Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

বিসিবির পরিচালক গোলাম মর্তুজা পাপ্পাকে ফুলেল শুভেচ্ছাজ্ঞাপন

প্রকাশিত:Monday ২০ June ২০22 | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৩০জন দেখেছেন
Image

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি: মোঃ আবু কাওছার মিঠু 


নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতা স্কুল এন্ড কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, যমুনা ব্যাংক ও গাজী গ্রুপের পরিচালক গোলাম মর্তুজা পাপ্পাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করা হয়েছে।


গতকাল ১৯ জুন রবিবার ভুলতা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ, শিক্ষক, শিক্ষিকা ও কর্মচারীবৃন্দ এ ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। এসময়  ভুলতা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ড. আব্দুল আউয়াল মোল্লা, পরিচালনা কমিটির  সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন, হাজী মোঃ মনির হোসেন, আলহাজ¦ মোজাম্মেল হক মিলন ভুঁইয়া, শামীমা সুলতানা উমা, শিক্ষানুরাগী আতাউর রহমানসহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।


এসময় ভুলতা স্কুল এন্ড কলেজ পরিচালনা কমিটির নবনির্বাচিত সভাপতি গোলাম মর্তুজা পাপ্পা বলেন, শিক্ষার বিকল্প নেই। দেশের সকল শ্রেণির মানুষকে শিক্ষিত করে তুলতে হবে। শিক্ষক-শিক্ষিকা, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে শিক্ষার মান উন্নয়ন করতে হবে।


ফলাফল সন্তোষজনক করতে হবে। শিক্ষার্থীদের পাঠ গ্রহণে ও শিক্ষকদের  পাঠ প্রদানে মনোযোগ দিতে হবে। তবেই শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড হিসেবে পরিণত হবে। 


আরও খবর



শেয়ারবাজারে টি+১ চালু করতে চায় বিএসইসি

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

শেয়ারবাজারে টি+১ সেটেলমেন্ট চালু করতে চায় পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল) এবং দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জকে (সিএসই) চিঠি দিয়েছে বিএসইসি।

টি+১ কীভাবে বাস্তবায়ন করা যায় তা আগামী ১২ জুনের মধ্যে এই তিন প্রতিষ্ঠানকে জানাতে বলা হয়েছে।

ডিএসই, সিএসই এবং সিডিবিএলকে পাঠানো এ সংক্রান্ত চিঠিতে টি+১ বাস্তবায়নে রুলস অ্যান্ড রেগুলেশনের সংশোধনী, সিস্টেম মোডিফিকেশন এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় পরিবর্তনের বিষয়ে রোডম্যাপ দিতে বলা হয়েছে।

টি+১ বাস্তবায়ন হলে শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীরা ‘এ’ ও ‘বি’ গ্রুপের কোম্পানির শেয়ার এবং মিউচুয়াল ফান্ড কেনার পরদিনই বিক্রি করতে পারবেন। তবে ‘জেড’ গ্রুপের প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে এ সুযোগ পাওয়া যাবে না।

বর্তমানে শেয়ারবাজারে টি+২ সেটেলমেন্ট চালু রয়েছে। এর ফলে ‘এ’ ও ‘বি’ কোম্পানির শেয়ার কেনার তৃতীয় দিনে বা দু’দিন পর বিক্রি করতে পারেন বিনিয়োগকারীরা।

এ বিষয়ে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম জাগো নিউজকে বলেন, টি+১ সেটেলমেন্ট কীভাবে বাস্তবায়ন করা যায় সে বিষয়ে দুই স্টক এক্সচেঞ্জ এবং সিডিবিএলকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। সাতদিনের মধ্যে এ বিষয়ে অভিমত দিতে বলা হয়েছে।


আরও খবর



৮ বছর পর টেস্ট একাদশে বিজয়, বাদ পড়লেন মুমিনুল

প্রকাশিত:Friday ২৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
Image

এনামুল হক বিজয়ের অপেক্ষার প্রহর ফুরোলো অবশেষে। প্রায় ৮ বছর পর টেস্ট একাদশে জায়গা ফিরে পেলেন ডানহাতি এই ব্যাটার। তাকে জায়গা করে দিতে কপাল পুড়েছে সাবেক অধিনায়ক মুমিনুল হকের।

দীর্ঘদিন অফফর্মে থাকা মুমিনুলের বাদ পড়াটা একরকম অনুমিতই ছিল। তবে অভিজ্ঞতার বিচারে তাকে আরেকটি সুযোগ দেওয়ার দাবি ছিল অনেকের। সেটা আর হলো না। বাদই পড়ে গেলেন টেস্ট স্পেশালিস্ট।

