Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

বিরোধী দল দমনে আরও হিংস্র রূপে সরকার: ফখরুল

প্রকাশিত:Tuesday ২৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৬৯জন দেখেছেন
Image

আওয়ামী দুঃশাসন টিকিয়ে রাখতে বিরোধী দল ও মতকে দমনে সরকার এখন আরও হিংস্র রূপ ধারণ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেন তিনি।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, গতকাল (সোমবার) পুলিশের গুলিতে পঙ্গুত্ব বরণকারী চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাইফ চট্টগ্রাম আদালতে হাজিরা দিতে যান। এসময় তাকে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ তুলে নিয়ে যায়। কিন্তু এখনো পর্যন্ত সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজ নিয়েও তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

ফখরুল বলেন, সাইফকে এভাবে আটক ও গুম করে রাখা নির্মম মনুষ্যত্বহীনতা ও ভয়ানক অশুভ সংকেত। এর আগেও তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে পুলিশ উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে পায়ে অস্ত্র ঠেকিয়ে দুই রাউন্ড গুলি করে। এতে সাইফ চিরতরে পঙ্গু হয়ে যায়। আবারও তাকে একই কায়দায় আটক ও তার কোনো সন্ধান না পাওয়া গভীর উদ্বেগজনক।

তিনি বলেন, রাষ্ট্র পরিচালনার সব ক্ষেত্রে নিজেদের ব্যর্থতা আড়াল করতে ও আওয়ামী দুঃশাসন টিকিয়ে রাখতেই বিরোধী দল ও মতকে দমনে সরকার এখন আরও হিংস্র রূপ ধারণ করেছে। এটি সবার কাছে দৃশ্যমান যে, সাইফকে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ তুলে নিয়ে যায়। সাইফ পুলিশের কাছেই আছে। তাকে এভাবে নিখোঁজ করে রাখায় দলের সব পর্যায়ের নেতাকর্মী ও তার পরিবার গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। আমি অবিলম্বে সাইফকে জনসমক্ষে হাজির করার জোর দাবি জানাচ্ছি।


আরও খবর



ভুয়া পুলিশ ক্লিয়ারেন্স দিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতো তারা

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের মাধ্যমে বিদেশগামী সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়া প্রতারকচক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ডিবি-সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ।

গ্রেফতাররা হলেন- মো. সামিউল ইসলাম সজিব ও মো. নাইম হোসেন নিলয়।

গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে জালিয়াতির কাজে ব্যবহৃত একটি ল্যাপটপ, দুটি মোবাইল ফোন ও ৭টি ভুয়া সিল এবং বেশকিছু জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট জব্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) ডিবি কার্যালয়ে ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ডিবি প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, কিছু ব্যক্তি কম্পিউটারে বিশেষ সফটওয়্যারের মাধ্যমে আসল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের অনুরূপ নকল সার্টিফিকেট তৈরি করে বিদেশগামী মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে তথ্য পাওয়া যায়। এমন তথ্যের ভিত্তিতে কাজ শুরু করে ডিবি-সাইবারের অর্গানাইজ্ড ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন টিম। একপর্যায়ে তাদের অবস্থান শনাক্ত করে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারদের অপরাধের কৌশল সম্পর্কে গোয়েন্দা প্রধান বলেন, তারা ২০১৯ সাল থেকে `JSN International Consultancy' নামে একটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে এশিয়া, মধ্যপাচ্য ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে পাঠানোর জন্য বিদেশ গমনেচ্ছুদের সঙ্গে চুক্তি করতো। এজেন্সির শর্তানুযায়ী, প্রত্যেক প্রার্থীর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা অগ্রিম নিতো। পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ও ক্ষেত্রবিশেষে স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্টের জন্য প্রার্থীদের কাছ থেকে আলাদা করে টাকা নিতো।

‌‘এরপর আসল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট না দিয়ে কম্পিউটারে বিশেষ সফটওয়্যারের মাধ্যমে আসল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের অনুরূপ নকল সার্টিফিকেট প্রস্তুত করে বিভিন্ন বিদেশি প্রতিষ্ঠানে সফট কপি আকারে সাবমিট করতো।’

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি তারা ৩০ জন ব্যক্তিকে রোমানিয়ায় পাঠানোর জন্য চুক্তি করে। ওয়ার্ক পারমিট পাওয়ার জন্য প্রার্থীদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের সঙ্গে নকল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট জমা দেয়। সংশ্লিষ্ট কোম্পানি যাচাই করে জানতে পারে, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটগুলো ভুয়া। যার ফলশ্রুতিতে ওই কোম্পানি ৩০ জন ব্যক্তির ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করে দেয়। ফলে প্রার্থীরা ভোগান্তিতে পড়েন। এমনকি দীর্ঘ দেড় বছর অপেক্ষা করেও তারা আজ পর্যন্ত তাদের প্রত্যাশিত দেশে যেতে পারেননি। টাকাও ফেরত পাননি।

jagonews24

মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, বিদেশ গমন কিংবা দেশের মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে চাকরির ক্ষেত্রে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের প্রয়োজন হয়। জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নিয়ে বিদেশ গেলে মহাবিপদে পড়ার আশঙ্কা থাকে। এমনকি পেশাদার বা চিহ্নিত অপরাধীরাও জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ব্যবহার করে বিভিন্ন দেশে যেতে পারে। এজন্য বিদেশ যাওয়ার আগে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সঠিক কি-না তা যাচাই করে নেওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নকল রোধে বাংলাদেশ পুলিশ রেফারেন্স নম্বরসহ কিউআর কোড সিস্টেম চালু করেছে। যখন অনলাইনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করা হয় সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ প্রার্থীর দেওয়া তথ্যসমূহ যাচাই করে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ইস্যু করে। ইস্যুকৃত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের উপরের বাম পাশে রেফারেন্স নম্বরসহ একটি কিউআর কোড থাকে।

এই রেফারেন্স নম্বর ও কিউআর কোডের মাধ্যমে প্রার্থীকে শনাক্ত করা যায়। এমনকি বিভিন্ন নামে ইস্যুকৃত প্রত্যেকটি পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের কিউআর কোড ভিন্ন। কিন্তু জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট এরকমটি পাওয়া যায় না। কেননা প্রতারকচক্র একটি কিউআর কোড ব্যবহার করেই একাধিক জাল পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট তৈরি করে। সেজন্য যাচাই করলে একই নাম ঠিকানা আসবে। একই নাম ঠিকানা আসলেও তা পুলিশের অফিসিয়াল লিংকে শো করবে না।

গ্রহণকৃত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট জাল কি না তা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দুইভাবে যাচাই করা যায়। প্রথমত, পুলিশের অফিসিয়াল সাইটে (www.pcc.police.gov.bd) রেফারেন্স নাম্বার সার্চ করে। আর পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের উপরের বাম পাশে কিউআর কোডটি স্ক্যান করে।


আরও খবর



স্ট্রেচারে শুয়ে মাঠ ছাড়লেন লিটন

প্রকাশিত:Friday ০৫ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

দারুণ ব্যাটিং করছিলেন। এগিয়ে যাচ্ছিলেন সেঞ্চুরির দিকে। কিন্তু ব্যক্তিগত ৮১ রানে এসে হঠাৎ পায়ে টান পড়লো লিটন দাসের। এমনই অবস্থা যে উঠে দাঁড়াতেও পারলেন না। ফলে স্ট্রেচারে শুয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে ডানহাতি এই ওপেনারকে।

লিটন উঠে যাওয়ায় নতুন ব্যাটার হিসেবে এসেছেন মুশফিকুর রহিম। এনামুল হক বিজয় ১৮ রান নিয়ে উইকেটে আছেন। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩৩.৪ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ১৭২ রান।

টসের সময় জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক রেগিস চাকাভা জানিয়েছেন, শুরুর দিকে উইকেটের সাহায্য পেতে পারেন বোলাররা। যে কারণে টস জিতে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জিম্বাবুয়ে। তবে শুরুতে বোলারদের সেই সুবিধাটা নিতে দেননি বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস।

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজের তিন ম্যাচের মতো প্রথম ওয়ানডেতেও টস হেরেছে বাংলাদেশ। স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের আমন্ত্রণে আগে ব্যাট করতে নেমেছে তামিমের দল। অনুজ সতীর্থ লিটনকে নিয়ে বাংলাদেশের ইনিংসের গোড়াপত্তন করেছেন তামিম।

রিচার্ড এনগারাভার করা প্রথম ওভারের প্রথম পাঁচ বলই ছিল ডট। শেষ বলে ফ্লিক করে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে রানের খাতা খোলেন তামিম। অভিষিক্ত ভিক্টর নিয়ুচির করা পরের ওভার পুরোটা মেইডেন খেলেন লিটন। তবে নিয়ুচির পরের ওভারে বাউন্ডারি হাঁকিয়েই নিজের রানের খাতা খুলেছেন এ ডানহাতি ওপেনার।

নিয়ুচি-এনগারাভার আঁটসাঁট বোলিংয়ের মাঝে নেতিবাচক ছিল ওয়েসলে মাধভেরের ওভারথ্রো থেকে দেওয়া বাউন্ডারি। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে নন স্ট্রাইক প্রান্তে লক্ষ্যভ্রষ্ট থ্রো করে বাংলাদেশকে বোনাস চার রান দেন মাধভের। এছাড়া নিয়ুচি লেগসাইডের অনেক বাইরে বল করে ওয়াইডসহ বাউন্ডারি দিয়ে বসেন।

