রাজ্য আত্রাইয়ে গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে কাঁঠাল

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৩০জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:উত্তর জনপদের ধানের রাজ্য হিসেবে খ্যাত নওগাঁর আত্রাইয়ে গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে মধু মাস জ্যৈষ্ঠের বেশ জনপ্রিয় পুষ্টিগুণ সম্পন্ন রসালো ফল কাঁঠাল। যদিও কাঁঠাল পাকতে সময় বাকি রয়েছে আরও প্রায় মাস।

প্রবাদ আছে ‘গাছে কাঁঠাল গোঁফে তেল’- জ্যৈষ্ঠ মাসে এ কথাটি আর কথার কথা থাকে না। গাছে কাঁঠাল দেখলে এ কথা সবাই বলতেই পারে। বর্তমানে উপজেলার প্রতিটি এলাকার গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে রসালো ফল কাঁঠাল। উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বাড়ির পাশে, রাস্তার ধারে, জঙ্গলের ভেতরে থাকা গাছে ধরেছে প্রচুর পরিমাণে কাঁঠাল। গাছের গোঁড়া থেকে আগা পর্যন্ত শোভা পাচ্ছে সর্বোচ্চ পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ এই ফল।

খাদ্য শষ্য ভান্ডার হিসেবে নওগাঁ জেলা বিখ্যাত হলেও এখানকার মানুষের অতি প্রিয় ফল ও তরকারি হিসেবে কাঁঠাল যুগ যুগ ধরে কদর পেয়ে আসছে। কাঁঠালের বিচি উপজেলার মানুষের একটি ঐতিহ্যপূর্ণ তরকারি। বিশেষ করে কাঠালের বিচি দিয়ে শুটকি ভর্তা অত্যন্ত প্রিয় সকলের। বিভিন্ন ধরনের শাক ও কাঁঠালের বিচির সমন্বয়ে রান্না করা তরকারি এখানকার মানুষ তৃপ্তির সঙ্গে ভাত খেতে পারেন। তাছাড়া গবাদিপশুর জন্যও কাঁঠালের ছাল উন্নতমানের গো-খাদ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এক প্রকারের সবুজ রঙের সুমিষ্ট গ্রীষ্মকালীন ফল।

এটি বাংলাদেশের জাতীয় ফল হিসেবে সরকারিভাবে নির্ধারিত। বাংলাদেশের সর্বত্র কাঁঠাল গাছ পরিদৃষ্ট হয়। কাঁঠাল গাছের কাঠ আসবাবপত্র তৈরির জন্য সমাদৃত। কাঁঠাল পাতা বিভিন্ন প্রাণির পছন্দের খাদ্য। তুলনামূলকভাবে বিশালাকার এই ফলের বহির্ভাগ পুরু এবং কান্টকাকীর্ণ, অন্যদিকে অন্তরভাগে একটি কান্ড ঘিরে থাকে অসংখ্য রসালো কোয়া। কাঁঠালের বৃহদাকার বীজ কোয়ার অভ্যন্তরভাগে অবস্থিত।

উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের ব্যবসায়ী খন্দকার রফিকুল ইসলাম বলেন, তার ২০টি কাঁঠাল গাছে সমানতালে কাঁঠাল ধরেছে। তিনি এবার ৫০ হাজার টাকার কাঁঠাল বিক্রি করবেন বলে আশা করছেন। এ বছর প্রাকৃতিক দুর্যোগের কবলে না পড়ায় কাঁঠালের ভালো ফলন হয়েছে।

 উপজেলার দিঘা গ্রামের কামরুল জানান, আমার নিজের ১০টি কাঁঠাল গাছ আছে। তার গাছে প্রচুর কাঁঠাল ধরেছে। এ বছর তার কাঁঠাল বিক্রির আশা ৩০ হাজার টাকা।

এ বিষয়ে উপজেলার বজ্রপুর গ্রামের মজিদ মন্ডল বলেন, কাঁঠাল আমার একটি প্রিয় ফল। এটি অত্যধিক পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ ফল। কাঁঠালের কোনো অংশই পরিত্যক্ত থাকে না। কাঁঠাল যেমন জনপ্রিয়, কাঁঠালের বিচি ও খুব জনপ্রিয় খাবার। বিভিন্ন সবজির সাথে কাঁঠালের বিচি মিশিয়ে ছোট মাছ দিয়ে রান্না করা তরকারি, শুটকি মাছের সাথে কাঁঠালের বিচি আর ডাঁটার তরকারি, কাঁঠালের বিচি ভর্তা এ রকম অসাধারণ সব স্বাদের খাবার তৈরিতে কাঁঠাল বিচি আলুর বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা হয়। কাঁঠালের কদরও বহুগুণের এমন কথা জানালেন কাঁঠালপ্রেমি প্রবীণ ব্যক্তিরাও। বহুগুণ সমৃদ্ধ এ কাঁঠাল এখানকার হাট-বাজারে এখনও উঠতে শুরু করেনি। তবে জ্যৈষ্ঠের শেষ ও আষাঢ় মাসের শুরু থেকে এখানকার হাট-বাজারে কাঁঠাল কেনাবেচা শুরু হবে এমনটি কাঁঠাল ব্যবসায়ীদের ধারণা।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ প্রসেনজিৎ তালুকদার বলেন, এ উপজেলায় তেমন একটা কাঁঠালের বাগান নেই তবে দিন দিন বাড়ছে।

তিনি আরও বলেন, গত বছরের তুলনায় এ বছর উপজেলায় কাঁঠাল ভালো হয়েছে। দিন দিন উপজেলার মানুষের মাঝে কাঁঠালের চারা রোপনের আগ্রহ বাড়ছে। 

তবে এ উপজেলায় কাঁঠাল প্রক্রিয়াজাত করার কোনো ব্যবস্থা না থাকায় কৃষকরা তাদের ন্যায্য দাম থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অবিলম্বে অত্র এলাকায় একটি কাঁঠাল প্রক্রিয়াজাত ব্যবস্থা গড়ে তুললে এ উপজেলার মানুষ অর্থনৈতিকভাবে উপকৃত হবে বলে মনে করছেন এলাকার সচেতন মহল।


আরও খবর



ছাত্রলীগ নেতা হত্যা আহাজারীতে নিস্তব্ধ মানববন্ধনস্থল,এজাহারভুক্ত এক আসামী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১১১জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে শনিবার সকালে ছাত্রলীগ নেতা আল- আমিনের হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করে শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। এসময় পরিবারের আহাজারীতে কিছুক্ষণ নিস্তব্ধ হয়ে পড়ে মানববন্ধনস্থল। ওই কলেজের র‌্যাগ-ডে অনুষ্ঠানের শুধু অনাকাঙ্খিত ঘটনাই নয়, তাকে হত্যাকান্ডে রহশ্যের বিভিন্ন ইঙ্গিত করেন বক্তারা। পরে আজ রোববার কলেজের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচী ঘোষণা দেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

মানববন্ধন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার কালিয়াকৈরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সরকারী কলেজের ছাত্রলীগের নেতা আল আমিন হোসাইনকে(১৯) প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করেছে সংগঠনের একপক্ষের নেতাকর্মীরা। তিনি কলেজের ডিগ্রী প্রথম বর্ষের ছাত্র ও দ্বাদশ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। তিনি উপজেলার বরিয়াবহ এলাকার মোতালেব হোসেনের ছেলে। এ নৃশংস হত্যাকান্ডের দুইদিন পেরিয়ে গেলেও মুল আসামীদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তার হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবীতে শনিবার সকালে উপজেলার চন্দ্রা এলাকায় মানববন্ধনের আয়োজন করেন ওই কলেজের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। এসময় নিহতের বাবা, দাদী, নানা, ফুফুসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের আহাজারীতে কিছুক্ষণ নিস্তব্ধ হয়ে পড়ে মানববন্ধনস্থল। নিহতের বাবা মোতালেব হোসেন আহাজারীতে বলেন, এ কেমন নোংরা রাজনীতি? মায়ের বুক খালি হলো। ছেলেকে হারিয়ে আমার যে কি যন্ত্রণা? আমি জানি। আমার ছেলেকে পরিকল্পিত কত্যাকান্ড। এখানে স্বাক্ষীর দরকার নাই, সিসি ক্যামেরার ভিডিও স্বাক্ষী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই। এসময় কাঁদতে কাঁদতে পড়ে যান নিহতের বৃদ্ধ নানা আমছের আলী।

তিনিও আহাজারীতে বলেন, আমার একটা মাত্র নাতিগো। আমার নানা মরলো কেন? যারা নানা ভাইরে মারছে, তাগো ফাঁসি চাই। নানা প্রলাপে আহাজারী করেন নিহতের বৃদ্ধা দাদী মহরজান, বড় ফুফু আসমা বেগম, মামা হারুণ মিয়াসহ অন্যান্য স্বজনরা। তাদের আহাজারীতে কিছুক্ষণের জন্য নিস্তব্ধ হয়ে পড়ে মানববন্ধনস্থল। পরে আল আমিন মরলো কেন? জবাব চাই, প্রশাসন চুপ কেন? জবাব চাইসহ নানা শ্লোগানে ফেস্টুন ও ব্যানার নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে মানববন্ধনের অংশগ্রহণকারীরা।

মিছিলটি ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক ও চন্দ্রা-বলিয়াদি আঞ্চলিক সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরিবারের সদস্য ছাড়াও মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা আওয়ামীলীগের সসদ্য ফরহাদ হোসেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সরকারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আজাদ কামাল সোহানসহ আরো অনেকে। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন- শিক্ষার্থী, ছাত্রলীগের নেতাকর্মী, পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী। এসময় বক্তারা বলেন, ওই কলেজের র‌্যাগ-ডে অনুষ্ঠানের শুধু অনাকাঙ্খিত ঘটনাই নয়, ছাত্রলীগ নেতা আল আমিনের হত্যাকান্ডে নানা রহশ্যের ইঙ্গিত করে। গুটি কয়েক লোকের জন্য ৯ বছর আগে যুবলীগ নেতা রফিকুল ও দুইদিন আগে ছাত্রলীগ নেতা আল আমিন হত্যাকান্ডের মতো ঘটনা ঘটছে। তাদের চিহিৃত করে আইনের আওতায় আনলে আর এমন নৃশংস ঘটনা ঘটবে না। তবে ২৪ ঘন্টার মধ্যে আল আমিনের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার না করলে সড়ক অবরোধসহ বিভিন্ন কর্মসূচী দেওয়া হবে। এছাড়াও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী, ইউএনওসহ সরকারী বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপি দেওয়া হবে। ওই মানববন্ধন শেষে রোববার কলেজের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচী ঘোষণা দেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এদিকে কালিয়াকৈর থানার এসআই জামিনুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে শুক্রবার রাতে উপজেলার কালামপুর এলাকা থেকে কালিয়াকৈর পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিলনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি উপজেলার কালামপুর এলাকার মোতালেব মিয়ার ছেলে।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম নাসিম জানান, আল আমিনের হত্যাকান্ডের ঘটনায় মিলন নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


আরও খবর



ভোলায় "রাসেল ভাইপার" আতঙ্ক

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৮২জন দেখেছেন

Image

শরীফ হোসাইন, ভোলা বিশেষ প্রতিনিধি:ভোলায় গত ৪ দিনে ৩টি রাসেল ভাইপার সাপ ধরা পড়ায় ছড়িয়ে পড়েছে আতঙ্ক। ঘূর্ণিঝড় রিমালের আঘাতের পর প্রকাশ্যে দেখা মিলছে এই রাসেল ভাইপারের। বিষধর এই সাপ সম্পর্কে গ্রামগঞ্জের মানুষের মধ্যে ধরনা বা পরিচিতি একেবারেই নেই বললেই চলে। ইতোপূর্বে ভোলায় দু-একটি ধরা পড়লেও তা অবমুক্ত করা হয়েছিল। সম্প্রতি ভোলা জেলার বিভিন্ন এলাকায় ধরা পড়ছে রাসেল ভাইপার।

গত রোববার (১৬ জুন) ভোলার লালমোহন উপজেলার লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সৈয়দাবাদ এলাকার হেমায়েত মাওলানা বাড়ির সাখাওয়াত হোসেন নামে এক ব্যক্তির বাথরুমে সাপটির দেখা মেলে। এ নিয়ে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। যদিও আতঙ্কিত হয়ে সাপটিকে তাৎক্ষণিক পিটিয়ে মেরে ফেলেন লোকজন। 