দলে এসেছেন বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলামও। প্রথম টেস্টে খেলা মোস্তাফিজুর রহমানকে আবারও বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ একাদশ
তামিম ইকবাল, মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, এনামুল হক বিজয়, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), মেহেদি হাসান মিরাজ, এবাদত হোসেন, খালেদ আহমেদ, শরিফুল ইসলাম।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ
ক্রেইগ ব্রেথওয়েট (অধিনায়ক), জন ক্যাম্পবেল, রেইমন রেফার, জার্মেই ব্ল্যাকউড, এনক্রুমাহ বোনার, কাইল মায়ার্স, জসুয়া ডি সিলভা (উইকেটরক্ষক), আলজেরি জোসেফ, কেমার রোচ, জেইডেন সিলস, অ্যান্ডারসন ফিলিপ।


আরও খবর



পদ্মা সেতুর উদ্বোধন: বাফুফেতে খুশির বন্যা

প্রকাশিত:Saturday ২৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৬জন দেখেছেন
Image

চারদিকে যেন ঈদের খুশি। পদ্মা সেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মুন্সিগঞ্জের মাওয়া ও মাদীপুরের শিবচরের কাঠালবাড়ীতে। আর আনন্দ-উৎসবে জেগে উঠেছে পুরো দেশের মানুষ। সেই আনন্দ থেকে বাইরে ছিল না দেশের ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনও (বাফুফে)।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপনের জন্য বিশেষ আয়োজন ছিল বাফুফের। সকাল ১০ থেকে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি দেখিয়েছে বিভিন্ন টেলিভিশন। বাফুফে সেই উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বড় পর্দায় দেখানোর ব্যবস্থা করেছিল ফুটবল ভবনে।

বাফুফের সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ এবং ফেডারেশনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তারা সেতু উদ্বোধন উপভোগ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন তখন মাওয়া ঘাটের উৎসব আনন্দ যেন বাফুফে ভবনেও আছড়ে পড়ে।

দুপুরে বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন তার নির্বাহী কমিটির বেশ কয়েকজন সদস্যসহ কেক কেটে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উদযাপন করেন।

এ সময় বাফুফের সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ, ফিফা কাউন্সিল মেম্বার ও বাফুফের নারী ফুটবল কমিটির চেয়ারপার্সন মাহফুজা আক্তার কিরণ, বাফুফে সদস্য সত্যজিৎ দাশ রুপু, আমের খান, নুরুল ইসলাম নুরুসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এসময় নারী ফুটবল দলের বেশ কয়েকজন সদস্যও উপস্থিত ছিলেন।

পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন বলেছেন, 'সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে আজকে বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার পরিকল্পনা, সিদ্ধান্ত দিয়ে স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু করেছেন। গোটা বাংলাদেশে যত বাঙালী আছে তারা আজ গর্বিত। প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিতে চাই তারা আমাদের জন্য যা করছে সেটা অতুলনীয়। এটা গোটা দেশবাসীর জন্য।'


আরও খবর



গুরুতর অভিযোগে বিশ্বকাপ থেকে বহিষ্কার হবে ইকুয়েডর, পরিবর্তে চিলি!

প্রকাশিত:Thursday ০৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২১ June ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
Image

লাতিন আমেরিকা অঞ্চল থেকে এবার যে চারটি দেশ সরাসরি কাতার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়েছে, তাদের মধ্যে অন্যতম ইকুয়েডর। ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ের পর চতুর্থ দেশ হিসেবে বিশ্বকাপের টিকিট পেয়েছে ইকুয়েডর। পেরু হয়েছে পঞ্চম, যারা মহাদেশীয় প্লে-অফে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে।

তবে, হঠাৎ করেই ইকুয়েডরের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুলেছে চিলি। সেই অভিযোগ প্রমাণিত হলে কাতার বিশ্বকাপ থেকেই বহিষ্কার হয়ে যেতে পারে ইকুয়েডর। পরিবর্তে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বাছাই পর্বে সপ্তম হওয়া চিলিই সুযোগ পেতে পারে কাতার বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলার। এ নিয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য ডেইলি মেইল অনলাইন, ফুটবলের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট গোলডট কমসহ ইউরোপের প্রথমসারির প্রায় সব মিডিয়া।

কী সেই অভিযোগ? চিলি ফিফার কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ পেশ করেছে যে, ইকুয়েডরের ডিফেন্ডার বাইরন ক্যাস্টিলো মূলতঃ ইকুয়েডরিয়ান নন। তিনি মূলতঃ কলম্বিয়ান। তার জন্ম তথ্য গোপন করে ইকুয়েডর ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন ক্যাস্টিলোকে নিজেদের পক্ষে খেলিয়েছে। যা অবৈধ।

যদি বাইরন ক্যাস্টিলো সত্যি সত্যি কলম্বিয়ান হয়ে থাকেন, তাহলে বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে তার কোনোভাবেই ইকুয়েডরের হয়ে খেলা বৈধ হবে না। সে ক্ষেত্রে ফিফা তদন্তে যদি এটা প্রমানিত হয়ে যায়, তাহলে নিশ্চিত কাতার বিশ্বকাপ থেকে বহিষ্কার হয়ে যাবে ইকুয়েডর। সে ক্ষেত্রে চিলি’র সামনে কাতার বিশ্বকাপে খেলার সুবর্ণ সুযোগ তৈরি হয়ে যাবে।

বিস্তারিত আসছে...


আরও খবর



কুড়িগ্রামে পানিবন্দি ৩০ হাজার মানুষ, তলিয়ে গেছে ১০৭ হেক্টর ফসল

প্রকাশিত:Sunday ১২ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৯০জন দেখেছেন
Image

টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলায় আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে। এতে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন উপজেলা সদর, যাদুরচর, শৌলমারী, দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ৪৯ গ্রামের অন্তত ৩০ হাজার মানুষ। বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে ১০৭ হেক্টর জমির ধান, পাট ও শাকসবজি।

এছাড়া রাস্তাঘাট তলিয়ে যাওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছে শ্রমজীবী মানুষ। যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম নৌকা ও ভেলা। রৌমারী উপজেলার ২১টি বিদ্যালয়ে পানি ওঠায় ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষার্থীদের নিয়মিত পাঠদান।

কাশিয়াবাড়ি গ্রামের কৃষক আকবর আলী বলেন, এবার আড়াই বিঘা জমিতে ধান চাষ করা হয়। এর মধ্যে দেড় বিঘা জমির ধান কাটতে পারলেও ভারত থেকে হঠাৎ পাহাড়ি ঢল এসে এক বিঘা জমির ধান তলিয়ে গেছে। এতে ২১ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে।

যাদুরচর ইউনিয়নের পুরাতন যাদুরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থী জানায়, বিদ্যালয়ে ও বাড়ির চারপাশে পানি উঠায় নিয়মিত স্কুলে যেতে পারছে না তারা। এতে পড়াশুনার খুব ক্ষতি হচ্ছে।

পুরাতন যাদুরচর এলাকার কৃষক হাজী আব্দুস সামাদ বলেন, হঠাৎ পাহাড়ি ঢল নামায় এলাকার সব রাস্তাঘাট তলিয়ে গেছে। এখন নৌকা ছাড়া বাড়ি থেকে বের হওয়ার কোনো উপায় নাই। ছেলে-মেয়েরা স্কুলে যেতে পারছে না।

লালকুড়া গ্রামের কৃষক আবু সাঈদ বলেন, ‘হঠাৎ বন্যার পানি আইসা জমিতে রাখা সব খড় ভাসাইয়া নিয়া গেছে। এখন গরুরে খাওয়ামো কী, এ চিন্তায় আছি।’

যাদুরচর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সরবেশ আলী বলেন, বন্যার পানিতে ইউনিয়নের ২০০ বসতবাড়ি তলিয়ে গেছে। এছাড়া পানিবন্দি হয়ে পড়েছে ১২ গ্রামের ১৭ হাজার মানুষ। ভেলা আর নৌকায় পারপার হতে হচ্ছে তাদের। শনিবার ইউএনওকে সরেজমিন বন্যাকবলিত এলাকাগুলো ঘুরে দেখানো হয়েছে এবং উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে দ্রুত ত্রাণ সহায়তার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

দাঁতভাঙা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজুল হক বলেন, এ ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। এতে করে এসব গ্রামের ইরিধান ও পাট ক্ষেতসহ অসংখ্য মৌসুমি ফসলের ক্ষেত পানিতে তলিয়ে গেছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আজিজুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, বন্যার বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হবে। বরাদ্দ পেলে ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কাউয়ুম চৌধুরী জাগো নিউজকে বলেন, অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে উপজেলার ১০৭ হেক্টর জমির ফসল তলিয়ে গেছে। এরমধ্যে আউশ ধান ৪৮ হেক্টর, পাট ৪২, শাকসবজি ১২ ও ৫ হেক্টর তিল তলিয়ে গেছে। পাহাড়ি এ পানি পাঁচ দিন স্থায়ী হলে ক্ষেতের সব ফসল নষ্ট হয়ে।

রৌমারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, উপজেলার ২১টি বিদ্যালয় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে ১৩টি বিদ্যালয় যাদুরচর ইউনিয়নের। পানিবন্দি এলাকার শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে না এলেও কোনো সমস্যা নেই।

রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আশারাফুল আলম রাসেল জাগো নিউজকে বলেন, সরেজমিন বন্যাকবলিত এলাকাগুলো পরিদর্শন করেছি। বন্যার্ত পরিবারগুলোর তালিকা করা হচ্ছে। আপাতত ফান্ডে যা আছে তা থেকে ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হবে। ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাগুলো মেরামতে কাজ চলছে। এছাড়া সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আরও চাহিদার আবেদন দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর