Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম
নিলয় কোটা আন্দোলনকারীদের পক্ষ নিয়ে কী বললেন স্থগিত ১৮ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা তিতাসের অভিযানে নারায়ণগঞ্জের ২ শিল্প কারখানার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হিলি দিয়ে কাঁচা মরিচ আমদানি বাড়ায় বন্দরের পাইকারী বাজারে কেজিতে দাম কমেছে ৩০ টাকা জয়পুরহাটে ডাকাতির পর প্রতুল হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন রিয়েলমি সার্ভিস ডে: ফোন রিপেয়ারে খরচ বাঁচান ৬০% পর্যন্ত, উপভোগ করুন ফ্রি সার্ভিস সুনামগঞ্জে ইয়াবাসহ ২জন গ্রেফতার: কোটিপতি সোর্স ও গডফাদার অধরা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৩ দিনে ৩ খুন, আইনশৃংখলার অবনতি জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

চার্জিংয়ের ভবিষ্যৎ ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিং

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৬১জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:ইনফিনিক্সের নোট ৪০ সিরিজের স্মার্টফোনে ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি তরুণদের মাঝে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এতদিন পর্যন্ত উন্নত এই প্রযুক্তি শুধু আইফোনেই পাওয়া যেত, তবে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরাও এখন এই সুবিধা ভোগ করতে পারছেন। এই পদক্ষেপের কারণে একদিকে যেমন চার্জিংয়ের চিত্র বদলে গেছে অন্যদিকে চার্জিংয়ের ক্ষেত্রে নতুন মানদণ্ডও স্থাপিত হয়েছে।

এমন সময়ে এই প্রযুক্তির ঘোষণা এলো, যখন স্মার্টফোন শিল্প ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তির দিকে ঝুঁকছে। প্রযুক্তির উন্নতি এবং গ্রাহকদের পরিবর্তনশীল চাহিদা মেটাতে ইনফিনিক্স দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি চালু করা সেই প্রতিজ্ঞারই প্রতিফলন। এর আগে কিউআই প্রটোকল ২.০-এর মাধ্যমে শুধু অ্যাপল ডিভাইসে এই প্রযুক্তি সীমাবদ্ধ ছিল। অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে ইনফিনিক্সই প্রথম এই প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে।

ম্যাগচার্জ প্রযুক্তির মাধ্যমে ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিংকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে ইনফিনিক্স, এমনকি অ্যাপলের প্রযুক্তিকেও এটি ছাড়িয়ে গেছে। ফোনের কয়েল ও চার্জারকে নিরাপদে যুক্ত করার মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্ন চার্জিংয়ের অভিজ্ঞতা প্রদান করছে ইনফিনিক্সের ম্যাগচার্জ প্রযুক্তি। ফলে সুনির্দিষ্ট অ্যালাইনমেন্টের প্রয়োজনীয়তা দূর হয়ে একটি স্থিতিশীল চার্জিং প্রক্রিয়া নিশ্চিত হয়।

তাছাড়া, ইনফিনিক্সের ম্যাগকিট ব্যবহারকারীদের পূর্ণাঙ্গ ম্যাগনেটিক চার্জিং সল্যুশন প্রদান করে। এই ম্যাগকিটের অন্তর্ভুক্ত ম্যাগপাওয়ার দেয় সত্যিকারের “ম্যাগনেটিক চার্জিং,” যার জন্য কোনো শক্তির উৎসের কাছাকাছি থাকারও কোনো প্রয়োজন হয় না। ফলে ফোনটি ব্যবহার করা যায় আরও সহজে।

নোট ৪০ সিরিজের ম্যাগনেটিক ওয়্যারলেস চার্জিং ফিচারের সাথে আরও আছে চমৎকার একটি আল্ট্রা-থিন ম্যাগনেটিক পাওয়ার ব্যাংক। মাত্র ৮.৬ মি.মি. পুরুত্ব ও ৮৬ গ্রাম ওজনের পাওয়ার ব্যাংকটি সহজেই বহনযোগ্য। এই পাওয়ার ব্যাংকের সক্ষমতা ৩০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার, যা যেকোনো জায়গায় ফোনে চার্জ দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

পাওয়ার ব্যাংকটির ম্যাগনেটিক ডিজাইনের কারণে এটিকে সহজেই নোট ৪০ ফোনের পেছনের অংশে যুক্ত করা যায়। ফলে চার্জিংয়ের জন্য একটি নিরাপদ সংযোগ তৈরি হয় এবং কোনো ক্যাবল বা অ্যাডাপ্টারের ঝামেলা ছাড়াই এটি চার্জ দেয়া যায়। এছাড়া, পাওয়ার ব্যাংকটি ঘড়ি ও হেডফোনের মতো অন্যান্য ইকোসিটেম পণ্যের সাথেও ব্যবহার করা যায়।

নোট ৪০ সিরিজের মাধ্যমে গ্রাহকদের জন্য অত্যাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে আসার পাশাপাশি ম্যাগনেটিক ও ওয়্যারলেস চার্জিংকে সবার জন্য সহজলভ্য করে তুলছে ইনফিনিক্স। ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি ক্রমাগত বিবর্তিত হচ্ছে। আর ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতা উন্নত করার লক্ষ্যে উদ্ভাবনী সমাধান প্রদানের মাধ্যমে এক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিতে ইনফিনিক্স প্রস্তুত। প্রযুক্তির উন্নতি অনেক সময় মূল্যের সীমা অতিক্রম করার ওপর নির্ভর করে। এর ফলে সেই প্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহার ও উন্নয়ন সম্ভব হয়। 


আরও খবর



শিক্ষার্থীরা এক ঘণ্টা পর অবরোধ তুলে নিলো, যান চলাচল স্বাভাবিক

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ৬১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শিক্ষার্থীরা কোটা বাতিলের দাবিতে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচিতে পুলিশের হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করে শাহবাগে অবস্থান নেন। দীর্ঘ এক ঘণ্টা অবস্থানের পর অবরোধ তুলে নিয়েছেন কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এতে ওই এলাকায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

শুক্রবার (১২ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটের দিকে অবরোধ তুলে নেন শিক্ষার্থীরা। অবরোধ তুলে নেওয়ার আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শনিবারের কর্মসূচি ঘোষণা করেন বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক আবু বাকের মজুমদার।

তিনি বলেন, ‘আগামীকাল সব বিশ্ববিদ্যালয় ও জেলায় জেলায় আমাদের অনলাইন-অফলাইন প্রতিনিধি বৈঠক হবে। সন্ধ্যা ৬টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারের সামনে আমরা পরবর্তী কর্মসূচি সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়ে দেব। আমাদের এক দফা দাবি সরকারকে অবশ্যই আমলে নিতে হবে।’

আবু বাকেরের আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের সমন্বয়ক আবদুল কাদের ও মাহিন সরকার।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



কোটা বাতিল আন্দোলনের কোনো যৌক্তিকতা নেই: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | ১০৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:কোটা বাতিল আন্দোলনের কোনো যৌক্তিকতা নেই। আন্দোলনের নামে যা করা হচ্ছে তার যৌক্তিকতা আছে বলে মনে করি না,বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার (৭ জুলাই) গণভবনে বেলা পৌনে ১১টায় গণভবনে যুব মহিলা লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোটা বাতিলের আন্দোলন হচ্ছে। কোটা বন্ধ করা হয়েছিল। কিন্তু হাইকোর্টের রায়ে বহাল হয়েছে। পড়াশোনা বাদ দিয়ে ছেলেমেয়েরা আন্দোলন করছে। এর কোনো যৌক্তিকতা নেই।

মহিলা লীগের কর্মীদের পেনশন স্কিমে যোগ দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবার জন্য পেনশন স্কিম করা হয়েছে। জীবনের নির্ভরতার জন্য পেনশন। আমরা চাই সবাই একটু ভালোভাবে বাঁচুক।

বিএনপি ক্ষমতায় থাকার সময় যেভাবে নিযার্তন করেছে তা নিন্দারও যোগ্য নয় মন্তব্য করে তিনি বলেন, দলটি ভোট চুরি করে মাত্র দেড় মাস টিকেছে। গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে ২০০১ সালে ক্ষমতায় গিয়েছিল বিএনপি। ভোট চুরির অবপাদে ২ বার ক্ষমতাচ্যুত হয়েছে তারা।

সরকারপ্রধান বলেন, বিএনপি সমাজের বোঝা, তাদের সন্ত্রাসী চেহারা মানুষের সামনে তুলে ধরতে হবে। বিএনপি-জামায়াত যেন আর ক্ষমতায় ফিরতে না পারে, সেজন্য মানুষকে সচেতন থাকতে হবে।


আরও খবর



মাগুরায় ১শ' খামারির মধ্যে ২ কোটি টাকার ঋন বিতরণ

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরায় দুগ্ধ ঘাটতি উপজেলায় দুগ্ধ সমবায়ের কার্যক্রম  সম্প্রসারণ প্রকল্পে"র আওতায় উন্নত জাতের গাভী ক্রয়ের জন্য মাগুরায় ১শ' জন খামারির  মাঝে ২ লাখ করে মোট ২ কোটি টাকার ঋণ বিতরণ করা হয়। সমবায় অধিদপ্তরের প্রকল্প পরিচালকের কার্যালয়, উপজেলা প্রশাসন ও সমবায় কার্যালয়   রবিবার দুপুর  ১২ টায় স্থানীয়  আসাদুজ্জামান মিলনায়তনে এ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। মাগুরা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানুর রহমান এতে সভাপতিত্ব করেণ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খামারিদের মাঝে চেক বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবু নাসের বেগ।  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমবায় অধিদপ্তরের প্রকল্প পরিচালক যুগ্ম নিবন্ধক তোফায়েল আহম্মদ, মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফম আব্দুল ফাত্তাহ, মাগুরা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রানা আমীর ওসমান, জেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা মাহির কান্তি বিশ্বাস, জেলা সমবায় কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম, রাঘবদাইড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম। অনুষ্ঠানে খামারীরা উপস্থিত থেকে চেক গ্রহন করেন।


আরও খবর



বজ্রপাতে পঞ্চগড়ে এক নারীর মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৪জন দেখেছেন

Image

কুয়েল ইসলাম সিহাত, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি:পঞ্চগড় সদর উপজেলায় বজ্রপাতে শৈল্য বালা (৫০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।সোমবার (২৪ জুন) সকাল ১১টায় সদর উপজেলার হাড়িভাসা ইউনিয়নের ঘাগড়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শৈল্য বালা একই গ্রামের জগেশ চন্দ্র রায়ের স্ত্রী।পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সোমবার সকালে নিহত শৈল্য বালা তার নিজ বাড়ির কাজ করে বৃষ্টির মধ্যে টিউবওয়েল পাড়ে পানি আনতে যান। এ সময় পাশে থাকা কলার গাছের ওপর বজ্রপাত হলে তিনিও আহত হন। তখন তিনি চিৎকার দিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে বাড়ির অন্য সদস্যরা তাকে দ্রুত উদ্ধার করেন পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এব্যাপারে হাড়িভাসা ইউপি চেয়ারম্যান সাইয়েদ নূর-ই-আলম বলেন, নিহত শৈল্য বালার ছোট ভাই হাড়িভাষা ইউনিয়নের ইউপি সদস্য গোবিন্দ চন্দ্র রায় ঘটনাটি আমাকে জানান। পরে বিষয়টি আমি থানা পুলিশকে জানাই।এদিকে পঞ্চগড় সদর থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার রায় জানান, বজ্রপাতে নিহত হওয়ার ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।


আরও খবর



তানোরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের হামায় আহত ৫ আশংকাজনক ২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ভূমিগ্রাসী শিক্ষক রফিকুল বাহিনীর হামলায় পাঁচজন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় রামেক হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। আহতরা হলেন তমিজ উদ্দিন, কামরুজ্জামান, আলম, রেজাউল ও মুকবুল হোসেন।  তাদের মধ্যে গুরুতর জখম তমিজ উদ্দিন ও কামরুজ্জামান কে আশংকাজনক অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে কর্তব্যরত চিকিৎসক রামেক হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সোমবার সকালের দিকে উপজেলার পাঁচন্দর  ইউনিয়ন ইউপির চকপাড়া গ্রামে ঘটে মারপিটের ঘটনা। এঘটনায় ওই গ্রামে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। যে কোন মুহুর্ত্বে রক্তক্ষয়ীর মত সংঘর্ষ হতে পারে বলে আশংকা গ্রামবাসীরা।

জানা গেছে, উপজেলার পাঁচন্দর ইউনিয়ন ইউপির বনকেশর মৌজার অন্তর্গত আরএস ১৪২ নম্বর খতিয়ানে ১৬৩৭ নম্বর আরএস দাগে ৩ একর ৭৬ শতাংশ জমি রয়েছে। জমিটির আরএস রেকর্ডীয় মালিক কেয়ামত সরকার। তার মৃত্যুর পরে ছেলে মেয়েরা বন্টননামা দলিল করে নিজনিজ নামে খাজনা খারিজ করেছেন। কিন্তু ওই গ্রামের বাসিন্দা চাদপুর দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জাল দলিল তৈরি করে জমিটিতে গত কয়েকদিন আগে চাষ করেন। সোমবার সকালের জমির প্রকৃত মালিক তমিজ উদ্দিন, কামরুজ্জামান ও আলমসহ ওয়ারিশরা মুল কাগজ পত্র নিয়ে শিক্ষক রফিকুলের কাছে জানতে চাইলে তাদের উপর লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করেন। 

জমির ওয়ারিশ সুত্রে মালিক মুনজুর জানান, জমির রেকর্ডীয় মালিক আমার দাদা। আমার পিতা মারা যাওয়ার পর মালিক হয় আমি। আমিসহ যে সকল ওয়ারিশরা জমির মালিক তাদের নিজ নিজ নামে খাজনা খারিজ চলমান রয়েছে। কিন্তু শিক্ষক রফিকুল ১৯২০/২২ সালে নামি জমিটি কিনেছেন। আমরা তাদেরকে বলেছি তোমাদের কাগজ সঠিক থাকলে আমরা জমি ছেড়ে দিব। সে কোন কাগজ পত্র দেখাবেনা। 

আহত হয়ে মেডিকেলের বেডে শুয়ে আছেন আলম ও রফিক তারা জানান, গত কয়েকদিন আগে জমিগুলো তে চাষ করেছেন রফিক বাহিনীর লোকজন। আমরা সোমবার সকালের দিকে কাগজ নিয়ে জমিতে গিয়ে জিজ্ঞাসা করি কিসের বিনিময়ে চাষ করা হয়েছে বলা মাত্রই আমাদেরকে এলোপাতাড়ি মারপিট শুরু করে। তারা পরিকল্পিত ভাবে আমাদের কে মেরে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে। আনারুল তার ছেলে সোহাগ, জাকারিয়া, শিক্ষক রফিকুলের চাচাতো ভাই সহিদুল তার ছেলে সোহেল, সুজনসহ তাদের লোকজন লোহার রড, বাশের লাঠি দিয়ে বেপরোয়া মারপিট করেছে। আমরা তিনজন উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছি। তমিজউদদীন ও কামরুজ্জামানের অবস্থা খুবই খারাপ হওয়ার কারনে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেছে। সবার মাথা ফেটেছে এবং শরীরেও মারাত্মক আঘাত লেগেছে। 

সরেজমিনে দুপুরের পরে চকপাড়া গ্রামে  গিয়ে দেখা যায়, গ্রামে তেমন জনসাধারণ নেই। গ্রামের পশ্চিম দিকে জমির অবস্থান। বেশকিছু ব্যক্তিরা জানান, জমির প্রকৃত মালিক মৃত কেয়ামত সরকারের ওয়ারিশরা। তাদের নামে খাজনা খারিজ সব কিছুই রয়েছে। বিগত ২০০১ সালের আগে মৃত কেয়ামত সরকারের ওয়ারিশ গণ ভোক দখল করতেন। কিন্তু ২০০১ সালে বোমা ফাটিয়ে জমিটি দখল করে শিক্ষক রফিকুল বাহিনী। কিন্তু তার নামে কোন কাগজপত্র নেয়। শুধু লাঠির জোরে জমি দখলে রেখেছে। যে দুজনকে রেফার্ড করা হয়েছে তাদের নাক কান দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল।  সবার মাথা ফেটেছে, শরীরেও এলোপাতাড়ি ভাবে পিটিয়েছে রফিকের লোকজনরা। সে একজন মাদ্রাসার শিক্ষক হয়ে দখলবাজি করছেন। তাহলে আর কি বলার আছে।দখলবাজ শিক্ষক রফিকুল ইসলামের মোবাইলে কথা বলা হলে তিনি জানান আমি কোর্টে আছি, আমার পক্ষের ৬ জন লোক আহত হয়েছেন বলে দাম্ভিকতা দেখান তিনি।

থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম বলেন, মারপিটের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। পরিবেশ শান্ত রয়েছে। এঘটনায় এখনো অভিযোগ পায়নি, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর