Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

বন্যার্তদের সহায়তায় মাঠে নামছে আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১০৭জন দেখেছেন
Image

বন্যার্তদের জন্য সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উদ্ধার ও ত্রাণ কার্যক্রম শুরু করবে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। শনিবার (১৮ জুন) সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত হয়।

সিলেট ও সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে দলের কেন্দ্রীয় ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি এ জরুরি বৈঠক ডাকে।

বৈঠকে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক এবং উপকমিটির সদস্য সচিব সুজিত রায় নন্দী বলেন, বন্যাকবলিত মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের দায়িত্ব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বন্যার্তদের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছে সরকার ও আওয়ামী লীগ। এছাড়া দলটির অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরাও মাঠে রয়েছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত নারী, পুরুষ ও শিশুদের রক্ষায় ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটির পক্ষ থেকে জরুরি ভিত্তিতে বন্যাকবলিত এলাকাগুলোতে নৌকা, ওরস্যালাইন, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও শুকনো খাবারসহ অন্যান্য জীবনরক্ষাকারী সামগ্রী পাঠানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় বৈঠকে।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে সহযোগিতা প্রদানের লক্ষ্যে বেশকিছু কমিটি গঠন করা হয়। আক্রান্ত উপজেলাগুলোতে দ্রুত ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটির টিম সাহায্য নিয়ে যাবে। পাশাপাশি এই প্রাকৃতিক ও মানবিক বিপর্যয়ে সরকারের পাশাপাশি ব্যক্তি ও সংগঠন পর্যায়ে সব সামর্থ্যবানদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

সুজিত রায় নন্দী বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে জাতি আজ দুর্যোগ মোকাবিলায় বিশ্বসেরা। আওয়ামী লীগের রাজনীতি হচ্ছে মানবতার রাজনীতি, কল্যাণ সমৃদ্ধি ও উন্নয়নের রাজনীতি। বন্যাসহ দেশের প্রতিটি সমস্যা মোকাবিলায় সরকার ও দল এক ও অভিন্নভাবে কাজ করছে। সিলেট ও সুনামগঞ্জে বানভাসি মানুষকে রক্ষায় সরকার ও দলের সার্বক্ষণিক তৎপরতা অব্যাহত থাকবে বলে জানান আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় এই শীর্ষ নেতা।

বৈঠকে আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটির সদস্যবৃন্দসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, সিলেট ও সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে সরাসরি পর্যবেক্ষণ করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বন্যার্তদের জন্যে ৬০০ আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এসব আশ্রয়কেন্দ্রে হাজার হাজার মানুষ আশ্রয় নিয়েছেন। বন্যার্তদের উদ্ধার করে এসব আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে। দুর্গতদের উদ্ধার ও ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও স্থানীয় প্রশাসন, বিজিবি ও আওয়ামী লীগ পরিবার। এছাড়া বন্যাকবলিত এলাকায় সেনাবাহিনীর পাশাপাশি নৌবাহিনীকেও প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

ভয়াবহ বন্যায় আক্রান্তদের জন্যে সরকারিভাবে ৩০ লাখ করে মোট ৬০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ২০০ মেট্রিক টন চাল, আট হাজার করে শুকনো খাবারের প্যাকেট দেওয়া হয়েছে। যেখানে চাল, ডাল, তেল, চিনি ও মসলা রয়েছে। এছাড়াও সব ধরনের সাহায্য সহযোগিতা এবং বন্যা মোকাবিলায় সব তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে সরকার।


আরও খবর



চতুর্থ দিনের প্রথম সেশনে মাঠে গড়ালো না এক বলও

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

সেন্ট লুসিয়ার ড্যারেন স্যামি ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ড্রেনেজ ব্যবস্থা খুব একটা উন্নত নয়। আপাতত বৃষ্টি না থাকলেও কেবল ভেজা আউটফিল্ড ঠিক করতেই গলদঘর্ম হতে হচ্ছে মাঠকর্মীদের।

ফলে চতুর্থ দিনের প্রথম সেশনে এক বলও মাঠে গড়ায়নি। স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় লাঞ্চ বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বিরতির এক ঘণ্টা পর আবার মাঠ পরিদর্শন করবেন আম্পায়াররা।

খেলা না হলেও অবশ্য অস্বস্তির কিছু নেই বাংলাদেশের। এই টেস্টে বলতে গেলে পরাজয়ের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে সাকিব আল হাসানের দল। চতুর্থ দিনে লক্ষ্য একটাই, কোনোমতে ইনিংস হারটা এড়ানো যায় কি না। ৪ উইকেট হাতে নিয়ে ইনিংস পরাজয় এড়াতে আরও ৪২ রান করতে হবে সফরকারীদের।

ম্যাচের তৃতীয় দিন শেষে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৬ উইকেটে ১৩২ রান। প্রথম ইনিংসে সাকিব আল হাসানের দল গুটিয়ে গিয়েছিল ২৩৪ রানে। পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪০৮ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করিয়ে নেয় ১৭৪ রানের লিড।

১৭৪ রান পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামার পর তামিমদের কাছ থেকে যেটুকু ধৈর্য্য আশা করেছিল সবাই, তার ছিটেফোঁটাও দেখা যায়নি। বরং কেমার রোচের ইনসুইংগার-আউটসুইংগার বাছবিচার না করে শট খেলতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান তিনি।

মাত্র ৮ বল খেলে ৪ রান করে দলীয় ৪ রানের মাথায় উইকেট বিলিয়ে দেন তামিম। এরপর নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে জুটি বাঁধেন মাহমুদুল হাসান জয়। কয়েকটি ভালো শট, কয়েকটি আলগা শটও খেলেন তিনি। রোচকে ৭ম ওভারের দ্বিতীয় বলে বাউন্ডারি মারার পরের বলেই তার ইনসুইংগার বলটিকে ঠেকাতে গিয়ে ব্যাটের কানায় লাগিয়ে বসেন।

বল চলে যায় থার্ডম্যানে জার্মেই ব্ল্যাকউডের হাতে। ১৩ রান করে আউট হয়ে যান জয়। দলীয় ৩২ রানের মাথায় কেমার রোচের তৃতীয় শিকারে পরিণত হন এনামুল হক বিজয়। তার দুর্দান্ত ডেলিভারিতে হলেন এলবিডব্লিউ। রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি আট বছর টেস্টে ফেরা বিজয়।

মাত্র ৪ রান করে আউট হন বিজয়। তিনি আউট হতে না হতেই নামে বৃষ্টি এবং খেলা বন্ধ হয়ে যায় এ সময়। বৃষ্টি থামার পর খেলা শুরু হলেও বদলায়নি বাংলাদেশের ভাগ্য। একপ্রান্তে নাজমুল শান্ত আশা দেখালেও হতাশ করেন সাকিব আল হাসান ও লিটন দাসরা।

বছরের শুরু থেকে দারুণ ফর্মে থাকা লিটন সাজঘরে ফিরে যান ১৬ রান করে, সাকিব থামেন ব্যক্তিগত ১৯ রানে। দারুণ খেলতে থেকে ফিফটি আশা জাগালেও শেষ পর্যন্ত আলগা শটে আউট হন ৪২ রান করা শান্ত। ১১৮ রানে ৬ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

সেখান থেকে ইনিংস পরাজয় এড়ানোর মিশনে ব্যাটিং শুরু করেন নুরুল হাসান সোহান ও মেহেদি হাসান মিরাজ। সোহান ১৬ রান নিয়ে খেলতে নামবেন। মিরাজ এখনও রানের খাতা খুলতে পারেননি।


আরও খবর



পেট্রল-ব্যাটারি দুটোতেই চলবে যে গাড়ি

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

টয়োটা নতুন এক গাড়ি আনার ঘোষণা দিয়েছে সম্প্রতি। টয়োটা হাইরাইডার নামের গাড়িটি টয়োটা ও সুজুকির যৌথ উদ্যোগে তৈরি হয়েছে। আনুষ্ঠানিক লঞ্চ হতে পারে অগাস্টে। গাড়িটি পেট্রল ও ব্যাটারি দুই মাধ্যমেই চলবে। এমনকি ব্যাটারি বাইরে থেকে চার্জ করতে হবে না চলতে চলতে তা নিজে থেকেই শক্তি সঞ্চয় করবে।

টয়োটা হাইরাইডারে থাকছে ১.৫ লিটার শক্তিশালী সেলফ চার্জিং হাইব্রিড পাওয়ারট্রেন। গাড়িটি পেট্রলের পাশাপাশি চলবে ইলেকট্রিক মোটর ও ব্যাটারিতে। পিওর পেট্রল, হাইব্রিড, এবং পিওর ইভি (শুধু ইলেকট্রিকে) ড্রাইভ মোডের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয় ভাবে গাড়ির চালিকা শক্তির উৎস পরিবর্তন করা যাবে।

আবার এই গাড়ির কমদামী বেস ভ্যারিয়েন্টে মাইল্ড হাইব্রিড প্রযুক্তি থাকবে। ট্রান্সমিশন অপশনে ম্যানুয়াল এবং অটোমেটিক ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে গাড়িটি। গাড়িটিতে ৩৬০ ডিগ্রি ক্যামেরা, ভেন্টিলেটেড ফ্রন্ট সিট, হেড আপ ডিসপ্লে, ইলেকট্রিক সানরুফ, বড় ফ্লোটিং টাচস্ক্রিনসহ নানা আকর্ষণীয় ফিচার থাকবে।

হাইরাইডার-এর হাত ধরে তীব্র প্রতিযোগিতা চলা কম্প্যাক্ট এসইউভির বাজারে প্রবেশ করছে টয়োটা। এখনো গাড়িটির দাম সম্পর্কে স্পষ্ট কিছু জানায়নি সংস্থাটি। তবে ধারণা করা হচ্ছে টয়োটা হাইরাইডারের দাম ১০ লাখ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ১৬ লাখ টাকা পর্যন্ত হতে পারে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া


আরও খবর



চট্টগ্রামে পাহাড় কেটে বাড়ি নির্মাণ, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:Tuesday ২৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে পাহাড় কেটে বাড়ি নির্মাণের অপরাধে খোরশেদ আলম (৫১) নামে এক ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

সোমবার (২৭ জুন) বিকেলে উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের বৈলগাঁও নতুন পাড়া পাহাড়ি এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ জরিমানা করা হয়।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মাহমুদুল হাসান ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

jagonews24

দণ্ডপ্রাপ্ত খোরশেদ আলম ওই এলাকার মৃত আবদুল লতিফের ছেলে।

অভিযানে বাড়ি নির্মাণের সামগ্রী জব্দ করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির জিম্মায় দেওয়া হয়।

বাঁশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) খোন্দকার মাহমুদুল হাসান জাগো নিউজকে বলেন, অবৈধভাবে পাহাড় কেটে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ পেয়ে সাধনপুর ইউনিয়নের বৈলগাঁও পাহাড়ি এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।


আরও খবর



ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতা করবে ছাত্রলীগ

প্রকাশিত:Thursday ০২ June 2০২2 | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা করবে ছাত্রলীগ। একই সঙ্গে ভর্তি পরীক্ষা কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা করার সুযোগ দেবে না সংগঠনটি। যারা বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করবে তাদেরকে প্রতিহত করবে ছাত্রলীগ।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের সহায়তায় নেওয়া কর্মসূচি নিয়ে মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এতে ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

সঞ্জিত চন্দ্র দাস লিখিত বক্তব্যে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে এই ক্যাম্পাসে মেধাভিত্তিক প্রতিযোগিতার অসাধারণ আবহ তৈরি হয়। তারুণ্যের এই উৎসবকে মুখরিত, নান্দনিক, সহজ ও সুপরিকল্পিত করতে বদ্ধ পরিকর ছাত্রলীগ। এসময় তিনি ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সহায়তায় ১২টি কর্মসূচির কথা তুলে ধরেন।

কর্মসূচিগুলো হলো

১. বিভিন্ন পয়েন্টে স্থাপন করা ‘শিক্ষার্থী সহায়তা ও তথ্যকেন্দ্র থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করা হবে।

২. শিক্ষার্থীদের পরিবহনের সুবিধার্থে বিনামূল্যে ‘জয় বাংলা বাইক সার্ভিস’ থাকবে।

৩. অভিভাবক ছাউনির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আসা অভিভাবকদের বিশ্রামের ব্যবস্থা করা হবে।

৪. সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হবে।

৫. পরীক্ষা কেন্দ্র দেখানোর জন্য ক্যাম্পাসে দিক নির্দেশিত চিহ্ন ও স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত থাকবে।

৬. শিক্ষার্থীদের ব্যবহৃত অথচ পরীক্ষা কেন্দ্রে নেওয়ার অনুপযোগী জিনিসপত্র রাখার ব্যবস্থা করা হবে।

৭. শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের ব্যবহারের জন্য মোবাইল টয়লেটের ব্যবস্থা করা হবে।

৮. প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য হুইলচেয়ার ও প্রয়োজনীয় লজিস্টিক সরবরাহ করা হবে।

১০. তাৎক্ষণিক চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্র গঠন করা হবে।

১১. মাস্ক, কলম ও আনুষঙ্গিক শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হবে।

১২. প্রয়োজন সাপেক্ষে হল ছাত্রলীগ পরীক্ষার আগের রাতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের থাকার ব্যবস্থা করবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, আগামীকাল ভর্তি পরীক্ষার সময় ছাত্র সংগঠনের সবাই শিক্ষার্থীদের সহায়তায় কাজ করবে।

পরীক্ষার দিনে দলীয় কোনো স্লোগান দিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতংক সৃষ্টি না করার জন্য ছাত্র সংগঠনের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।


আরও খবর



বিশ্ববাজারে দেড় মাসে পাম তেলের দাম কমেছে টনপ্রতি ১৯ হাজার টাকা

প্রকাশিত:Thursday ০৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
Image

বিশ্বের বৃহত্তম পাম তেল সরবরাহকারী ইন্দোনেশিয়া গত ২২ এপ্রিল রপ্তানি নিষিদ্ধের ঘোষণা দিতেই বিশ্ববাজারে বাড়তে শুরু করেছিল বহুল ব্যবহৃত এই ভোজ্যতেলের দাম। ২৮ এপ্রিল কার্যকর হয় ওই সিদ্ধান্ত। আর তার পরেরদিনই (২৯ এপ্রিল) আন্তর্জাতিক বাজারে পাম তেলের দাম পৌঁছায় প্রতি টন রেকর্ড ৭ হাজার ১০৬ মালয়েশীয় রিঙ্গিতে (১ লাখ ৫০ হাজার টাকা প্রায়)। তবে এরপর থেকে গত দেড় মাসে পাম তেলের দাম কমেছে টনপ্রতি ৯০০ রিঙ্গিতের বেশি, বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১৯ হাজার টাকা। আন্তর্জাতিক বাজার পরিস্থিতি বিষয়ক ওয়েবসাইট ট্রেডিং ইকোনমিকসের পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে এসব তথ্য।

জানা যায়, গত মার্চ মাসের শুরুর দিকে একপর্যায়ে আন্তর্জাতিক বাজারে পাম তেলের দাম উঠেছিল প্রতি টন সর্বোচ্চ ৭ হাজার ২৬৮ রিঙ্গিতে, যা সর্বকালের রেকর্ড। তবে এরপর থেকে এমন ভয়াবহ পরিস্থিতি আর আসেনি।

ট্রেডিং ইকোনমিকসের তথ্য বলছে, গত ৯ মার্চ বিশ্ববাজারে পাম তেলের দাম ছিল প্রতি টন ৭ হাজার ৭৫ রিঙ্গিত। তবে ১৮ মার্চ এর দাম নেমে যায় ৫ হাজার ৬০৯ রিঙ্গিতে। ২৩ মার্চ প্রতি টন পাম তেল ৬ হাজার ২০০ রিঙ্গিতে গেলেও এরপর থেকে অনেকটা ধারাবাহিকভাবে কমে এপ্রিল মাসের ১ তারিখে এর দাম দাঁড়ায় ৫ হাজার ৫৬১ রিঙ্গিত।

Palm-4.jpg

এরপর থেকে আবার আবার বাড়তে শুরু করে এই ভোজ্যতেলের দাম। গত ২২ এপ্রিল ইন্দোনেশিয়ার ঘোষণার পর থেকে চড়চড় করে উঠতে থাকে মূল্যবৃদ্ধির সূচক। একপর্যায়ে ২৯ এপ্রিল প্রতি টন পাম তেলের দাম দাঁড়ায় ৭ হাজার ১০০ রিঙ্গিতের বেশি। কিন্তু এরপর থেকে বদলে যেতে থাকে বাজার পরিস্থিতি।

গত দেড় মাসে আন্তর্জাতিক বাজারে পাম তেলের দামে নিয়মিত উত্থান-পতন হলেও এই সময়ে এর সর্বোচ্চ দাম ছিল প্রতি টন ৬ হাজার ৫৩৩ রিঙ্গিত, আর গড় হিসাব করলে দাম ছিল মোটামুটি ৬ হাজার ৪০০ রিঙ্গিতের আশপাশে।

Palm-4.jpg

ট্রেডিং ইকোনমিকসের পরিসংখ্যান বলছে, বৃহস্পতিবার (৯ জুন) আন্তর্জাতিক বাজারে পাম তেলের দাম কমেছে একলাফে ২৫৭ রিঙ্গিত। এদিন পাম তেল বিক্রি হয়েছে মাত্র ৬ হাজার ২১০ রিঙ্গিতে।

অর্থাৎ গত ২৯ এপ্রিল থেকে ৯ জুনের মধ্যে বিশ্ববাজারে প্রতি টন (১০০০ কেজি) পাম তেলের দাম কমেছে অন্তত ৯০৩ রিঙ্গিত, বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ১৯ হাজার ৯৪ টাকা প্রায়।

Palm-4.jpg

অবশ্য সয়াবিন নিয়ে এমন কোনো সুখবর নেই। গত দেড় মাসে আন্তর্জাতিক বাজারে সয়াবিনের দাম বেড়েছে নিয়মিত। চলতি জুন মাসেই প্রতি বুশেল (২৭ দশমিক ২১ কেজি) সয়াবিনের দাম ১৭ দশমিক ৫ মার্কিন ডলার ছাড়িয়েছে। অর্থাৎ, ধীরে ধীরে তা ২০১২ সালের সর্বোচ্চ ১৮ ডলার প্রতি বুশেল রেকর্ডের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

কারণ হিসেবে ট্রেডিং ইকোনমিকস বলছে, বৃহত্তম ভোক্তা চীন লকডাউন থেকে বেরিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে সয়াবিন কেনার পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়েছে। একইসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের রপ্তানি কমার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সার সরবরাহে সংকট। এর ফলে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনার মতো শীর্ষ সয়াবিন উৎপাদক দেশগুলোতে উৎপাদন কমার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।


আরও খবর