Logo
আজঃ মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

বিয়ের পিড়িতে বসা হলো না নুরুল ইসলামের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ জানুয়ারী ২০23 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ২৮৭জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা বিশেষ প্রতিনিধি মধুপুর (টাঙ্গাইল)

টাঙ্গাইলের মধুপুরে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের মালাউড়ী ভোলাশাহ’র বাঁক এলাকায় বিকেল ৫ টায় ট্রাকের র্চাঁপায় পিষ্ট হয়ে নুরুল ইসলাম(২৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। নুরুল ইসলাম গোপালপুর উপজেলার সাজানপুর মিশ্রপট্রি গ্রামের মন্টু মিয়ার ছেলে। পেশায় সে একজন গার্মেন্টস কর্মী।


শুক্রবার (২০ জানুয়ারী) বিকাল ৫টায় এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটে। আগামী ২২ জানুয়ারি রবিবার তার বিয়ে হওয়ার কথা থাকলেও ঘাতক ট্রাক তার প্রাণ কেঁড়ে নেয়। পারিবারিক সূত্রে জানা যায় সে বিয়ের উদ্দেশ্যেই বাড়ি আসছিল। গোপালপুরে নগদা শিমলা গ্রামে তাঁর বিয়ে ঠিক হয়েছিল বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। গন্তব্যে যাওয়ার জন্য ঢাকা থেকে এসে ভোলাশাহ’র বাঁকে নেমে চা বিরতির পর রাস্তা পার হওয়ার সময় ঘাতক ট্রাক তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয় বলে প্রতক্ষদর্শীরা জানান।


মধুপুর থানার ডিউটি অফিসার সাজেদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও মধুপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ঘাতক ট্রাকটির কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। এ ব্যপারে কোন মামলা হয়নি এবং নিহতের লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা



আরও খবর



বিরামপুরে নকল পণ্য সরবরাহের অপরাধে দু’জনের কারাদন্ড

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৮৯জন দেখেছেন

Image

মিজান, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুর জেলার বিরামপুরে নকল’জুস, চকলেট ও পাউডার’জুস সরবরাহ করার সময় দুই ব্যবসায়ীকে এক মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৮ র্মাচ) দুপুর ৩টার দিকে বিরামপুর পৌরশহরের ঢাকামোড় নাবিল কাউন্টার এর সামনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.  মুরাদ হোসেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, উপজেলার দিওড় ইউনিয়নের নারায়ণপুর গ্রামের মশিউর রহমানের ছেলে লিটন ইসলাম(২৬) ও একই এলাকার সুরেন্দ্রনাথ মন্ডলের ছেলে গৌতম কুমার (২৫)।

জানা যায়, ঢাকা থেকে নকল বোতলজাত জুস,  চকলেট ও পাউডার’জুস সরবারহ করে করছিল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বিরামপুর  পৌরশহরের ঢাকামোড় নাবিল কাউন্টারের সামনে অভিযান চালিয়ে দুই’জনকে আটক করা হয়। এসময় জব্দ ও ধ্বংস করা হয়েছে চার হাজার ১শত ৫০টি বোতলজাত নকল জুস, দুই কার্টুন পাউডার জুস ও দুই কার্টুন চকলেট।

 ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুরাদ হোসেন জানান, জুস,  চকলেট ও পাউডার’জুস সরবারহের অপরাধে  দুই’জনকে একমাস বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো জানান, জনসার্থে এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



তানোরে গণহত্যা দিবস পালন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ৯৮জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর প্রতিনিধি:রাজশাহীর তানোরে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সোমবার শেষ বিকেলের দিকে উপজেলা পরিষদের হলরুমে প্রশাসনের আয়োজনে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও সন্ধ্যার পরে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)  মুস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সোনিয়া সরদার,  টিএইচও বার্নাবাস হাসদা, উপজেলা প্রকৌশলী সাইদুর রহমান, মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল হোসেন, পিআইও এটিএম কাউসার আলী, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মনিরা বেগম, তালন্দ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপির)  চেয়ারম্যান নাজিমুদ্দিন বাবু, পৌরসভা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিউর রহমান মুন্টু, ক্রীড়া শিক্ষক আব্দুল বারী, সোহরাব হোসেন প্রমুখ। শেষে ইফতার সামনে নিয়ে ২৫ মার্চ গণহত্যার শিকার শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। 

আরও খবর



মধুপুরের মির্জাবাড়ী ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের আয়োজনে ইফতার মাহফিল

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | ১৩৩জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ-

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার মির্জাবাড়ী  ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মির্জাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের   মাঠে সোমবার এ ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছরোয়ার আলম খান আবু।


ইফতার মাহফিল ও  নির্বাচনী আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন  উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার শফিউদ্দিন মনি, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান যষ্টিনা নকরেক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান  প্রার্থী শিক্ষা ও  সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক খন্দকার  সামছুল আরেফিন শরিফ, মির্জাবাড়ী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যানান শাহজাহান আলী তালুকদার, বেরীবাইদ ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান জুলহাস উদ্দিন প্রমুখ।


অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগেই বিকেল থেকেই ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে আওয়ামী লীগ,যুবলীগ, ছাত্রলীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মী উপস্থিত হতে থাকেন। বিকেল পাঁচ টার মধ্যেই মির্জাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের মাঠ জনসমুদ্রে পরিনত হয়। এসময় আবু ভাই আবু ভাই শ্লোগানে শ্লোগানে পুরো এলাকা মুখরিত হয়ে উঠে ।ইফতার মাহফিলে মোনাজাত করেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী খন্দকার  সামছুল আরেফিন শরিফ।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



দেবীগঞ্জে সোনাহার সরকার পাড়া প্রিমিয়াম লীগ ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ০১ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪ | ৭২জন দেখেছেন

Image

ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি:“ক্রীড়াই শক্তি ক্রীড়াই বল’ মাদক ছেড়ে মাঠে চল” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে সোনাহার সরকার পাড়া প্রিমিয়াম লীগ ২০২৪ ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের তৃতীয় আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (৩১ মার্চ) বিকালে উপজেলার সোনাহার মহাবিদ্যালয় মাঠে প্রধান অতিথি হিসাবে টুর্ণামেন্টের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন দেবীগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফুল

আলম এমু। ধারাভার্ষকার ছলেমান আলীর সঞ্চালনায় দেবীগঞ্জ সদর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আব্দুর রাজাজাক দুলাল এর সভাপতিত্বে অতিথি হিসাবে সোনাহার মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম, অধিনায়ক মাহাবুল ইসলাম, লিমন ইসলাম, সংগঠক নাজমুল আলম, আতিকুর রহমান, সাইফুল ইসলাম, মজিবুল ইসলাম প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

উক্ত টুর্ণামেন্ট মা ডিজিটাল স্কেল এবং আলোকিত সরকার পাড়া টিম অংশ গ্রহন করেন। ১শত ৩ রানের টার্গেট নিয়ে ৮ উইকেটে ১শত ৫ রান করে মা ডিজিটাল স্কেল টিম ম্যান অব দ্যা ম্যাচ শিরোপা লাভ করেন। শেষে সেরা খেলোয়ার ও বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।


আরও খবর



কুষ্টিয়ার ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আবারো দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ | ২৮জন দেখেছেন

Image
কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃকুষ্টিয়ার সদর উপজেলার হরিনারায়ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান সম্রাটের বিরুদ্ধে একের পর এক দুর্ণীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। তবে তার বিরুদ্ধে এখনো কোন ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। যার ফলে চেয়ারম্যান আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন এবং সবকিছু তার নিজের মর্জিতে লুটপাট করে চলেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন- ওই ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা মেম্বার সহ আরও অনেকে। তিন মহিলা মেম্বার কোন উপায় না পেয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দপ্তরে গেলেও কোন সমাধান মিলছে না। আবার উল্টো চেয়ারম্যানের গুন্ডা বাহিনীর হুমকি ও লাঞ্চিত হচ্ছে। এবার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দুদকে। 
 
লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন- আমি মোছাঃ রূপসী আকতার, ১২নং হরিণারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদ ৭,৮,৯, নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর ও প্যানেল চেয়ারম্যান ২, ১২নং হরিনারায়ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান সম্রাট এর নামে আনিত অভিযোগ। দূর্নীতি ও অনিয়মগুলো তুলে ধরা হলো- বরাদ্দকৃত কাজের কোন মিটিং আলোচনা ছাড়াই সবকিছু নিজের লোকজন দিয়ে পরিচালনা করেন। আবার কৌশলে সচিবকে দিয়ে সাদা কাগজে সই করিয়ে নিয়ে পরে ইচ্ছামত গদ বসিয়ে দেন। ১৫টি প্রকল্পের টাকা লামছাম কাজ করে প্রায় কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এছাড়া- ১। হাট বাজারের টাকা পায় ৩,৫০,০০০/- তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা ২। ট্রেড লাইসেন্স প্রায় ৪,৫০,০০০/- চার লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা ৩। বাসা বাড়ীর ট্যাক্স প্রায় ১০,০০,০০০/- দশ লক্ষ টাকা ৪। কাজ করার কথা বলে প্রস্তাব দিয়ে ১% এর ২,০০,০০০/- দুই লক্ষ টাকা, আবার কাজ না করে নিজেই তুলে আত্মত্মসাৎ করেন। ৫। প্রতিবছর ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় ১০,০,০০০/- দশ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা সর্বনিম্ন আয় এতকিছুর পরেও ৩,০০,০০০/- তিন লক্ষ টাকা বাজেট ঘাটতি দেখিয়েছেন। এর হিসাব চাইলে সচিব কোন হিসাব দেয় না। এদিকে প্রতি মাসে মেম্বরদের বেতন ৪৪০০/- টাকা বহন করবে সরকারি নিয়ম অনুযায়ী। কিন্তু ৮-৯ মাস পর চার মাসের বেতন দিলেও আবার তার থেকে ৪০০/- কেটে নেওয়া হয়। হাট বাজার বরাদ্দের টাকার নামে আবার বেতনের টাকা না দিয়েও বেতন বহিতে স্বাক্ষর করিয়ে নিয়েছেন এই আলোচিত চেয়ারম্যান। এদিকে কৃষকের বরাদ্দের কোন মেম্বরদের সাথে আলোচনা না করেই দেওয়া হয় ও নির্যাতন চালানো হয়।

আমি এর প্রতিবাদ করলে আমার বাড়ীতে রাতের বেলা চেয়ারম্যানের নাম করে ০৪ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমি এবং আমার পরিবারের প্রাণ নাশের হুমকী দিয়ে যায়। তারপর আমি এ বিষয়ে ইবি থানাতে গিয়ে ওসি স্যারকে সকল বিষয়গুলো বলি। তারপর তিনি অজ্ঞাত নামে একটি অভিযোগ নেই। এতে আমার প্রাণ নাশের হুমকী আরও বেড়ে যায়। তখন আমি এর থেকে বাচার জন্য একটি পেপারিং করে সকলকে বিষয়টি জানাই। তারপর সে আমাকে মারতে না পেরে আমার উপর বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন করা শুরু করে। আমাকে বিভিন্ন অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে হুমকী দেয় এবং আমাকে পরিষদের সকল প্রকার বরাদ্দকৃত জিনিস থেকে বঞ্চিত করে আসছে। এ বিষয়ে আমি একটি মিটিং এ হাজির হয়ে চেয়ারম্যানের কাছে বলি আমাকে কেন কোনকিছু দেওয়া হচ্ছে না? তাতে চেয়ারম্যান বলে, আমি তোমাকে কোন কিছু দিব না এবং আমি তোমাকে এখন পর্যন্ত সুস্থ্য রেখেছি সেটাই তোমার জন্য বড় কপাল। উপরোক্ত বাক্যটি সকল মেম্বরগণ উপস্থিত থাকাবস্থায় শ্রবণ করেন এবং মেম্বারকে উক্তি করে এমন কথা বলেছেন বলে স্বীকার করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট। এই বিষয়ে চেয়ারম্যান প্রতিনিধি’কে বলেন, ভাই আপনারা মহিলাদের কথা শুনেই নিউজ করতে ব্যস্ত হয়ে যান । আরও আমার অনেক সদস্য আছে তারা কখনও কি আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে । আপনারা সাংবাদিক যা ভালো বুঝেন তাই লিখবেন , তবে অবশ্যই সত্যটা লিখবেন ।

আরও খবর