Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশব্যাপী ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই৪ লাইট ফাইভজি পাওয়া যাচ্ছে

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৩২জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই৪ লাইট ফাইভজি স্মার্টফোন এখন দেশব্যাপী পাওয়া যাচ্ছে। স্থানীয়ভাবে তৈরি ওয়ানপ্লাসের দ্বিতীয় ডিভাইসটির ফিচার উন্নয়নে ব্যবহারকারীদের পছন্দকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

ওয়ানপ্লাসের জনপ্রিয় স্মার্টফোন সিরিজ নর্ড। এক্ষেত্রে ফ্ল্যাগশিপ-লেভেলের অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই৪ লাইট ফাইভজি। ডিভাইসটি সেরা মান ও সর্বোচ্চ আস্থা নিশ্চিতে বাংলাদেশ সরকারের সবরকম টেস্টে উত্তীর্ণ হয়েছে।

আগ্রহী ক্রেতারা দেশের যেকোনো ওয়ানপ্লাস স্টোর থেকে ক্রয়ের পাশাপাশি দারাজ , পিকাবু , গ্যাজেট অ্যান্ড গিয়ার ও ডলবেয়ার থেকে অনলাইনে অর্ডার দেয়ার সুযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে ওয়ানপ্লাস বাংলাদেশ’র সিইও মেঙ্ক ওয়াং বলেন, “আমরা নর্ড সিরিজের ডিভাইসে ব্যবহারকারীর সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। নর্ড সিই৪ লাইট ফাইভজি ফোনে ফ্ল্যাগশিপ-লেভেলের উদ্ভাবনী হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার ফিচার ব্যবহার করা হয়েছে। বাংলাদেশে ওয়ানপ্লাস পণ্যের প্রতি মানুষের ভালোবাসা ও চাহিদা আমাদের এই যাত্রাকে আরও রোমাঞ্চকর করে তুলেছে।

বাংলাদেশের মানুষের জন্য আরও অনেক প্রযুক্তি ও পণ্য নিয়ে আসবো আমরা।” অ্যাকুয়া টাচ সহ ১২০ হার্জ সুপার-ব্রাইট ২,১০০ নিটস অ্যামোলেড ডিসপ্লে, ৮০ ওয়াট সুপারভুক ফাস্ট চার্জিং সহ ৫,৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি এবং ওআইএস সহ সনি লিটিয়া ৬০০ ক্যামেরার ফিচারে সমৃদ্ধ ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই৪ লাইট ফাইভজি ফোনটি মাত্র ২৭,৯৯৯ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। আগ্রহী ক্রেতারা আরও বিস্তারিত তথ্যের জন্য অফিশিয়াল ফেইসবুক পেইজ https://www.facebook.com/oneplus.bangladesh.official বা ওয়েবসাইট https://www.oneplus.com/bd ভিজিট করতে পারেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



মিরসরাইয়ে স্কুল মাঠে জলাবদ্ধতা, শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৪৯জন দেখেছেন

Image

মিরসরাই প্রতিনিধি:সামান্য বৃষ্টিতেই জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয় স্কুলের মাঠে। এতে দুর্ভোগে পড়তে হয় মিরসরাইয়ের ওচমানপুর হাই সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের। বিদ্যালয়ের মাঠ ও রাস্তা নিচু হওয়ায় এবং পানি নিষ্কাশনের পথ না থাকায় মাঠটির বেশিরভাগ অংশই জলমগ্ন হয়ে আছে। পানিতে বেড়ে উঠেছে আগাছা। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা থাকলেও শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষ ছেড়ে মাঠে নামতে পারছেন না। বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতিদিনের শরীরচর্চা ও জাতীয় সংগীত অনুষ্ঠান ব্যাহত হচ্ছে।

৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী মিফতাহুল জান্নাত জানায়, স্কুলে আসার সময় জামা ভিজে যায়। কাঁদার জন্য হাঁটতে পারি না। সাপ ও জোঁকের ভয়ে বারান্দা থেকে তো নিচে নামাই যায় না। কখনো ভিজে গেলে ক্লাস করতে পারিনা।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মাহফুজুর রহমান বলেন, জলাবদ্ধতা ও কর্দমাক্ত পরিবেশের কারণে শ্রেণিকক্ষে যাতায়াতের সময় কোমলমতি শিক্ষার্থীদের অনেকেরই পা পিছলে পড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া শিক্ষার্থীর উপস্থিতিও আগের চেয়ে কমেছে। জলাবদ্ধতা নিরসনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করা হয়েছে।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হাছিনা আক্তার বলেন, বিদ্যালয়ে ৮০ জন শিক্ষার্থী ও ৫ জন শিক্ষক রয়েছে। ১৯৯৪ সালে নির্মিত স্কুল ভবনের বিভিন্ন শ্রেণি কক্ষে ফাটলসহ স্কুলের মাঠে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হওয়ায় স্কুলের শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে দ্রুততার সঙ্গে বিদ্যালয় মাঠের জলাবদ্ধতা নিরসনসহ ভবন নির্মাণের জন্য উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে অবহিত করেছি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এ.কে.এম ফজলুল হক জানান, জলাবদ্ধতা নিরসনে স্কুল মাঠ ভরাটের জন্য অধিদপ্তরে বরাদ্ধ চেয়ে চিঠি পাঠানো হবে। এছাড়া বিদ্যালয় ভবন ঝুঁকিপূর্ণ কিনা তা পরিদর্শন করে নতুন ভবন নির্মাণের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



যশোরে বিধবা নারীর মাটি চাপা দেয়া লাশ উদ্ধার, পুলিশ ৩জনকে হেফাজতে নিয়েছে

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:যশোরে বিধবা নারীর মাটি চাপা দেয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত বিধবা সোনাবানু(৪০)র বাড়ী যশোর সদর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের সন্ন্যাসী বটতলা গ্রামে।

আজ শুক্রবার বিকেলে সন্ন্যাসী বটতলা গ্রামের একটি বাগানের ভিতর থেকে মাটি খুড়ে ওই বিধবা নারীর মরদেহটি উদ্ধার করেছে যশোর কোতোয়ালী থানার পুলিশ। এঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে ।

হত্যার শিকার নারীর স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন সোনাবানু। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে আজ শুক্রবার দুপুরে নিহতের বাড়ির কিছু দূরে একটি বাগানের ভিতর ছড়ানো ছিটানো মাটি দেখতে পান তারা। পুলিশে খবর দিলে মাটি খুড়ে একটি ছোট গর্ত থেকে সোনাবানুর মরদেহ উদ্ধার করেন। মরদেহের গলায় ওড়না পেচোনো ছিলো। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহতের স্বজনদের দাবি, সোনাবানু স্বামী মারা যাবার পর এক সন্তান নিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। সেই স্বামীর আগের ঘরের স্ত্রী সন্তান ছিলো। দ্বিতীয় স্বামীর ঘরে সোনাবানুর আরও দুটি সন্তান হয়। দ্বিতীয় স্বামী মারা যাওয়ার পর সম্পত্তি ভাগাভাগি নিয়ে নিজ ছেলে ও সতীনের ছেলের সাথে বিরোধ শুরু হয়। ওই জমির বিরোধ নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে।

এ বিষয়ে যশোর কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক জানান,প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জেরে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায়  জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এলাকার আরিফ হোসেন ও তার স্ত্রী ইভাসহ তিনজনকে থানা পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নিয়েছেন। তদন্ত চলছে, শিগগির রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে বলে মনে করেন তিনি।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



জয়পুরহাটে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দ্বিতীয় দিনেও কর্মবিরতি পালন করছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ জুলাই 2০২4 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৯১জন দেখেছেন

Image

এস এম শফিকুল ইসলাম,জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃবাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির (পবিস) মধ্যকার বৈষম্য দূরীকরণসহ অভিন্ন চাকরি স্থায়ী করণের দাবিতে অনির্দিষ্ট কালের কর্মবিরতির দ্বিতীয় দিনেও জয়পুরহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা- কর্মচারীরা পালন করছে।

সোমবার (১লা জুলাই) থেকে শুরু হওয়া আজ  মঙ্গলবার (২জুলাই) ও জয়পুরহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির  কার্যালয়ের সামনে কর্মসূচিতে ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার, সহকারী জেনারেল ম্যানেজার, জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার, হিসাব রক্ষক, লাইনম্যান, মিটার রিডারসহ কর্মকর্তা কর্মচারীরা অংশ নেয়। কর্মসুচী চলাকালে দাপ্তরিক কার্যক্রম বন্ধ আছে।

কর্মবিরতী চলাকালে বক্তারা বলেন,পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের দুই রকম নীতির কারণে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা হতে বঞ্চিত হচ্ছে দেশের ৮০টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা- কর্মচারী। দেশের প্রত্যৗল্প এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহের কাজে নিয়োজিত কর্মীরা একই প্রতিষ্ঠানে চাকরি করলেও পদ-পদবি, বেতন-ভাতা, বোনাসসহ পদোন্নতির ক্ষেত্রে বৈষম্যের শিকার, শোষণ,  নির্যাতণ, নিপীড়ন অব্যাহত রাখা, গুণগত মানহীন মালামাল ক্রয় করে গ্রাহক ভোগান্তি করে আসছে। সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিভিন্ন সময় গণ স্বাক্ষও সংগ্রহ, বোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে স্মারকলিপি প্রদানসহ নিয়মতান্ত্রিক ভাবেই তাদের দাবি দাওয়া বাস্তবায়নে চেষ্টা করে আসছে। কিন্তু সমিতির নিয়ন্ত্রকের

ভূমিকায় থাকা পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) তাদের দাবি না মেনে বরং উল্টো প্রক্রিয়ার সাথে যুক্ত ভোলা পবিসের ২ জন এজিএমকে সাময়িক বরখাস্ত ২ জন এজিএমকে স্ট্যান্ড রিলিজ করে অন্য পিবিএসে বদলী এবং সিরাজগঞ্জ পবিস-২ এর ১ জন ডিজিএম এবং ১ জন এজিএমকে বোর্ডে সংযুক্ত করে। এতে ৮০টি পবিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারী ক্ষুব্ধ হয়। তবে  আন্দোলনে থাকাকালীন জরুরি বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে প্রতিটি উপকেন্দ্রে একজন করে জনবল কাজ করছে বলে জানান আন্দোলনকারীরা। সেই সাথে  সকল ধরনের গ্রাহক সেবা চালু থাকবে।

সংশ্লিষ্টরা জানায় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি দেশের প্রায় ১২ কোটি মানুষকে সার্বক্ষণিক নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সেবা দিয়ে যাচ্ছে।  বিআরইবি দ্বারা নিয়মতান্ত্রিত এসব সমিতির কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা প্রতিনিয়ত নানান বৈষম্যেও শিকার হচ্ছেন।

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির লাইন টেকনিশিয়ানরা বলেন, লাইনম্যান গ্রেড-১ ও লাইন টেকনিশিয়ান পদে দীর্ঘ অনেকে ১৫ থেকে ১৭ বছর পর্যন্ত একই পদে কর্মরত থাকার পরও পদোন্নতি হয়না। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে ওই পদ ফাঁকা থাকা সত্বেও পদোন্নতি না পাওয়াতে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছি। তাদের দাবী গুলো না মেনে নেওয়া পর্যন্ত কর্মবিরতি চলবে।


আরও খবর



জলঢাকায় আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও শোভাযাত্রা

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image
লেলিন,( নীলফামারী),জলঢাকা,প্রতিনিধি:নীলফামারী জলঢাকায় সংগ্রাম, উন্নয়ন ও অর্জন গৌরব দীপ্ত   আওয়ামী লীগের  পথচলার ৭৫ বছর প্লাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে  বর্ণাঢ্য র‌্যালি,শ্রদ্ধাঞ্জলি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

(২৩জুন/২০২৪)রোববার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও পৌর আওয়ামী লীগের যৌথ উদ্যোগে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা মিছিল  নিয়ে নেতাকর্মীরা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে জলঢাকা ট্রাফিক মোড়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়। মিছিলটি  সরকারী ডিগ্রি কলেজ মাঠে  এসে এক আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি,বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যপক গোলাম মোস্তাফা'র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর, সহ-সভাপতি  শিক্ষাবিদ মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গাফ্ফার,অধ্যক্ষ এ,কে আজাদ,নুরুজ্জামান মাষ্টার,মোকলেছুর রহমান সন্জু,সহ সাধারণ সম্পাদক আহম্মেদ হোসেন ভেন্ডার,সারোয়ার হোসেন সাদের,সাংগঠনিক সম্পাদক,এনামুল হক ও সফিকুল ইসলাম পলাশ।  পৌর  আওয়ামিলীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুর মজিদের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন,  পৌর সভার মেয়র নাসিব সাদিক হোসেন (নোভা), পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি, জসিয়ার রহমান জসি,  উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক লীগের সভাপতি, আব্দুল কাদের,উপজেলা যুবলীগ নেতা আক্তারুজ্জামান বাবু,গোলাম মোস্তাফা সোহাগ,পৌর যুবলীগ নেতা আজম বাদশা সাবু,মৃণাল বিশ্বাস, ছাত্রলীগ নেতা মামুন,মিল্লাত,নাহিদ মিথুন,  মহিলা নেত্রী উপজেলা ভাইস চেয়াম্যান মনোয়ারা বেগম, হাবিবা আক্তার পিয়ারী প্রমুখ । আলোচনা শেষে কেক কেটে দোয়া ও মিলাত মাহফিলের  মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সামাপ্তি ঘোষনা করা হয়।

আরও খবর



কুড়িগ্রামের রৌমারী বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণের চাউল বিতরণ করা হয়

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image

মাজহারুল ইসলাম,রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃকয়েকদিনের টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলের পানিতে প্লাবিত হয় রৌমারীর নিন্ম অঞ্চল। এতে পানি বন্দি হয়ে পড়েছে ৫০টি গ্রামের প্রায় ৭০ জাহার মানুষ। অপরদিকে মাঠে থাকা সকল প্রকারের ফসলাদি ডুবে যায়। কৃষকের পাকা ধান-তিল-চিনা-কাউন-পাট- আউশ-শাকসবজীসহ বিভিন্ন জাতের উঠতি ফসল ডুবে যাওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েছে এঅঞ্চলের কৃষকরা। এদিকে নদের কুলঘেষা বসতবাড়ী গুলোও ঢলের পানির তীব্র স্রোতে ধসে গেছে অনেকের বসতবাড়ী। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে খোলা আকাশের নিচে অনেকেই পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। খবর পেয়ে রৌমারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু-উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আকতার স্মৃতি, রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদ হাসান খান, প্রকল্পবাস্থবায়ন কর্মকর্তা শামসুদ্দীন, রৌমারী থানা ইনর্চাজ আব্দুল্লাহেল জামান, রৌমারী সদর ইউপি চেয়ারম্যান আঃ রাজ্জাক, যাদুরচর ইউপি চেয়ারম্যান সরবেশ আলী, বাংলা টিভির প্রতিনিধিঃ মাজহারুল ইসলাম, মানবজমিন পত্রিকার প্রতিনিধিঃ রফিকুল ইসলাম সাজুসহ আরও অনেকেই। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত

এলাকা গুলো সরেজমিনে পরির্দশন করার পাশাপাশি ৩ মেট্রিক টন ত্রাণের চাউল বিতরন করা হয়। এতে চাহিদার তুলনায় তিন মেট্রিক টন চাউল অপ্রতুল। ভারত থেকে নেমে আশা পাহাড়ী ঢলের পানিতে প্রতিবছরই এমন ক্ষতি হয়ে থাকে রৌমারী উপজেলার সীমান্তঘেষা অঞ্চল গুলোর। এলাকাবাসিরা ভারতীয় ঢলের পানি যাতে না আসতে পারে সেজন্য সরকারের কাছে সুদৃষ্ঠি কামনা করছেন।

এবিষয় রৌমারী উপজেলা প্রকল্পবাস্থবায়ন কর্মকর্তা শামসুদ্দীন বলেন খবর পেয়ে বন্যার্তদের দেখতে এলাম এবং বন্যার্তদের বরাদ্দকৃত ৩ টুন ত্রাণের চাল বিতরন করলাম তারপরও আমি আমার উর্ধ্বতন ককৃপক্ষকে জানাবো। 

এবিষয় রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদ হাসান খান বাংলা টিভিকে জানায় ভারতীয় ঢলের পানি এসে রৌমারী উপজেলাটি প্লাবিত হয়েছে সরেজমিন দেখলাম এবং ত্রামের চালও বিতরন করলাম যাদের ঘরবাড়ী নদী গর্ভে বিলিন হয়েছে এবিষয় তালিকা করে তাদের জন্য ব্যবস্থা করা হবে। 

রৌমারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু বলেন রৌমারী উপজেলা সদর ইউনিয়ন,এবং যাদুরচর ইউনিয়নসহ দুটি ইউনিয়নে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে এই বন্যায়। যারফলে উপজেলার সকল কর্মকর্তাকে সাথে নিয়ে সরাসরি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা গুলো পরিদর্শন করলাম চেষ্টা করবো তাদের পাশে থাকার।


আরও খবর