Logo
আজঃ সোমবার ২৪ জুন 20২৪
শিরোনাম
গ্রীষ্মের রুক্ষ প্রকৃতিতে শোভা ছড়াচ্ছে সোনালু ফুল ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২৬২ জন নিহত মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা তরুণরাই বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে: প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধানের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ভূয়া সৈনিক পরিচয়ে বিয়ে করে শশুড় বাড়ী শিকলবন্দী জামাই! খাগড়াছড়িতে পুনাক কমপ্লেক্স এর উদ্বোধন করলেন: পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল এিপুরা হিজবুল্লাহর সঙ্গে যুদ্ধ বাধলে ইসরায়েলকে সমর্থন দেবে যুক্তরাষ্ট্র হজ চলাকালীন ১৩০১ জন হজযাত্রীর মৃত্যু: সৌদি আরব সেতু ভেঙ্গে নয়জন নিহতের ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন, মাইক্রোবাস উদ্ধার

চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি বহু নাটকীয়তার পর জামিন

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ২৮৩জন দেখেছেন

Image

গাজীপুর প্রতিনিধি: বহু নাটকীয়তার পর জামিন পেলেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। আজ শনিবার বিকেলে তার জামিন মঞ্জুর করেন গাজীপুর সিএমএম আদালত-৫-এর বিচারক মো. ইকবাল হোসেন। প্রেগনেন্সি ও সেলিব্রেটি বিবেচনায় আদালত এই আদেশ দেন বলে জানা গেছে।

মাহির আইনজীবী অ্যাডভোকেট আনোয়ার সাদত সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ সময় তার সঙ্গে বেশ কয়েকজন আইনজীবী মাহির পক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন। 

বিস্তারিত আসছে....


আরও খবর



বেনজীরের আরও ১১৯টি সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১১৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:রোববার (২৬ মে) আদালত সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছেন । দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালত এ আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পাবলিক প্রসিকিউটর মাহ্‌মুদ হোসেন জাহাঙ্গীর।

ক্রোকের নির্দেশ পাওয়া সম্পত্তির মধ্যে রয়েছে ১১৯টি দলিল। যার মধ্যে আছে ঢাকায় গুলশানের ২০৪২ স্কয়ার ফিটের দুটি এবং ২০৫৩ স্কয়ার ফিটের দুটিসহ পৃথক ৪টি ফ্ল্যাট। সাভারের ৩ কাঠা জমি, মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ১১৩টি জমির দলিল, একই জেলার শিবচরের ১টি দলিল রয়েছে। এছাড়া তার ৪টি নিজ নামীয় কোম্পানি, ৪টি বিও অ্যাকাউন্ট। ১৫ টি আংশিক মালিকানাধীন কোম্পানির শেয়ার ফ্রিজের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৩ মে) গোপালগঞ্জে তার ৮৩টি দলিলের সম্পত্তি জব্দের আদেশ দিয়েছিলেন আদালত।

সম্প্রতি দেশের একটি জাতীয় দৈনিকে দাবি করা হয়, পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ও র‌্যাবের সাবেক মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদের বিপুল পরিমাণ অবৈধ সম্পদের খোঁজ মিলেছে। এরপর থেকে বেশ আলোচনায় রয়েছেন সাবেক এই আইজিপি।

উল্লেখ্য, জাতীয় ওই দৈনিকে ‘বেনজীরের ঘরে আলাদীনের চেরাগ’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়, যেখানে তার নানা অর্থ-সম্পদের বিবরণ তুলে ধরা হয়।


আরও খবর



বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৯০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন, নেপালকে হারিয়ে টি২০ বিশ্বকাপের সুপার এইটে স্থান করে নেওয়ায়।

সোমবার (১৭ জুন) এক বার্তায় রাষ্ট্রপতি জাতীয় দলের খেলোয়াড়, কোচসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দন জানিয়ে আশা প্রকাশ করেন, সুপার এইটেও জয়ের এ ধারা অব্যাহত থাকবে এবং বাংলাদেশের ক্রিকেটকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আজ নেপালকে ২১ রানে হারিয়েছে টাইগাররা। কিংস্টনে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ১৯ ওভার ৩ বলে ১০৬ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১৭ রান করেন সাকিব আল হাসান। জবাবে খেলতে নেমে ১৯ ওভার ২ বলে ৮৫ রানে অলআউট হয় নেপাল। ফলে ২১ রানে জয় পায় বাংলাদেশ।

টাইগাররা এই প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এক আসরে ৩ ম্যাচ জয় পেল।


আরও খবর



জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ১৪৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জানিয়েছেন ২০২৪-২৫ অর্থবছরে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হবে এবং মধ্যমেয়াদে তা বেড়ে ৭ দশমিক ২৫ শতাংশে পৌঁছাবে বলে।

বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) বিকেল ৩টায় জাতীয় সংসদে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে বাজেট উপস্থাপন বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এমনটি জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরে বাংলাদেশের গড় প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৬ দশমিক ৭১ শতাংশ, যা বিশ্বের সব দেশের মধ্যে অন্যতম সর্বোচ্চ। উচ্চ মূল্যস্ফীতির কারণে দেশের অর্থনীতি বর্তমানে কিছুটা চাপের সম্মুখীন হলেও প্রাজ্ঞ ও সঠিক নীতিকৌশল বাস্তবায়নের ফলে জিডিপি প্রবৃদ্ধির গতিধারা অব্যাহত রয়েছে।

মাহমুদ আলী বলেন, কোভিড-১৯ অতিমারির পূর্বের বছরে অর্থাৎ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে রেকর্ড ৭ দশমিক ৮৮ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছিল। রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট এবং অন্যান্য বৈশ্বিক অস্থিরতার ফলে সৃষ্ট সব প্রতিকূলতা সত্ত্বেও বাংলাদেশ ২০২১-২২ অর্থবছরে ৭ দশমিক ১০ শতাংশ, ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৫ দশমিক ৮ শতাংশ এবং ২০২৩-২৪ অর্থবছরে ৫ দশমিক ৮২ শতাংশ (সাময়িক) প্রবৃদ্ধি অর্জনে সক্ষম হয়েছে; যা আমাদের অর্থনীতির অন্তর্নিহিত শক্তির পরিচায়ক।

তিনি বলেন, জিডিপি প্রবৃদ্ধির এ গতি আগামীতে ধরে রাখার লক্ষ্যে কৃষি ও শিল্প খাতের উৎপাদন উৎসাহিত করতে যৌক্তিক সকল সহায়তা চলমান থাকবে। পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো প্রকল্পসমূহের যথাযথ বাস্তবায়ন এবং রপ্তানি ও প্রবাস আয় বৃদ্ধির লক্ষ্যে সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ কাঙ্কিত মাত্রায় জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনে সহায়ক হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আশা করছি আমাদের এ সকল প্রাজ্ঞ নীতিকৌশলের সুফল হিসেবে আগামী অর্থবছরে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অজিত হবে এবং মধ্য মেয়াদে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৭ দশমিক ২৫ শতাংশে পৌছাবে।


আরও খবর



ফুলবাড়ী পৌরসভার ড্রেনের পানিতে বাড়ীঘর ঝুকি পূর্ণ

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জুন ২০২৪ | ৭৯জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ী পৌরসভা এলাকার পশ্চিম গৌরীপাড়া গ্রামে বর্ষাকালে ড্রেনের পানির স্রোতে, ড্রেনের মুখে থাকা বাড়ীঘর ভেঙ্গে যাচ্ছে। ফুলবাড়ী পৌরসভা কর্তৃক জাইকা প্রকল্পের আওতায় পৌরসভা থেকে প্রায় ১ হাজার ফিট পাকা ড্রেন নির্মাণ হয়ে নিমতলা মোড় হয়ে ফুলবাড়ী উর্বসী সিনেমা হল এর উত্তর দিক হয়ে যমুনা নদীর মুখে গিয়ে শেষ হয়। ড্রেনটি নির্মাণ করার পর বিভিন্ন বাসা বাড়ীর পাইপ লাইন সংযোগ ড্রেনে দেওয়া হয়। এমনকি লিং ড্রেন গুলিও মুল ড্রেনে সংযোজন করা হয়। ফলে বর্ষা কাল এলে এই ড্রেন দিয়ে তীব্র বেগে পানি প্রবাহিত হয়। এই কারণে ড্রেনের মূখে থাকা ঘর বাড়ীগুলি ভেঙ্গে পড়ছে। ড্রেনের সঙ্গে থাকা বাড়ীর মালিক মোঃ ইব্রাহীম, মোঃ কাদের , মোঃ মমিনুল ইসলাম, মোঃ আব্দুল, মোঃ গোলজার ও দুখুমিয়ার বাড়ী রয়েছে। এই বাড়ীগুলি ঝুকির মধ্যে রয়েছে। এরা গরিব মানুষ এখানে বাড়ীঘর নির্মাণ করে বসবাস করে আসছে। তাদের এই বাড়ীঘর গুলি ড্রেনে ভেঙ্গে পড়লে তারা সর্বশান্ত হয়ে পড়বে। মোঃ মমিনুল ইসলাম জানান, বর্ষার আগে ৪নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র মোঃ মামুনুর রশিদ মামুন কে বিষয়টি অবগত করি এবং কয়েকবার পৌর সভায় গিয়ে পৌর চেয়ারম্যান কেও বিষয়টি মৌখিকভাবে অবগত করি।  

ফুলবাড়ী পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মাহমুদ আলম লিটন এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, বিষয়টি ইতিপূর্বেও অবগত হয়েছি, সরেজমিনে গিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

ফুলবাড়ী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র মোঃ মামুনুর রশিদ মামুন এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, আগামী মাসিক মিটিং এ বিষয়টি তুলে ধরা হবে। আসলে এই জায়গাটি ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়েছে। ব্যবস্থা না নিলে ড্রেন সংলগ্ন বাড়ীগুলি রক্ষা করা সম্ভব নয়। 

এ ব্যাপারে ভূক্তভূগিরা জরুরীভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে কর্তৃপক্ষের অসু-হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আরও খবর



ভাষা সৈনিক আব্দুর রহমান মারা গেছেন

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ভাষা সৈনিক, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠম ও নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান (৮০) আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

নারায়ণগঞ্জ শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে শনিবার (১৫ জুন) দিবাগত রাত ১১টার দিকে মারা যান প্রবীণ এ রাজনীতিক।

পরিবারের সদস্যরা নিশ্চিত করেছেন, রোববার (১৬ জুন) বাদ জোহর নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন জামে মসজিদে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে ফতুল্লার কাশিপুর ছোট কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হবে।

রাত সোয়া বারোটার দিকে আব্দুর রহমানের বড় ছেলে আহমেদুর রহমান তনু তার ফেসবুকে নিজের ব্যক্তিগত আইডিতে বাবার ছবি পোস্ট করে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে লিখেছেন, ‘আব্বু চলে গেলো। এত বড় একটা জীবনের বিদায়। জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে আব্দুর রহমান ক্যান্সার, কিডনি ও ডায়বেটিকসহ নানা রোগে ভুগছিলেন। গত ৩০ মে থেকে শহরের চাষাঢ়া বালুরমাঠ এলাকায় হেলথ রিসোর্ট হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধিন ছিলেন তিনি।

তার সংগ্রামী ছাত্রজীবন, রাজনৈতিক জীবন ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে নানা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা বিশ্লেষণ করে জানা যায়, স্বধীনতার পূর্বে তিনি ছিলেন পাকিস্তান সরকার বিরোধী আন্দোলনে প্রথম সারির তুখোর ছাত্রনেতা। ভাষা আন্দোলন, মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম সংগঠক, অবিভক্ত ঢাকা জেলা ছাত্রলীগ, বাকশাল ও নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের নেতা ছিলেন তিনি। এছাড়া পাট শ্রমিক লীগ, সুন্নীয় ঐক্য পরিষদ ও শ্রুতি সাংস্কৃতিক একাডেমির সাবেক সভাপতি, সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের অন্যতম নেতা, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা পদে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেছেন। রাজপথে বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামের নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। কখনও অন্যায়ের সঙ্গে আপস করেননি। ১৯৮৭-৮৮ সালে স্বৈরাচার সরকার বিরোধী আন্দোলনে অংশ নিয়ে দীর্ঘ ১৩ মাস কারাবন্দি ছিলেন এ গণমানুষের নেতা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচরও ছিলেন আব্দুর রহমান। পারিবারিক জীবনে স্ত্রী, ২ ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন তিনি। তার স্ত্রীও ছিলেন ভাষা সৈনিক এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম নারী সংগঠক। আব্দুর রহমানের বড় ছেলে আহমেদুর রহমান তনু সুজনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ছোট ছেলে আরিফুর রহমান তপু জাতীয় পর্যায়ের চিত্রশিল্পী এবং একমাত্র মেয়ে তানহা রহমান পেশায় আইনজীবী।


আরও খবর