Logo
আজঃ Tuesday ২৬ October ২০২১
শিরোনাম
২০২২-২৩ অর্থবছরেই জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে এশিয়ার বেশিরভাগ দেশকে আবারও পেছনে ফেলবে বাংলাদেশ

দ. এশিয়ায় অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে সবচেয়ে ধারাবাহিক বাংলাদেশ

প্রকাশিত:Sunday ১০ October ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৬ October ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image



আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

 

করোনাভাইরাস মহামারির ভয়াল থাবা থেকে ধীরে ধীরে বেরিয়ে আসছে দক্ষিণ এশিয়া। স্থবিরতা কাটিয়ে ফের গতিশীল হচ্ছে এ অঞ্চলের অর্থনীতি। কিন্তু বছরখানেক আগে অর্থনীতিতে যে আঘাত দিয়েছিল করোনা, তার ক্ষত পুরোপুরি মেটানো বেশ কঠিন। অথচ এমন কঠিন সময়েও দারুণ কৃতিত্ব দেখিয়ে অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে বাংলাদেশ। বলা বাহুল্য, ২০১৯-২০ অর্থবছরে দক্ষিণ এশিয়ায় একমাত্র ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি হওয়া দেশের নাম বাংলাদেশ। উন্নয়নের সেই ধারা অব্যাহত থাকতে পারে আগামী বছরগুলোতেও। আর তা হলে ২০২২-২৩ অর্থবছরেই জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ার বেশিরভাগ দেশকে আবারও পেছনে ফেলবে বাংলাদেশ।

 

গত বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) বিশ্বব্যাংক প্রকাশিত দক্ষিণ এশীয় অর্থনীতি বিষয়ক সবশেষ প্রতিবেদনে (সাউথ এশিয়া ইকোনমিক ফোকাস) এসব তথ্য উঠে এসেছে।

 

বিশ্বব্যাংক প্রকাশিত হিসাবে দেখা যায়, ২০১৯-২০ অর্থবছরে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে শুধু বাংলাদেশের (জুলাই-জুন) জিডিপি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ইতিবাচক ধারায় ৩ দশমিক ৫ শতাংশ। একই সময় এ অঞ্চলের বাকি সব দেশের প্রবৃদ্ধিই ছিল নেতিবাচক। ওই অর্থবছরে ভারতের (এপ্রিল-মার্চ) প্রবৃদ্ধি মাইনাস ৭ দশমিক ৩ শতাংশ, মালদ্বীপের (জানুয়ারি-ডিসেম্বর) মাইনাস ৩৩ দশমিক ৬ শতাংশ, শ্রীলঙ্কার (জানুয়ারি-ডিসেম্বর) মাইনাস ৩ দশমিক ৬ শতাংশ, ভুটানের (জুলাই-জুন) মাইনাস ০ দশমিক ৬ শতাংশ, নেপালের (জুলাই-জুন) মাইনাস ২ দশমিক ১ শতাংশ ও পাকিস্তানের (জুলাই-জুন) অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ছিল মাইনাস ০ দশমিক ৫ শতাংশ।

 

এরপর ধীরে ধীরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসায় ফের ইতিবাচক ধারায় ফেরে দক্ষিণ এশিয়ার অর্থনীতি। ২০২০-২১ অর্থবছরে এ অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৫ শতাংশ, ভারতের ৮ দশমিক ৩ শতাংশ, নেপালের ১ দশমিক ৮ শতাংশ, পাকিস্তানের ৩ দশমিক ৫ শতাংশ, মালদ্বীপের ২২ দশমিক ৩ শতাংশ ও শ্রীলঙ্কার ৩ দশমিক ৩ শতাংশ। এই বছরটিতে কেবল ভুটানই নেতিবাচক ধারা থেকে বের হতে পারেনি। তাদের প্রবৃদ্ধি ছিল মাইনাস ১ দশমিক ২ শতাংশ।

 

বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাস অনুসারে, ২০২১-২২ অর্থবছরেও বাংলাদেশ আশাব্যঞ্জক গতিতে প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে। এসময় বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৬ দশমিক ৪ শতাংশ। এছাড়া নেপালের প্রবৃদ্ধি বেড়ে ৩ দশমিক ৯ শতাংশ ও ভুটানের প্রবৃদ্ধি বেড়ে হতে পারে ৩ দশমিক ৬ শতাংশ। ওই বছর এ অঞ্চলের বাকি দেশগুলোর প্রবৃদ্ধি কমতে পারে। সেসময় ভারতের প্রবৃদ্ধি কমে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ, পাকিস্তানের ৩ দশমিক ৪ শতাংশ, মালদ্বীপের ১১ শতাংশ ও শ্রীলঙ্কার প্রবৃদ্ধি কমে দাঁড়াতে পারে মাত্র ২ দশমিক ১ শতাংশে।

