Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা
১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ

বিকেএসপিতে খাবার খেয়ে ১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ

প্রকাশিত:Saturday ১৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১০৯জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) কক্সবাজারের রামু আঞ্চলিক কেন্দ্রে খাবার খেয়ে ১৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছে।  তবে বর্তমানে তারা সবাই শঙ্কামুক্ত।


জানা গেছে, শুক্রবার (১৩ মে) রাতের খাবার খাওয়ার পর থেকে ওই শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হতে শুরু করে।


ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন বিকেএসপির কক্সবাজার আঞ্চলিক কেন্দ্রের উপ-পরিচালক আখিনুজ্জামান রুশু।


তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে শিশুরা এখানে আসছে। নতুন জায়গা আর আবহাওয়ায় খাপ খাইয়ে নিতে কিছুটা সময় লাগে।


হয়তো কোথাও না কোথাও সমস্যা  হয়েছে, যে কারণে ১০-১২ জন অসুস্থ হয়ে গেছে।


তিনি বলেন, অসুস্থ শিশুদের মধ্যে বেশির ভাগ সুস্থ হয়ে গেছে, চিকিৎসকেরা বলেছেন অন্যরাও শংকামুক্ত।


"আমরা ধারণা করছি, আবহাওয়াজনিত কারণে শিশুরা অসুস্থ হতে পারে। এছাড়াও ক্রিকেট ও ফুটবল খেলে এমন ৮০ জন শিক্ষার্থী অস্থায়ীভাবে আছে। " বলেন উপ-পরিচালক।


রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. নোবেল কুমার বড়ুয়া  বলেন, শুক্রবার রাত থেকে অসুস্থ শিশুরা হাসপাতালে আসা শুরু করে। শুক্রবার ও শনিবার দুইদিনে ১৩ শিশু ভর্তি হয়েছে। সেখান থেকে দুইজন সুস্থ হয়ে চলে গেছে। অন্যদের অবস্থাও শংকামুক্ত।



আরও খবর



বৃষ্টির দিনে পাতে রাখুন গরুর ভুনা খিচুড়ি

প্রকাশিত:Friday ১৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
Image

বৃষ্টির দিনে খিচুড়ি খাওয়ার মজাই আলাদা। চলে এসেছে আষাঢ় মাস। এ সময় প্রায়ই পাতে রাখতে পারেন খিচুড়ি। কেউ পছন্দ করেন ভুনা খিচুড়ি, কেউ আবার সবজি খিচুড়ি।

তবে বিফ ভুনা খিচুড়ি সবার কাছেই সমান জনপ্রিয়। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক ঘরে খুব সহজে কীভাবে রান্না করবেন এই খিচুরি। জেনে নিন সহজ রেসিপি-

উপকরণ

গরুর মাংসের জন্য

১. গরুর মাংস আধা কেজি
২. পেঁয়াজ কুঁচি আধা কাপ
৩. আদা বাটা ২ চা চামচ
৪. রসুন বাটা ১ চা চামচ
৫. হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ
৬. মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ
৭. তেল পরিমাণমতো
৭. জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ
৮. টকদই আধা কাপৎ
৯. এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা ৩/৪টি করে
১০. গরম মসলার গুঁড়া আধা চা চামচ ও
১১. লবণ স্বাদমতো।

jagonews24

খিচুড়ির জন্য

১. পোলাও চাল ২৫০ গ্রাম
২. মুগ ডাল ২৫০ গ্রাম
৩. পেঁয়াজ বাটা ১/৪ কাপ
৪. রসুন বাটা ২ চা চামচ
৫. আদা বাটা ১ চা চামচ
৬. হলুদ গুঁড়া ২ চা চামচ
৭. কাঁচা মরিচের ফালি ৪-৫টি
৮. তেল পরিমাণমতো
৯. জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ
১০. গরম মসলার গুঁড়া ১/৪ চা চামচ
১১. লবণ স্বাদমতো ও
১২. পানি পরিমানমতো।

পদ্ধতি

প্রথমে মুগ ডাল ভেজে তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। তারপর পোলাও চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। অন্যদিকে গরুর মাংস ধুয়ে সব মসলা দিয়ে মেখে মাঝারি আঁচে চুলায় বসিয়ে দিন।

jagonews24

মাংস কষানোর পর টকদই দিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। প্রয়োজন ছাড়া পানি দেবেন না। মাংস সেদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে গেলে চুলা হতে নামিয়ে নিন।

