Logo
আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

বিএনপির পদত্যাগ করা এমপিরা কী সুবিধা নিয়েছেন, জানতে আইনি নোটিশ

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ২৮১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক; জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করা বিএনপির এমপিরা রাষ্ট্র থেকে কী কী সুবিধা নিয়েছেন তা জানতে চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আজ সোমবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন এ নোটিশ পাঠান।

সংসদ সচিবালয়ের সচিব, অর্থ সচিব, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরসহ সংশ্লিষ্টদের এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

আগামী সাত দিনের মধ্যে বিএনপির এমপিরা রাষ্ট্র থেকে যে সুযোগ-সুবিধা নিয়েছেন তা জানাতে বলা হয়েছে। অন্যথায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

গত ১০ ডিসেম্বর রাজধানীর গোলাপবাগ মাঠে আয়োজিত সমাবেশ থেকে বিএনপির সাত এমপি পদত্যাগের ঘোষণা দেন। তারা হলেন- আমিনুল ইসলাম (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২), হারুনর রশীদ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩), জাহিদুর রহমান (ঠাকুরগাঁও-৩), মোশাররফ হোসেন (বগুড়া-৪), জি এম সিরাজ (বগুড়া-৭), আব্দুস সাত্তার (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২) ও রুমিন ফারহানা (সংরক্ষিত নারী আসন)।

এরপর গতকাল রোববার দুপুরে সশরীরে উপস্থিত হয়ে স্পিকার ড. শিরীন শারমিনের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন পাঁচ এমপি। এ সময় অনুপস্থিত দুজনের পক্ষেও পদত্যাগপত্র জমা দেওয়া হয়। স্পিকার তখন পাঁচ জনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেন এবং ওই পাঁচটি আসন শূন্য হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান।

বাকি দুজনের একজন আব্দুস সাত্তার অসুস্থ থাকায় তার আবেদনের বিষয়ে তার সঙ্গে কথা বলে যাচাই করার পর গ্রহণ করার কথা জানিয়েছিলেন স্পিকার। আর হারুন অর রশিদ বিদেশে থাকায় তার পদত্যাগপত্র আপাতত গ্রহণ করা হয়নি।

সন্ধ্যার মধ্যে আব্দুস সাত্তারের পদত্যাগের আবেদন যাচাই শেষে গ্রহণ করা হয়। এরপর রাতে সংসদ সচিবালয় থেকে ছয়টি আসন শূন্য ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করা হয়।


আরও খবর



ময়মনসিংহে পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্সের বীমাদাবীর চেক হস্তান্তর

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৩জন দেখেছেন

Image
এস এম শফিকুল ইসলাম, জয়পুরহাটঃপপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের ময়মনসিংহে  অঞ্চলের মেয়াদ উত্তীর্ণ গ্রাহকদের  মাদাবীর চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠান  অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার (১৬ফেব্রুয়ারী) সকালে ময়মনসিংহ আসপাডা প্রশিক্ষণ একাডেমী মিলনায়তনে এ বীমাদাবীর চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক বি এম শওকত আলীর সভাপতিত্বে মেয়াদ উত্তীর্ণ বীমাদাবীর চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও, বাংলাদেশ ইনস্যুরেন্স ফোরামের প্রেসিডেন্ট ও বাংলাদেশ ইনস্যুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী সদস্য  বি এম ইউসুফ আলী। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন  পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের একক বীমা প্রকল্পের  উর্দ্ধতন  উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ব্রাঞ্চ কন্ট্রোল) সৈয়দ মোতাহার হোসেন, আল আমিন বীমা প্রকল্পের উর্দ্ধতন  উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবু তাহের, জনপ্রিয় বীমা প্রকল্পের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক কামাল হোসেন মহসিন,  ইসলামী ডিপিএস প্রকল্পের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক খলিলুর রহমান সিকদার। 

এ সময়ে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, আল বারাকাহ ইসলামী ডিপিএস প্রকল্পের উর্দ্ধতন নির্বাহী পরিচালক ও প্রকল্প  পরিচালক সেলিম মিয়া, পপুলার ডিপিএস  প্রকল্পের নির্বাহী পরিচালক ও প্রকল্প পরিচালক আবু মঈদ শাহীন, আল আমিন বীমা প্রকল্পের নির্বাহী পরিচালক ও প্রকল্প পরিচালক মোখলেছুর রহমান, আল বারাকা ইসলামী একক বীমা প্রকল্পের নির্বাহী পরিচালক ও প্রকল্প পরিচালক মাহাবুবুর রহমান। 

সভা শেষে গ্রাহকদের হাতে মেয়াদ উত্তীর্ণ  বীমাদাবীর চেক তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বি এম ইউসুফ আলী।

আরও খবর



কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮১জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান  এস এম আবু বক্কর সিদ্দিক (৬৭ ) আর নেই। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার( ৩১ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকাস্থ ইব্রাহীম কার্ডিয়াক হাসপাতলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ সাইফুল ইসলাম  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।

প্রায় ১৫ দিন আগে হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাকে প্রথমে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ঢাকার ইব্রাহীম কার্ডিয়াক হাসপাতলে নেওয়া হয় প্রবীন এই রাজনীতিবিদকে। মৃত্যুকালে তিনি  স্ত্রী, এক মেয়ে ও  ছেলেসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

দলীয় সূত্রে জানাগেছে, বৃহস্পতিবার সকাল ৯ থেকে সাড়ে নয়টা  পর্যন্ত  মরহুমের মরদেহ  উপজেলা  আওয়ামী লীগের কার্যলের সামনে রাখা হবে। সেখানে  নেতা কর্মীরা তাকে শ্রদ্ধা জানাবেন। পরে  বেলা  ১১ টায় গোপালপুরের শহীদ  আসাদ স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয় মরহুমের  প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপরে গ্রামের বাড়ি টেংরাখালীতে তার শেষ নামাজে জানাজা এবং দাফন সম্পন্ন হবে।

বর্নাঢ্য রাজনৈতিক জীবনে তিনি ৩০ বছরের উপরে কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া ২০১৬ সাল থেকে বর্তমান পর্যন্ত তিনি গোপালপুর ইউনিয়নের দুই বারের চেয়ারম্যান ছিলেন।

এদিকে মরহুমের মৃত্যুতে বাগেরহাট-২ আসনের সাংসদ সদস্য শেখ তন্ময় শোক ও শোকশন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। একইভাবে শোক জানিয়েছেন কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ সাইফুল ইসলাম, কচুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমা  সরোয়ার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাসলিমা বেগম, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মীর জায়েসী আশরাফি জেমস, যুবলীগ নেতা মেহেদী হাসান বাবু, কচুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি খোন্দকার নিয়াজ ইকবাল, সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইদুজ্জামানসহ সদস্য সকল সদস্যবৃন্দ। এছাড়া কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগসহ  আওয়ামী লীগের সকল অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ  থেকে মরহুমের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়েছে।


আরও খবর



ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে সরকার নয় বরং শ্রমিকরা মামলা করেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ড. মুহাম্মদ ইউনূসের মামলায় সরকার কোনো পক্ষ নয়, যেসব শ্রমিক-কর্মচারীরা বঞ্চিত হয়েছেন তারাই তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।বলেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে ১৪টি দেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

ড. ইউনূসের বিচারের বিষয়ে গত ২৯ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট-এ বিজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, প্রকৃতপক্ষে এটি বিবৃতি নয় বরং বিজ্ঞাপন। এর আগেও এমন ছাপা হয়েছে। ড. ইউনূসের প্রতি সম্মান রেখে বলতে চাই, বাংলাদেশের বিচার প্রক্রিয়া অত্যন্ত স্বচ্ছ। তার বিরুদ্ধে সরকার নয় বরং শ্রমিকরা মামলা করেছেন। এর আগেও লবিস্ট ফার্মের মাধ্যমে এমন বিজ্ঞাপন ছাপা হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ১৪টি দেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত, তারা মূলত নতুন সরকারকে অভিনন্দন জানাতে বাংলাদেশে এসেছেন। সোমবার (২৯ জানুয়ারি) তারা গিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধুর সমাধিস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করতে। তাদের কেউ কেউ আরও ১০ বছর আগে আমাদের এখানে এসেছিলেন। তারা সেই উন্নয়নের প্রশংসা করেছেন। ১০ বছরে অনেক পরিবর্তন হয়েছে এখানে। প্রতিটি দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের ডিপ্লোম্যাটিক রিলেশন আছে। বিজনেস রিলেশন আছে। কেউ কেউ ইনভেস্টমেন্ট করার কথাও বলেছেন।

উল্লেখ্য, রোববার ২৮ জানুয়ারি ৬ দিনের সফরে ঢাকায় আসেন ১৪ দেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত। মূলত ভারতে নিযুক্ত এসব দেশের দূতাবাসের কর্মকর্তারা এ সফরে এসেছেন। সফর শেষে ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা ছাড়বেন তারা।

দেশগুলো হলো- ভারত, কম্বোডিয়া, হাঙ্গেরি, গাম্বিয়া, চেক রিপাবলিক, জ্যামাইকা, লুক্সেমবার্গ, বতসোয়ানা, মঙ্গোলিয়া, পেরু, স্লোভানিয়া, উরুগুয়ে, ভেনেজুয়েলা, নর্থ মেসিডোনিয়া।


আরও খবর



তিশার বাবা মুশতাকের বিরুদ্ধে জিডি করলেন

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সিনথিয়া ইসলাম তিশাকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে দাবি করে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তার বাবা মো. সাইফুল ইসলাম।

রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে তিশার বাবা মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে যান। তিনি ডিবিপ্রধান হারুন অর রশীদের সঙ্গে সাক্ষাতের পর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।

মুগদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারিকুজ্জামান বলেন, গত ১২ ফেব্রুয়ারি অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তি তিশার বাবাকে হোয়াটসআপে কল করেন। তার দাবি মতে, তাকে ওই ব্যক্তি বলেন, বেশি বাড়াবাড়ি কইরেন না, বেশি বাড়াবাড়ি করলে আপনার মেয়েকে মেরে ফেলব।

মোবাইল ফোনে হত্যার হুমকির বিষয়ে ডিবিতেও অভিযোগ করেছেন তিশার বাবা সাইফুল ইসলাম। লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন, ফোন ধরে পরিচয় জানতে চাওয়ার পর বেশি বাড়াবাড়ি করলে মেয়েকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। বিষয়টি অশুভ ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত উল্লেখ করে ঘটনা যথাযথ তদন্ত ও সুষ্ঠু ব্যবস্থার দাবি জানান তিনি।

ডিবি কার্যালয় থেকে বেড়িয়ে তিশার বাবা সাইফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, খন্দকার মুশতাক আহমেদই নানাভাবে হুমকি দিচ্ছেন। এর আগেও আমাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন মুশতাক।

তিশার বাবা আরও বলেন, আমার ধারণা খন্দকার মুশতাক আহমেদ তার লোকজনকে দিয়ে নানাভাবে আমাকে চাপে রাখার জন্য হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন। বিষয়টির একটা আইনগত পদক্ষেপ জরুরি। সেজন্য মুগদা থানায় জিডি করেছি, আজ ডিবিতে লিখিত অভিযোগ করলাম।

ডিবিপ্রধান আমাকে আশ্বস্ত করেছেন, অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত হলে থলের বিড়াল বেড়িয়ে আসবে।


আরও খবর



হিলিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো দিনব্যাপি পণ্য প্রদর্শর্নী ও পিঠা উৎসব

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬০জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:নিজ হাতের তৈরি বাহারি স্বাদের পিঠা,রকমের তৈরি পোষাক নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো দিনাজপুরের হিলিতে দিন ব্যাপি নারী উদ্যোক্তাদের পিঠা উৎসব ও পণ্য প্রদর্শনী। ঘরে ঘরে নারী উদ্যোক্তা তৈরী করতেই এমন মেলার আয়োজন করেছেন বলে জানান আয়োজকরা। শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় উইমেনস এন্ড ই কমার্স ট্রাস্ট দিনাজপুরের আয়োজনে হাকিমপুর সরকারী ডিগ্রি কলেজ মাঠে এর আয়োজন করা হয়। এরপর দুপুর ১২ টায় এর উদ্বোধন করেন হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও অমিত রায়। এসময় সেখানে হাকিমপুর থানা ওসি (তদন্ত) জাহাঙ্গীর আলম,প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম,সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলী, উইমেনস এন্ড ই-কমার্স ট্রাস্টে দিনাজপুরের কো-অর্ডিনেটর রেহেনা খাতুন রতœাসহ হাকিমপুর, বিরামপুর, নবাবগঞ্জ ও ফুলবাড়ীর নারী উদ্যোক্তারা উপস্থিত ছিলেন। মেলায় ১৯ টি স্টল অংশ গ্রহন করেন।

মেলায় কেউ নিয়ে এসেছেন নিজ হাতের তৈরি বিভিন্ন রকমের ও বাহারি স্বাদের শীতকালীন পিঠা, কেউবা নিয়ে এসেছেন হাতের তৈরি বিভিন্ন রকমের তৈরী পোষাক।নারী উদোক্তাদের অংশ গ্রহণের মধ্যে দিয়ে কলেজ প্রাঙ্গনে মিলন মেলায় পরিণত হয়।অংশগ্রহণ করতে পেরে খুশি সংশ্লিষ্টরা। দিনাজপুর কো- অর্ডিনেটর ইউমেনস ও ই-কমার্স ট্রাস্ট এর মোছা: রেহেনা খাতুন রতœ বলেন,ঘরে ঘরে নারী উদ্যোক্তা তৈরি করার জন্য আজকেই এই আয়োজনা করা হয়েছে।

আজকে আমরা হাকিমপুর উপজেলা দিয়ে শুরু করেছি। নারী যেন বসে না থাকে সবাই যেন এই কাজ করে দেশকে আরও এগিয়ে নিয়ে যায় সেই লক্ষে আমরা জেলার ১৩টি উপজেলার প্রত্যকেটি গ্রামে গ্রামে যাবো। আর প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্জলের ঘরে ঘরে নারী উদ্যোক্তা তৈরি হোক এটাই আমাদের প্রত্যাশা। আমরা পর্যাক্রমে জেলার দক্ষিণ দিনাজপুর অঞ্চলের বিরামপুর, নবাবগঞ্জ, ঘোড়াঘাট ও ফুলবাড়ীতে এমন আয়োজন করবো। হাকিমপুর উপজেলা নিবার্হী অফিসার অমিত রায় বলেন,এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। নারীর ক্ষমতায়নে এমন উদ্যোগে সবধরণের সহয়োগীতা উপজেলা প্রশাসন থেকে করা হবে।


আরও খবর