 

ভারতের অবনতি অব্যাহত থাকবে এর পরের বছরও। অর্থাৎ ২০২২-২৩ অর্থবছরে দেশটির প্রবৃদ্ধি আরও কমে হবে ৬ দশমিক ৫ শতাংশ। অন্য দেশগুলোর প্রবৃদ্ধি কিছুটা বাড়বে। ওই বছর উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে ভারতকে আবারও ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ। ২০২২-২৩ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি বেড়ে দাঁড়াবে ৬ দশমিক ৯ শতাংশ। সে সময় দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে কেবল মালদ্বীপের চেয়েই পিছিয়ে থাকবে বাংলাদেশ।

 

সুতরাং বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাস বলছে, আগামী বছরগুলোতে দক্ষিণ এশিয়ার বাকি দেশগুলো অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে উত্থান-পতন দেখলেও সুষমগতিতেই এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

খবর প্রতিদিন /সি.বা 


আরও খবর



ছেলের বাবা যশের জন্মদিনে নুসরাতের বিশেষ ভালোবাসা

যশের জন্মদিনে নুসরাতের বিশেষ ভালোবাসা

প্রকাশিত:Sunday ১০ October ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৬ October ২০২১ | ৭৭জন দেখেছেন
বিনোদন ডেস্ক

Image


বিনোদন ডেস্ক :


টালিউডের অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। ৩৬ বছর পূর্ণ করলেন তিনি। শুভেচ্ছায় ভাসছেন সোশ্যাল মিডিয়া। ভক্তরা তাকে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিচ্ছেন নানা মিষ্টি বারতায়।তবে নায়কের বিশেষ দিনে প্রেমিকা বলে খ্যাত নায়িকা নুসরাত জাহানের কি আয়োজন? সেদিকে নজর ছিল প্রায় সকলের। রাত ১২টা বাজামাত্রই অপেক্ষার অবসান হলো। প্রকাশ হলো, যশের জন্মদিনে নুসরাতের ভালবাসা।

 

যশের জন্মদিন পালনের ক্ষেত্রে যদিও কোনো আড়ম্বরের বন্দোবস্ত করেননি নুসরাত। অন্তত সোশ্যাল মিডিয়ায় তেমন কোনো আভাস পাওয়া যায়নি। যশের জন্মদিনের কথা যে তিনি ভুলেননি শুধু সেটাই জানিয়ে দিলেন ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে।ইনস্টা স্টোরিতে যশের ছবি পোস্ট করে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তার পাশেই লাল হৃদয়ের ইমোজি। যার পোশাকি নাম হার্ট ইমোজি।

 

প্রসঙ্গত, গেল বছর থেকেই টালিগঞ্জে আলোচিত জুটি যশ-নুসরাত। পর্দায় তেমন সাফল্য না পেলেও বাস্তব জীবনে সেই রসায়ন জমে ক্ষীর। তবে প্রকাশ্যে সম্পর্কের কথা স্বীকার করেননি তাদের দু’জনের কেউই। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের শেয়ার করা ছবি দেখে নুসরাত এবং যশের ঘনিষ্ঠতার প্রমাণ পেয়েছেন নেটিজেনরা। একসঙ্গে লাঞ্চ ডেটেও দেখা গিয়েছে তাদের।

 

এই পরিস্থিতিতে জানা যায় নুসরাত সন্তানসম্ভবা। নানা বাঁকা কথার মাঝেও অবিচল থেকেছেন বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ।

 

এরপর গত ২৬ আগস্ট পুত্রসন্তানের জন্ম দেন। পার্ক স্ট্রিটের বেসরকারি হাসপাতালে সেই সময় প্রায় সারাক্ষণই নুসরতের সঙ্গী ছিলেন যশ। সন্তানের পিতৃপরিচয় নিয়ে কাটাছেঁড়া হয়েছে যথেষ্ট। যদিও কলকাতা পুরসভার জন্ম শংসাপত্রের নথি অনুযায়ী নুসরাতের ছেলের বাবার নাম দেবাশিস দাশগুপ্ত। যা অভিনেতা যশ দাশগুপ্তেরই আরেক নাম।

খবর প্রতিদিন / সি.বা


আরও খবর



সুদানের প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লাহ হামদক গৃহবন্দি

গৃহবন্দি করা হয়েছে সুদানের প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লাহ হামদকে

প্রকাশিত:Monday ২৫ October ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৬ October ২০২১ | ৭১জন দেখেছেন
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image


 

সুদানের প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লাহ হামদককে গৃহবন্দি করা হয়েছে। সোমবার (২৫ অক্টোবর) ভোরে সামরিক বাহিনীর অজ্ঞাত সদস্যরা তার বাড়ি ঘেরাওয়ের পর তাকে গৃহবন্দি করে। সৌদিভিত্তিক আল হাদাথ টিভির বরাত দিয়ে এই খবর দিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

 

প্রধানমন্ত্রীর মিডিয়া উপদেষ্টা ও দেশটির ক্ষমতাসীন সার্বভৌম কাউন্সিলের সদস্যসহ বেশ কয়েকজন বেসামরিক কর্মকর্তাকে সামরিক বাহিনী গ্রেফতারের পরই হামদকের গৃহবন্দি হওয়ার খবর পাওয়া গেলো।

 

রাজধানী খার্তুম থেকে আল-জাজিরার রিপোর্টার হিবা মরগান বলেন, সুদানে ‘টেলিযোগাযোগ সেবা বন্ধ করা হয়েছে’। আপাতত তাই ‘কী হচ্ছে সে সম্পর্কে তথ্য পাওয়া খুব কঠিন’ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

‘তবে শিল্পমন্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে এ ব্যাপারে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। গ্রেফতারের কয়েক মিনিট আগে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট দিয়ে লেখেন, তার বাড়ির বাইরে সামরিক বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিতি দেখা গেছে’, যোগ করেন মরগান।

মরগান আরও বলেন, আমরা আরও নিশ্চিত হয়েছি, তথ্যমন্ত্রীসহ প্রধানমন্ত্রীর একজন উপদেষ্টাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়াও সার্বভৌম কাউন্সিলের মুখপাত্রকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সার্বভৌমত্ব কাউন্সিল মূলত সামরিক-বেসামরিক লোকের সমন্বয়ে গঠিত সংস্থা। সামরিক বাহিনীর সদস্যদের এই গ্রেফতার দুই পক্ষের মধ্যে আবারও নতুন করে উত্তেজনা তৈরি করছে।

এর আগে গত মাসেও দেশটিতে অভ্যুত্থানচেষ্টা হয়। তবে অভ্যুত্থানের এই চেষ্টা ব্যর্থ করে দেওয়া হয়। আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে সেসময় বলা হয়েছিল, একদল সেনা এই অভ্যুত্থানের চেষ্টা করেছিলেন। তারা অভ্যুত্থান করতে ব্যর্থ হন।

 

খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর



কয়েকদিনের তীব্র গরমের পর রাজধানীতে নেমেছে ঝুম বৃষ্টি

স্বস্তির বৃষ্টিতে ভিজলো ঢাকা

প্রকাশিত:Saturday ১৬ October ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৬ October ২০২১ | ১৩৫জন দেখেছেন
Image

 

 চৌধুরী বাগদাদ, ঢাকা :

কয়েকদিনের তীব্র গরমের পর রাজধানীতে নেমেছে ঝুম বৃষ্টি। শনিবার (১৬ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকায় হঠাৎ বৃষ্টি নামে। এর আগে সন্ধ্যার পর থেকেই আকাশে মেঘের ডাক শোনা যাচ্ছিল।


সন্ধ্যার হঠাৎ বৃষ্টিতে অফিস শেষে ঘরমুখী মানুষ কিছুটা বিপাকেও পড়েন। এ সময় পথচারীদের হুড়োহুড়ি করে আশপাশের ভবনে আশ্রয় নিতে দেখা যায়।


এর আগে শনিবার সকালে আবহওয়া অফিস জানায়, বৃষ্টি বেড়ে কিছুটা কমতে পারে গরম। একই সঙ্গে সারাদেশের ১৮টি জেলায় চলমান তাপপ্রবাহ কোথাও কোথাও থেকে দূর হতে পারে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বিদায় নেওয়ার সময় আশ্বিনের শেষদিনে গরমে পুড়ছিল প্রায় সারাদেশ।

‘মূলত বৃষ্টি না হওয়ার কারণেই এবার এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। সাধারণত অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহ থেকে দেশে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বিদায় নিতে শুরু হবে। দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে পুরোপুরি বিদায় নেয়। কোনো কোনো বছর এটা একটু দেরিতে হয়। এবার দেরি হচ্ছে, এবার মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশ থেকে পুরোপুরি বিদায় নিতে ২২-২৩ অক্টোবর পর্যন্ত লেগে যাবে।

 