এবার যে পাথে খিচুড়ি রান্না করবেন তা চুলায় বসিয়ে তেল দিয়ে এতে পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, আদা বাটা ও লবণ মিশিয়ে সামান্য ভেজে নিন। তারপর ডাল ও চাল দিয়ে ভুনে নিন।

এরপর হলুদ, মরিচ, গরম মসলা ও জিরার গুঁড়া মিশিয়ে দিন। চাল ও ডাল ভালোভাবে ভুনা হলে পরিমাণ মতো গরম পানি দিয়ে দিন। পানি ফুটে উঠলেই রান্না করা মাংস ঢেলে দিন খিচুড়িতে।

ভালো করে নেড়ে কাঁচা মরিচের ফালি দিয়ে দিন। মাঝারি আঁচে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রান্না করুন। মাঝে মাঝে নেড়ে দিন। পানি শুকিয়ে গেলে চুলার আঁচ একেবারে কমিয়ে দমে রেখে দিন কিছুক্ষণ। ব্যাস তৈরি হয়ে গেল সুস্বাদু গরুর ভুনা খিচুড়ি।


আরও খবর



আজকের কৌতুক: নারী কর্মচারীর আবদার

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৫৪জন দেখেছেন
Image

নারী কর্মচারীর আবদার
মর্জিনা: আমাকে ২০০ টাকা বাড়িয়ে দেন। নইলে আপনার দোকানে কাজ করতে পারমু না।
মালিক: তোর আগে বাবুলও তো এই দোকানে কাজ করেছে। তাকেও তো ১০০ টাকা দিয়েছি। তোকে ২০০ দেব কেন?
মর্জিনা: বাবুল যখন কাজ করতো; তখন যা কাস্টমার আসতো, আমি আসার পরে তা চারগুণ বেড়ে গেছে। সেই লাভ শুধু আপনি একা ভোগ করবেন। তা কী হয়?

****

ওজন কমাতে কখন রুটি খাবেন?
মেদবহুল এক লোক গেলেন ডাক্তারের কাছে। ডাক্তারের কাছে মেদ কমানোর পরামর্শ চাইলেন। বিস্তারিত শুনে ডাক্তার বললেন—
ডাক্তার: আপনি সকালে ২টা রুটি, দুপুরে ২টা ডিম আর রাতে ১ থালা ভাত খাবেন।
লোক: এগুলো কি খাবার পরে না কি আগে খাব?

****

নারী শক্তির প্রতীক
পিন্টু: নারী যদি শক্তির প্রতীক হয়, তবে পুরুষ কীসের প্রতীক?
নান্টু: সহ্যশক্তি!
পিন্টু: কীভাবে?
নান্টু: নারী যে শক্তি প্রয়োগ করে, পুরুষকে তা সহ্য করতে হয়।


আরও খবর



চট্টগ্রামে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেফতার ৯

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রাম মহানগরীর আকবরশাহ থানাধীন জারি হোসেন রোডের বিদ্যুৎ অফিস এলাকা থেকে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের নয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার (৫ জুন) দিনগত গভীর রাতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এসময় তাদের ব্যবহৃত দুটি প্রাইভেট কার জব্দ করা হয়। এচাড়াও একটি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র, ধারালো কিরচি ও ছোরা উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- ফেনী জেলার সোনাগাজীর দক্ষিণ পূর্ব চর চান্দিয়া গ্রামের আমিন উল্লাহর ছেলে আজিজুল হক (৫২), একই গ্রামের মৃত কামাল উদ্দিন ওরফে সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে মো. রাসেল (২৬), সোনাপুর গ্রামের আবদুর রহিমের ছেলে নুরুল আবছার (২৮), কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট থানার ভোলাইন গ্রামের মৃত আবদুল হাকিম লেদু মাঝির ছেলে আবুল কালাম ওরফে কালাম ড্রাইভার (৪০), কক্সবাজার জেলার পেকুয়া দক্ষিণ সুন্দরীপাড়া গ্রামের মো. শাহ আলমের ছেলে শফিউল আলম (৩৩), চট্টগ্রামের আনোয়ারার তৈলারদ্বীপ হেডপাড়া গ্রামের মো. আবদুল রশিদের ছেলে হারুন অর রশিদ (৩৫), চট্টগ্রামের পটিয়ার কাশিয়াইশ ইদ্রিস মেম্বারের বাড়ির মৃত মুকতল হোসেনের ছেলে লোকমান হাকিম (৪৮), ভোলা জেলার তজমুদ্দিনের পূর্ব ভাটামারা গ্রামের মৃত আবুল কাশেম ওরফে কাউসারের ছেলে জাকির হোসেন (৩২) এবং মিস্ত্রীকান্দি আরালিয়া গ্রামের মৃত এছহাক হানিফের ছেলে মো. ইলিয়াছ (২৯)।

তাদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী, আনোয়ারা, বোয়ালখালী, সাতকানিয়া, পটিয়া, কোতোয়ালি, হালিশহর, আকবরশাহ থানা, ফেনী জেলার ফেনী সদর, ছাগলনাইয়া ও সোনাগাজী থানা এবং চাঁদপুর জেলার হাজিগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়লী উদ্দিন আকবর বলেন, গ্রেফতাররা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্য। তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে প্রাইভেটকার নিয়ে ঘুরে বেড়াতেন। তাদের একজন ড্রাইভার, অন্যরা যাত্রী সেজে বিভিন্ন স্টেশন থেকে যাত্রী উঠিয়ে পথিমধ্যে যাত্রীর সর্বস্ব লুটে নিতেন। এরপর যাত্রীর চোখে মলম লাগিয়ে সড়কের নির্জনস্থানে নামিয়ে দিতেন। এছাড়াও তারা গরু চুরিসহ বাসাবাড়িতে নিয়মিত চুরি-ডাকাতি করতেন।

ওসি আরও বলেন, গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে ডাকাতির প্রস্তুতি ও অস্ত্র আইনে পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। সোমবার বিকেলে তাদেরকে মহানগর হাকিম আদালতে পাঠানো হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।


আরও খবর



মাদককাণ্ডে জামিনে মুক্ত শক্তি কাপুরের ছেলে

প্রকাশিত:Tuesday ১৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫২জন দেখেছেন
Image

মাদক সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল প্রবীণ অভিনেতা শক্তি কাপুরের ছেলে সিদ্ধান্ত কাপুরকে। সোমবার রাতে তিনিসহ ওই ঘটনায় গ্রেপ্তার পাঁচজন মুক্তি পান বলে পুলিশের বরাত দিয়ে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস ।

বেঙ্গালুরু সিটি পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (পূর্ব) ভীমশঙ্কর এস গুলেদ বলেন, সিদ্ধান্ত কাপুরসহ পাঁচজনকে জামিনে মুক্তি দেয়া হয়েছে। তবে পুলিশ ডাকলে তাদের থানায় উপস্থিত হতে হবে।

শহরের একটি পার্টি থেকে রোববার রাতে ওই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, গোপন সংবাদে পুলিশ শহরের এমজি রোডের একটি হোটেলে অভিযান চালায়। সেখানে একটি পার্টির আয়োজন করা হয়েছিল।

এর আগে ২০২০ সালে সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যুর মামলায় যে কজন তারকাকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল, তাদের মধ্যে শ্রদ্ধা কাপুরও ছিলেন।


আরও খবর



সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণ: ২০ মরদেহ শনাক্তে ৩৫ ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের শনাক্তে তাদের স্বজনদের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ শুরু হয়েছে। সোমবার (৬ জুন) বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত ২০টি মরদেহের বিপরীতে ৩৫ জনের নমুনা নেওয়া হয়েছে।

সোমবার বিকেলে সিআইডির নাজমুল আলম টুটুল জাগো নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সকাল থেকে বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত ২০টি মরদেহের বিপরীতে ৩৫ জনের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

শনাক্ত হয়নি এমন মরদেহ রয়েছে ১৯ জনের— সেক্ষেত্রে ২০ পরিবারের ডিএনএ পরীক্ষা কেন জানতে চাইলে সিআইডির এ কর্মকর্তা বলেন, কয়েকজনের মরদেহ তাদের পরিবার শনাক্ত করে নিলেও সন্দেহ থাকায় তারা আবার ডিএনএ নমুনা দিয়েছেন।


আরও খবর