Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডেমরায় বাল্কহেড ড্রেজারে সন্ত্রাসী হামলা পাইপ ভাঙচুর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১৩৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব সংবাদদাতাঃরাজধানীর ডেমরায় পাওনা টাকা চাওয়ায় বাল্কহেড ড্রেজারে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে কর্মচারীকে হত্যা চেষ্টা ও পাইপ ভাঙচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানা গেছে।এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাল্কহেড ড্রেজারের মালিক আনিসুর রহমান ডেমরা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার  অভিযুক্ত ব্যক্তিরা হলেন আকবর হোসেন রিপন(৪৬) পিতা-ছাদেক আলী মাতব্বর,সাং-৭৪/১ মাদারটেক (চৌরাস্তা) থানা সবুজবাগ,ঢাকা। রাজ্জাক হোসেন (৪৬) পিতা-মোশারফ,সাং-ভাইগদিয়া মাতব্বর বাড়ি, ওমর ফারুক (৩৮) পিতা-আকবর আলী মেম্বার,সাং- নন্দীপাড়া ব্যাংক কলোনি, মোশাররফ হোসেন (৫৫) পিতা-মৃত রুফ মিয়া সহ অঞ্জাত আরো ১০/১২ জন।

ডেমরা থানার অফিসার ইনচার্জ শফিকুর রহমান (পিপিএম) ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভুক্তভোগী আনিসুর রহমান দৈনিক সকালের সময়কে জানান, মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের সাথে আমার বালু ভরাটের টাকা নিয়ে বিরোধ চলছিল, পাওনা টাকা চাইলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে উল্টা-পাল্টা কথা বলতে থাকে,এর জের ধরে গত ২১ মে রবিবার বিকেল সাড়ে তিনটায় ডেমরা থানা এলাকার আমুলিয়াস্থ নুন্না ভিটা খেলার মাঠে বালুভরাটের সময়  আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে, আমি নিষেধ করলে তারা সকলে মিলে আমার বাল্কহেড ড্রেজারের ৪টি রাবারের পাইপ কেটে আনুমানিক তিনলক্ষ বিশ হাজার টাকা ক্ষতি সাধন করে। পরবর্তীতে গত ২৪ মে সকাল সাড়ে পাঁচটায় ডেমরা থানা এলাকার মেন্দিপুরস্থ ম্যাক্সিম গ্রুপের প্রধান ইয়ার্ডের দক্ষিণ পাশে আমার বাল্কহেড ড্রেজারের কাজ করাকালীন সময়ে ১,২,৩,৪ নং বিবাদী ও তাদের সহযোগী ১০/১২জন অঞ্জাত লোক এসে ১৬ টি লোহার পাইপ ভাঙচুর করে দুই লক্ষ টাকা ক্ষতি সাধন করে।এ সময় ১ নং বিবাদী আকবর হোসেন রিপনের হাতে থাকা ধারালো রাম-দা দিয়ে আমার বাল্কহেড ড্রেজারের ষ্টাফ মিজান(৩৮) কে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় কোপ দিলে সে সরে যায় এতে রাম-দায়ের আঘাত লেগে তার পিঠে জখম হয়।২ নং বিবাদী রাজ্জাক হোসেন ষ্টাফ মিজান এর প্যান্টের ডান পকেটে  থাকা মেশিনের তেল খরচের ৭৩০০ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।এ সময় তারা মিজান কে এলো পাতারিভাবে মারপিট করে নীলাফুলা জখম করে। তার ডাক-চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে আসামিরা বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

তিনি আরো জানান,অভিযুক্ত আকবর হোসেন রিপন সবুজবাগ থানার এজাহারভুক্ত মামলার আসামি সে গত ২০১৮ সালে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে হাজত বাস করে জামিনে মুক্ত হয়।এ বিষয়ে ডেমরা থানার অফিসার ইনচার্জ শফিকুর  রহমান (পিপিএম) বলেন,এ ঘটনায় ডেমরা থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে, অভিযুক্ত ব্যক্তিদের গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে।



আরও খবর



ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে লালগালিচা সংবর্ধনা

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৮৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নয়াদিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে লালগালিচা সংবর্ধনা ও গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়েছে। দুদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে দ্বিতীয় দিনে শনিবার (২২ জুন) দিল্লির স্থানীয় সময় সকাল ৯টার দিকে রাষ্ট্রপতি ভবনে পৌঁছান শেখ হাসিনা।

এরপর প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া হয় রাজকীয় সংবর্ধনা ও গার্ড অব অনার। এরপর শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ দেশটির মন্ত্রী ও পদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। এ সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রীও সেখানে উপস্থিত বাংলাদেশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

আজ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করবেন বাংলাদেশের সরকার প্রধান। দিল্লির হায়দরাবাদ হাউসে অনুষ্ঠিত এ দ্বিপক্ষীয় বৈঠক নিয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, এবারের বৈঠকে নির্ধারণ হতে পারে ২০২২ সালের চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকের বাস্তবতা এবং আগামী ৫ বছরের রূপরেখা। তবে তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি নিয়ে সফরে চুক্তি স্বাক্ষর না হলেও এ বিষয়ে নিজেদের স্পষ্ট অবস্থান জানাতে পারে ভারত। আসতে পারে বড় ধরনের বিনিয়োগের খবরও। এর আগে শুক্রবার (২১ জুন) নয়াদিল্লির তাজ হোটেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতের শিল্পপতিদের সংগঠন কনফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রি (সিআইআই)। এই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়াতে ভারতের শিল্পপতিদের আহ্বান জানান। সন্ধ্যায় একই হোটেলে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর। পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াত্রাসহ দুদেশের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী চলে এই সৌজন্য বৈঠক। মূলত শনিবার হাসিনা-মোদি শীর্ষ বৈঠকে যেসব বিষয় উপস্থাপিত হবে, সেসব নিয়েই বিস্তৃত পরিসরে আলোচনা করেন তারা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে শুক্রবার বিকেলে নয়াদিল্লি পৌঁছান।


আরও খবর



নেটওয়ার্কের সক্ষমতা বাড়াতে এআই যুক্ত করার ঘোষণা হুয়াওয়ের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৬৮জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস সাংহাই ২০২৪-এ আয়োজিত ‘ফাইভজি এডভান্স ও আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স’ গোলটেবিল বৈঠকে হুয়াওয়ে ওয়্যারলেস সল্যুশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড চিফ মার্কেটিং অফিসার এরিক ঝাও বক্তব্য রেখেছেন। এই বক্তব্যে তিনি নেটওয়ার্কে এআই (আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স) ব্যবহারের পরিকল্পনা তুলে ধরেন। প্রথম পর্যায়ে আগামী ছয় মাসের মধ্যে হাংঝো, গুয়াংঝো, ব্যাংকক, জিনান এবং শেনজেনে ১,০০০ সাইট ইঞ্জিনিয়ার ও ১০,০০০ সাইটকে এর আওতায় আনার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

তিন বছরের নিরন্তর প্রচেষ্টার পর টেলিকম খাতে ফাইভজি-এ (এডভান্স) পরিকল্পনার পর্যায় থেকে বাস্তবে রূপ পেয়েছে। ২০২৪ সালকে বাণিজ্যিকভাবে ফাইভজি-এ-এর প্রথম বছর হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত নেটওয়ার্ক, ব্যবসা ও  ডিভাইস ডেভেলপমেন্টের ক্ষেত্রে ফাইভজি-এ উল্লেখযোগ্য সক্ষমতা প্রদর্শন করেছে। বর্তমানে মোবাইল নেটওয়ার্ক জটিল কার্যক্রম ও রক্ষণাবেক্ষণ, নেটওয়ার্কের নানা বৈশিষ্ট্য ও বিভিন্ন অভিজ্ঞতা-নির্ভর কার্যক্রমের সাথে সম্পর্কিত চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছে। বিষয়গুলো বিবেচনা করে হুয়াওয়ে নেটওয়ার্কে এআই ব্যবহারের প্রস্তাব করেছে। অর্থাৎ, রেডিও এক্সেস নেটওয়ার্ক (আরএএন) ইন্টেলিজেন্ট এজেন্ট তৈরি করে নেটওয়ার্কের কার্যক্রম ও রক্ষণাবেক্ষণ, অভিজ্ঞতা ও সেবায় নতুন মাত্রা যোগ করা হবে। 