উল্লেখ্য, এই ম্যাচ দিয়ে প্রায় তিন বছর পর একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মাঠে নামছেন ডানহাতি টপঅর্ডার ব্যাটার এনামুল হক বিজয়। সবশেষ ২০১৯ সালের জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে ওয়ানডে খেলেছিলেন বিজয়। সেবার অফফর্মের কারণে বাদ পড়ে যান দল থেকে।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে বিশ্বরেকর্ড ১১৩৮ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর দিয়ে ঢুকেছেন স্কোয়াডে। তবে সেই ওয়ানডে সিরিজে দলে সুযোগ পাননি ২৯ বছর বয়সী এ ব্যাটার। এবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই দলে জায়গা করে নিয়েছেন বিজয়।

তাকে দলে নিতে বাদ দেওয়া হয়েছে বাঁহাতি ব্যাটার নাজমুল হোসেন শান্তকে। শুধু তাই নয়, দলে জায়গা হারিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করে ৫ উইকেট নেওয়া বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামও।

আরেক বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদেরও জায়গা হয়নি আজকের ম্যাচের একাদশে। পেস ডিপার্টমেন্টে শক্তি বাড়িয়েছে বাংলাদেশ। একাদশে ফেরানো হয়েছে শরিফুল ইসলাম ও তাসকিন আহমেদকে। এছাড়া নুরুল হাসান সোহানের জায়গায় উইকেটরক্ষক হিসেবে দলে ফিরেছেন মুশফিকুর রহিমও।


আরও খবর



ভোলায় পুলিশ-বিএনপির সংঘর্ষ, নিহত ১

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
Image

ভোলায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে পুলিশের সঙ্গে দলের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনায় মো. আব্দুর রহিম নামে একজন নিহত হয়েছেন। ছয় পুলিশ সদস্যসহ আহত হয়েছেন অন্তত ৫০ জন।

রোববার (৩১ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ভোলা জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আব্দুর রহিম ভোলাসদর উপজেলার দক্ষিণ দিঘলদী ইউনিয়নের সেচ্ছাসেবক দলের নেতা বলে জানা গেছে।

জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির শোপন জানান, বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। এক পর্যায়ে পুলিশ টিআর সেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এতে অর্ধশতাধিক নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। এছাড়াও পুলিশের গুলেতে আব্দুর রহিম নামে একজন নিহত হয়েছেন। আহতদের ভোলা সদর ও বরিশাল মেডিকেলে ভর্তি করা করা হয়েছে।

ভোলা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক নাফিজা কামাল বলেন, বিএনপি-পুলিশের সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

ভোলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, বিএনপির নেতা-কর্মীরা উপর হামলা করে। এতে পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্য আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

পুলিশের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।


আরও খবর



দুটি গেমসের জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন বাংলাদেশের দ্রুততম মানব

প্রকাশিত:Saturday ২৩ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

যুক্তরাষ্ট্রের ওরিগনে দুর্ভাগ্য ভর করেছিল দেশের দ্রুততম মানব ইমরানুর রহমানের ওপর। ওয়ার্ল্ড অ্যাথলেটিকস চ্যাম্পিয়নিশপের প্রথম রাউন্ডে জাতীয় রেকর্ড ভঙ্গ করে দ্বিতীয় রাউন্ড বা মূল হিটে কোয়ালিফাই করলেও সেখানে দৌড়াতে পারেননি তিনি। ওয়ার্মআপের সময় কুঁচকিতে টান লাগলে ডাক্তারের পরামর্শে আর ট্র্যাকেই নামেননি ইমরানুর।

কুঁচকিতে টান নিয়ে খেললে বড় ইনজুরিতে পড়তে পারতেন ইমরানুর। সেটা হলে তার অংশ নেওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়তো কমনওয়েলথ ও ইসলামী সলিডারিটি গেমসে। যুক্তরাষ্ট্র থেকে লন্ডন ফিরে ইমরানুর এখন প্রস্তুতি নিচ্ছেন সামনের দুটি গেমসে। ২৮ জুলাই যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে শুরু হবে কমনওয়েলথ গেমস এবং ৯ আগস্ট তুরস্কের কনিয়ায় শুরু হবে ইসলামী সলিডারিটি গেমস।

এই দুটি গেমসে বাংলাদেশের ৭ জন অ্যাথলেট অংশ নেবেন। এর মধ্যে ইমরানুর রহমান ও হাই জাম্পার উম্মে হাফসা রুমকী থাকছেন দুই গেমসেই। কমনওয়েলথ গেমসের অন্য তিন অ্যাথলেট হচ্ছেন দেশের দ্রুততম মানবী সুমাইয়া দেওয়ান, হাই জাম্পার মাহফুজুর রহমান ও রকিবুল হাসান। ইসলামী সলিডারিটি গেমসে ইমরানুর রহমান ও রুমকীর সঙ্গে থাকবেন হাই জাম্পার রিতু আক্তার।

জানুয়ারিতে নিজের করা জাতীয় রেকর্ড ভাঙ্গা ইমরানুর রহমান সামনের দুটি গেমসে আরো ভাল টাইমিং করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। লন্ডন থেকে ইমরানুর রহমান জাগো নিউজকে বলছিলেন, ‘ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে যে ইনজুরিতে পড়েছিলাম সেটা এখন অনেক ভাল অবস্থায়। অনেক ইমপ্রুভ হয়েছে। আগামী দুটি গেমসের জন্য প্রস্তুত হচ্ছি ইনশাল্লাহ। আমি দুটি গেমসেই নিজের সেরাটা দিয়ে ভালো পারফরম্যান্স করার চেষ্টা করবো।’


আরও খবর



বেশি লাভের আশায় ওয়েবসাইটে বিনিয়োগ, ৪ কোটি টাকা হাওয়া

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

‘সিলেজ ইনভেস্টমেন্ট’ নামে একটি ওয়েবসাইটে বিনিয়োগ করে বেশি টাকা লাভের আশায় একাধিক ব্যক্তির কাছ থেকে গত তিন মাসে ৪ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে একটি চক্র। এ চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

সিআইডি জানায়, বিনিয়োগকারীরা প্রথমে লাভ পেলেও পরে বেশি লাভের আশায় মোটা অঙ্কের টাকা সিলেজ সাইটে বিনিয়োগ করে প্রতারণার শিকার হন।

গ্রেফতাররা হলেন- রনি খান (৩২), আরজু আক্তার (২৭) ও তাসনিম রহমান (২৫)। বুধবার (৩ আগস্ট) রাতে বরিশালে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে সিআইডির সাইবার পুলিশ সেন্টার।

jagonews24

তাদের কাছ থেকে ৪টি মোবাইল, ৩টি বিকাশ/নগদ এজেন্ট সিম, বিভিন্ন ব্যাংকের কয়েকটি চেকবই ও নগদ ১ লাখ ২৮ হাজার ৬৩০ টাকা জব্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর মালিবাগ সিআইডি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার এস এম আশরাফুল আলম।

তিনি বলেন, সিলেজ সাইট নামক অনলাইন ইনভেস্টমেন্ট ব্যবসায় সাধারণ মানুষদের বেশি আয়ের লোভ দেখিয়ে চক্রটি প্রথমে প্রলুব্ধ করে। প্রথম দিকের ছোট অংকের ইনভেস্টমেন্টের কিছু মুনাফও চক্রটি মানুষকে দেয়। পরে এতে উদ্ভুদ্ধ হয়ে লাভের আশায় বড় অঙ্কের টাকা সিলেজ সাইটে বিনিয়োগ করে অনেকেই।

গ্রাহকদের মোটা অঙ্কের টাকা ডিপোজিট হওয়ার পর সিলেজ সাইট নামক ওয়েবসাইটটি বন্ধ করে দেয় চক্রটি। এছাড়া তাদের কথিত অফিসে তালা লাগিয়ে গ্রাহকদের কোটি কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যায় তারা।

jagonews24

সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার বলেন, চক্রটি তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে এজেন্ট নিয়োগ দেয়। এজেন্টদের মাধ্যমে নগদ/বিকাশ/ব্যাংক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে তারা টাকা সংগ্রহ করত। এসব কর্মকাণ্ডের বিষয়ে সিআইডির সাইবার পুলিশের কাছে ৩টি অভিযোগ আসে।

এছাড়া গত ২৭ জুলাই জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সিলেজ সাইটের মাধ্যমে প্রতারণার শিকার ভুক্তভোগীরা মানববন্ধন করেন। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে চক্রটির বিষয়ে নজরদারি শুরু করে সিআইডির সাইবার পুলিশ। নজরদারির এক পর্যায়ে তাদের বরিশাল থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে সিআইডির এই কর্মকর্তা বলেন, চক্রটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট/নগদ/বিকাশ এজেন্টের মাধ্যমে টাকা সংগ্রহ করে সেই টাকা ক্যাশ করে গ্রেফতাররা দুবাই প্রবাসী সানজিদা ও তার স্বামী আশিকের নির্দেশে বিভিন্ন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা জমা করত।

তাদের কাছ থেকে জব্দ হওয়া মোবাইলে বিভিন্ন ব্যাংকে টাকা জমা দেওয়ার তথ্য পাওয়া যায়। মূলত চক্রটি দুবাই থেকে সানজিদা-আশিক দম্পতি নিয়ন্ত্রণ করে আসছিল। গত ৩-৪ মাসে তারা প্রায় ৪ কোটির টাকার বেশি বিভিন্ন ব্যাংকে টাকা জমা করেছে।


আরও খবর