এর দুইদিন পর মঙ্গলবার (১৮ জুন) ভোলা সদরের পূর্ব ইলিশায় এক বসত বাড়ির পাশের রাস্তায় দেখা মেলে বিষধর এ সাপটিকে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয় সাপটি।

এদিকে একই দিনে দৌলতখান উপজেলায় বিষধর সাপ রাসেল ভাইপারের কামড়ে ৩টি বিড়ালের মৃত্যু হয়েছে। পরে স্থানীয়রা আতঙ্কিত হয়ে সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছেন। বিড়াল তিনটিকেও নদীতে ফেলে দেওয়া হয়। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের জালু মাঝির বসত ঘরে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাতে জালু মাঝির বসতঘরে খাটের নিচে তিনটি বিড়াল মৃত অবস্থায় দেখেন ঘরের লোকজন। পরে ঘরের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজির পর হঠাৎ করে বিষধর সাপ রাসেল ভাইপারকে বের হতে দেখেন। এই দৃশ্য দেখে তারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। পরে বাড়ির লোকজন এসে সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন। পরে জানতে পারেন সাপটি বিষধর রাসেল ভাইপার।

অন্যদিকে ২০২১ সালের ১৮ ডিসেম্বর দৌলতখান উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়ন থেকে বিষধর রাসেল ভাইপার সাপ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে বন বিভাগকে খবর দিলে তারা সাপটি উদ্ধার করে তজুমদ্দি উপজেলার শশিগঞ্জ বিটের গহীন অরণ্যে অবমুক্ত করেন। এ নিয়ে দৌলতখান উপজেলায় দুটি রাসেল ভাইপার সাপের সন্ধান পাওয়া গেছে। 

এ বিষয়ে ভোলার বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক বলেন, রাসেল ভাইপার সাপ লোকালয়ে সাধারণত খুব কমই আসে। বাচ্চা দেয়ার কারণে হয়তো ওই সাপটি লোকালয়ে চলে আসতে পারে। তবে সবাইকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এছাড়া কেউ এসব সাপ দেখলে মেরে না ফেলে স্থানীয় বন বিভাগের কর্মকর্তাদের জানানোর অনুরোধ করেন।

তথ্য অনুযায়ী উত্তর এবং উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোতেই এ সাপের উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছিল। এ প্রজাতির সাপের সবচেয়ে বেশি উপস্থিতি ছিল রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায়। তবে বর্তমানে দক্ষিণাঞ্চলের উপকূলীয় এলাকায় এ প্রজাতির সাপের উপস্থিতি বেড়ে গেছে। উত্তরবঙ্গে রাসেল ভাইপার সাপ চন্দ্রবোড়া বা উলুবোড়া নামে পরিচিত।

সাপটির গাঁয়ের রং এবং চিত্রাকৃতির হওয়ায় ভোলার বেশিরভাগ মানুষ এটিকে নদীতে বাস করা অথবা অজগরের ছদ্মনাম বলেই জানে। বাংলাদেশে যে সব সাপ দেখা যায় সেগুলোর মধ্যে এটিই সবচেয়ে বিষাক্ত সাপ।

আফ্রিকা উপমহাদেশ থেকে আসা এ বিষধর সাপের উপদ্রব এখনই কমানো না গেলে পরে আরও মারাত্মক আকার ধারণ করবে বলে আশঙ্কা করছেন সচেতনমহল।


আরও খবর



ঈদ আয়োজনে কাজী শুভ'র ক্ষত

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার,স্টাফ রিপোর্টার:ঈদ মানেই তারকাদের ভিন্ন ভিন্ন আয়োজন। ভালো  কিছুর প্রতিযোগিতা। কাজী শুভ বরাবরই একজন জনপ্রিয় গায়ক। সারা বছরই তার ব্যস্ততা থাকে।এবারের ঈদুল আজহা উপলক্ষেও বেশ কিছু গানে কন্ঠ দিয়েছেন, উল্লেখযোগ্য একটি গানের শিরোনাম 'ক্ষত।

শামিম মাহমুদের কথা সুর ও সঙ্গীতায়োজনে গানটির মিউজিক ভিডিও পরিচালনা করেছেন চলচ্চিত্র পরিচালক গোলাম রাব্বানী কিশোর, সাম্প্রতি গাজীপুর কালীগঞ্জের জাকিরের বাড়ি শেষ হয়েছে শুটিং। চলচ্চিত্র পরিচালক ও কাহিনীকার রুবেল মাহমুদ এর গল্পে ক্ষত শিরোনামের এই গানে অভিনয় করেছেন রাসেল গাজী, সিমরান,মিলন ও শিল্পী কাজী শুভ নিজেও অংশ নিয়েছেন শুটিংয়ে। ক্ষত গানের মিউজিক ভিডিও টি এন আর এল ক্রিয়েশন নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল এ ঈদের আগের রাতে প্রকাশ পাবে।

আরও খবর



এমপি আনার হত্যা মামলায় আটক শিমুল ভূঁইয়ার 'সেকেন্ড ইন কমান্ড' সাইফুল বিস্ফোরক সহ আটক

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৯২জন দেখেছেন

Image
ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:ভারতের কলকাতায় সাংসদ আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যা মামলায় জড়িত চরমপন্থি পূর্ব বাংলার নেতা শিমুল ভূঁইয়ার 'সেকেন্ড ইন কমান্ড' সাইফুল আলমকে আটক করেছে যশোর ডিবি পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে একটি ভারতীয় নম্বরের মোবাইল ও বিস্ফোরক জব্দ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮মে) রাত সাড়ে নয়টার দিকে যশোর শহরের রায়পাড়া বাবলাতলা এলাকার  আদর্শ মৎস্য হ্যাচারী থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মৎস্য শ্রমিক পরিচয়ে সাইফুল মেম্বার সেখানে আত্মগোপনে ছিলেন। 

ডিবি পুলিশের দাবী সাইফুল ওই হ্যাচারিতে পাঁচ দিন ধরে অবস্থান করছিলেন। 

যশোর ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, সাইফুল চরমপন্থী শিমুল ভুঁইয়ার 'সেকেন্ড ইন কমান্ড' হিসেবে পরিচিত। সে যশোরের উদয় শঙ্কর হত্যা, রাকিব হত্যা, সুব্রত হত্যা মামলায়  চার্জশিটভুক্ত আসামী ।  সে এসকল হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার  করেছে।  শিমুল ভুইয়া আটকের পর সে গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোপনে চলে যায়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে যশোর শহরের রায়পাড়া বাবলাতলা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ডিবি পুলিশের একটি দল। এ সময় ওই এলাকার আদর্শ মৎস হ্যাচারী থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি ভারতীয় নম্বরের মোবাইল ও বিস্ফোরক জব্দ করা হয়েছে।

সে যশোরের একাধিক  হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

এক প্রশ্নের জবাবে এসআই মফিজুল ইসলাম বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে সাইফুল্লাহ মেম্বার সাতক্ষীরা ও ভারত সীমান্ত এলাকায় ছিল। সে ভারতীয় মোবাইল নম্বর দিয়ে যোগাযোগ করতো ৷

আরও খবর



আজ প্রথম অফিস করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জুন 2০২4 | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৮৭জন দেখেছেন

Image

মোঃ আব্দুল হান্নান,নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া:- আজ ২রা জুন ২০২৪ রোজ রবিবার সকাল ১১ ঘটিকার সময় ফিতা কেটে উদ্ধোধন করে প্রথম অফিস করলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি রোমা আক্তার।

এ সময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন,বাংলাদেশ কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইমরানুল হক ভূইয়া,অফিসার ইনচার্জ মোঃ সোহাগ রানা,সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ কাজী রবিউল সারােয়ার

ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ কামরুল হুদা আলমগীর মাষ্টার,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিটা আক্তার রিয়া।

এ সময় দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।সকাল ১১ঘটিকার সময় ফিতা কেটে অফিসের উদ্ধোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান  রোমা আক্তার। 


পরে উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম নুরে আলম নুরের সঞ্চালনায় এক আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।আলোচনা সভায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইমরানুল হক ভূইয়া, সহাকারী কমিশনার ভূমি,ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ ও মহিলা।পরে মিলাদ ও দোয়া শেষে তাবারক বিতরণ করা হয়।

   -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর