Logo
আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

‌‘বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে কোনো মানুষ ঠিকানাহীন থাকবে না’

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ২০৪জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক ;আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় এসেছে, তখনই মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে কোনো মানুষ ঠিকানাহীন থাকবে না বলেও জানান তিনি।

আজ বুধবার সকালে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে সংযুক্ত হয়ে সারাদেশের সকল উপজেলায় একযোগে ভূমিহীন-গৃহহীন মানুষের মধ্যে গৃহ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এদিন তিনি গাজীপুরের শ্রীপুর, বরিশালের বানারীপাড়া ও সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত হন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা যে উদ্যোগটা নিয়েছি বাংলাদেশে একটা মানুষও গৃহহীন থাকবে না। বিশেষ করে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করেছি ২০২০ সালে, তখন আমাদের সিদ্ধান্ত ছিল এই দেশের গৃহহীন মানুষকে ঘরবাড়ি করে দেব। বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে কোনো মানুষ ঠিকানাবিহীন থাকবে না।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির জনক আমাদের স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। তিনিই ভূমিহীন ও গৃহহীনদের আশ্রয় দিতে গুচ্ছগ্রাম করেন। দেশে কোনো ভূমিহীন ও গৃহহীন থাকবে না, আমরা সে লক্ষ্যেই কাজ করছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি খুবই আনন্দিত চতুর্থ পর্যায়ে ৩৯ হাজার ৩৬৫ পরিবারকে ভূমি ও গৃহ দিতে পারছি। দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে পারা অনেক আনন্দের।’

আওয়ামী লীগ জনগণের দল উল্লেখ করে সরকারপ্রধান বলেন, ‘এ দল মানুষের পাশে থাকে। তাদের জন্য কাজ করে। আমাদের একটাই লক্ষ্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর দেশে কোনো মানুষ ঠিকানাবিহীন থাকবে না। আমরা চাই দেশের সবার ঘর-বাড়ি থাকবে।’

জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কেউ যদি ভূমিহীন বা গৃহহীন থাকে আপনারা তার তালিকা করবেন। আমরা তাদেরও ঘর করে দেব।’

১৯৯১ সালের বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড়ের সময় তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ঘুমিয়ে ছিলেন। সে সময় বিএনপি সরকার কোনো ব্যবস্থা নেয়নি বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

এদিন মাদারীপুর, গাজীপুর, নরসিংদী, রাজশাহী, জয়পুরহাট, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও চুয়াডাঙ্গা জেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি ১৫৯টি উপজেলাকেও ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা দেন। গেল বছর মাগুরা ও পঞ্চগড় জেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হয়।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়ার সঞ্চালনায় এতে গণভবনসহ বিভিন্ন প্রান্তে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, রাজনৈতিক নেতা ও সরকারের পদস্থ কর্মকর্তা ও উপকারভোগীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



এমপি আনারের হাড়গোড় উদ্ধার

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১০৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যায় গ্রেপ্তার হওয়া সিয়াম হোসেনকে নিয়ে কলকাতার বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি অভিযান চালিয়েছে দেশটির সিআইডি। অভিযানে হাড়গোড় উদ্ধার করার কথা জানিয়েছে কলকাতা পুলিশ।

শনিবার (৮ জুন) সিয়ামকে ১৪ দিনের রিমান্ড দিয়েছেন কলকাতার বারাসাতের আদালত। এরপর রোববার (৯ জুন) সকালে তাকে নিয়ে কলকাতার বিভিন্ন স্থানে অভিযানে নামে কলকাতা পুলিশ। এর আগে গত শুক্রবার আনার হত্যার ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে নেপালে আটক সিয়াম হোসেনকে ভারতের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এদিকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অতিরিক্ত কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেছেন, আনার হত্যাকাণ্ডে যে বা যারাই জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে।

শনিবার (৮ ‍জুন) রাজধানীর ডিবি কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যাকাণ্ডে যে বা যারাই জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। প্রয়োজনে সিয়ামকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ভারতে যাবে ডিবি।


আরও খবর



অসামাজিক কার্যকলাপে দায়ে ৩৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে কাফরুল থানা পুলিশ

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | ১৭১জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার , স্টাফ রিপোর্টার:২২ জন মহিলা ও ১১ জন পুরুষসহ মোট ৩৩ জনকে অসামাজিক কার্যকলাপের দায় গ্রেফতার  করেছে কাফরুল  থানা পুলিশ ।১ শুক্রবার সন্ধ্যায়  এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। কাফরুল  থানার  ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ফারুকুল আলম তথ্য জানান। 

আটকৃতরা হলেন, মোছা:  স্বপ্না (২৭),সুরাইয়া (২০),কুলসুম বেগম (৩১),জান্নাতুল ফেরদৌস (২০),মোছা: ফারজানা (২৭),লাকি আক্তার (২০),মোছা: রাজিয়া (২৫),মোছা রিয়া(২১),মো: মোশারফ (৪৫),মো: আলী (৪৫),মো: আরিফ(৩৫),মো: হোসেন (২৩),বকুল(৩৫),মো: সজীব (১৯),মো: রিপন হোসেন(১৮),শাহাদাত হোসেন (২৪)সহ আরো অনেকে। 

মিরপুর জোনের এডিসি মাসুক মিয়া পিপিএম জানান,  বিভিন্ন আবাসিক হোটেল গুলি ব্যবসার নামে অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত। এছাড়াও বিভিন্ন অপরাধী বিশেষ করে মাদক সেবনকাররি রা হোটেল কক্ষকে নিরাপদ আশ্রয় হিসেবে ব্যবহার করতো। স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজনের কাছ থেকে এ ধরনের অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা অভিযান পরিচালনা করে বেশ কিছু মহিলা এবং পুরুষকে আটক করি। যে সকল হোটেল এ ধরনের কার্যকলাপ পরিচালিত হচ্ছে স্থানীয় জন প্রতিনিধির উপস্থিতিতে তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে ভবিষ্যতেও মিরপুর এবং কাফরুল এলাকার আবাসিক হোটেল গুলিতে এ ধরনের অভিযান পরিচালনা করা হবে।

ওসি ফারুকুল আলম বলেন,  আমাদের থানার নিয়মিত অভিযানে তাদের গ্রেফতার  করা হয়েছে। এই অভিযানের নেতৃত্ব দেন ওসি অপরেশন মো: আব্দুল বাতেন।

ওসি অপরেশন মো: আব্দুল বাতেন বলেন, কাফরুল থানার ওসি স্যারের  নির্দেশনায় ও এডিসি  স্যারের তত্ত্বাবধানে আমরা এতজনকে একসাথে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি এবং হোটেল তালাবদ্ধ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কাফরুল থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা নাম্বার হলো ০১।

আরও খবর



বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার নিয়ে অভিযোগ তদন্তে হাইকোর্টের রুল

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৬১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিদ্যুতের বিল আদায় স্বচ্ছতা, অতিরিক্ত চার্জের রিফান্ডসহ এ-সংক্রান্ত অভিযোগের নিরপেক্ষ তদন্ত করতে কেন নির্দেশনা দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (১১ জুন) বিচারপতি মো. মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি মাসুদ হোসেন দোলন সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। গত ৬ জুন জরুরি ভিত্তিতে বিদ্যুতের বিল ব্যবস্থা পর্যালোচনা এবং নিরীক্ষা, স্বচ্ছতা, অতিরিক্ত চার্জের রিফান্ড, গ্রাহকের সঙ্গে যোগাযোগ এবং নীতি সংস্কারের নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী সাইফুল্লাহ মামুন, জামিউল হক ফয়সাল ও আব্দুল্লাহ আল হাদী।

জ্বালানি ও বিদ্যুৎ সচিব, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি বাংলাদেশের চেয়ারম্যান, এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড, পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড, ডেসকো, ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি, নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি ও ডিপিডিসির কর্তৃপক্ষকে রিটে বিবাদী করা হয়েছে।

রিটে বলা হয়, বাংলাদেশে বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার চালু করা হয়েছে। ২০২৫ সালের মধ্যে সব বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীকে এর আওতায় আনা হবে বলে ঘোষণা রয়েছে। এরপরও গ্রাহকরা অতিরিক্ত চার্জ, গোপন চার্জ, স্বচ্ছতার অভাবসহ নানাভাবে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।


আরও খবর



জাহ্নবী কাপুর ফাঁস করলেন নিজের কীর্তি

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image

বিনোদন প্রতিনিধি:‘স্লো অ্যান্ড স্টিডি’ হয়েই বলিউডে নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করছেন জাহ্নবী কাপুর। এর মধ্যে ফাঁস হলো এক গোপন তথ্য। সেই তথ্য ফাঁস করেছেন অভিনেত্রী নিজেই।

দোকান থেকে জিনিস চুরি করেছিলেন শ্রীদেবী কন্যা। এক সাক্ষাৎকারে এ কথা জানান তিনি। এই কাজ জাহ্নবী করেছিলেন ছোটবেলায়। আসলে সে সময় তার ধারণাই ছিল না যে, কোনো জিনিস কিনতে গেলে তার জন্য দাম দিতে হয়।

অভিনেত্রী জানান, শ্রীদেবী ও বনি কাপুরের সঙ্গে একটি দোকানে গিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকেই একটি জিনিস নিয়ে দৌড়ে বেরিয়ে যান। পরে নিজের এই চুরির কথা শ্রীদেবী ও বনিকে জানান জাহ্নবী। মজা করেই বলতে গিয়েছিলেন, ‘দ্যাখো! দ্যাখো, এর জন্য আমাদের টাকা দিতে হয়নি।

বনি-শ্রীদেবী আঁতকে উঠেছিলেন। তাকে চোরও বলেছিলেন। নিজের আরেকটি স্বভাবের কথাও জানান জাহ্নবী। কী সেই স্বভাব? অভিনেত্রী যে হোটেলেই যান, চুপচাপ সেখানকার বালিশ তুলে নিয়ে চলে যান। কিন্তু এই বালিশ নিয়ে কী করেন জাহ্নবী?

অভিনেত্রী জানান, তিনি আসলে বালিশ ছাড়া ঘুমোতে পারেন না। প্রতিবার নিজের বাড়ি থেকে তা নিতে ভুলে যান। তাই হোটেলের বালিশ জাহ্নবী লং ফ্লাইটে কাজে লাগান। তাতে মাথা দিলে নাকি দারুণ ঘুম হয়।

বর্তমানে অভিনয় নিয়েই ব্যস্ত জাহুবী। তার হাতে রয়েছে স্পাই থ্রিলার ‘উলঝ’, অ্যাকশন ড্রামা ‘দেবারা: পার্ট ১’ আর রোমান্টিক সিনেমা ‘সানি সংস্কারি কি তুলসী কুমারী’।


আরও খবর



ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

শুক্রবার (৭ জুন) সকাল ৭টা ২মিনিটে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান সরকারপ্রধান। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি।

পরে আওয়ামী লীগ সভাপতি হিসেবে দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে নিয়ে আবারও জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদনের পর আওয়ামী লীগ এবং দলটির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান।


আরও খবর