Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

চাহিদার মাত্র ৩৩ ভাগ ঋণ পান এসএমই উদ্যোক্তারা

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১১৫জন দেখেছেন
Image

দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পখাতের (এসএমই) উদ্যোক্তারা চাহিদার মাত্র ৩৩ ভাগ ঋণ পান। আর বিতরণ করা ঋণের মাত্র ১৯ ভাগ পান গ্রামীণ উদ্যোক্তারা। অথচ কোভিড-১৯ মহামারিকালে এসএমই খাতের উদ্যোক্তারাই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

সোমবার (৬ জুন) নগরীর পর্যটন ভবনে এসএমই ফাউন্ডেশন এবং ইকোনোমিক অ্যান্ড সোশ্যাল কমিশন (ইউএনইএসসিএপি) এর উদ্যোগে আয়োজিত ‘রেথিনকিং এমএসএমই ফিন্যান্স: অ্যা পোস্ট-ক্রাইসিস পলিসি এজেন্ডা’ শীর্ষক জাতীয় সেমিনারে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়।

কোভিড-১৯ প্রেক্ষাপটে প্রযুক্তি (ডিজিটাল ফাইনান্সিং এবং ফিন্যান্সিয়াল টেকনোলজি) ও ক্লাস্টারভিত্তিক অর্থায়ন ব্যবস্থার উন্নয়ন ও প্রসারের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের সহজ শর্তে ঋণের আওতায় আনার বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত ও সুপারিশ গ্রহণের লক্ষ্যে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন অধ্যাপক ড. মো. মাসুদুর রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানা ও বিশেষ অতিথির হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক মো. জাকের হোসেন।

সেমিনারে স্বাগত বক্তব্যে এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. মফিজুর রহমান বলেন, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থার গবেষণায় দেখা গেছে, কোভিড-১৯ এর কারণে দেশের ৯৪ ভাগ ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠানের বিক্রি কমে গেছে। ২১ ভাগ প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। এসব প্রতিষ্ঠানের ৩৭ ভাগ কর্মী কাজ হারিয়েছেন এবং ৭০ ভাগ কর্মী চাকরি হারানোর ঝুঁকিতে ছিলেন।

তিনি বলেন, একই সময়ে শতকরা ৮৩ ভাগ প্রতিষ্ঠান লোকসানের মুখে পড়েছে এবং ৩৩ ভাগ প্রতিষ্ঠান ঋণের কিস্তি শোধ করতে পারেনি। এজন্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি প্রতিষ্ঠানের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সরকারের প্রণোদনা প্যাকেজের পরিমাণ আরও বাড়ানো প্রয়োজন। অথবা প্রণোদনা প্যাকেজ নতুন করে দেওয়া না হলেও সহজ শর্তে তাদের জন্য অর্থায়নের ব্যবস্থা করা দরকার।

শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানা বলেন, দেশের শিল্পখাতের কর্মসংস্থানের ৮৫ ভাগই এসএমই খাতের অবদান। দেশের অর্থনীতিতে এসএমই খাতের অবদান বাড়াতে এ খাতের উন্নয়নে কাজ করছে এসএমই ফাউন্ডেশন। তিনি এসএমই খাতের উন্নয়নে বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরেন।

এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন বলেন, কোভিড-১৯ এর ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে এসএমই উদ্যোক্তাদের সহজ শর্তে ঋণ প্রয়োজন। এজন্য উদ্যোক্তাদের ঋণ পাওয়া সহজ করতে ডিজিটাল সেবা চালু করা যেতে পারে।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনায় বিআইবিএম-এর সহযোগী অধ্যাপক মো. মোশাররফ হোসেন জানান, দেশের প্রায় ৮১ লাখ এসএমই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৫৮ লাখ বা ৭০ ভাগ শহর এলাকার বাইরে হলেও এসএমই ঋণের ৮১ ভাগই পান শহর এলাকার উদ্যোক্তারা। আর নারী উদ্যোক্তারা পান মোট ঋণের মাত্র ৭ ভাগের মতো।


আরও খবর



ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো বৃদ্ধার

প্রকাশিত:Friday ২২ July 20২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
Image

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে মালবোঝাই ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে সালেহা বেগম (৬৭) নামের এক নারী গৃহকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ট্রাক এবং ট্রাকের চালকসহ তার সহকারীকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২২ জুলাই) সকালের দিকে দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের বিরাহীমপুর-গুচ্ছগ্রাম এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত সালেহা বেগম উপজেলার সিংড়া ইউনিয়নের বিরাহীমপুর গ্রামের মৃত আব্দুল প্রামাণিকের স্ত্রী।

পরিবার ও পুলিশ সূত্র জানায়, রানীগঞ্জ গোহাটের পেছনে স্কুলশিক্ষক কালাম মিয়ার বাড়িতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করতেন সালেহা বেগম। প্রতিদিনের মতো শুক্রবার সকালেও নিজ বাড়ি গুচ্ছগ্রাম থেকে আঞ্চলিক মহাসড়ক দিয়ে কাজ করার জন্য যাচ্ছিলেন। এ সময় বিপরীত মুখ থেকে আসা মালবোঝাই একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবির বলেন, এ ঘটনায় ট্রাকসহ চালক ও তার সহকারীকে আটক করা হয়েচে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরও খবর



১০০ জনকে চাকরি দেবে বিআরটিসি

প্রকাশিত:Saturday ০৬ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ১৪জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশনে (বিআরটিসি) ‘অপারেটর (বাস/ট্রাক চালক)’ পদে ১০০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ২৮ আগস্ট পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশন (বিআরটিসি)

পদের বিবরণ

brtc-in

চাকরির ধরন: অস্থায়ী
প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ
কর্মস্থল: যে কোনো স্থান

আবেদনের ঠিকানা: জেনারেল ম্যানেজার (প্রশাসন ও পার্সোনেল) ও সদস্য সচিব, নিয়োগ ও পদোন্নতি কমিটি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি), পরিবহন ভবন, ২১ রাজউক এভিনিউ, ঢাকা-১০০০।

আবেদন ফি: ব্যাংক ড্রাফট/পে-অর্ডারের মাধ্যমে ২০০ টাকা পাঠাতে হবে।

আবেদনের শেষ সময়: ২৮ আগস্ট ২০২২

সূত্র: ইত্তেফাক, ০৬ আগস্ট ২০২২


আরও খবর



গাড়ি দুর্ঘটনায় মৃত্যু আম্পায়ার রুডি কোয়ের্তজেনের

প্রকাশিত:Tuesday ০৯ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | জন দেখেছেন
Image

আইসিসির সাবেক এলিট প্যানেল আম্পায়ার দক্ষিণ আফ্রিকান রুডি কোয়ের্তজেন মৃত্যু বরণ করেছেন। ইএসপিএন ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, গাড়ি দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে তার। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

কেপ টাউন থেকে নিজেই গাড়ি চালিয়ে ইস্টার্ন কেপ-এ যাচ্ছিলেন রুডি কোয়ের্তজেন। সেখানেই তিনি পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন। পথেই দুর্ঘটনার শিকার হলেন তিনি।

রুডি কোয়ের্তজেন হচ্ছেন বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ম্যাচ পরিচালনাকারী আম্পায়ার। মোট ৩৩১টি ম্যাচ আম্পায়ার হিসেবে পরিচালনা করেন তিনি। ২০১০ সালে কোয়ের্তজেন যখন অবসর গ্রহণ করেন, তখন তিনিই ছিলেন সর্বোচ্চ ম্যাচ পরিচালনাকারী আম্পায়ার। এরপর পাকিস্তানের আলিম দার তাকে ছাড়িয়ে যান। আলিম দার এখনও আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করছেন এবং এখনও পর্যন্ত মোট ৪২০টি ম্যাচ পরিচালনা করেছেন।

শুধু সর্বোচ্চ ম্যাচ পরিচালনা করাই নয়- রুডি কোয়ের্তজেন, আলিম দার এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্টিভ বাকনর- মাত্র এই তিন আম্পায়ারই ১০০’র বেশি টেস্ট ম্যাচ পরিচালনা করার গৌরব অর্জন করেন।

রুডি কোয়ের্তজেনের মৃত্যুর সংবাদ শুনে আলিম দার বলেন, ‘এই মৃত্যু সর্বপ্রথম তার পরিবার, এরপর দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ক্রিকেটের জন্য অনেক বড় একটি ক্ষতি এবং মর্মবেদনার সংবাদ। আমি অনেকগুলো ম্যাচেই তার সঙ্গে আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করতে দাঁড়িয়েছি। তিনি শুধু একজন দুর্দান্ত আম্পায়ার ছিলেন না, ছিলেন একজন অসাধারণ সহকর্মী। মাঠের মধ্যে ছিলেন সব সময় দারুণ সহযোগী। এমনকি মাঠের বাইরেও তিনি অনেক সহযোগিতা করতেন।’

দক্ষিণ আফ্রিকার আরেক আম্পায়ার মারিয়াস এরাসমাস বলেন, ‘শারীরিক এবং মানসিক দিক থেকে এমন এক চরিত্রের অধিকারী ছিলেন রুডি, যা অতুলনীয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকান আম্পায়ারদের জন্য তিনিই প্রথম দরজা খুলে ধরতে সক্ষম হন। আমাদের মধ্যে এই আত্মবিশ্বাস জন্মিয়েছিলেন যে, এটা সম্ভব। একজন সত্যিকারের কিংবদন্তি এবং তরুণ আম্পায়ার হিসেবে আমি তার কাছ থেকে অনেক কিছুই শিখেছি।’

আম্পায়ার হিসেবে ১৯৯২-৯৩ সালে অভিষেক ঘটে কোয়ের্তজেনের। প্রথম ম্যাচ পরিচালনা করেচন পোর্ট এলিজাবেথে। এরপর ধীরে ধীরে বিশ্বের সেরা আম্পায়ারে পরিণত হন এক সময়। ১৯৯৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ভারতের মধ্যকার একটি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব আসে তার কাছে এবং তিনি সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে সবার প্রশংসা কুড়িয়ে নেন।

২০০৭ বিশ্বকাপের ফাইনালে থার্ড আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি এবং ওই ম্যাচটি একটি বিশৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে শেষ হওয়ার কারণে আইসিসির পক্ষ থেকে শাস্তিরও শিকার হন কোয়ের্তজেন।

অবসরের পর একটি আত্মজীবনী লিখেন কোয়ের্তজেন। নাম দেন, স্লো ডেথ: মেমোরাইজ অব দ্য ক্রিকেট আম্পায়ার। সেখানে অকপটে ২০০৭ বিশ্বকাপের ফাইনালসহ বিভিন্ন ম্যাচে যে সব ভুল করেছেন, তা তুলে ধরেন।

সর্বশেষ তিনি ২০১১ সালে আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্চার্স ব্যাঙ্গালুরু এবং চেন্নাই সুপার কিংসের একটি ম্যাচ পরিচালনা করেন। প্রায় ১৮ বছরের বেশি আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করার পর তিনি এই অঙ্গন থেকে সরে দাঁড়ান।


আরও খবর



দিনে চালকের সহকারী, রাতে বাসে ডাকাতি করতেন রতন

প্রকাশিত:Monday ০৮ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | জন দেখেছেন
Image

টাঙ্গাইলে মহাসড়কে চলন্ত বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী রতন হোসেন। মাত্র ২১ বছর বয়সী রতন পেশায় বাসচালকের সহকারী (হেলপার)। দিনে বাসচালকের সহকারী হিসেবে কাজ করলেও রাতের আড়ালেই ছিল রতনের ভিন্ন রূপ। রাতে বিভিন্ন বাসে ডাকাতি করতেন রতন। এর আগেও ১০টি বাসে ডাকাতির নেতৃত্ব দেন তিনি। গ্রেফতার হয়ে কারাভোগও করেছেন।

সাভারে রোড ব্লক করে একটি বাস ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার হন রতন। প্রায় দেড় বছর কারাভোগের পর জামিনে বের হয়ে ২০২০ সালে আবারও ডাকাতিতে জড়িয়ে পড়েন। সবশেষ টাঙ্গাইলে মহাসড়কে চলন্ত বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় রতনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

সোমবার (৮ আগস্ট) দুপুরে কারওয়ান বাজার র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‌্যাবের লিগ্যাল আ্যন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

দিনে চালকের সহকারী, রাতে বাসে ডাকাতি করতেন রতন

টাঙ্গাইলের মহাসড়কে চলন্ত বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত ছিলেন ১৩ জন। তাদের কেউ বাসের হেলপার কেউবা পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। এ ঘটনায় মূল পরিকল্পনাকারী রতনসহ ডাকাত চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। রোববার সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত ঢাকা, গাজীপুর ও সিরাজগঞ্জে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব সদর দপ্তরের গোয়েন্দা শাখা, র‌্যাব-১২ ও র‌্যাব-১৪ তাদেরকে গ্রেফতার করে।

র‌্যাব জানায়, বাসে ডাকাতির পরিকল্পনা থাকলেও ধর্ষণের কোনো পরিকল্পনা আগে থেকে ছিল না ডাকাতদের।

দিনে চালকের সহকারী, রাতে বাসে ডাকাতি করতেন রতন

গ্রেফতাররা হলেন- ডাকাত চক্রের মূল পরিকল্পনাকারী রতন হোসেন (২১), মো. আলাউদ্দিন (২৪), সোহাগ মন্ডল (২০), খন্দকার মো. হাসমত আলী ওরফে দীপু (২৩), বাবু হোসেন ওরফে জুলহাস (২১), মো. জীবন (২১), আব্দুল মান্নান (২২), নাঈম সরকার (১৯), রাসেল তালুকদার (৩২) ও আসলাম তালুকদার ওরফে রায়হান (১৮)।

অভিযানে তাদের কাছ থেকে ২০টি মোবাইল সেট, রুপার চুড়ি ২টি, ১৪টি সিম কার্ড ও ডাকাতিতে ব্যবহৃত একটি দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

বিস্তারিত আসছে...


আরও খবর



স্বামী খাবারের সামনে চুল ঝাড়তে নিষেধ করায় স্ত্রীর নদীতে ঝাঁপ

প্রকাশিত:Tuesday ১৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ০৩ August ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

খুলনায় খাবার সময় স্বামী চুল ঝাড়তে নিষেধ করায় রূপসা সেতু থেকে নদীতে ঝাঁপ দেওয়ার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন মিম আকতার (১৯) নামের এক গৃহবধূ।

সোমবার (১৮ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি রূপসা সেতু থেকে নদীতে ঝাঁপ দেন। মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) দুপুরের পরও তাঁকে খুজে পাওয়া যায়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে লবণচরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এনামুল হক বলেন, মিমকে নদী তীরবর্তী এলাকায় খোঁজ করা হচ্ছে।

নিখোঁজ মিম খুলনা মহানগরীর লবণচরা মোল্লাপাড়া এলাকার ড্রাইভার গলির বাসিন্দা আকবর ফকিরের স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, লবণচরা মোল্লাপাড়া এলাকার ড্রাইভার গলির বাসিন্দা জালাল ফকিরের মেয়ে মিম প্রেম করে বিয়ে করেন আকবরকে। সোমবার রাতে স্বামী আকবর খাওয়ার সময় মিম চুল ঝাড়ছিলেন। তখন চুল ঝাড়তে নিষেধ করায় ঘর থেকে বেরিয়ে যান মিম। পরে এলাকার অনেকেই তাকে রূপসা সেতু থেকে লাফিয়ে পড়তে দেখেন।

স্থানীয়রা বিষয়টি পুলিশকে জানান। পরে কোস্টগার্ড, নৌপুলিশ, ডুবুরি দল ও পুলিশ ট্রলারযোগে বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালায়। কিন্তু মঙ্গলবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত তার খোঁজ পাওয়া যায়নি।


আরও খবর