Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
গ্রীষ্মের রুক্ষ প্রকৃতিতে শোভা ছড়াচ্ছে সোনালু ফুল ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২৬২ জন নিহত মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার

ডেঙ্গু প্রতিরোধে জোরালো ভূমিকা নিয়েছে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৩৩৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:এবার ডেঙ্গু প্রতিরোধে সরকার জোরালো ভূমিকা নিয়েছে,বলেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন । ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয়ের মিটিং করা হয়েছে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ওষুধ ও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে কাজ চলছে।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) সকালে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা জানান মন্ত্রী।

ডেঙ্গু আক্রান্ত হলে চিকিৎসা নেওয়া জরুরি জানিয়ে তিনি বলে, চিকিৎসা সামগ্রী ও ওষুধের ঘাটতি যেন না থাকে তা নিয়ে আরও কাজ করতে হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে এবার স্যালাইনের কোনো অভাব হবে না। পাশাপাশি কেউ যাতে বিনা চিকিৎসায় মারা না যায় সেদিকে খেয়াল রাখবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এসময় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল জনবল সংকটে ভুগছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে জনবল সংকটের সমস্যা অতি দ্রুত সমাধানের জন্য কাজ করা হবে। এতে ঢাকা মেডিকেলসহ অন্যান্য হাসপাতালের চাপ কমবে।


আরও খবর



আকর্ষণীয় পুরস্কার নিয়ে ঈদ উদযাপনে রিয়েলমি

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৪৭জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:দেশজুড়ে আনন্দ বয়ে নিয়ে আসছে ঈদের আমেজ। এ আমেজকে ধরে রাখতে সম্প্রতি রিয়েলমি সি৬৩ এর উন্মোচনের হাত ধরে এক ঝাঁক সারপ্রাইজ নিয়ে এলো তরুণদের জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি। ঈদের আনন্দের উচ্ছ্বাস অনুভব করতে গ্রাহকদের জন্য একটি বিশেষ ঈদ ক্যাম্পেইনের ঘোষণা দিয়েছে স্মার্টফোন ব্র্যান্ডটি। এক্ষেত্রে নির্দিষ্ট ডিভাইস কিনলেই স্মার্টফোনপ্রেমীরা পাচ্ছেন নানা আকর্ষণীয় পুরস্কার।

ক্যাম্পেইনে প্রথম পুরস্কার বিজয়ী গ্রাহক পাবেন ২ লাখ টাকা মূল্যের একটি মোটরসাইকেল। দ্বিতীয় পুরস্কারজয়ী দুজনের প্রত্যেককে দেওয়া হবে ১ লাখ টাকা মূল্যের রেফ্রিজারেটর। তৃতীয় পুরস্কারজয়ী তিনজনের প্রত্যেককে দেওয়া হবে ৫০ হাজার টাকা মূল্যের টেলিভিশন এবং চতুর্থ পুরস্কারজয়ী পাঁচজন ব্যক্তির প্রত্যেকে পাবেন ৩০ হাজার টাকা মূল্যের ওভেন। এছাড়াও, পণ্যের সহজলভ্যতার ভিত্তিতে দেওয়া হবে ‘একটি কিনলে একটি ফ্রি’ অফার।

দারুণ সব পুরস্কার নিয়ে আয়োজিত এ ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণ করে নিজের ভাগ্য পরীক্ষা করতে, গ্রাহকদের নিম্নোক্ত রিয়েলমি ডিভাইসগুলোর যে কোনো একটি কিনতে হবে: নতুন উন্মোচিত রিয়েলমি সি৬৩ (১২জিবি + ১২৮জিবি এবং ১৬জিবি + ১২৮জিবি ভ্যারিয়েন্ট), রিয়েলমি নোট ৫০ (৬জিবি + ৬৪ জিবি এবং ৮জিবি + ১২৮ জিবি ভ্যারিয়েন্ট), রিয়েলমি সি৬৫ (১২জিবি + ২৫৬জিবি এবং ১৬জিবি + ৫১২জিবি ভ্যারিয়েন্ট), রিয়েলমি সি৬৭ (১৬জিবি + ১২৮জিবি) অথবা রিয়েলমি সি৫৫ ((৬জিবি + ১২৮ জিবি ভ্যারিয়েন্ট)। প্রতিটি ফোন কিনলেই গ্রাহকরা পাবেন একটি ফ্রি ডেটা বান্ডেল।

গ্রাহকদের ঈদ উদযাপনকে আরও রাঙিয়ে তুলতে, উৎসবের সঙ্গে টেক ট্রেজার (প্রযুক্তি সম্পদ/পুরস্কার) নিয়ে হাজির হয়েছে সম্প্রতি উন্মোচিত রিয়েলমি সি৬৩। অসাধারণ ৪৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জারের মাধ্যমে, এই ফোনটি মাত্র ৩ মিনিটের চার্জে দেবে ১ ঘণ্টা ফোন ব্যবহারের সক্ষমতা। এই সেগমেন্টে এটিই একমাত্র ফোন, যার রয়েছে টিইউভি রেইনল্যান্ড সেফ ফাস্ট-চার্জ সিস্টেম সার্টিফিকেশন। এটি ফোনের সর্বোচ্চ নিরাপত্তার মান নিশ্চিত করে। রিয়েলমি সি৬৩ তে রয়েছে একটি ভেগান লেদার ব্যাক কভার। এই কভার আগে শুধু ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের জন্যই সংরক্ষিত থাকতো। লেদার কভারটি ফোনকে একটি বিলাসবহুল টেক্সচার প্রদানের পাশাপাশি অসাধারণ দীর্ঘস্থায়িত্ব এবং দাগমুক্ত ফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা প্রদান করে।

রিয়েলমি’র ঈদ স্পেশাল ক্যাম্পেইন এবং এর আকর্ষণীয় পুরস্কার সম্পর্কে আরও বিশদভাবে জানতে, রিয়েলমি বাংলাদেশের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ https://www.facebook.com/realmeBD/  -এ ভিজিট করুন।


আরও খবর



বাংলাদেশিদের চাকরি নিশ্চিত হয়ে ভিসা দেবে আমিরাত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গণভবনে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) রাষ্ট্রদূত আবদুল্লাহ আলি আবদুল্লাহ খাসাইফ আল হামুদি।

সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব নাঈমুল ইসলাম খান।

তিনি বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে তারা যেসব মানুষ (বাংলাদেশি) নেবে, তারা নিশ্চিত করে নেবে যে তাদের জন্য চাকরি অপেক্ষা করছে। মানে এমনভাবে নেবে না যে লোক নিয়েছে কিন্তু কাজ নেই বা চাকরি নেই।

প্রেস সচিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং আমিরাতের রাষ্ট্রদূত উভয়ই জোর দিয়েছেন যে অবৈধ ইমিগ্রেশন যাতে না হয়। উভয় পক্ষই এ ব্যাপারে আরও সতর্ক হওয়ার বিষয়ে একমত।

প্রতিমাসে বাংলাদেশ থেকে প্রায় ২০ হাজার মানুষ সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাচ্ছে জানিয়ে দেশটির রাষ্ট্রদূত জানান, প্রতিদিন সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রায় এক হাজার ভিসা ইস্যু করছে। যার মধ্যে সরাসরি ৫০০ এবং এজেন্টের মাধ্যমে ৫০০ ভিসা ইস্যু করা হচ্ছে।

শিগগির সংযুক্ত আরব আমিরাতের কয়েকজন মন্ত্রী বাংলাদেশ সফর করবেন জানিয়ে দেশটির রাষ্ট্রদূত বলেন, তারা (মন্ত্রীরা) বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক আরও গভীর ও বিস্তৃত করতে নতুন নতুন ক্ষেত্র অনুসন্ধান করবেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, এরই মধ্যে দুই দেশের মধ্যে খুবই বিস্তৃত এবং গভীর সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু আমরা এই সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নিতে চাই, নতুন উচ্চতায় নিতে চাই।

এসময় সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তার দেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান। তিনি জানান, সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান এবং প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাখতুম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। এসময় সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত জানান, তার দেশের যেসব মন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে আসবেন তারা এ বিষয়ে আলোচনা করবেন।

কনটেইনার টার্মিনালসহ বাংলাদেশে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিনিয়োগ ত্বরান্বিত করতে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চান আবদুল্লাহ আলি আবদুল্লাহ খাসাইফ আল হামুদি। এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, সরকার সব সেক্টরে সবকিছু বাস্তবায়নের গতি ত্বরান্বিত করছে। গতি ত্বরান্বিত করতে আমরা সবকিছু করছি।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত জানান, তার দেশের একটি কোম্পানি বাংলাদেশের সিভিল এভিয়েশনকে ‘অ্যাডভান্স প্যাসেঞ্জার ইনফরমেশন সিস্টেম (এপিআইএস)’ সরবরাহের জন্য অপেক্ষা করছে।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব বলেন, এ বিষয়টি এগিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কার্যালয়ের সচিব মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিনকে দায়িত্ব দেন।


আরও খবর



মাতুয়াইল ইউলুপে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে ট্রাফিক পুলিশের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ও র‍্যালী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | ১৬৪জন দেখেছেন

Image

সোহরাওয়ার্দীঃমাতুয়াইল ইউলুপ এলাকায় বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে ট্রাফিক পুলিশের উদ্যেগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী-২০২৪ পালন করা হয়।

“করব ভূমি পুনরুদ্ধার, রুখবো মরুময়তা, অর্জন করতে হবে মোদের খরা সহনশীলতা”-এ স্লোগানকে সামনে রেখে এই কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

গতকাল বুধবার (৫ জুন) দুপুরে ওয়ারী ট্রাফিক বিভাগের আয়োজনে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে মাতুয়াইল ইউলুপ এলাকায় ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মোহাম্মদ আশরাফ ইমামের নেতৃত্বে ও ট্রাফিক ডেমরা জোনের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) বদরুল আলম রানা'র সঞ্চালনায় এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সুলতানা ইশরাত জাহান, ট্রাফিক ডেমরা জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মুস্তাইন বিল্লাহ ফেরদৌস,ট্রাফিক যাত্রাবাড়ী বিভাগের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার তানজিল আহমেদ,ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সহকারি পুলিশ কমিশনার কপিল দেব গাইন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৬৪,৬৫,৬৬ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর নিলুফা ইয়াসমিন লাকিসহ ডেমরা, যাত্রাবাড়ী ও ওয়ারী বিভাগের ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা।

এদিকে বুধবার বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে র‍্যালী কর্মসূচীও পালন করে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগ। র‍্যালীটি মাতুয়াইল ইউলুপ থেকে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন বিভিন্ন অংশে প্রদক্ষিণ করেন।

ডিসি মোহাম্মদ আশরাফ ইমাম বলেন, পৃথিবীতে আবহাওয়া ক্রমেই উত্তপ্ত হচ্ছে। বৃদ্ধি পাচ্ছে খরতা ও মরুময়তা। তাই এই প্রচন্ড খরা মরুময়তা নিয়ন্ত্রণ করতে বৃক্ষরোপনের বিকল্প নেই। এ লক্ষ্যে সকলের মাঝে সচেতনতা ফিরিয়ে আনতে ও সবুজ পৃথিবী গড়তে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের এই আয়োজন। যা অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



আত্রাইয়ে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:নওগাঁর আত্রাইয়ে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করা হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রোকসানা হ্যাপি ও আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.জহুরুল ইসলাম।

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রোকসানা হ্যাপি বলেন, ‘এক দিনের এই ক্যাম্পেইনে উপজেলায় ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ২ হাজার ৩শ’ এবং ১ থেকে ৫ বছর বয়সী ২৪ হাজার ৫শ’ শিশুকে ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

তিনি আরও বলেন, এ উপজেলায় মোট ১৯৩টি কেন্দ্রের মাধ্যমে মোট ২৬ হাজার ৮শ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প¬াস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে তিনি রাজনৈতিক মহল, মিডিয়াকর্মী ও সুশীল সমাজের সহযোগিতা কামনা করেন।


আরও খবর



ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১০৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ঘূর্ণিঝড় রিমালে যাদের ঘরবাড়ি সম্পূর্ণভাবে বিধ্বস্ত হয়েছে, তাদেরকে আমরা ঘর তৈরি করে দেব,বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত ঘরগুলো নির্মাণের উপকরণ দিয়ে সহায়তা করব। যাদের ঘরবাড়ি ভেঙেছে, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাদের ঘর তৈরি করে দেওয়া হবে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) বেলা ১১টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সুবিধাভোগীদের জমির মালিকানা দলিলসহ বাড়ি হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলা, কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলা এবং ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে সুবিধাভোগীদের কাছে জমির মালিকানা দলিলসহ বাড়ি হস্তান্তর করা হয়। এদিন সারাদেশে গৃহ ও ভূমিহীন পরিবারকে আরও ১৮ হাজার ৫৬৬টি বাড়ি হস্তান্তর করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কয়েকদিন আগে ঘূর্ণিঝড়-জলোচ্ছ্বাস হয়ে গেল। সেখানে হাজার হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এরইমধ্যে আমরা তালিকা করেছি কোন কোন এলাকায় কতগুলো ঘর পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কতগুলো আংশিক বিধ্বস্ত হয়েছে। যাদের ঘরবাড়ি সম্পূর্ণভাবে বিধ্বস্ত হয়েছে তাদেরকে আমরা ঘর তৈরি করে দেব। আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত ঘরগুলো নির্মাণের উপকরণ দিয়ে সহায়তা করব। প্রাকৃতিক দুর্যোগে যারা ক্ষতিগ্রস্ত তাদের পাশে আমরা আছি।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে যা যা প্রয়োজন তা দিয়ে যাচ্ছি। যাদের ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। প্রত্যেকে যেন ঘর নির্মাণ করতে পারেন সেই ব্যবস্থা আমি করে দেব। এরইমধ্যে সেভাবে আমার প্রস্তুতি নিয়েছি। প্রত্যেক এলাকা থেকে আমরা তথ্য সংগ্রহ করেছি। সে অনুযায়ী আমরা সহায়তা পাঠাব।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, জাতির পিতাকে হত্যা করার পর অবৈধভাবে ক্ষমতার দখলকারীরা এদেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে ব্যস্ত ছিল। ২১ বছর পর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে জনগণের সেবক হিসেবে যাত্রা শুরু করে। তখন থেকেই ভূমিহীন মানুষদের জন্য আমরা উদ্যোগ নিয়েছিলাম। তখন বাংলাদেশের আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। তারপরও ভূমিহীন মানুষদের মধ্যে ঘর তৈরি করার জন্য আশ্রয়ণ প্রকল্প নামে একটি প্রকল্প নিয়ে আমরা ঘর বানাতে শুরু করি।


আরও খবর