আরএএন ইন্টেলিজেন্ট এজেন্ট বিভিন্ন প্রক্রিয়াকে সহজ করে দক্ষতা বাড়াতে সাহায্য করে। এর একটি উল্লেখযোগ্য উদাহরণ হলো হুয়াওয়ের চালু করা ফিল্ড মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার কোপাইলট। এই ধরনের প্রথম প্রযুক্তি হিসেবে চালু হওয়া কোপাইলটটিতে রয়েছে এআই-ভিত্তিক অ্যাসিস্টেন্ট, যা বিশেষায়িত তথ্যের ‍উপর ভিত্তি করে স্বাধীনভাবে সল্যুশন পলিসি তৈরির মাধ্যমে দক্ষতা বাড়াতে পারে। একটি ফিল্ড কেসে এটি দশগুণ বেশি দক্ষতার সাথে অপটিক্যাল পাথ ফল্ট পরিচালনায় সাহায্য করছে।

আরএএন ইন্টেলিজেন্ট এজেন্ট নেটওয়ার্ককে স্বাধীন ও কার্যকরভাবে অভিজ্ঞতা দিতে ও শক্তি সঞ্চয় করতে সাহায্য করে। এই অপ্টিমাইজেশান প্রক্রিয়াটি মাল্টি-ডাইমেনশনাল হাই-প্রিসিশন সেন্সিং এবং অপটিমাল এক্সপেরিয়েন্স ও ইনার্জি-সেভিং পলিসির উপর ভিত্তি করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে কাজ করে। ২২৩টি সেলে আবৃত একটি এলাকায় আরএএন ইন্টেলিজেন্ট এজেন্ট কয়েক হাজার ঘন্টা ধরে নিরবচ্ছিন্নভাবে কাজ করেছে। এর ফলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে শক্তির ব্যবহার সর্বনিম্ন পর্যায়ে রেখে কার্যকারিতা সর্বোচ্চ করা সম্ভব হয়েছে। এই ধরনের স্বয়ংক্রিয় নেটওয়ার্কের কার্যক্রম ও রক্ষণাবেক্ষণ বাস্তবায়নে হুয়াওয়ে এই প্রথম অপারেটরদের সাথে কাজ করেছে। 

নেটওয়ার্ক রিসোর্সের রিয়েল-টাইম ইভ্যালুয়েশনের মাধ্যমে অভিজ্ঞতা-নির্ভর পরিষেবা বিষয়ক কার্যক্রমগুলোকে সহায়তা করে আরএএন ইন্টেলিজেন্ট এজেন্ট। এটি প্রয়োজন অনুযায়ী অপারেটরদের নতুন পরিষেবা সরবরাহ করতে এবং নির্ধারিত পরিষেবার (ডিটারমিনিস্ট সার্ভিস) অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করতে সহায়তা করে। এক্ষেত্রে ফাইভজি-এ লাইভস্ট্রিমিং অ্যাসিউরেন্স প্যাকেজটি দারুণ সহায়ক। বিশ্বে প্রথম এই ধরনের লাইভ স্ট্রিমিং প্যাকেজ হিসেবে এটি ফলচাষীদের কাঙ্ক্ষিত আপলিংক স্পিড দিয়েছে, যার মাধ্যমে লাইভ স্ট্রিমিংয়ের মাধ্যমে তারা গ্রাহকদের কাছে সহজে পৌঁছাতে পেরেছে।

ঝাও বলেন, “এআই-কে নেটওয়ার্কে নিয়ে আসাই আমাদের লক্ষ্য। এই লক্ষ্য অর্জনের জন্য আমাদের দিক থেকে আমরা একটি সল্যুশন প্রোভাইডার থেকে ইন্টেলিজেন্ট নেটওয়ার্কের সহ-নির্মাতাতে (কো-বিল্ডার) পরিণত হবো। আমরা বিশ্বাস করি যে, আরএএন ইন্টেলিজেন্ট এজেন্ট ও নেটওয়ার্কগুলোর যৌথ প্রবৃদ্ধি আরও বিস্তৃত পরিসরে ব্যবসায়িক মূল্য তৈরি করবে, আরও দ্রুত নেটওয়ার্কগুলোকে রূপান্তরিত করবে এবং আমাদের শিল্পকে বুদ্ধিমত্তার একটি নতুন যুগে নিয়ে যাবে।”

আন্তর্জাতিক অপারেটর, এই খাতের পেশাজীবী ও নেতৃত্বস্থানীয় ব্যক্তিদের সাথে নিয়ে হুয়াওয়ে ২৬ জুন থেকে শুরু করে ২৮ জুন পর্যন্ত চীনের সাংহাইতে এমডব্লিউসি সাংহাই ২০২৪ আয়োজন করছে।   


আরও খবর



তিতাসের মেঢা‌বি‌বি-৫ অফিস এলাকায় বকেয়া বিল আদায় ও অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৫৩জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃতিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি'র মেঢা‌বি‌বি-৫ ধানমন্ডি অফিসের উদ্যোগে বকেয়া আদায় এবং অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ৪ জুলাই ৫ টি অভিযানিক টীম পরিচালিত হয়।এসব অভিযানে সংযোগ বিচ্ছিন্নকারী টিম কর্তৃক ৫০ টি গ্রাহক আঙিনা পরিদর্শন করা হয়েছে।এ সময় বকেয়া গ্রাহকদের কাছ থেকে তাৎক্ষণিক ৪.৮৮ লক্ষ টাকা আদায় করা হয়। বকেয়া বিলের জন্য ১৮ টি গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এছাড়াও অবৈধ গ্যাস সংযোগ ব্যবহার করায় আরো ১৮ টি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। বকেয়া পরিশোধের মাধ্যমে ৮ জন গ্রাহককে পুনরায় গ্যাস সংযোগ প্রদান করা হয়।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশনপিএলসি'র মেঢা‌বি‌বি-৫ ধানমন্ডি অফিসের উপমহাব্যবস্থাপক মোঃ এমদাদুল হক জানান, এই ধরনের অভিযান মাস ব্যাপী চলমান থাকবে।



আরও খবর



বাড়ল স্বর্ণের দাম

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১০৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস) ভরিতে ১ হাজার ৬০৯ টাকা বাড়িয়ে ২২ ক্যারেটের এক ভরি স্বর্ণের দাম ১ লাখ ১৮ হাজার ৮৯১ টাকা নির্ধারণ করেছে।

রোববার (৭ জুলাই) সন্ধ্যায় এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে বাজুস।

এতে বলা হয়েছে, স্থানীয় বাজারে তেজাবি স্বর্ণের (পিওর গোল্ড) মূল্য বেড়েছে। ফলে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় স্বর্ণের নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে।

নতুন দাম অনুযায়ী, প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) ২২ ক্যারেটের স্বর্ণের দাম পড়বে ১ লাখ ১৮ হাজার ৮৯১ টাকা। এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি ১ লাখ ১৩ হাজার ৪৯১ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি ৯৭ হাজার ২৭৮ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৮০ হাজার ৪২৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, স্বর্ণের বিক্রয়মূল্যের সঙ্গে আবশ্যিকভাবে সরকার-নির্ধারিত ৫ শতাংশ ভ্যাট ও বাজুস-নির্ধারিত ন্যূনতম মজুরি ৬ শতাংশ যুক্ত করতে হবে। তবে গহনার ডিজাইন ও মানভেদে মজুরির তারতম্য হতে পারে। এই দাম সোমবার থেকে কার্যকর করা হবে।

এর আগে, সর্বশেষ গত ৩০ জুন দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম সমন্বয় করেছিল বাজুস। সে সময় ভরিতে ১ হাজার ৭৩ টাকা কমিয়ে ২২ ক্যারেটের এক ভরি স্বর্ণের দাম ১ লাখ ১৭ হাজার ২৮২ টাকা নির্ধারণ করেছিল সংগঠনটি। এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি ১ লাখ ১১ হাজার ৯৫১ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি ৯৫ হাজার ৯৬০ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৭৯ হাজার ৩৩৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

প্রসঙ্গ, চলতি বছরে এখন পর্যন্ত দেশের বাজারে ৩১ বার স্বর্ণের দাম সমন্বয় করা হয়েছে। যেখানে ১৬ বার দাম বাড়ানো হয়েছে, আর কমানো হয়েছে ১৫ বার। আর ২০২৩ সালে দাম সমন্বয় করা হয়েছিল ২৯ বার।


আরও খবর



সোনারগাঁও প্রেস ক্লাব থেকে মাজহারুল স্থায়ী বহিষ্কার

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৬৬জন দেখেছেন

Image
সোনারগাঁও সংবাদদাতা: নারী কেলেঙ্কারির ঘটনায় আদালতে দণ্ডিত হওয়ায় এবং সাংবাদিকতার নাম ভাঙিয়ে অনৈতিক ও শৃংখলা বহির্ভূত কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে  আনন্দ টিভির সোনারগাঁও উপজেলা প্রতিনিধি মাজহারুল ইসলামকে সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জনৈক মাসুদুর রহমান নামে এক ব্যক্তি অভিযোগ করেন আনন্দ টিভির সোনারগাঁও উপজেলা‌ প্রতিনিধি মাজহারুল ইসলাম তার স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে প্রলোভন দেখিয়ে ভাগিয়ে নিয়ে যায় এবং অর্থ আত্মসাত করে। পরবর্তীতে এর বিচার চাইতে গেলেও তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে ভয়ভীতি দেখায়। ঘটনায় মাসুদ প্রেস ক্লাবে অভিযোগ করার পাশাপাশি ২০২২ সালে আদালতে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চলতি বছরের মার্চ মাসে মাজহারুলকে এক বছরের কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।পাশাপাশি ২০২৩ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি তার দ্বিতীয় স্ত্রী রওশন আরা শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন এবং প্রতারণার আরেকটি অভিযোগ করেন মাজহারুলের বিরুদ্ধে।‌ ঐ ঘটনায় প্রেস ক্লাবের তদন্ত কমিটি করা হয়। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পায় তদন্ত কমিটি। এছাড়াও বিভিন্ন সময় সাংবাদিকতার প্রভাব খাঁটিয়ে এবং সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের নাম ভাঙিয়ে বিভিন্নস্থান থেকে টাকা নেওয়াসহ শৃংখলা বহির্ভূত কর্মকাণ্ডের অভিযোগে প্রেস ক্লাবের ৩০ মে কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় তার সদস্য পদ বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়।  

সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের ফেসবুক পেইজে দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রেস ক্লাবের গঠনতন্ত্রের অনুচ্ছেদ ৩, ধারা ৪ এর ঙ অনুযায়ী সদস্য পদ বাতিল করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম এম সালাহ উদ্দিন বলেন, তার বিরুদ্ধে প্রেস ক্লাবের শৃঙ্খলা বহির্ভূত অভিযোগ পাওয়ায় এবং আদালতের দণ্ড থাকায় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে‌। সোনারগাঁও প্রেসক্লাব একটি ঐতিহ্যবাহী আদর্শ সাংবাদিক সংগঠন।  গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এটি পরিচালিত হয়ে থাকে।  সাংবাদিকতা তথা সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের সুনাম ক্ষুন্ন হয় এমন কাউকেই প্রশ্রয় দেওয়া হবে না।

আরও খবর