খবর প্রতিদিন /সি.বা 


আরও খবর



ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গাঁজা খাওয়া নিয়ে বাকবিতণ্ডা, ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গাঁজা খাওয়া নিয়ে কথাকাটাকাটি ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

প্রকাশিত:Thursday ২১ October 20২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৬ October ২০২১ | ১৬৯জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

গাঁজা সেবন নিয়ে বাকবিতণ্ডার জেরে শেখ আকাশ (২০) নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।বুধবার (২০ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুলতানপুর গ্রামের সুলতানপুর মধ্যপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।নিহত আকাশ ওই গ্রামের শেখবাড়ির উত্তরপাড়ার হুমায়ুনের ছেলে। তিনি চিনাইর ডিগ্রি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

 

হাসপাতাল ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, দুপুরে সুলতানপুর গ্রামের দক্ষিণপাড়ার একটি স্কুলের সামনে আকাশ গাঁজা সেবন করেন বলে অভিযোগ করা হয়। এতে তার সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয় উত্তরপাড়ার রিফাতের। এসময় বিষয়টি মীমাংসা করে দেন স্থানীয়রা। আর তাদের বাড়ি ফিরে যেতে বলেন।

 

পরে বিকেলে সুলতানপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে আকাশ বন্ধুদের নিয়ে খেলা দেখতে যান। খেলা শেষে মধ্যপাড়া এলাকায় আড্ডা দেওয়ার সময় রিফাত ও তার সহযোগীরা আকাশের ওপর অতর্কিতভাবে হামলা করে। এসময় আকাশের বুকে ও মাথায় ছুরিকাঘাত করেন রিফাত।

স্থানীয়রা গুরুত্বর আহত অবস্থায় আকাশকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

 

এ ঘটনায় আরও চারজন আহত হয়েছেন। তারা হলেন, ফায়েজ (১৬), আরমান (২০), রাকিব (১৪) ও মাসুম (১৭)। তাদের বাড়ি সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নে। আহতদের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল-মামুন জানান, আকাশের মাথা-বুকে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার মৃত্যু হয় হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই।

 

সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ মোতায়েন রয়েছে ঘটনাস্থলে।

তিনি আরও জানান, অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের হচ্ছে।

-খবর প্রতিদিন / সি.বা 


আরও খবর



মধ্যরাত থেকেই ইলিশ শিকারে জেলেদের যাত্রা

আজ রাতে উঠছে নিষেধাজ্ঞা , ইলিশ ধরতে প্রস্তুত জেলেরা

প্রকাশিত:Monday ২৫ October ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৬ October ২০২১ | ৬৩জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে আজ সোমবার মধ্যরাত থেকে ইলিশ শিকার শুরু করবেন জেলেরা। নদীতে নামার জন্য প্রস্তুতি এরই মধ্যেই সেরে ফেলেছেন জেলেরা। মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে জেলা পাড়ার বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ।

 

সোমবার ইলিশ অধ্যুষিত জেলাগুলোয় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিভিন্ন জেলেপল্লীতে গিয়ে দেখা গেছে, বিভিন্ন ঘাট থেকে জেলেরা মাছ শিকারের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করার জন্য বাজারসহ আনুসাঙ্গিক কাজ সম্পন্ন করে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন। মধ্যরাত থেকেই ইলিশ শিকারে জেলেরা যাত্রা শুরু করবে।

 

ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে ‘প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ অ্যাক্ট, ১৯৫০’ এর অধীন প্রণীত ‘প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ রুলস, ১৯৮৫’ অনুযায়ী চলতি বছর ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে ৪ থেকে ২৫ অক্টোবর মধ্যরাত পর্যন্ত মোট ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করে গত ২৬ সেপ্টেম্বর প্রজ্ঞাপন জারি করে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

 

চলতি বছর ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধকালে জেলেদের জন্য ১১ হাজার ১১৮ দশমিক ৮৮ মেট্রিক টন ভিজিএফ চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়।

 

২০২১-২২ অর্থবছরে সরকারের মানবিক খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির আওতায় ৩৭ জেলার ১৫১টি উপজেলায় মা ইলিশ আহরণে বিরত থাকা ৫ লাখ ৫৫ হাজার ৯৪৪টি জেলে পরিবারের জন্য এ বরাদ্দ দেওয়া হয়। গত বছরের চেয়ে বেশি ২৭ হাজার ৬০২টি জেলে পরিবারকে এবার বরাদ্দের আওতায় আনা হয়েছে। এর আওতায় প্রতিটি জেলে পরিবার ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হয়েছে। ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শুরুর আগেই এ বছর ভিজিএফের চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়।

 

খবর প্রতিদিন/ সি.বা


আরও খবর