Logo
আজঃ Tuesday ২৪ May ২০২২
শিরোনাম
চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্য চাইলেন হতদরিদ্র আওয়ামীলীগ নেতা হাবিবুর

চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্য চাইলেন হতদরিদ্র আওয়ামীলীগ নেতা হাবিবুর

প্রকাশিত:Saturday ২২ January 20২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ২২৪জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নান ,নাসিরনগর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের শ্যামপুর গ্রামের হাবিবুর রহমান পেশায় একজন দিনমজুর। তিনি ও তার স্ত্রী দুজনই গলগণ্ড রোগে আক্রান্ত। ৬ মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন  হাবিবুর।তার স্ত্রী ও একই রোগে আক্রান্ত হয়েছে।দুজনের গলার অপারেশন করতে ২ লক্ষ টাকার প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। চিকিৎসার অভাবে দিনদিন মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে হাবিবুর ও তার স্ত্রী।।অভাবের সংসারে দুই বেলা সন্তানদের মুখে খাবার তুলে দেওয়া যেখানে অসাধ্য সেখানে ব্যববহুল এই চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়া হাবিবুরের পক্ষে অসম্ভব। তিনি মজলিশপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ১০ বছর যাবৎ দায়িত্ব পালন করে আসছেন বলে জানা গেছে। 


 শুক্রবার বিকেলে সরেজমিনে গেলে স্থানীয় লোকজন জানান,এলাকার হাজার হাজার মানুষের চলাচলের কষ্ট লাগব করার জন্য হাবিবুর রহমান নিজের একমাত্র সম্বল জমি বিক্রি করে মজলিশপুর ইউনিয়নের শ্যামপুর গ্রামের দক্ষিণ দিকে তিতাসের পূর্বপাড়ে বটতলী ( কাটাখালী) থেকে পূর্ব দিকে লইস্কা বিলের উপর দিয়ে ৬৫০ ফুট রাস্তা ও ৫০ ফুট কাঠের ব্রিজ তৈরি করেন৷মানবতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করা মানুষটির এখন করুণ অবস্থা, চিকিৎসা করার টাকা নাই৷তার এমন দূর্দিনে আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ এবং সমাজের ধনাঢ্য হৃদয়বান মানুষের উচিত তার পাশে দাড়িয়ে সহযোগিতা করা।


মজলিশপুর ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেন,হাবিবুর রহমান প্রায় ৩০ বছর যাবৎ আওয়ামীলীগের একজন নিবেদিত কর্মী। সে খুবই গরীব মানুষ, দারিদ্র সীমার নিচে বাস করছে।৬ মেয়ে ও স্ত্রী নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে।সংগঠন করতে গিয়ে অনেক কষ্ট করেছে।আমাদের দলীয় নেতৃবৃন্দ,এমপি মহোদয় সহ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার কাছে তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করার জন্য অনুরোধ করছি। 


হাবিবুর রহমান জানান, আমি ক্ষেতে খামারে দিনমজুরের কাজ করে ৬ মেয়ের পড়াশুনা এবং সংসার চালাচ্ছি। আমি এবং আমার স্ত্রী দুজনের গলা দিনদিন ফুলে যাচ্ছে। ডাক্তার বলছে অপারেশন করাতে দুই লক্ষ টাকা লাগবে। এখন চিকিৎসা করার মতো আমার কোনো সামর্থ্য নাই।১০ বছর যাবৎ ওয়ার্ড আওয়ামিলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। দলীয় নেতৃবৃন্দ ও র.আ.ম.উবায়দুল মুক্তাদির চৌধুরী এমপি সহ বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চিকিৎসার সাহায্যের জন্য আকূল আবেদন জানান তিনি।সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা হাবিবুর রহমানের পার্সোনাল বিকাশ নাম্বার 01791-388452।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা   

আরও খবর



সাংবাদিক ও বিশিষ্ট নাগরিকদের সম্মানে মধ্যাহ্ন ভোজ

দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার সাংবাদিক ও বিশিষ্ট নাগরিকদের সম্মানে মধ্যাহ্ন ভোজ

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৮৭জন দেখেছেন
Image
সোহরাওয়ার্দীঃ

দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার সম্পাদক প্রয়াত অধ্যাপক দীন মোহাম্মদ ভুঁইয়ার বাসভবনে পত্রিকার সাংবাদিক ও বিশিষ্ট জনদের সম্মানে মধ্যাহ্ন ভোজের আয়োজন করা হয়।

সকলের উপস্থিতিতে রাজা খালির বাসভবন এক মিলন মেলায় পরিণত হয়। 

দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক শরফ উদ্দিন ভূঁইয়া রাব্বির নিমন্ত্রণে আয়োজিত গণভোজে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক রেজাউল করিম রাজু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ নজরুল ইসলাম মুক্তি। 

এতে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি নাজমুল হাসান,বিশেষ সংবাদ দাতা মো:আবদুস সবুর রবিন, বিশেষ সংবাদ দাতা মো: সেলিম হোসেন রনি, সটাফ রিপোর্টার মাজহারুল ইসলাম বাপ্পি,স্টাফ রিপোর্টার মোঃ আলমগির, শেফরান আহমেদ, দৈনিক মুক্ত খবর পত্রিকার সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার এ আর হানিফ,দৈনিক আমাদের কন্ঠ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার বজলুর রহমান।

দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার প্রকাশক রেশমি ভূইয়া আমন্ত্রিত সব অতিথিদের স্বাগত জানান।

আগামী দিনগুলোতে দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার সকল কার্যক্রম আরো বেগবান করার লক্ষ্যে সবাইকে একযোগে কাজ করার জন্য আহ্বান জানান রেশমি ভূঁইয়া

আরও খবর



জোড়া লাগানো হলো হাতের কব্জি

অপারেশন করে জোড়া লাগানো হলো সেই পুলিশ সদস্যের হাতের কব্জি

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১৪০জন দেখেছেন
Image

এ.আর হানিফঃ

গ্রেফতার অভিযানে গিয়ে চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় আসামির দায়ের কোপে বিচ্ছিন্ন হওয়া পুলিশ সদস্য জনি খানের হাতের কব্জি টানা ১০ ঘণ্টার প্রচেষ্টায় জোড়া লাগানো হয়েছে। ঢাকার আল মানার হাসপাতালে এ অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়।


সাতকানিয়া থানার এসআই ভক্ত চন্দ দত্ত সোমবার (১৬ মে) সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এসআই ভক্ত চন্দ দত্ত বলেন, রোববার দিনগত রাত আড়াইটার দিকে অস্ত্রোপাচার শুরু করে সোমবার বেলা ১১টার দিকে শেষ হয়। জনি খানের অবস্থা স্বাভাবিক রয়েছে। আল মানার হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. সাজেদুর রেজা ফারুকীর নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক এ অস্ত্রোপাচার সম্পন্ন করেন।


রোববার সকালে লোহাগাড়া থানার পদুয়া ইউনিয়নের লালারখিল এলাকার মৃত আলী হোসেনের ছেলে কবির আহমদকে (৩৫) গ্রেফতারে অভিযান চালায় পুলিশ। লোহাগাড়া থানার এসআই ভক্ত চন্দ্র দত্ত, এএসআই মজিবুর রহমান, কনস্টেবল জনি খান ও শাহাদাত হোসেন পুলিশ পিকআপ করে এ অভিযানে যান।


পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কবির আহমদ ধারালো দা দিয়ে পুলিশ সদস্য জনি খানের হাতে কোপ দিয়ে পালিয়ে যান। এতে তার হাত থেকে কব্জি বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতানে নেওয়া হয়। পরে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য র্যাবের হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় পাঠানো হয়।


এদিকে হামলার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় প্রধান আসামি হামলাকারী কবির আহমদের স্ত্রী রুবি আকতারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার রাতে বান্দরবানের সীমান্তবর্তী এলাকা লামা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।


আরও খবর



মোবাইল ফোন সেট জব্দ

মিরপুর থেকে অনুমোদনবিহীন ২১৩ টি মোবাইল ফোন সেট জব্দ

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৯০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রাজধানীর মিরপুর-২ এলাকার মিরপুর শপিং কমপ্লেক্সের সাতটি দোকান থেকে অনুমোদনবিহীন ২১৩টি মোবাইল সেট জব্দসহ ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।


বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) এনফোর্সমেন্ট অ্যান্ড ইন্সপেকশন টিম ও রাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব-৪) যৌথ অভিযানে তাদের আটক করা হয়।



মঙ্গলবার (১৮ মে) এই অভিযান চালানো হয়।



অভিযান চালানো দোকানগুলোর মধ্যে মোবাইল ল্যাব থেকে ৩৪টি, মোবাইল অ্যান্ড গেজেট থেকে ৩১টি, টেক ফ্যাক্টরি থেকে নয়টি, গ্যাজেট ভিলা-৬৩৯ থেকে ৩৩টি, গ্যাজেট ভিলা-৬৬২ থেকে ৩১টি, গ্যাজেট ভিলা-৬৭১ থেকে ৩৩টি ও কোরাস থেকে ৪২টি বিভিন্ন মডেলের মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।



বিটিআরসি ও র‍্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, আটকরা দীর্ঘদিন ধরে অনুমোদনবিহীন মোবাইল সেটের ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন- ২০০১, (সংশোধিত-২০১০) অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।



আরও খবর



নাসিরনগরে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:Monday ২৫ April ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৩ May ২০২২ | ১৪৩জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নান: নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)

জেলার নাসিনরগরে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক এলকার ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ঈদ উপহার হিসেবে ৩য় পর্যায়ে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের শুভ উদ্ভোধন উপলক্ষে সকাল সাড়ে ১১ ঘটিকার সময় নাসিরনগর উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে স্থানীয় ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের লোকজনের সাথে এক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।


উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মেহেদী হাসান খান শাওনের সভাপত্তিত্বে উক্ত মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ সংসদীয় ২৪৩ নাসিরনগর আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব বিএম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম (এমপি)। বিশেষ অতিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নাসিরনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন আহমেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুবিনা আক্তার। অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা প্রকৌশলী সৈয়দ মোঃ জাকির হোসেন, অফিসার ইনর্চাজ মোঃ হাবিবুল্লা সরকার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, দলীয় নেত্রীবৃন্দ ও স্থানীয় সাংবাদিকরা।


জানাগেছে ২৬ এপ্রিল ২০২২ তারিখে নাসিরনগর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে ১৫০ জন ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ঈদ উপহার হিসেবে ৩য় পর্যায়ে সারাদেশের ন্যায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নাসিরনগরেও জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের শুভ উদ্ভোধন করবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। সভায় উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব বিএম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম (এমপি)। এ সময় তিনি বলেন আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে নাসিরনগর উপজেলায় যে উন্নয়ন হয়েছে অন্য কোন সরকার তা করতে পারেনি। তিনি আরো বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বাংলাদেশে কোন লোক গৃহহীন ও ভূমিহীন থাকবে না।


তাই নাসিরনগরেও এর ব্যতিক্রম হবে না। কারো জানামতে কোন ভূমিহীন বা গৃহহীন থাকলে সঠিক তথ্য প্রমান সহ মাননীয় সংসদ সদস্য এবং উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করতে সকলে প্রতি আহব্বান জানান এমপি। পরে উপজেলার ভূমি ও গৃহহীন “ক” শ্রেণী পরিবারের শত ভাগ পূর্ন বাসন সংক্রান্ত টাস্কফোর্স কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। 



আরও খবর



জানে আলম চট্টগ্রাম অটোটেম্পু শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক

চট্রগ্রামে চাঁদাবাজী মামলার প্রধান আসামী জানে আলম গ্রেফতার

প্রকাশিত:Sunday ২২ May 20২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নগরের বাকলিয়া-নতুন ব্রিজ এলাকায় চাঁদাবাজির ঘটনার মূল হোতা মো. জানে আলমকে (৪১) গ্রেফতার করেছে বাকলিয়া থানা পুলিশ।


রোববার (২২ মে) সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান বাকলিয়া থানার ওসি রাশেদুল হক।


তিনি জানান, বাকলিয়া-নতুন ব্রিজ এলাকার ত্রাস, চাঁদাবাজদের নেতৃত্বদানকারী এবং ভাসমান ভ্যানগাড়ি ও হকারদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়কারী এই জানে আলম। চাঁদা না পেয়ে এক ফল বিক্রেতার ওপর হামলা-ভাংচুর মামলার আসামি সে।


চন্দনাইশের পশ্চিম কেশুয়া ১ নম্বর ওয়ার্ডের ছোরত আলীর বাড়ির মৃত গুরা মিয়ার ছেলে জানে আলম চট্টগ্রাম অটোটেম্পু শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছে।


পুলিশ জানায়, গত ১৬ মে জানে আলমের নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ চাঁদাবাজ দলের সদস্যরা নতুন ব্রিজ এলাকায় ভ্যান গাড়িতে ফল বিক্রেতা মো. বাদশার (২০)  কাছে চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় জানে আলম তার সহযোগী আরাফাত,  মো. আলী ও জাবেদুল ইসলামকে নিয়ে ১৭ মে রাত ৯টার দিকে নতুন ব্রিজ সংলগ্ন নবাব খাঁ কলোনির সুমনের দোকানের সামনে বাদশার পথরোধ করে।


 এসময় তাকে মারধর করে এবং ভ্যানগাড়ি ভাংচুর করে। পরে থানায় মামলা হলে অভিযান চালিয়ে অন্য আসামিদের গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হলেও মূল হোতা জানে আলম পালিয়েছিল।


রোববার (২২ মে) দুপুরে আসামি জানে আলমকে আদালতে পাঠানো হবে বলে জানান ওসি রাশেদুল হক।


আরও খবর